artk
রোববার, নভেম্বার ১৭, ২০১৯ ২:৩৯   |  ৩,অগ্রহায়ণ ১৪২৬

কক্সবাজার প্রতিনিধি

রোববার, আগষ্ট ২৫, ২০১৯ ২:৩০

পাঁচ দফা না মানলে ফিরবো না, সমাবেশে রোহিঙ্গারা

media

নিজেদের নাগরিক অধিকার ও হারানো ভিটে-মাটি ফিরে পাওয়ার জন্য ঐক্যবদ্ধ থেকে আলোচনা করা হবে। ৫ দফা দাবি না মানা পর্যন্ত একজন রোহিঙ্গাও মিয়ানমার ফিরবে না। কারণ, মিয়ানমার সরকারের উপর আস্থা রাখা বোকামি।

নিজেদের নাগরিক অধিকার ও হারানো ভিটে-মাটি ফিরে পাওয়ার জন্য ঐক্যবদ্ধ থেকে আলোচনা করা হবে। ৫ দফা দাবি না মানা পর্যন্ত একজন রোহিঙ্গাও মিয়ানমার ফিরবে না। কারণ, মিয়ানমার সরকারের উপর আস্থা রাখা বোকামি।

রোববার সকালে উখিয়ার ক্যাম্প এক্স:-৪ এ দুই বছর পূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত মহাসমাবেশে এসব কথা বলেন রোহিঙ্গা নেতারা। এ সময় উপস্থিত লাখো রোহিঙ্গা তাদের অধিকার ফিরে পেলে মিয়ানমার ফিরবেন বলে মত দেন।

সমাবেশে ঘোষণাকৃত দাবি হলো, মিয়ানমারের রোহিঙ্গা নাগরিক হিসেবে মেনে নিতে হবে। নিরাপত্তা ও অবাধে চলাচলের স্বাধীনতা। নিজেদের হারানো ভিটে-মাটি ফেরত দিতে হবে। ২৫ আগস্টের নির্যাতনের বিচার করতে হবে।

আরকান রোহিঙ্গা সোসাইটির নেতা মাস্টার মুহিব উল্লাহ বলেন, “মিয়ানমার সেনা ও মগদের নির্যাতনে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়ার দুই বছর পূর্তি উপলক্ষে মহাসমাবেশ করেছে রোহিঙ্গারা। রোহিঙ্গারা এখন ঐক্যবদ্ধ হয়েছে শুধু অধিকার ফিরে পেতে। আমরা নিজেদের দেশে ফিরতে চাই। কিন্তু অধিকার ও নিরাপত্তার নিশ্চয়তা ছাড়া কখনো ফিরবো না। মিয়ানমার সরকারের উপর আস্থা রাখা বোকামি।”

আরেক রোহিঙ্গা নেতা আব্দুর রহিম বলেন, “বাংলাদেশে থাকার ইচ্ছে আমাদের নেই। তবে বিপদে পড়ে আমরা শরণার্থী। আশ্রয় দেয়ায় বাংলাদেশের সরকার, নাগরিকের প্রতিকৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। তবে দাবি না মানা পর্যন্ত আমরা ফিরে গেলে আবারও নির্যাতন হতে পারে।”

মিয়ানমার সরকার আলোচনার কথা বলে আমাদের সাথে ছলনা করছে উল্লেখ্য করে রোহিঙ্গা নেতা মোহাম্মদ ইলিয়াছ বলেন, “যেখানে গত বৈঠকে আরো আলোচনার সিদ্ধান্ত হয় সেখানে হঠাৎ প্রত্যাবাসনের ঘোষণা দেয় মিয়ানমির সরকার। কিন্তু বৈঠকে দাবি মানার বিষয়ে আরও আলোচনার কথা বলাহয়েছিল, সেখানে প্রত্যাবাসনের ঘোষণা অবান্তর ও হাস্যকর।”

সমাবেশে আসা রোহিঙ্গা মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, “যে দাবিগুলো দেয়া হয়েছে তা আমাদের অধিকার। মিয়ানমার সরকার আমাদের অধিকার দিতে রাজি নয়। তাই এত চলনা করছে। দাবি না মানা পর্যন্ত মিয়ানমারে ফিরে যাবো না।”

এদিকে, সমাবেশে মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা নুরুল ইসলাম। মোনাজাতে নিজেদের নাগরিক অধিকার ও আশ্রয় দেয়ায় বাংলাদেশের জন্য দোয়া কামনা করা হয়।

এছাড়া মধুছড়া ক্যাম্প ও ২৪ নং ক্যাম্পসহ বিভিন্ন ক্যাম্পে সমাবেশ করছে রোহিঙ্গারা।

উল্লেখ্য, রোববার রোহিঙ্গা সংকটের দুই বছর পূর্ণ হয়েছে। ২০১৭ সালের এ দিনে ভয়াবহ হত্যাযজ্ঞের ঘটনা ঘটে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য। এরপর থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে রোহিঙ্গারা। বর্তমানে বাংলাদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গার সংখ্যা প্রায় ১১ লাখ।

অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় ৬ দিনের রিমান্ডে সম্রাট প্রধানমন্ত্রীকে বিএনপির চিঠি সরকারি চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধাদের অবসরের বয়সসীমা ৬০ মোরালেস সমর্থকদের সঙ্গে নিরাপত্তা বাহিনীর সংঘর্ষে নিহত ৯ স্বর্ণ কেনার আগে যেসব বিষয় অবশ্যই খেয়াল রাখা উচিত লঞ্চের ধাক্কায় বালুবাহী জাহাজ ডুবে ৩ শ্রমিক নিখোঁজ রাজধানীর বনশ্রী থেকে সাংবাদিকের মরদেহ উদ্ধার চট্টগ্রামের পাথরঘাটায় গ্যাস লাইন বিস্ফোরণে নিহত ৭ মুসলিমদেরও রাম মন্দিরের জন্য খুশি হওয়া উচিৎ: রামদেব সিরিয়ায় গাড়ি বোমা বিস্ফোরণে নিহত ১৮ পেঁয়াজ খাওয়া বন্ধ: প্রধানমন্ত্রী যখন তখন হেসে ফেলেন? আপনার কী হয়েছে জানেন? ঘরোয়া পদ্ধতিতে দূর করুন ব্রণের দাগ পিইসি পরীক্ষা শুরু রোববার সৌদি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠকের পরই নারীকর্মীর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত: মন্ত্রী পেঁয়াজের মূল্য বৃদ্ধি: সোমবার দেশব্যাপী বিএনপির বিক্ষোভ কর্মসূচি কুমিল্লার পর এবার নারায়ণগঞ্জে বিয়েতে পেঁয়াজ উপহার সরকার জড়িত বলে পেঁয়াজ সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে কিছু করা যাচ্ছে না: গয়েশ্বর ইরানে পেট্টোলের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে বিক্ষোভ: নিহত ১ মেলায় রাজস্ব আদায় হাজার কোটি টাকা ভারতে ৩৫৪ টাকায় বিশুদ্ধ অক্সিজেন লাল না সবুজ, কোন আপেল বেশি উপকারী? গুদামে পেঁয়াজ পচে যাওয়ায় ফেলে দিচ্ছে আড়তদাররা বগুড়ায় জেল জরিমানার ভয়ে ৬ রুটে বাস চলাচল বন্ধ বিয়ের উপহারে পেঁয়াজ! ভারতকে হেসেখেলে হারাল বাংলাদেশ প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা শুরু রোববার মিসর থেকে পেঁয়াজের প্রথম চালান পৌঁছাবে মঙ্গলবার চুয়াডাঙ্গায় পেঁয়াজের আড়তে অবরুদ্ধ ম্যাজিস্ট্রেট বিএনপির মূল কাজ এই সরকারকে সরানো : ফখরুল