artk
শুক্রবার, আগষ্ট ২৩, ২০১৯ ৩:৩০   |  ৭,ভাদ্র ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

মঙ্গলবার, জুলাই ২৩, ২০১৯ ১১:২৪

বাড্ডায় গণপিটুনিতে নারীকে হত্যা: আরও ২ জন গ্রেপ্তার

media

রাজধানীর উত্তর বাড্ডায় গণপিটুনিতে তাসলিমা বেগম হত্যার ঘটনায় আরও দুজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

সোমবার রাতে বাড্ডার হোসেন মার্কেট ও তেঁতুলতলা এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন- মো. কামাল ও আবুল কালাম আজাদ। এ নিয়ে এ ঘটনায় ছয়জনকে গ্রেপ্তার করা হলো। এদের মধ্যে একজন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। তিনজনকে আদালতে হাজির করে রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে।

বাড্ডা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুর রাজ্জাক জানান, ভিডিও ফুটেজ দেখে কালাম ও আজাদকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তারা উত্তর বাড্ডায় থাকত।

এর আগে রোববার রাতে মো. শাহীন, জাফর হোসেন, শহিদুল ইসলাম ও বাচ্চু মিয়া নামে চারজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তাদের সোমবার আদালতে হাজির করা হলে তিনজনকে চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। জাফর হোসেন ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিলে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

বাড্ডা থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, ছেলেধরা সন্দেহে তাসলিমাকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় করা মামলায় রোববার মধ্যরাতে গ্রেপ্তার জাফর বিচারকের কাছে দোষ স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন। বাকি তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হলে ঢাকার মহানগর হাকিম ধীমান চন্দ্র মণ্ডল চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত শনিবার সকালে রাজধানীর উত্তর-পূর্ব বাড্ডা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছেলেধরা সন্দেহে পিটিয়ে তাসলিমাকে হত্যা করে স্থানীয়রা। স্কুলটিতে চার বছরের মেয়েকে ভর্তি করানোর জন্য তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়েছিলেন তিনি। নিহত তাসলিমার বাড়ি লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে।

মহাখালীতে চার বছরের মেয়ে ও মাকে নিয়ে থাকতেন তাসলিমা। দুই বছর আগে স্বামীর সঙ্গে তার বিচ্ছেদ হয়ে যায়। ১১ বছরের এক ছেলেও আছে নিহত তাসলিমার।

বাড্ডা থানা পুলিশ আদালতকে প্রতিবেদন দিয়ে বলছে, শনিবার সকালে বাড্ডা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আসেন তাসলিমা বেগম। তার দুই সন্তানের ভর্তির বিষয়ে খোঁজ নিতে গেলে স্কুলের গেটে কয়েকজন নারী তাসলিমার নাম-পরিচয় জানতে চান। পরে লোকজন তাসলিমাকে স্কুলের প্রধান শিক্ষকের কক্ষে নেন। কিছুক্ষণের মধ্যে বাইরে কয়েকশ লোক একত্র হয়ে তাসলিমাকে প্রধান শিক্ষকের কক্ষ থেকে বের করে নিয়ে যায়। স্কুলের ফাঁকা জায়গায় এলোপাতাড়ি মারপিট করে গুরুতর জখম করে। পরে উদ্ধার করে তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এ ঘটনায় তাসলিমার বোনের ছেলে সৈয়দ নাসিরউদ্দিন বাদী হয়ে বাড্ডা থানায় অজ্ঞাতনামা চারশ থেকে পাঁচশ মানুষকে আসামি করে মামলা করেন।

বিয়ের গেটেই বরের মাথা ফাটালো কনেপক্ষ রাখাইনে প্রবেশাধিকার চায় ইউএনএইচসিআর-ইউএনডিপি ১৫ ও ২১ আগস্ট নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য: মাউশি পরিচালক ওএসডি থানা থেকে পুলিশের জব্দ করা মোটরসাইকেল চুরি ৫ দিনের রিমান্ডে ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রী কাশ্মিরে জুমার নামাজের পর কারফিউ ভাঙার ডাক বাজারের ব্যাগে ৫ কোটি টাকার হেরোইন! প্রাথমিকে আরো ২০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ সাব-রেজিস্ট্রার অফিসকে ভূমি মন্ত্রণালয়ের অধীনে আনার সুপারিশ দেড় বছর ধরে স্বাস্থ্যকেন্দ্রে আসেন না ডাক্তার জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে রেড অ্যালার্ট জারির উদ্যোগ পরমাণু বোমা আমরা এমনি এমনি রাখিনি: জাভেদ মিয়াঁদাদ কলকাতায় বাংলাদেশির মৃত্যু: আরসালান নয় চালক ছিলেন বড় ভাই রাগিব রাজধানীসহ দেশের ৬ স্থানে দুদকের অভিযান ভারতের সবচেয়ে ধনী অভিনেতা অক্ষয় কুমার! শুরুতেই ফিটনেসে মনোযোগী বাংলাদেশি কোচ কেমন আছেন মিয়ানমারের মুসলমান নাগরিকেরা? বেশি নম্বর দেয়ার কথা বলে ছাত্রীকে যৌন হয়রানি, শিক্ষক বরখাস্ত উপহাসকারী রিজভীদেরও বিচার হওয়া উচিত: তথ্যমন্ত্রী ডা. জাফরুল্লাহসহ ৭৬ জনের বিরুদ্ধে আ.লীগ নেতার মামলা ওজনে কারচুপি: ২ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে বিএসটিআইয়ের মামলা বজ্রপাতে ৫ জেলায় ৯ জনের মৃত্যু যাত্রাবাড়ীতে বাসের ধাক্কায় বাবা নিহত, ছেলে আহত তিন বিচারপতির বিষয়ে অনুসন্ধান অন্যদের জন্য বার্তা রোহিঙ্গাদের থাকতে প্ররোচনা দিলে ব্যবস্থা নেয়া হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী পুঁজিবাজারে সূচকের উত্থান বিচার বিভাগের অনেকের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আছে: খোকন ভুল চিকিৎসা: ঢাবি শিক্ষার্থীকে ৫ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ নয় কেন অনুসন্ধানে ব্যর্থরা অন্য প্রতিষ্ঠানে কাজ করুন: দুদক চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে ফরমায়েশি সাজা দেয়া হয়েছে: রিজভী