artk
সোমবার, আগষ্ট ২৬, ২০১৯ ৩:১৫   |  ১০,ভাদ্র ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

বৃহস্পতিবার, আগষ্ট ১, ২০১৯ ৬:০২

সুস্মিতার ভালোবাসা জয়ী হলো হাইকোর্টে

media

ভালোবেসে নিম্নবর্ণের ছেলেকে বিয়ে করেছিলেন সুস্মিতা দেবনাথ অদিতি। কিন্তু তা মেনে নিতে পারেননি তার মা-বাবা।  মেয়ের স্বামী তুষার দাসের বিরুদ্ধে অপহরণ ও ধর্ষণের মামলা দায়ের করেন তারা।  নিম্ন আদালত তুষার দাসকে ১৪ বছরের কারাদণ্ড দেন। 

কিন্তু স্বামীকে ছাড়িয়ে নিতে উচ্চ আদালতের শরণাপন্ন হন সুস্মিতা। বৃহস্পতিবার তিন মাসের শিশু কোলে তিনি আদালতে দ্বারস্থ হন। আদালত তার স্বামীকে জামিন দিয়েছেন। 

বৃহস্পতিবার (১ আগস্ট) বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে আজ তুষার দাসের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট শিশির মুহাম্মাদ মনির ও অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ সাদ্দাম হোসাইন।  

সুম্মিতা ও তার আইনজীবী ঘটনার বিবরণ দিয়ে জানান, দুই বছর আগে, তুষার ও সুষ্মিতা ভালোবেসে বিয়ে করেন। তিন মাস আগে তাদের কোলজুড়ে আসে ফুটফুটে এক কন্যা সন্তান। কিন্তু তুষার দাস ধর্মীয় বিধানে নিম্ন বর্ণের হওয়ার কারণে শুরুতেই এই বিয়ে মেনে নিতে পারেননি সুষ্মিতার বাবা-মাসহ পরিবারের সদস্যরা।

মেয়ে নাবালিকা- এই অভিযোগ তুলে সুষ্মিতার মা তুষারের বিরুদ্ধে অপহরণ ও ধর্ষণের মামলা করেন। মামলায় অপহরণের দায়ে তুষারকে ১৪ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন শরীয়তপুরের নারী ও শিশু নির্য়াতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক জেলা জজ আ. ছালাম খান। সুম্মিতা দেবনাথ স্বেচ্ছায় তুষার দাসকে বিয়ে করার কথা বললেও তার কথা আমলে নেননি নিম্ন আদালত।

আদালত ১৪ বছর কারাদণ্ড দিয়ে রায়ে বলেছিলেন, ‘সার্বিক পর্যালোচনায় দেখা যায়, আসামি তুষার দাস রাজ ভিকটিম সুষ্মিতা ওরফে অদিতিকে অপহরণ করে নিয়ে ঢাকেশ্বরী মন্দিরে গিয়ে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। আসামি শিশু সুষ্মিতাকে বিয়ে করবেন এই আশ্বাস দিয়ে এই অপহরণ করেছেন। যা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৭ ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এ কারণে তাকে দোষী সাব্যস্ত করে ১৪ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড এবং অনাদায়ে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হলো। তবে, আসামির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাকে ওই দায় থেকে খালাস দিয়েছেন আদালত। 

গত ৩ জুলাই আদালতে আত্মসমর্পণ করেন তুষার। এরপর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। সেখান থেকে তিনি আপিল করেন। এরপর স্বামীকে ১৪ বছরের কারাদণ্ড থেকে মুক্ত করতে হাইকোর্টে আসেন স্ত্রী সুম্মিতা দেবনাথ।

সুষ্মিতা দেবনাথ বলেন, ‘আমার একটাই অপরাধ, আমি ব্রাক্ষণের মেয়ে হয়ে হরিজন বর্ণের ছেলেকে ভালোবেসে বিবাহ করেছি। আইনের মারপ্যাঁচে আমাদের জীবন আজ বিপন্ন।

সত্যকে এড়ানোর উপায় নেই: কাদের শিক্ষকদের কোচিং বাণিজ্য বন্ধে কমিটি হচ্ছে বিদ্যালয়ে বিশ্বের সবচেয়ে দামি অভিনেত্রী স্কারলেট বিএনপি নেতা-কর্মীদের খুন করেছে আ.লীগ: ফখরুল যেভাবে চিনবেন ভালো সিমেন্ট ডেঙ্গুর যাতনা ভুলতেই পারছি না: অর্থমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি করার অভিযোগে সোনাইমুড়ির মেয়র বরখাস্ত কানে এয়ারফোন, ট্রেনের ধাক্কায় প্রাণ গেলো তরুণের সোনার বাংলা বিনির্মাণে এক সঙ্গে কাজ করতে হবে: অর্থমন্ত্রী কাবিননামায় ‘কুমারী’ শব্দ বাদ দেয়ার নির্দেশ খেলাপি ঋণ কমার সুযোগ নেই স্টোকসের হেলমেট ভাঙলেন হ্যাজলউড শতকোটি টাকা আত্মসাতে ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা সিঙ্গাপুরের ব্যবসায়ীরা বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী রশিদ খানের হুঙ্কার! দক্ষ জনশক্তির প্রয়োজনে ২ প্রতিষ্ঠান রাতের আঁধারে জামালপুর ছাড়লেন সেই ডিসি শ্রীলঙ্কাকে ৭-১ গোলে গুড়িয়ে দিলো বাংলাদেশের কিশোররা রোগীর ওপর খসে পড়ল হাসপাতালের ছাদের পলেস্তারা রাজাকারদের তালিকা সংগ্রহ করছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আফগানিস্তানের বিপক্ষে নিজেদেরই এগিয়ে রাখছেন মিরাজ দুদকের কাছে ৩ মাসের সময় চেয়েছেন নূর আলী পৃথিবী ধ্বংসে মেতেছেন ট্রাম্প আর বোলসোনারো আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য সেবা কার্ড নিয়ে এলো ‘মেডিএইডার’ পদ্মায় ১৬০ টন সিমেন্টসহ কার্গো ডুবি পূর্বাচলে ১০ কাঠার প্লট চান বিএনপির রুমিন খেলোয়াড়দের দাঁত অন্যদের দাঁতের চেয়েও খারাপ কেড়ে নেয়া হবে সেই ডিসির শুদ্ধাচার সনদ কাবিননামা থেকে ‘কুমারী’ শব্দ বাদ দেয়ার নির্দেশ উদাহরণ সৃষ্টির মতো শাস্তি হবে ডিসির: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী