artk
বৃহস্পতিবার, নভেম্বার ২১, ২০১৯ ৬:৩৯   |  ৭,অগ্রহায়ণ ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

শুক্রবার, আগষ্ট ২৩, ২০১৯ ৭:৫১

রোহিঙ্গ প্রত্যাবাসনে সরকার কূটনৈতিকভাবে ব্যর্থ: রিজভী

media

বিএনপির এ নেতা বলেন, এই সরকারের পতন তরান্বিত করতে হবে, গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হবে। গণতন্ত্রের প্রতীক দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির মধ্য দিয়েই এই দেশের মানুষ মুক্তভাবে কথা বলা নিশ্চিত হবে।’

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সরকার কূটনৈতিকভাবে ব্যর্থ হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

শুক্রবার জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল ও জাতীয়তবাদী মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্মের উদ্যোগে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে মিছিলের পর সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন তিনি।

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের নির্ধারিত কর্মসূচির দিনে বৃহস্পতিবার একজন রোহিঙ্গাও নিজ দেশে ফেরত না যাওয়ার প্রসঙ্গ টেনে রিজভী বলেন, ‘রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সরকার কিচ্ছু করতে পারেনি, কিছুই পারেনি। এদের বিষয়ে এতদিন হয়ে গেল আপনারা (সরকার) একজন মানুষকেও ফেরত পাঠাতে পারলেন না। এই ব্যর্থতা তো চরম ব্যর্থতা। আপনারা কূটনৈতিকভাবে ব্যর্থ হয়েছেন।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেনের বক্তব্যের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘একজনকেও আপনারা প্রত্যাবাসন করতে পারেননি। তারপর আবার ধমক দেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। বাহ!’

‘এত দিন ধরে....। আপনাদের নাকি এত বন্ধু আছে, তারা কেউ কিছু করতে পারল না আপনাদের জন্য। অথচ এই যে এতগুলো মানুষের চাপ বাংলাদেশের সহ্য করতে হচ্ছে।’

সরকারের উদ্দেশে রিজভী বলেন, ‘আপনারা কূটনৈতিকভাবেই ব্যর্থ শুধু নয়, আপনারা অর্থনৈতিকভাবে ব্যর্থ, আপনারা আইন-শৃঙ্খলা পরিচালনা করতে ব্যর্থ। তাই চারদিকে রক্ত ঝরছে, লাশ পড়ছে, নারী-শিশুরা নির্যাতিত হচ্ছে।’

বিএনপির এ নেতা বলেন, এই সরকারের পতন তরান্বিত করতে হবে, গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হবে। গণতন্ত্রের প্রতীক দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির মধ্য দিয়েই এই দেশের মানুষ মুক্তভাবে কথা বলা নিশ্চিত হবে।’

এর আগে সাড়ে ১১টায় নয়া পল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি ইশতিয়াক আজিজ উলফাত ও সাধারণ সম্পাদক সাদেক আহমেদ খানের নেতৃত্বে নেতাকর্মীদের নিয়ে মিছিল করেন রিজভী। এ সময় খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে নেতাকর্মীরা মুহুর্মুহু স্লোগান দেন।

প্রসঙ্গত, ব্যাপক প্রস্তুতি থাকা সত্ত্বেও রোহিঙ্গাদের অনাগ্রহের কারণে শেষ পর্যন্ত ব্যর্থ হয়েছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরুর কর্মসূচি। নাগরিকত্ব, নিরাপত্তা, বসতভিটাসহ সম্পদ ফেরত ও নিপীড়নের বিচার নিশ্চিত না হলে রোহিঙ্গারা মিয়ানমারে ফিরে যাবে না বলে আগের অবস্থানেই অনঢ় রয়েছে।

পিইসি পরীক্ষায় শিক্ষার্থী বহিষ্কার কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট বিএনপি নেতাদের বাড়ি ঘেরাও হচ্ছে না কেন: গয়েশ্বর শফিকুরের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা অপরাধীরা মোবাইল ব্যাংকিং চ্যানেল ব্যবহারে করছে: দুদক চেয়ারম্যান সড়ক আইন প্রয়োগে বাড়াবাড়ি না হলে সমস্যা হবে না: কাদের পুঁজিবাজারে সব ধরনের সূচকের উত্থান ‘চাল নেই লবণ নেই বলে অপপ্রচার চালাচ্ছে একটি গোষ্ঠী’ বুরকিনা ফাসোতে পুলিশের অভিযানে ১৮ জিহাদি নিহত জীবনযাত্রায় বদল এনে নিয়ন্ত্রণে রাখুন রক্তচাপ সশস্ত্র বাহিনী দিবসে শিখা অনির্বাণে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা তিনদিনব্যাপী ‘শালুক’-এর নিবিড় সম্মিলন শুরু শুক্রবার ভারতের সাথে ১০০ কোটি ডলারের নৌ-অস্ত্র চুক্তি যুক্তরাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর আশ্বাসে কর্মবিরতি প্রত্যাহার মালিক-শ্রমিকদের চেকপোস্টে ডাকাতের হামলা, ৪ পুলিশ আহত মেলায় রাজস্ব আদায় ২৬১৩ কোটি টাকা রাজধানী সুপার মার্কেটের আগুন নিয়ন্ত্রণে ময়মনসিংহে এক বাড়িতেই ৭ হাজার কেজি লবণ ট্রান্সফাররেবল এলসির সঠিক ব্যবহারে বায়িং হাউজের দক্ষতা বাড়ানো জরুরী জনগণকে শাস্তি দেবেন না প্লিজ: কাদের কাউন্সিলর সাঈদের বিরুদ্ধে মামলা সৈয়দ নূরুল আলমের ‘আমার জীবন ও উন্নয়নের ৪৪ বছর’ টিকাটুলিতে রাজধানী সুপার মার্কেটে ভয়াবহ আগুন শিগগিরই ২২১ বন্ড লেনদেনযোগ্য হবে দেশের মানুষ এখন খোলা জেলে বন্দী: মির্জা আব্বাস ধর্মঘটের প্রভাব চালের বাজারে পড়বে না: খাদ্যমন্ত্রী বায়ুদূষণে শীর্ষে ঢাকা, ২৫ নভেম্বর আন্তমন্ত্রণালয় সভা চট্টগ্রামে পাহাড়ে অস্ত্র তৈরির কারখানা: ২০ অস্ত্রসহ ‘ডাকাত সর্দার’ গ্রেপ্তার ঢাকা-চট্টগ্রাম-সিলেট মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক বাস নেই, ভোগান্তি মাথায় নিয়ে হাঁটছে মানুষ ভুঁড়িওয়ালা পুরুষের কদর বেশি কেন নারীর কাছে ?