artk
শুক্রবার, আগষ্ট ২৩, ২০১৯ ৩:৩০   |  ৭,ভাদ্র ১৪২৬
শনিবার, জুলাই ২০, ২০১৯ ১০:৩৩

যমুনা সার কারখানার বর্জ্যে বিলের মাছ মরে ভেসে উঠেছে

জামালপুর সংবাদদাতা
media
‘যমুনা সার কারখানার সার যেখানে-সেখানে ফেলে রাখায় সেগুলো পচে ও কারখানার অন্যান্য বিষাক্ত বর্জ্য বিলের পানিতে মিশে সব মাছ মরে গেছে।’

তারাকান্দির যমুনা সার কারখানার সার পচে ও বিষাক্ত বর্জ্য পানিতে মিশে একটি বিলের প্রায় ৫০ থেকে ৬০ লাখ টাকার মাছ মরে ভেসে উঠেছে।

সরিষাবাড়ী উপজেলার পোগলদিঘা ইউনিয়নের চরপাড়া খুটামারা বিলে এ ক্ষতি হয় বলে ভুক্তভোগীরা জানান।

এলাকাবাসী জানান, চরপাড়া গ্রামের ৩০ জন্য সদস্য মিলে চরপাড়া মৎস্য প্রকল্প নামে একটি সমিতি গঠন করেন। ২০১৭ সালের ১ জানুয়ারি ১০ লাখ টাকা বিনিয়োগ করে খুটামারা বিলের ৬০ একর জমিতে তারা বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চাষ শুরু করেন।

প্রকল্পের সদস্য ময়নাল হোসেন জানান, ‘মাছগুলোর বর্তমান বাজারমূল্য ছিল প্রায় ৫০ থেকে ৬০ লাখ টাকা। কিন্তু ১৪ জুলাই থেকে বিলের সব মাছ মরতে শুরু করেছে। বিলে রুই, কাতলা, চিতল, বোয়াল, কই, মাগুর, সিলভার ও কার্প জাতীয় মাছসহ প্রায় ৩০ প্রজাতির মাছ ছিল। সব মাছ মরে ভেসে উঠায় বিনিয়োগকারীরা এখন পথে বসেছেন।’

মাছচাষী আব্দুল আজিজ ও মোজাফ্ফর হোসেন অভিযোগ করে বলেন, ‘যমুনা সার কারখানার সার যেখানে-সেখানে ফেলে রাখায় সেগুলো পচে ও কারখানার অন্যান্য বিষাক্ত বর্জ্য বিলের পানিতে মিশে সব মাছ মরে গেছে।’

জানা গেছে, দৈনিক এক হাজার ৮০০ মেট্রিকটন ইউরিয়া উৎপাদনে সক্ষম যমুনা সার কারখানা ১৯৯১ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকেই কারখানার বিষাক্ত বর্জ্য ও অ্যামোনিয়া গ্যাস সরাসরি বাতাস, মাটি ও পানিতে ছাড়া হয়। এতে কারখানার পাশের বিল ও পুকুরগুলোর মাছ প্রায়ই মরে যায়। এছাড়া জমির ফসল ও গাছপালার ক্ষতিসহ অন্তত দশটি গ্রামের অনেক মানুষ ফুসফুসের সমস্যায় ভুগছেন।

এদিকে সম্প্রতি কারখানা ও বাফার গুদামে হাজার হাজার মেট্রিকটন সার নির্ধারিত গুদামে সংরক্ষণ না করে খোলা আকাশের নিচে জমা করে ফেলে রাখা হয়েছে। সেই সারগুলো বৃষ্টিতে ভিজে নষ্ট হচ্ছে এবং তা খুটামারা বিলের পানিতে মিশে মাছ মরে ভেসে উঠেছে। এতে সাধারণ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হলেও কারখানা কর্তৃপক্ষ কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছে না।

এ ব্যাপারে যমুনা সার কারখানার উপ-মহাব্যবস্থাপক (প্রশাসন) মঈনুল হক বলেন, ‘যারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন তারা আবেদন করলে বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে।’

বিয়ের গেটেই বরের মাথা ফাটালো কনেপক্ষ রাখাইনে প্রবেশাধিকার চায় ইউএনএইচসিআর-ইউএনডিপি ১৫ ও ২১ আগস্ট নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য: মাউশি পরিচালক ওএসডি থানা থেকে পুলিশের জব্দ করা মোটরসাইকেল চুরি ৫ দিনের রিমান্ডে ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রী কাশ্মিরে জুমার নামাজের পর কারফিউ ভাঙার ডাক বাজারের ব্যাগে ৫ কোটি টাকার হেরোইন! প্রাথমিকে আরো ২০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ সাব-রেজিস্ট্রার অফিসকে ভূমি মন্ত্রণালয়ের অধীনে আনার সুপারিশ দেড় বছর ধরে স্বাস্থ্যকেন্দ্রে আসেন না ডাক্তার জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে রেড অ্যালার্ট জারির উদ্যোগ পরমাণু বোমা আমরা এমনি এমনি রাখিনি: জাভেদ মিয়াঁদাদ কলকাতায় বাংলাদেশির মৃত্যু: আরসালান নয় চালক ছিলেন বড় ভাই রাগিব রাজধানীসহ দেশের ৬ স্থানে দুদকের অভিযান ভারতের সবচেয়ে ধনী অভিনেতা অক্ষয় কুমার! শুরুতেই ফিটনেসে মনোযোগী বাংলাদেশি কোচ কেমন আছেন মিয়ানমারের মুসলমান নাগরিকেরা? বেশি নম্বর দেয়ার কথা বলে ছাত্রীকে যৌন হয়রানি, শিক্ষক বরখাস্ত উপহাসকারী রিজভীদেরও বিচার হওয়া উচিত: তথ্যমন্ত্রী ডা. জাফরুল্লাহসহ ৭৬ জনের বিরুদ্ধে আ.লীগ নেতার মামলা ওজনে কারচুপি: ২ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে বিএসটিআইয়ের মামলা বজ্রপাতে ৫ জেলায় ৯ জনের মৃত্যু যাত্রাবাড়ীতে বাসের ধাক্কায় বাবা নিহত, ছেলে আহত তিন বিচারপতির বিষয়ে অনুসন্ধান অন্যদের জন্য বার্তা রোহিঙ্গাদের থাকতে প্ররোচনা দিলে ব্যবস্থা নেয়া হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী পুঁজিবাজারে সূচকের উত্থান বিচার বিভাগের অনেকের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আছে: খোকন ভুল চিকিৎসা: ঢাবি শিক্ষার্থীকে ৫ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ নয় কেন অনুসন্ধানে ব্যর্থরা অন্য প্রতিষ্ঠানে কাজ করুন: দুদক চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে ফরমায়েশি সাজা দেয়া হয়েছে: রিজভী