artk
মঙ্গলবার, অক্টোবার ১৫, ২০১৯ ৮:৪৯   |  ৩০,আশ্বিন ১৪২৬
বুধবার, জুলাই ২৪, ২০১৯ ৪:১০

৭ সরকারি কলেজের অধিভুক্তি: ঢাবি শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ছাত্রলীগের বাধা

স্টাফ রিপোর্টার
media

ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর সাত সরকারি কলেজের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে বুধবার চতুর্থ দিনের মতো ভবনগুলোয় তালা ঝোলানোর চেষ্টা করলেও ছাত্রলীগের বাধার কারণে তা সম্ভব হয়নি। 

রাজধানীর সাত সরকারি কলেজের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে বুধবার চতুর্থ দিনের মতো ভবনগুলোয় তালা ঝোলানোর চেষ্টা করলেও ছাত্রলীগের বাধার কারণে তা সম্ভব হয়নি। 

সকালে কর্মসূচিতে অংশ নিতে দোয়েল চত্বর থেকে টিএসসি অভিমুখী সড়কে হাঁটছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি সুফিয়া কামাল হলের চার ছাত্রী। একপর্যায়ে পুষ্টি ও খাদ্যবিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের সামনে এস এম হল শাখা ছাত্রলীগের একদল নেতা-কর্মী তাদের আটকান। নানা প্রশ্ন করে তাদের সঙ্গে মারমুখী আচরণ করতে থাকেন তারা। আহনাফ তাহমিদ নামের তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক প্রকৌশল বিভাগের প্রথম বর্ষের এক শিক্ষার্থী ওই রাস্তা দিয়ে রিকশায় করে যাচ্ছিলেন। ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের কাছে গিয়ে ঘটনা জানতে চাইলে তাকে আন্দোলনকারী ভেবে ব্যাপক মারধর করা হয়। এতে তার চোখের কর্নিয়া আঘাতপ্রাপ্ত হয়।

গত মঙ্গলবার পর্যন্ত টানা তিন দিন বিশ্ববিদ্যালয়ের সব একাডেমিক ও প্রশাসনিক ভবনে তালা ঝুলিয়ে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করেন একদল শিক্ষার্থী। সাত কলেজ সংকটের স্থায়ী সমাধানের দাবিতে গতকাল উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি দেয় ছাত্রলীগ। স্মারকলিপি দেয়ার আগে দুপুরে অপরাজেয় বাংলায় এক সমাবেশে ক্লাস-পরীক্ষায় বাধা সৃষ্টিকারীদের ‘দাঁতভাঙা জবাব’ দেয়ার ঘোষণা দেন সংগঠনের নেতারা। আর তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ ও ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন কর্মসূচি অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেন আন্দোলনকারীরা।

আন্দোলনকারীদের দাবি, আজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬০টির বেশি বিভাগের শিক্ষার্থীরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করেছেন।

ঘোষণা অনুযায়ী, ভোর থেকেই বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন এলাকায় অবস্থান নেন ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। তাদের অবস্থানের কারণে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা প্রশাসনিক ও একাডেমিক কোনো ভবনে তালা ঝোলাতে পারেননি। ফলে, সকাল থেকে কিছু কিছু বিভাগে ক্লাস শুরু হয়। তবে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি আজ কম দেখা গেছে। 

ছাত্রলীগ সূত্রে জানা গেছে, আজ ভোর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কলাভবন এলাকা, ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ এলাকা, রেজিস্ট্রার ভবন, শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউট, উপাচার্য কার্যালয় এলাকা, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ এলাকা, বিশ্ববিদ্যালয় গ্রন্থাগার এলাকা, আইন অনুষদ এলাকা, কার্জন হল এলাকা, এ এফ মুজিবুর রহমান গণিত ভবন এলাকা এবং মোকাররম ভবন এলাকায় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা অবস্থান নেন।

বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় গ্রন্থাগারের সামনে সংবাদ সম্মেলন করেন আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা। সেখানে আন্দোলনকারীদের মুখপাত্র ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষার্থী শাকিল মিয়া কালও তালা ঝোলানো ও ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন কর্মসূচি অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, ‘সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন হচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বারবার মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে আসছে। তাই শিক্ষার্থীরা প্রশাসনের ওপর আস্থা রাখতে পারছেন না। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমাদের কর্মসূচি চলতে থাকবে। দাবি না মেনে যদি অনাকাঙ্ক্ষিত কিছু করা হয়, সাধারণ শিক্ষার্থীরা তা ভালোভাবে নেবে না এবং সমুচিত জবাব দেবে।’

আন্দোলনকারীদের অন্যতম সমাজবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী নাহিদ ইসলাম সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘ডাকসু নির্বাচনে ছাত্রলীগসহ প্রায় সব প্যানেলের ইশতেহারে সাত কলেজের অধিভুক্তি পুনর্বিবেচনা করার বিষয়টি ছিল। কিন্তু নির্বাচনের পর ডাকসু থেকে কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। ডাকসু ও উপাচার্য বরাবর এই ইস্যুতে স্মারকলিপি দিয়েও যখন কিছু হলো না, তখন আমরা বাধ্য হয়ে আন্দোলন শুরু করি। শিক্ষার্থীরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে এ আন্দোলনে অংশ নিয়েছেন। কিন্তু গতকাল আমাদের ওপর হামলা করে ছাত্রলীগ। আজও বাধা দিয়েছে তারা।’

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ছাত্রলীগের এক কেন্দ্রীয় নেতা বলেন, ‘ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী ভাইয়ের নির্দেশে আমরা সকাল ছয়টা থেকে অবস্থান নিই। বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস-পরীক্ষা সচল করে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখতে ছাত্রলীগ বদ্ধপরিকর।’

হবিগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত সর্দার নিহত কোটচাঁদপুরে ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী তৃতীয় লিঙ্গের পিংকি কাউয়াদের বের করতে না পারলে অশনিসংকেত ডেকে আনবে: নানক পারমাণবিক বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় কোম্পানি গঠনে খসড়া অনুমোদন একসঙ্গে নোবেলজয়ী দম্পতিরা দাবি পূরণের আশ্বাস পেয়ে অটোরিকশা ধর্মঘট স্থগিত যে ৯ খাতে পিছিয়েছে বাংলাদেশ প্রকাশ্যে বৈধ অস্ত্রও প্রদর্শন করা যাবে না সস্ত্রীক নোবেলজয়ী বাঙালি অর্থনীতিবিদ সম্পর্কে যা জানা যাচ্ছে তুর্কি হামলা ঠেকাতে কুর্দিদের সঙ্গে চুক্তি করলেন আসাদ পুঁজিবাজারে ২০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে আইসিবি আবরার হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিতের আশ্বাস প্রধানমন্ত্রীর গাজীপুরে ২ মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু ঘুষের টাকাসহ পাসপোর্ট অফিসের অফিস সহায়ক গ্রেফতার মুক্তিযোদ্ধা বাবার কবরে বাথরুম! ড. ইউনূসের গ্রেফতারি পরোয়ানা হাইকোর্টে স্থগিত মাত্র ৫ শতাংশ মানুষ উন্নয়নের সুফল পাচ্ছেন: মেনন নাইক্ষ্যংছড়িতে ভোটকেন্দ্রে বিজিবির গুলি, নিহত ১ ছাত্রলীগের কারণে সমগ্র ছাত্র রাজনীতি দায়ী হতে পারে না: রিজভী সৌরভের কাছে দুর্দান্ত ইনিংস চান মমতা পেঁয়াজের বাজার স্বাভাবিক হবে অক্টোবরের শেষে: বাণিজ্যমন্ত্রী অমিতকে স্থায়ী বহিষ্কার করলো ছাত্রলীগ ভারতের সাথে হার বাংলাদেশের মেয়েদের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গণভবনে আবরারের বাবা-মা মঙ্গলবার থেকে ৩ দিনের সিএনজি ধর্মঘট ‘বেসিক ব্যাংকের ঘটনায় দুদক চেয়ারম্যানের পদত্যাগ করা উচিত’ অর্থনীতিতে নোবেল পেলেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত অভিজিত ব্যানার্জি কুমিল্লায় ব্যবসায়ীকে হত্যার দায়ে ৯ জনের মৃত্যুদণ্ড পুঁজিবাজারে সব ধরনের সূচকে পতন আমি কখনোই উল্টো পথে গাড়ি নিয়ে আসি না: প্রধান বিচারপতি