artk
বুধবার, নভেম্বার ২০, ২০১৯ ৭:১২   |  ৬,অগ্রহায়ণ ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

রোববার, আগষ্ট ২৫, ২০১৯ ৯:০৭

পঞ্চগড়ের চা-শিল্প ধ্বংসের ষড়যন্ত্রে মিল মালিকরা

প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা চান গরিব চা চাষিরা
media

পঞ্চগড়ে সমতলে চায়ের চাষ

পঞ্চগড়ের চা শিল্পকে ধ্বংস করার জন্য সিলেট ও পঞ্চগড়ের মিল মালিকরা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। একই সাথে ষড়যন্ত্র থেকে বাঁচতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহায়তাও চেয়েছে পঞ্চগড়ের গরিব চা চাষিরা।

চা চাষিদের পক্ষে চলতি বছরের ৮ আগস্ট সাপ্তাহিক পোস্টকার্ড’র সম্পাদক মোহাম্মদ মজিবর রহমান কর্তৃক প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো এক পত্রে এই অভিযোগ করার পাশাপাশি সহায়তা চাওয়া হয়। এর আগে গত ১৯ জুন আরেকটি পত্রে পঞ্চগড়ের চা চাষিদের দুর্ভোগের বিষয়টি তুলে ধরে পঞ্চগড়ের জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিনকে অবহিত করা হয়। যার অনুলিপি পাঠানো হয় কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক, বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সী ও বাণিজ্য সচিবের কাছে।

প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো ওই পত্রে বলা হয়, আপনিই ২০০০ ইং সালে ‘চা শিল্প’ বাঁচানোর লক্ষ্যে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের স্বার্থে এবং পঞ্চগড়ের চা পাতা উৎপাদনকারী গরিব চাষিদের আর্থিক সচ্ছলতার জন্য পঞ্চগড়ে পরীক্ষামূলকভাবে দিনমজুর চাষিদের দিয়ে চা-পাতা উৎপাদন শুরু করান। আপনার এই মহৎ সিদ্ধান্তকে বাস্তবায়নের জন্য গরিব চাষিদের নিজ নিজ জমির বালু-পাথর ফেলে কালো মাটি গোবরসহ অন্যান্য রাসায়নিক দ্রব্য দ্বারা গঠিত মাটি পাথরের জমি উর্বর করে চা-পাতার চারা রোপণ করে চা-পাতার গাছ উৎপাদন করে। এই দুই কাজ করতে গিয়ে গরিব চাষিরা আরো গরিব হয়ে যায়। তবে ২/৩ বছর ধরে তারা কাঁচা চা-পাতার মোটামুটি মূল্য পেয়ে আর্থিকভাবে সচ্ছল হতে থাকে। গতবারও প্রতি কেজি চা-পাতার মূল্য ছিল ২৫ থেকে ৩৮ টাকা পর্যন্ত। কিন্তু এবার পঞ্চগড়ের চা শিল্পের কারখানার মালিকরা প্রতি কেজি চা-পাতার মূল্য নির্ধারণ করেছে ১২ টাকায় এবং পার্সেন্টিজ কেটেছে ২০-৪০ শতাংশ। অর্থাৎ চা-পাতার মূল্য পড়ে কেজিতে ৭ থেকে ৮ টাকা।

উল্লেখ্য, প্রতি কেজি চা-পাতা তুলতে খরচ পড়ে ৩ টাকা (পার্সেন্টিজ বাদে)। পার্সেন্টিজ ধরলে প্রতি কেজি উত্তোলন করতে খরচ পরে ৪ দশমিক ৫০ থেকে ৫ টাকা, যা তদন্ত করলেই জানা যাবে।

পঞ্চগড়ের চা চাষিদের দুর্ভোগের বিষয়টি ও চাষিদের করুণ কাহিনী তুলে ধরে পঞ্চগড়ের ডিসিকে পত্রের মাধ্যমে অবহিত করে অনুলিপি দেয়া হয় প্রধানমন্ত্রী, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান, বাণিজ্যমন্ত্রী, বাণিজ্য সচিব, কৃষিমন্ত্রীকে।

এদিকে গত ১৪ আগস্ট পুনরায় পঞ্চগড়ের জেলা প্রশাসককে চিঠির মাধ্যমে বিষয়টি অবহিত করার পর চা-শিল্পের কৃষকরা অর্থনৈতিকভাবে আরো নির্যাতিত হচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, এই ষড়যন্ত্রের সাথে পঞ্চগড়ের চা-শিল্পের মিল মালিকরা প্রত্যেক্ষভাবে জড়িত। তাদের সাথে জড়িত আছে সিলেটের চা-বাগানের মালিকরা। মূলত তারা চায় না সিলেট বাদে অন্য কোনো জেলায় বা থানায় চা-চাষ করা হোক। অভিযোগ রয়েছে, একচেটিয়া বাজার দখল করতে পারবে না বিধায় এই হীনষড়যন্ত্রে লিপ্ত। পঞ্চগড়ের চা-শিল্প বিরোধী ষড়যন্ত্রে চট্টগ্রামের ‘অকশন হাউজ’ দালাল ও মধ্যস্বত্বভোগীরা জড়িত। উল্লিখিত অসৎ মিল মালিক বা বড় বড় চা বাগানের মালিকদের সহযোগিতা করে টি বোর্ডের কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কিছু কর্মকর্তা ও কর্মচারী যার তথ্যাদি আছে। প্রসঙ্গত, প্রতি মঙ্গল ও বুধবার চট্টগ্রামে অকশনে চা-পাতা বিক্রি হয়। কিন্তু মাঝে মধ্যে পঞ্চগড়ের চা-পাতা অকশন হয় না। এর সাথে জড়িত বিশেষ করে সিলেটে চা-বাগানের মালিকরা এবং সহযোগী হলো বাংলাদেশ টি বোর্ডের কিছু অসৎ কর্মকর্তা-কর্মচারী ও দুর্নীতিবাজ বায়াররা। চট্টগ্রামের অকশন হাউজে এমন অনিয়মের ঘটনা এখন নিয়মে পরিণত হয়েছে।

চিঠিতে প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা চাওয়ার পাশাপাশি আরো বলা হয়, চা আমদানি বন্ধ করে বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয় করার পদক্ষেপ নিন। সাথে সাথে সিলেটের চা বাগানের মালিক ও পঞ্চগড়ের চা কারখানার মালিকদের দেশের স্বার্থে ঐক্যবদ্ধ করে পঞ্চগড়সহ উত্তরবঙ্গে চা উৎপাদনের পদক্ষেপ নিলে কমবে বেকার যুবক-যুবতীদের সংখ্যা। বাড়বে কর্মসংস্থান। ঘুরে দাঁড়াবে উত্তরাঞ্চলের অর্থনীতির চাকা। অর্জিত হবে বৈদেশিক মুদ্রা।

ট্রান্সফাররেবল এলসির সঠিক ব্যবহারে বায়িং হাউজের দক্ষতা বাড়ানো জরুরী জনগণকে শাস্তি দেবেন না প্লিজ: কাদের কাউন্সিলর সাঈদের বিরুদ্ধে মামলা সৈয়দ নূরুল আলমের ‘আমার জীবন ও উন্নয়নের ৪৪ বছর’ টিকাটুলিতে রাজধানী সুপার মার্কেটে ভয়াবহ আগুন শিগগিরই ২২১ বন্ড লেনদেনযোগ্য হবে দেশের মানুষ এখন খোলা জেলে বন্দী: মির্জা আব্বাস ধর্মঘটের প্রভাব চালের বাজারে পড়বে না: খাদ্যমন্ত্রী বায়ুদূষণে শীর্ষে ঢাকা, ২৫ নভেম্বর আন্তমন্ত্রণালয় সভা চট্টগ্রামে পাহাড়ে অস্ত্র তৈরির কারখানা: ২০ অস্ত্রসহ ‘ডাকাত সর্দার’ গ্রেপ্তার ঢাকা-চট্টগ্রাম-সিলেট মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক বাস নেই, ভোগান্তি মাথায় নিয়ে হাঁটছে মানুষ ভুঁড়িওয়ালা পুরুষের কদর বেশি কেন নারীর কাছে ? সায়েদাবাদ থেকে দূরপাল্লার বাস বন্ধ শিক্ষকের থাপ্পড়ে কান ফাটলো ছাত্রের রাজধানীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত আমার বিরুদ্ধে অনুসন্ধান চালালে অনেক এমপি-মন্ত্রীর যাবজ্জীবন হবে: নাজমুল আইনের লাগাম ছেড়ার ধর্মঘটে সারাদেশে অচলাবস্থা দিনাজপুরে ট্রাকচাপায় ২ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত কাউন্সিলর রাজিবের তিন গাড়ি জব্দ সেফুদার সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ লবণ নিয়ে গুজব ছড়ালে কঠোর ব্যবস্থা: সরকার রাজস্ব আদায় ২ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়েছে বুধবার থেকে বাস চলবে খুলনায় ৩৯তম বিসিএসে ৪ হাজার ৪৪৩ চিকিৎসক নিয়োগ অধ্যক্ষকে পুকুরে ফেলার ঘটনায় ছাত্রলীগের ৫ কর্মী গ্রেপ্তার খালেদা জিয়া দাঁড়াতে-বসতে বা হাতে তুলে খেতে পারেন না: রিজভী দুই সিটির ভোটবিরোধী ৩৬ কাউন্সিলর লবণ নিয়ে গুজবে কান না দেয়ার পরামর্শ কেজিপ্রতি ১০০ টাকা হওয়ার গুজবে লবণ কেনার হিড়িক