artk
বৃহস্পতিবার, নভেম্বার ২১, ২০১৯ ৬:৩৩   |  ৭,অগ্রহায়ণ ১৪২৬

সিলেট সংবাদদাতা

শুক্রবার, আগষ্ট ২৩, ২০১৯ ১০:৩৩

রোহিঙ্গাদের আর বসিয়ে বসিয়ে খাওয়াতে পারব না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

media

পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন বলেছেন, ‘সব প্রস্তুতি চূড়ান্ত করা সত্ত্বেও আমরা রোহিঙ্গাদের ফেরাতে পারিনি। তবে রোহিঙ্গাদের ফিরে যেতেই হবে। তাদের আর বসিয়ে বসিয়ে আমরা খাওয়াতে পারব না।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন বলেছেন, ‘সব প্রস্তুতি চূড়ান্ত করা সত্ত্বেও আমরা রোহিঙ্গাদের ফেরাতে পারিনি। তবে রোহিঙ্গাদের ফিরে যেতেই হবে। তাদের আর বসিয়ে বসিয়ে আমরা খাওয়াতে পারব না।’

শুক্রবার সন্ধ্যায় সিলেট সফরে এসে সিলেট এমএজি ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেছেন।

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর গতকাল বৃহস্পতিবার থেকে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের প্রত্যাবাসন শুরুর কথা ছিল। কিন্তু প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত রোহিঙ্গাদের কেউই তাদের শর্ত পূরণ ছাড়া ফিরে যেতে রাজি হননি। এ নিয়ে গতকালই ক্ষোভের কথা জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন। পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু না হওয়ায় হতাশা ব্যক্ত করেন। তিনি এ ঘটনাকে দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেন। আজও ওই প্রত্যাবাসন নিয়ে কথা বলেন তিনি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, ‘মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিকভাবে চাপ সৃষ্টি করা সম্ভব হওয়ায় তারা রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে রাজি হয়েছে। আগে যেসব আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় রোহিঙ্গাদের পক্ষে কথা বলেছিল, এখন তারাও প্রত্যাবর্তনের পক্ষে কথা বলছে। প্রয়োজনে আরও চাপ সৃষ্টি করা হবে।’

একে আব্দুল মোমেন বলেন, ‘আমরা তাদের আগেই প্রস্তাব দিয়েছিলাম, রোহিঙ্গাদের ১০০ জন নেতাকে সেখানে নিয়ে যেতে। তাদের প্রত্যাবর্তনের জন্য সেখানে কী কী করা হয়েছে, সেগুলো দেখে এসে তারা অন্যদের বোঝাবে। রোহিঙ্গাদের জন্য সে দেশে চীন ও ভারত বাড়ি বানিয়ে দিয়েছে। সেগুলো দেখে এসে তারা যখন অন্য রোহিঙ্গাদের বলত, তখন তারা আশ্বস্ত হতো। প্রত্যাবর্তনে রাজি হতো। কিন্তু মিয়ানমার সেটা করেনি। তাই প্রত্যাবর্তনের ব্যর্থতার দায় তাদেরই।’

রোহিঙ্গাদের দাবি প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ‘রোহিঙ্গারা যেসব দাবি জানাচ্ছে, সেটা মানতে আমরা বাধ্য নই। এটা তাদের দেশে গিয়ে অর্জন করতে হবে।’ রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে রাজি করাতে না পারা কূটনৈতিক ব্যর্থতা, বিএনপির এমন মন্তব্যে 

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা রোহিঙ্গাদের ফেরাতে পারিনি, এটা সত্য। তবে এদের ফেরানো হবে। কবে যাবে, সেটা হয়তো এখন বলা যাচ্ছে না। বিএনপির অন্য কোনো ভালো আইডিয়া থাকলে আমরা তাদের ওয়েলকাম জানাব।’

সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় মন্ত্রীর সঙ্গে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদরউদ্দিন আহমদ কামরান, সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। পরে সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী সিলেট সদর উপজেলার খাদিমনগর ইউনিয়নের বাইশটিলা এলাকায় মাছের পোনা অবমুক্তকরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন।

পিইসি পরীক্ষায় শিক্ষার্থী বহিষ্কার কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট বিএনপি নেতাদের বাড়ি ঘেরাও হচ্ছে না কেন: গয়েশ্বর শফিকুরের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা অপরাধীরা মোবাইল ব্যাংকিং চ্যানেল ব্যবহারে করছে: দুদক চেয়ারম্যান সড়ক আইন প্রয়োগে বাড়াবাড়ি না হলে সমস্যা হবে না: কাদের পুঁজিবাজারে সব ধরনের সূচকের উত্থান ‘চাল নেই লবণ নেই বলে অপপ্রচার চালাচ্ছে একটি গোষ্ঠী’ বুরকিনা ফাসোতে পুলিশের অভিযানে ১৮ জিহাদি নিহত জীবনযাত্রায় বদল এনে নিয়ন্ত্রণে রাখুন রক্তচাপ সশস্ত্র বাহিনী দিবসে শিখা অনির্বাণে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা তিনদিনব্যাপী ‘শালুক’-এর নিবিড় সম্মিলন শুরু শুক্রবার ভারতের সাথে ১০০ কোটি ডলারের নৌ-অস্ত্র চুক্তি যুক্তরাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর আশ্বাসে কর্মবিরতি প্রত্যাহার মালিক-শ্রমিকদের চেকপোস্টে ডাকাতের হামলা, ৪ পুলিশ আহত মেলায় রাজস্ব আদায় ২৬১৩ কোটি টাকা রাজধানী সুপার মার্কেটের আগুন নিয়ন্ত্রণে ময়মনসিংহে এক বাড়িতেই ৭ হাজার কেজি লবণ ট্রান্সফাররেবল এলসির সঠিক ব্যবহারে বায়িং হাউজের দক্ষতা বাড়ানো জরুরী জনগণকে শাস্তি দেবেন না প্লিজ: কাদের কাউন্সিলর সাঈদের বিরুদ্ধে মামলা সৈয়দ নূরুল আলমের ‘আমার জীবন ও উন্নয়নের ৪৪ বছর’ টিকাটুলিতে রাজধানী সুপার মার্কেটে ভয়াবহ আগুন শিগগিরই ২২১ বন্ড লেনদেনযোগ্য হবে দেশের মানুষ এখন খোলা জেলে বন্দী: মির্জা আব্বাস ধর্মঘটের প্রভাব চালের বাজারে পড়বে না: খাদ্যমন্ত্রী বায়ুদূষণে শীর্ষে ঢাকা, ২৫ নভেম্বর আন্তমন্ত্রণালয় সভা চট্টগ্রামে পাহাড়ে অস্ত্র তৈরির কারখানা: ২০ অস্ত্রসহ ‘ডাকাত সর্দার’ গ্রেপ্তার ঢাকা-চট্টগ্রাম-সিলেট মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক বাস নেই, ভোগান্তি মাথায় নিয়ে হাঁটছে মানুষ ভুঁড়িওয়ালা পুরুষের কদর বেশি কেন নারীর কাছে ?