artk
সোমবার, আগষ্ট ১৯, ২০১৯ ৭:১৭   |  ৪,ভাদ্র ১৪২৬
সোমবার, জুলাই ২২, ২০১৯ ৪:২৬

বন্যা থেকে দেশকে বাঁচাতে হলে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে: ড. কামাল

স্টাফ রিপোর্টার
media

নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠিত হয়েছিল উল্লেখ করে এ জোটের আহ্বায়ক ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন সারা দেশের ঐক্যের ওপর গুরুত্ব দিতে চান। ্ন্যাএ ছাড়া তিনি বলেছেন, থেকে দেশকে বাঁচাতে হলে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। মানুষকে সচেতন করতে হবে। ঘাটতিগুলো চিহ্নিত করতে হবে 

নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠিত হয়েছিল উল্লেখ করে এ জোটের আহ্বায়ক ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন সারা দেশের ঐক্যের ওপর গুরুত্ব দিতে চান। ্ন্যাএ ছাড়া তিনি বলেছেন, থেকে দেশকে বাঁচাতে হলে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। মানুষকে সচেতন করতে হবে। ঘাটতিগুলো চিহ্নিত করতে হবে 

সোমবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে ড. কামাল এসব কথা বলেন। এ সময় দেশের বন্যা পরিস্থিতিতে দুর্গত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানা তিনি। বন্যা পরিস্থিতে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মাঠে না থাকা নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে কামাল হোসেন বলেন, ‘ওইটা তো একটা ইলেকশনকে কেন্দ্র করে হয়েছিল। এই বিষয়ে তো আমি মনে করি ঐক্যফ্রন্ট না, আসল ঐক্য, জনগণের ঐক্য করা দরকার। কয়েকটা দলের ঐক্য না, সারা দেশের ঐক্যকে আমি বেশি গুরুত্ব দিতে চাই।’

বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় একে অন্যকে দোষারোপ না করে সমস্যা চিহ্নিত করার কথা বলেন এই বর্ষীয়ান আইনজীবী।

ঐক্যফ্রন্টের টানাপোড়েন প্রসঙ্গে জোটটির আহ্বায়ক বলেন, ‘মূল লক্ষ্যকে সামনে রেখেই ঐক্যফ্রন্ট হয়েছিল। সে মূল লক্ষ্য তো আমাদের থাকবেই। ওটা ইলেকশনের ব্যাপারে একটা উদ্যোগ ছিল। এখন এই ধরনের চ্যালেঞ্জ নিয়ে আরও গুরুত্বপূর্ণভাবে ঐক্য গড়তে হবে।’

বন্যা পরিস্থিতিতে দোষারোপের চেয়ে কারণগুলো চিহ্নিত করা দরকার, যেখান থেকে কোথায় ঘাটতি তা বেরিয়ে আসবে বলে জানান কামাল হোসেন। তিনি বলেন, ‘দলীয় সংকীর্ণতা চলে আসে, পাল্টাপাল্টি দোষারোপ করলে তখন সমস্যা সমাধানের চেয়ে এটাই চলতে থাকে।’ তিনি আরও বলেন, জনগণকে সচেতন করা ও সঠিক তথ্য দেয়া হচ্ছে সবচেয়ে বড় কাজ।

দেশে কার্যকর গণতন্ত্র নেই উল্লেখ করে কামাল হোসেন বলেন, দেশ শাসন করতে নাগরিকদের ভূমিকা থাকে। সমস্যা মোকাবিলায় সরকারের পাশাপাশি নাগরিকদেরও ভূমিকা পালন করতে হয়। এককভাবে সরকারের পক্ষে মোকাবিলা করা সম্ভব না।

বন্যার প্রসঙ্গে কামাল হোসেন বলেন, ‘এই ধরনের পরিস্থিতিতে সবাইকে নিয়ে বসা দরকার। সেটা কি হয়েছে? দলমত-নির্বিশেষে সবাইকে নিয়ে মতবিনিময় করা দরকার। তথ্য এক জায়গায় এনে মূল্যায়ন করা।’

সব রাজনৈতিক দলকে নিয়ে জাতীয় সংলাপ প্রয়োজন মনে করেন কি না—এ প্রশ্নের জবাবে কামাল হোসেন বলেন, ‘অবশ্যই একটি জাতীয় সংলাপ অপরিহার্য মনে করি বন্যার জন্য।’

কামাল হোসেন বলেন, বন্যা থেকে দেশকে বাঁচাতে হলে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। মানুষকে সচেতন করতে হবে। ঘাটতিগুলো চিহ্নিত করতে হবে। বন্যাকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে গ্রহণ করার কথা বলেন তিনি। বন্যার শিকার থেকে বাঁচতে ঐক্যবদ্ধ সম্মিলিত প্রচেষ্টা ও দেশে ঐকমত্য গড়ে তোলার কথা বলেন গণফোরাম সভাপতি।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি আবু সাইয়িদ। গণফোরামের বক্তব্যে সরকারের ত্রাণ কার্যক্রমের সমালোচনা করে বলা হয়, পর্যাপ্ত ত্রাণ এখনো বন্যাকবলিত মানুষের কাছে পৌঁছায়নি। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর থেকে অনেক বরাদ্দ থাকলেও কাজ হয়নি—এ অভিযোগ করে বলা হয়, বন্যা নিয়ন্ত্রণের নামে লুটপাট হয়েছে।

আবু সাইয়িদ বলেন, ১৭ জুলাই থেকে গণফোরামের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আমসা আ আমিন কুড়িগ্রামে ত্রাণ কার্যক্রম চালাচ্ছেন।

গণফোরাম বন্যা পরিস্থিতে বেশ কিছু দাবি জানায়। তা হচ্ছে খাদ্য, জরুরি ওষুধ ও বিশুদ্ধ পানির ব্যবস্থা, সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি পর্যায়ে ত্রাণ কার্যক্রম। জবাবদিহির ভিত্তিতে ত্রাণ কার্যক্রম, বেশি ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাগুলোকে দুর্গত এলাকা ঘোষণা এবং পার্শ্ববর্তী রাষ্ট্রগুলোর সঙ্গে পানি ও নদী ব্যবস্থাপনার উদ্যোগ।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহসীন রশীদ প্রমুখ।

ভারত-চীন-জাপানকে দেয়া সুযোগের শর্তগুলো প্রকাশের আহ্বান টিআইবির পচা মাছ বিক্রি করায় স্বপ্ন এক্সপ্রেসকে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড সওজের সাবেক প্রকৌশলী দম্পতির বিরুদ্ধে মামলা সেপ্টেম্বরে ভারত সফরে যাবে এইচপি দল পুঁজিবাজারে সূচকসহ লেনদেন চাঙ্গা মাশরাফি-মুশফিকদের ক্যাম্পে নেই সাকিব-তামিম ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ১৬১৫ জন এফআর টাওয়ার দুর্নীতি মামলায় গ্রেপ্তার তাসভিরের জামিন ডেঙ্গুতে চার জেলায় আরও চারজনের মৃত্যু মিরপুরে বস্তিতে আগুনে ক্ষ‌তিগ্রস্তদের পা‌শে থাক‌বে সরকার: কাদের মাধবপুরে চা-শ্রমিক খুন, ভায়রা ভাই পলাতক উগান্ডায় ট্যাঙ্কার বিস্ফোরণে ২০ জনের মৃত্যু একবেলা খাবার পাবে সব প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষার্থীরা ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সফরে প্রত্যাশার কিছুই নেই: ফখরুল যে কারণে বেড়েছে আছাদুজ্জামান মিয়ার মেয়াদ মিন্নির মামলার বৃত্তান্ত দাখিলের নির্দেশ পরিবেশদূষণ প্রতিরোধে দুদকের বিশেষ উদ্যোগ এফআর টাওয়ারের জমির মালিক ফারুক গ্রেপ্তার হামলার পরেও মৌলিক সেবা থেকে বঞ্চিত করেছে- ভিপি নুর রাতে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী গুগল ম্যাপের সাহায্যে বাড়ি ফিরলো মেয়েটি নবম ওয়েজ বোর্ড নিয়ে আপিলের আদেশ মঙ্গলবার ধর্ষণের থেকে মুক্তি চাইতে গিয়ে ভাইয়ের কাছেও... রাজধানীতে ‘আল্লাহর সরকার’ ৪ জঙ্গি আটক ২০৫০-মধ্যে তলিয়ে যেতে পারে জাকার্তা মার্কিনকে চাপ অগ্রাহ্য করে জিব্রাল্টার ছাড়ল ইরানি ট্যাংকার কনস্টেবলের লক্ষ্যভ্রষ্ট গুলি এএসপির বাসায় স্বামীর লাশ দেখে মারা গেলেন স্ত্রীও পদ্মায় ফেরি-লঞ্চ সংর্ঘষ, অল্পের জন্য বেঁচে যান ৩ শতাধিক যাত্রী মেসিকে খুশি রাখতেই নেইমার ‘নাটক’