artk
শনিবার, জুলাই ২০, ২০১৯ ১০:৩৩

যমুনা সার কারখানার বর্জ্যে বিলের মাছ মরে ভেসে উঠেছে

জামালপুর সংবাদদাতা
media
‘যমুনা সার কারখানার সার যেখানে-সেখানে ফেলে রাখায় সেগুলো পচে ও কারখানার অন্যান্য বিষাক্ত বর্জ্য বিলের পানিতে মিশে সব মাছ মরে গেছে।’

তারাকান্দির যমুনা সার কারখানার সার পচে ও বিষাক্ত বর্জ্য পানিতে মিশে একটি বিলের প্রায় ৫০ থেকে ৬০ লাখ টাকার মাছ মরে ভেসে উঠেছে।

সরিষাবাড়ী উপজেলার পোগলদিঘা ইউনিয়নের চরপাড়া খুটামারা বিলে এ ক্ষতি হয় বলে ভুক্তভোগীরা জানান।

এলাকাবাসী জানান, চরপাড়া গ্রামের ৩০ জন্য সদস্য মিলে চরপাড়া মৎস্য প্রকল্প নামে একটি সমিতি গঠন করেন। ২০১৭ সালের ১ জানুয়ারি ১০ লাখ টাকা বিনিয়োগ করে খুটামারা বিলের ৬০ একর জমিতে তারা বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চাষ শুরু করেন।

প্রকল্পের সদস্য ময়নাল হোসেন জানান, ‘মাছগুলোর বর্তমান বাজারমূল্য ছিল প্রায় ৫০ থেকে ৬০ লাখ টাকা। কিন্তু ১৪ জুলাই থেকে বিলের সব মাছ মরতে শুরু করেছে। বিলে রুই, কাতলা, চিতল, বোয়াল, কই, মাগুর, সিলভার ও কার্প জাতীয় মাছসহ প্রায় ৩০ প্রজাতির মাছ ছিল। সব মাছ মরে ভেসে উঠায় বিনিয়োগকারীরা এখন পথে বসেছেন।’

মাছচাষী আব্দুল আজিজ ও মোজাফ্ফর হোসেন অভিযোগ করে বলেন, ‘যমুনা সার কারখানার সার যেখানে-সেখানে ফেলে রাখায় সেগুলো পচে ও কারখানার অন্যান্য বিষাক্ত বর্জ্য বিলের পানিতে মিশে সব মাছ মরে গেছে।’

জানা গেছে, দৈনিক এক হাজার ৮০০ মেট্রিকটন ইউরিয়া উৎপাদনে সক্ষম যমুনা সার কারখানা ১৯৯১ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকেই কারখানার বিষাক্ত বর্জ্য ও অ্যামোনিয়া গ্যাস সরাসরি বাতাস, মাটি ও পানিতে ছাড়া হয়। এতে কারখানার পাশের বিল ও পুকুরগুলোর মাছ প্রায়ই মরে যায়। এছাড়া জমির ফসল ও গাছপালার ক্ষতিসহ অন্তত দশটি গ্রামের অনেক মানুষ ফুসফুসের সমস্যায় ভুগছেন।

এদিকে সম্প্রতি কারখানা ও বাফার গুদামে হাজার হাজার মেট্রিকটন সার নির্ধারিত গুদামে সংরক্ষণ না করে খোলা আকাশের নিচে জমা করে ফেলে রাখা হয়েছে। সেই সারগুলো বৃষ্টিতে ভিজে নষ্ট হচ্ছে এবং তা খুটামারা বিলের পানিতে মিশে মাছ মরে ভেসে উঠেছে। এতে সাধারণ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হলেও কারখানা কর্তৃপক্ষ কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছে না।

এ ব্যাপারে যমুনা সার কারখানার উপ-মহাব্যবস্থাপক (প্রশাসন) মঈনুল হক বলেন, ‘যারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন তারা আবেদন করলে বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে।’

পশুর চেয়েও নিকৃষ্ট ধর্ষক: প্রধানমন্ত্রী করোনা ভাইরাসের কারণে হজে যাওয়া না হলে টাকা ফেরত: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী দাঙ্গা নয়, দিল্লিতে পরিকল্পিত গণহত্যা হয়েছে: মমতা ভারতের সম্মান তলিয়ে দিয়েছে মোদি সরকার: মমতা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে সুনামগঞ্জে এনামুল-রুপন ছয় দিনের রিমান্ডে পিরোজপুরে সাবেক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা চলতি বছরই তিস্তা চুক্তির সম্ভাবনা: শ্রিংলা ঢাকা উত্তরের নির্বাচন বাতিল চেয়ে তাবিথের মামলা খুলনায় ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা অভিনেতা গোলাম মুস্তাফার জন্মদিন সোমবার আদালতে টাউট-বাটপার শনাক্তের নির্দেশ পাওয়ার ট্রলিকে ধাক্কা দিয়ে বিকল রেলইঞ্জিন কলকাতা সফরে এসে প্রবল বিক্ষোভের মুখে অমিত শাহ রোবট চালাবে গাড়ি! ভিপি নূরকে হত্যার হুমকি দেয়ার পর দুঃখ প্রকাশ টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৭ জন নিহত রাখাইনপ্রদেশে সেনাদের গুলিতে শিশুসহ ৫ রোহিঙ্গা নিহত ইস্কাটনে ভবনে আগুন: মায়ের পর চলে গেলেন রুশদির বাবাও চট্টগ্রামে একটি বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ২ দেশে প্রতিদিন যক্ষ্মায় মারা যায় ১৩০ জন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনাভাইরাস আতঙ্কে আয়ারল্যান্ডের স্কুল বন্ধ ঘোষণা বিশিষ্ট সুরকার সেলিম আশরাফ আর নেই মোদীকে অতিথি হিসেবে সর্বোচ্চ সম্মান দেওয়া হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মধুর যত জাদুকরী গুণ চিপসের প্যাকেটের ভিতর খেলনা নয়: হাইকোর্ট আমার গাড়িতেও অস্ত্র আছে কী না আমি জানি না: শামীম ওসমান ফ্র্যান্সেও করোনা, অনিশ্চিত কান চলচ্চিত্র উৎসব উপনির্বাচন: গাইবান্ধা-৩ আসনে প্রতীক বরাদ্দ গুজব ও গণপিটুনি রোধে হাইকোর্টের ৫ নির্দেশনা