artk
বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বার ৫, ২০১৯ ৯:২০   |  ২১,অগ্রহায়ণ ১৪২৬

এ কে এম ওয়াহিদুজ্জামান

শনিবার, জুলাই ২৭, ২০১৯ ৯:৪৩

ঢাকা থেকে মশা তাড়িয়েছিলেন হাবিবুল্লাহ বাহার

media

পূর্ব পাকিস্তানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হাবিবুল্লাহ বাহার চৌধুরী

ঐতিহাসিকভাবেই ঢাকা মশার জন্য বিখ্যাত ছিল। মশার যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ হয়ে মুঘলরা বাংলার রাজধানী ঢাকা থেকে মুর্শিদাবাদ সরিয়ে নিতে বাধ্য হয়েছিল।

ইংরেজ শাসনামলে ঢাকায় তাদের যে ক্যান্টনমেন্টে ছিল (পুরানা পল্টন এলাকায়; পল্টন মানে সেনা ইউনিট) সেটি মূলত ব্যবহৃত হতো বেয়ারা সৈনিকদের টাইট দেওয়ার জন্য পানিশমেন্ট পোস্টিং হিসেবে। সমগ্র ভারতবর্ষে যত বেয়াড়া সৈনিক, তাদেরকে ঢাকায় পাঠিয়ে দেয়া হতো, মশার কামড় খেয়ে, ম্যালেরিয়া বাঁধিয়ে তারা সোজা হয়ে যেত।

কালক্রমে ব্রিটিশরা চলে গেল, পাকিস্তান তৈরি হল, ঢাকা হল পূর্ব বাংলার রাজধানী। নতুন দেশের নতুন রাজধানীতে লোকজন বসতবাড়ি করতে শুরু করল, ভারত থেকে লাখে লাখে মুসলমান এসে ঢাকাতেই উঠলো। কিন্তু মশার যন্ত্রণা কমলো না।

সেই সময় পূর্ব পাকিস্তানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পেলেন ফেনীর সন্তান হাবিবুল্লাহ বাহার চৌধুরী। কলকাতা মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের সাবেক অধিনায়ক এই মানুষটি কথা কম বলতেন, কাজ বেশি করতেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্র থেকে ২০,০০০ মশার ঔষধ ছিটানোর মেশিন আনালেন (ব্রাশের তৈরি এই মশার ঔষধ ছেটানোর লম্বা টিউব আকৃতির যন্ত্রগুলো আমি ১৯৮০-৯০ সাল পর্যন্ত ঢাকা শহরে দেখেছি)। রাস্তার পাশে গভীর ড্রেন খনন করালেন, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা আধুনিক করলেন, শহরের সবগুলো পুকুর খাল ডোবা পরিষ্কার করালেন, ইস্পাহানীর সহায়তায় মশার ওষুধ ছিটানোর উপযোগী দুটো বিমান পর্যন্ত ক্রয় করালেন। পঞ্চাশ দশকে মাত্র দুই বছরের মধ্যে উনি ঢাকার মশাকে এমন মাইর দিলেন যে, উনার মৃত্যুর আরো ১০ বছর পর ১৯৭৫/৭৬ সালেও ঢাকা শহরের মানুষ মশারি না টানিয়ে ঘুমাতে পারতো।

আফসোস! বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে, কিন্তু হাবিবুল্লাহ বাহার এর মত আরেকজন মানুষ জন্ম নেয়নি।

(লেখকের ফেসবুক পোস্ট থেকে নেওয়া)

আপিল বিভাগে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে সরকার: মন্ত্রী বীরত্বে পদক পাচ্ছেন ডিজিসহ বিজিবির ৬০ সদস্য আইএস এর সেই টুপি খুঁজে পাচ্ছে না পুলিশ নামাজ পড়লে সুস্থ থাকা যায়: মার্কিন গবেষণা মৌলভীবাজারে ৪শ একর জমিতে কমলার চাষ ২০১৯ সালের সেরা অ্যাপ কল অফ ডিউটি আ.লীগে এখন কর্মীর চেয়ে নেতার সংখ্যা বেশি: কাদের প্রকৌশল শিক্ষায়ও সৃজনশীলতার প্রচুর সুযোগ রয়েছে: রাষ্ট্রপতি ‘সুদের হার কমেনি, ১১ মাস কী করলেন অর্থমন্ত্রী’ ৬ রানে অলআউট মালদ্বীপ পিরোজপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ২ জনের মৃত্যু পুঁজিবাজারে সূচকের পতন, লেনদেনও মন্দা রোহিঙ্গাদের কারণে স্থানীয়দের কর্মসংস্থানের সুযোগ কমছে: টিআইবি বিএনপির আইনজীবীদের বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করা উচিত: নাসিম আপিল বিভাগে এমন অবস্থা আগে কখনো দেখিনি: প্রধান বিচারপতি প্রতিবন্ধীদের জন্য উপজেলায় সহায়তা কেন্দ্র চালু হবে: প্রধানমন্ত্রী চিশতির শ্যালক কামাল গ্রেপ্তার এবার হবে ২৩৮ কিলোমিটার পাতাল রেল ৩ দেশ থেকে ভারতে যাওয়া অমুসলিমরা নাগরিকত্ব পাবেন রোহিঙ্গাদের কারণে কক্সবাজারবাসী ‘মানসিক চাপে’: টিআইবি বিএনপি অরাজকতা করলে সমুচিত জবাব দেয়া হবে: কাদের খালেদার জামিনে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ: ফখরুল ব্যাংকাররা সুবিধা নিলেন কিন্তু সুদহার কমালেন না: বাণিজ্যমন্ত্রী খামারিকে খুন করে গরু-ছাগল লুট জুয়া খেলার সময় হাতেনাতে ধরা ৩ সরকারি কর্মকর্তা আমি খুব বেশি পেঁয়াজ খাই না: সংসদে ভারতের অর্থমন্ত্রী আদালতে হট্টগোল, বিচারপতিদের এজলাস ত্যাগ নেইমার-এমবাপ্পের গোলে পিএসজির টানা তৃতীয় জয় হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর ৫৬তম মৃত্যুবার্ষিকী বৃহস্পতিবার আবারও পিছিয়েছে খালেদার জামিন শুনানি