artk
রোববার, আগষ্ট ১৮, ২০১৯ ৪:১৭   |  ৩,ভাদ্র ১৪২৬
শনিবার, জুলাই ২০, ২০১৯ ২:৫৭

নথির অধিকাংশ ত্রুটি-বিচ্যুতি: ইকবাল মাহমুদ

স্টাফ রিপোর্টার
media

ফাইল ফটো

এজন্য প্রয়োজন দুর্নীতি বিরোধী তীব্র সামাজিক আন্দোলন এমন মন্তব্যে করে ইকবাল মাহমুদ  বলেন, আমাদের সমস্যা আমরা যেটা বলি সেটা বিশ্বাস করিনা,

দুর্নীতি দমন কমিশনের সক্ষমতার ঘাটতি রয়েছে এটা স্বীকার করতে আমি বিব্রত নই জানিয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেন, আমার কাছে যেসব নথি উপস্থাপিত হয়, তার অধিকাংশেই বিভিন্ন ত্রুটি-বিচ্যুতি পরিলক্ষিত হয়। পুরোপুরি সক্ষমতা থাকলে আমার পর্যায়ে যেসব নথি আসে তাতে কোনো ত্রুটি থাকার কথা নয়।

শনিবার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের মানিক মিয়া হলে হিউম্যান রাইটস এন্ড পিস ফর বাংলাদেশের উদ্যোগে আয়োজিত “দুর্নীতি দমনে আইনজীবী ও বিচার বিভাগের ভূমিকা” শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে দুদকের চেয়ারম্যান এসব কথা বলেন। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ব্যারিষ্টার এম এস আজিম।

সবার সমন্বিত উদ্যোগেই দুর্নীতি প্রতিরোধ, দমন ও নিয়ন্ত্রণ সম্ভব, এজন্য প্রয়োজন দুর্নীতি বিরোধী তীব্র সামাজিক আন্দোলন এমন মন্তব্যে করে ইকবাল মাহমুদ  বলেন, আমাদের সমস্যা আমরা যেটা বলি সেটা বিশ্বাস করিনা, যেটা করি সেটা বলিনা, যেটা করি সেটা  বিশ্বাস করিনা। এ এক অদ্ভুত নিগড়ে আমরা বন্দী। আর এই নিগড় ভাঙ্গতে হলে তরুণ প্রজন্ম বিশেষ করে ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের নৈতিক মূল্যবোধ সম্পন্ন শিক্ষা ও মননে বিকশিত করে উন্নত মানসিকতা সম্পন্ন একটি প্রজন্ম সৃষ্টি করতে হবে।

এ লক্ষ্যেই কমিশনের ক্ষুদ্র সামর্থে দেশের প্রায় ২৮ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উত্তম চর্চার বিকাশে সততা সংঘ গঠন করা হয়েছে। কমিশন এদের মাধ্যমে বিভিন্ন কার্যক্রম যেমন বিতর্ক প্রতিযোগিতা, রচনা প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক কার্যক্রম নিবিড়ভাবে পরিচালনা করছে। কমিশন এসব কর্মসূচিতে সর্বোচ্চ মেধা ও শ্রম বিনিয়োগ করছে। কারণ আমাদের  মতো বয়সের মানুষদের মাইন্ড সেট পরিবর্তন করা জটিল।

দুর্নীতি দমন কমিশনের সক্ষমতার ঘাটতি রয়েছে এটা স্বীকার করতে আমি বিব্রত নই জানিয়ে তিনি বলেন,  কমিশনের চেয়ারম্যান হিসেবে আমার কাছে যেসব নথি উপস্থাপতি হয়, তার অধিকাংশেই বিভিন্ন ত্রুটি-বিচ্যুতি পরিলক্ষিত হয়। পুরোপুরি সক্ষমতা থাকলে আমার পর্যায়ে যেসব নথি আসে তাতে কোনো ত্রুটি থাকার কথা নয়।

আমি যোগদান করেই বলেছিলাম অভিযোগের অনুসন্ধান বা তদন্তে টাইম লাইন অনুসরণ করতে হবে। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য টাইম লাইন যথাযথভাবে অনুসরণ করা হচ্ছে না। যদিও আমরা চেষ্টা করছি। যদি তদন্তেই ত্রুটি থাকে তাহলে বিজ্ঞ আইনজীবী কিংবা বিচারকদের পক্ষে অপরাধীদের আইন আমলে আনা দুরুহ হয়ে পরে। তাই আমরা তদন্তের গুণগত মান উন্নয়নে বহুমাত্রিক কার্যক্রমের পরিচালনা করছি।

দেশের সাধারণ মানুষ যারা গ্রামে বাস করে তারাই দুর্নীতি, হয়রানি কিংবা অনিয়মের সবচেয়ে বড় শিকার এমন উক্তি করে দুদক চেয়ারম্যান বলেন,  এসব দুর্নীতিতে অধিকাংশ ক্ষেত্রে চুনোপুঁটিরাই সম্পৃক্ত থাকেন। ফলে দেশের প্রায় এই ৮০ শতাংশ মানুষ যারা দুর্নীতির কারণে কোনো না কোনোভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হন- তাদের  কল্যাণেই চুনোপুঁটিদের আইন-আমলে আনতে হচ্ছে এবং তা অব্যাহত রাখা হবে। তবে এ কথা দৃঢ়ভাবে বলতে পারি শুধু চুনোপুঁটি নয়, রাঘব-বোয়ালদেরর আইন-আমলে আনা হচ্ছে এবং আরও আনা হবে।

তিনি বলেন,  অনেক প্রভাবশালী  রাজনৈতিক নেতা, বিত্তবান ব্যবসায়ী কিংবা উচ্চ পদে আসীন অনেক আমলার বিষয়েও দুদক অনুসন্ধান, তদন্ত কিংবা প্রসিকিউসন করছে। এ প্রসঙ্গে বলেন দুদকের এই অভিযাত্রায় আইনজীবী, সাংবাদিকসহ সমাজের প্রতিটি স্তর থেকে সর্বোচ্চ সহযোগিতা প্রত্যাশা করি।

আমি সবসময়ই গঠনমূলক সমালোচনাকে সাধুবাদ জানাই জানিয়ে তিনি বলেন, আলোচনা হোক, সমালোচনা হোক তবে বস্তনিষ্ঠ সংবাদ যেন প্রকাশিত হয়। ইচ্ছাকৃতভাবে কোন রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানের ভাবমূর্তি যেন ক্ষতিগ্রস্ত না হয়।

উপস্থিত অতিথিদের উদ্দেশ্যে দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেন, আপনাদের সকলের প্রতি আমাদের উদাত্ত আহ্বান  আসুন, আমরা সমন্বিতভাবে দুর্নীতির বিরুদ্ধে দৃঢ় পদক্ষেপ গ্রহণ করি যাতে মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্ভাসিত দুর্নীতিমুক্ত, বৈষম্যহীন সোনার বাংলা বিনির্মাণের পথ প্রশস্ত হয়।

সভাপতির বক্তব্যে হিউম্যান রাইটস এন্ড পিস ফর বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট এডভোকেট মনজিল মোরসেদ বলেন, মানুষ বিশ্বাস করে দুদক চুনোপুঁটিদের ব্যাপারে কঠোর। বিরোধী রাজনীতিকদের প্রতিও তারা কঠোর। পক্ষান্তরে সরকারি দলের প্রতি তারা দুর্বল। তবে একথাও ঠিক বর্তমান চেয়াম্যানের নেতৃত্বাধীন কমিশনে ক্লিন সার্টিফিকেট নেওয়ার প্রবণতা বন্ধ হয়েছে।

সম্প্রতি দুদক চেয়ারম্যানের একটি বক্তব্য সঠিকভাবে প্রকাশ করা হয়নি জানিয়ে তিনি বলেন, আমি নিজে এ সংক্রান্ত একাধিক ভিডিও ফুটেজ দেখেছি কোথাও তিনি  বলেননি সরল বিশ্বাসে দুর্নীতি করা অপরাধ নয়। এমনকি ওই বক্তব্যে দুর্নীতি শব্দটিই তিনি উচ্চারণ করেননি। তারপর কেন বিষয়টি এভাবে প্রচার হলো? আসলে দায়বদ্ধতা সবারই থাকা উচিত।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সাবেক আইন মন্ত্রী আবদুল মতিন খসরু বলেন, দুর্নীতিপরায়ণদের সাজা নিশ্চিত করা গেলেই সমাজে এই বার্তা পৌঁছে যাবে যে, দুর্নীতি করলে রক্ষা নেই। ব্যারিষ্টার এম. আমির-উল ইসলাম বলেন, আইন দিয়ে দুর্নীতি বন্ধ করা কঠিন, এর সঙ্গে সমাজের নৈতিক মূল্যবোধের বিষয়াদি জড়িত।

অন্তঃসত্ত্বা প্রেমিকার মামলায় শিঞ্জনের ১ দিনের রিমান্ড ঈদযাত্রায় সড়ক দুর্ঘটনায় ২২৪ নিহত, আহত ৮৬৬ জন গাইবান্ধায় ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন ‘সেরা পুলিশ’ ভূষিত হওয়ার পরদিনই ঘুষ নিতে গিয়ে ধরা কুমিল্লায় বাস-অটোরিকশা সংঘর্ষে একই পরিবারের ৭ জন নিহত চামড়ার অস্বাভাবিক দরপতনের তদন্ত চেয়ে হাইকোর্টে রিট মিন্নির জামিন আবেদন উত্থাপন সোমবার যুদ্ধ ছাড়াই বিধ্বস্ত ভারতের জঙ্গিবিমানগুলো ইথিওপিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে শোক দিবস পালিত মোটরসাইকেল কেনার পরদিনই প্রাণ গেল কিশোরের ফেসবুকে যুক্ত হলো চাকমা ভাষা টানা ১১ জয়ের রেকর্ড গড়লো লিভারপুল হবিগঞ্জের মাকালকান্দি গণহত্যা দিবস রোববার শিশু ধর্ষণের অভিযোগে চা দোকানদার আটক রাজধানীতে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নারীসহ নিহত ২ জমকালো আয়োজনে সাব্বিরের হলুদ অনুষ্ঠান সিরাজগঞ্জে ডেঙ্গুতে কলেজছাত্রের মৃত্যু ঐশ্বরিয়াকে আত্মহত্যার হুমকি দিয়েছেন সালমান আফগানিস্তানে বিয়ের অনুষ্ঠানে বোমা হামলা, নিহত ৬৩ ‘প্রেমিকার’ অশ্লীল ছবি তুলে ১০ লাখ টাকা দাবি তৃতীয় শ্রেণির স্কুলছাত্রী ধর্ষিত কানে ব্যথা হলে কি করবেন? বেনাপোলে নারীর ব্যাগে মিললো ৪৯ লাখ ৫৯ হাজার টাকার বিদেশি মুদ্রা চাঁদাবাজি করতে গিয়ে গণধোলাই খেল পুলিশের সোর্স সুদানে ক্ষমতা ভাগাভাগির চুক্তি স্বাক্ষর বস্তিতে আগুনের ঘটনায় জড়িতদের শাস্তি দিতে হবে: ড. কামাল খালেদার মুক্তির জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে যাবে বিএনপি কলকাতায় দুই বাংলাদেশির মৃত্যু, চালক গ্রেপ্তার ডেঙ্গু পরিস্থিতি মোকাবিলায় চ্যালেঞ্জিং আগামী ৭ দিন বোরবার সারাদেশে সাংবাদিকদের সমাবেশ