artk
বৃহস্পতিবার, নভেম্বার ১৪, ২০১৯ ৮:৩৩   |  ৩০,কার্তিক ১৪২৬
মঙ্গলবার, জুলাই ২৩, ২০১৯ ৮:৫৯

বগুড়ায় ‘ছেলেধরা’ সন্দেহে ৪ যুবককে গণপিটুনি

বগুড়া প্রতিনিধি
media

এদিকে পুলিশের ওপর হামলা ও সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে ১২জনকে আটক করেছে পুলিশ। তবে তাদের নাম পরিচয় জানা যায়নি।

এবার বগুড়ার গাবতলী উপজেলায় ‘ছেলেধরা’ সন্দেহে চার যুবককে গণপিটুনি দিয়েছে স্থানীয় জনতা। এসময় ওই চার যুবককে উদ্ধার করে পুলিশে সোপর্দ চাইলে স্থানীয় চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন মিঠুকেও অবরুদ্ধ করে রাখে জনতা।
 
এদিকে খবর পেয়ে অবরুদ্ধ চেয়ারম্যানসহ সন্দেহভাজন যুবকদের নিজেদের হাতে তুলে নিতে জনতা আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের লক্ষ করে ইটপাটকেল ছুঁড়তে থাকে। জনতা ওই চার যুবকের ব্যবহৃত একটি পিকআপ আগুনে পুড়িয়ে দেয়। এর পর অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়। পরে চার যুবককে উদ্ধার করে গাবতলী মডেল থানায় নিয়ে যায়।

সোমবার (২২ জুলাই) বিকেল ৪টা থেকে শুরু করে দিনগত রাত ৮টা পর্যন্ত উপজেলার দুর্গাহাটা ইউনিয়ন বাজার ও বৈঠাভাঙা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

‘ছেড়েধরা’ সন্দেহে আটকরা হলেন, গাবতলী উপজেলার মহিষাবান ইউনিয়নের কর্ণিপাড়া গ্রামের হজরত আলী প্রামাণিকের ছেলে ফাহিম প্রামাণিক (২৪), পার ধুনট মধ্যপাড়া গ্রামের আব্দুর রশিদের ছেলে লুৎফর রহমান (৩৫), ধুনট জোড়শিমুল গ্রামের নজির হোসেনের ছেলে দুলাল হোসেন (২২) ও তার ভাই নিয়ামুল হোসেন (৩৬)।

এদিকে পুলিশের ওপর হামলা ও সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে ১২জনকে আটক করেছে পুলিশ। তবে তাদের নাম পরিচয় জানা যায়নি।

রাতে উপজেলার দুর্গহাটা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন মিঠু জানান, বিকেল অনুমানিক ৪টার দিকে ওই চার যুবক একটি পিকআপ ভ্যান (ঢাকা মেট্রো-ন-১৩-৩৮৪৯) নিয়ে বৈঠাভাঙা গ্রামের দিকে ঘোরাঘুরি করছিলো। এসময় পিকআপের ভেতরে ধারালো চাকু দেখার পর গ্রামবাসীর সন্দেহ হয়। এরপর তাদের পরিচয় ও বৈঠাভাঙা গ্রামে আসার কারণ জানতে চাইলে ওই চার যুবক অসংলগ্ন কথাবার্তা বলতে শুরু করে।

এতে গ্রামবাসীর সন্দেহ বাড়তে থাকে। এরই একপর্যায়ে ওই চার যুবককে এলোপাথাড়ি মারধর শুরু করে স্থানীয় জনতা। ঘটনা জানার পর তিনি গ্রাম পুলিশ পাঠিয়ে ওই চার যুবককে উদ্ধার করে পরিষদ ভবনে রাখেন। পরে গাবতলী থানায় খবর দেওয়া হয়।

কিন্তু পুলিশ আসার আগেই সেখানে জনতার ভিড় বাড়তে থাকে। একপর্যায়ে শত শত জনতা ওই চার যুবককে তাদের হাতে ছেড়ে দেওয়ার দাবি জানাতে থাকে। তাদের দাবি না মানায় তারা চেয়ারম্যানকেও অবরুদ্ধ করে ফেলে।

খবর পেয়ে গাবতলী থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গেলে জনতা তাদের লক্ষ করে ইটপাটকেল ছুঁড়তে থাকে। পরে গাবতলী সার্কেলের সহকারি পুলিশ সুপার (এএসপি) সাবিনা ইয়াসমিন ও গাবতলী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম হোসেনের নেতৃত্বে বাড়তি পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়। আটক চার যুবককে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

গাবতলী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম হোসেন জানান, পুলিশের ওপর হামলা ও সরকারি কাজে বাধা দেওয়ায় ১২জনকে আটক করা হয়েছে। তাদের ব্যাপারে খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে। এছাড়া সন্দেহভাজন চার ব্যক্তির ব্যাপারেও খোঁজ খবর নেওয়া হচ্ছে। তথ্য উপাত্ত যাছাইবাছাই শেষে আইন অনুযায়ি পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

নিউমোনিয়া: দেশে ঘণ্টায় একজনের বেশি শিশুর মৃত্যু রোহিঙ্গা সমস্যার জন্য দায়ী জিয়াউর রহমান: প্রধানমন্ত্রী ব্যাংকের আইটির মানব সম্পদ উন্নয়নে বাজেট বাড়ানো প্রয়োজন রোহিঙ্গাদের এনআইডি: চট্টগ্রামে আরও দুই নির্বাচনকর্মী গ্রেপ্তার বগুড়ায় কোচিং শিক্ষককে অর্থদণ্ড ৬৮ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে আমারি ঢাকায় থাই ফুড ফেস্টিভ্যাল শুরু ২১ নভেম্বর অসুস্থ খালেদা জিয়াকে বিদেশ নিতে চায় পরিবার নানার হাতে নাতনির মৃত্যু তবুও মোস্তাফিজই আমাদের জন্য হুমকি: কোহলি শীতে সুস্থ থাকবেন যেভাবে আ.লীগ থেকে বিএনপিতে আসার অবস্থা তৈরী হয়েছে: ফখরুল সড়কের মতো রাজনীতিতেও দুর্ঘটনা ঘটতে পারে: ওবায়দুল কাদের কেরাণীগঞ্জে মিললো ৮ কোটি টাকার নকল প্রসাধনী দ্বিমত করলে, সালাম না দিলেই তারা নির্যাতন করত ছাত্রদের আবরার হত্যা: ২৫ জনকে আসামি করে চার্জশিট দাখিল শতভাগ বিদ্যুতের আওতায় আরো ২৩ উপজেলা হংকংয়ে সহিংস বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা হুমায়ূন আহমেদের জন্মদিন ঘূর্ণিঝড়ে ৩ সহস্রাধিক মোবাইল টাওয়ার বন্ধ দাখিল পরীক্ষা দিচ্ছে হিন্দু সম্প্রদায়ের কিশোর ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ একজন নিহত ট্রেন দুর্ঘটনা: নিহত ১৬ জনের লাশ হস্তান্তর ভারতে পেঁয়াজের দাম না পেয়ে কৃষকের কান্না রেফারিকে এসপি হারুনের মারধরের ভিডিও ভাইরাল ‘ঘন কুয়াশার কারণে লালবাতি দেখতে পাননি চালক’ জাতীয় আয়কর মেলা শুরু বৃহস্পতিবার শিশুটির নাম নাইমা, সঙ্গে থাকা মা ও দাদীর সন্ধান মিলছে না খালেদা জিয়া নিজে হাতে খেতেও পারেন না: মির্জা ফখরুল আর দেখা যাবে না সোহার হাসিমুখ