artk
সোমবার, আগষ্ট ১৯, ২০১৯ ৩:০২   |  ৪,ভাদ্র ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮, ২০১৯ ৯:৪৭

কর সংগ্রহ নিয়ে ডিসি-রাজস্ব কর্মকর্তারা মুখোমুখি অবস্থানে

media

বৃহস্পতিবার বিসিএস (ট্যাক্সেশন) অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মো. সেলিম আফজাল ও মো. নূরুজ্জামান খান এবং বিসিএস (কাস্টমস অ্যান্ড ভ্যাট) অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি খন্দকার মো. আমিনুর রহমান ও মহাসচিব সৈয়দ মুসফিকুর রহমান সই করা এক বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়।

রাজস্ব সংগ্রহ বাড়াতে জেলা-উপজেলা পর্যায়ে জেলা প্রশাসক (ডিসি) ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের (ইউএনও) নেতৃত্বে কমিটি গঠনের প্রস্তাব করেছেন ডিসিরা। এ প্রস্তাবকে অবৈধ, এখতিয়ার বর্হিভূত ও অর্থহীন দাবি করে ক্ষোভ ও উদ্বেগ জানান বিসিএস (কাস্টমস অ্যান্ড ভ্যাট) অ্যাসোসিয়েশন ও বিসিএস (ট্যাক্সেশন) অ্যাসোসিয়েশন। 

এর ফলে রাজস্ব সংগ্রহে কার্যক্রমে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির আশঙ্কা করে এনবিআরে অস্থিরতা সৃষ্টি করার এ উদ্দেশ্য খতিয়ে দেখার অনুরোধ করা হয়। 

বৃহস্পতিবার বিসিএস (ট্যাক্সেশন) অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মো. সেলিম আফজাল ও মো. নূরুজ্জামান খান এবং বিসিএস (কাস্টমস অ্যান্ড ভ্যাট) অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি খন্দকার মো. আমিনুর রহমান ও মহাসচিব সৈয়দ মুসফিকুর রহমান সই করা এক বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়।

এর আগে গত ১৪ জুলাই সচিবালয়ে ডিসি সম্মেলন অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক বিষয়ক উপদেষ্টা মসিউর রহমান জানান, স্থানীয়ভাবে সরকারের রাজস্ব সংগ্রহ বাড়াতে জেলা-উপজেলা পর্যায়ে ডিসি-ইউএনওদের জেলা প্রশাসকরা (ডিসি) নেতৃত্বে কমিটি চায়। ডিসিদের এ প্রস্তাবকে সরকার ইতিবাচক প্রস্তাব হিসেবে দেখছে। 

উপদেষ্টা বলেন, রাজস্ব সংগ্রহ বাড়াতে জেলা-উপজেলা পর্যায়ে জনবল বাড়ানোর প্রস্তাব এনবিআরের। জেলা প্রশাসকদের প্রস্তাবের সঙ্গে এনবিআরের প্রস্তাবের সমন্বয় প্রয়োজন হবে। তখন হয়ত বিষয়টি আরো প্রয়োজনীয় পরীক্ষা হবে।

ডিসি সম্মেলনে মাঠ পর্যায়ের প্রশাসন ক্যাডার কর্মকর্তাদের রাজস্ব সংশ্লিষ্ট বিষয়ে সম্পৃক্ত হতে চাওয়ার দাবির প্রতি বিসিএস (কাস্টমস এন্ড ভ্যাট) ও বিসিএস (ট্যাক্সেশন) অ্যাসোসিয়েশন ভিন্নমত প্রকাশ করেছে। উভয়ে, এই ধরনের অযৌক্তিক, এখতিয়ার বহির্ভূত এবং অর্থহীন দাবির বিষয়ে তীব্র ক্ষোভ ও গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে। 

ক্ষোভ প্রকাশ করে এ বিষয়ে একটি বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে উভয়ে বলে, সরকার পরিচালনা ও জনগণের সেবা নিশ্চিত করতে সরকার ২৮টি ক্যাডার সৃষ্টি করেছে। প্রত্যেকটি ক্যাডারের নিজস্ব কর্মের পরিধি ও প্রকৃতি সুনির্দিষ্টভাবে নির্ধারিত। 

রুলস আব বিজনেস অনুযায়ী, সরকারের অভ্যন্তরীণ রাজস্ব আহরণ এবং এ সংক্রান্ত নীতি নির্ধারনী কার্যক্রম পরিচালিত হয় বিসিএস (ট্যাক্সেশন) ও বিসিএস (কাস্টমস এন্ড ভ্যাট) ক্যাডারের মাধ্যমে। এই দুটি ক্যাডারের কর্মকর্তারা এনবিআরে নীতি নির্ধারনী নির্দেশনা অনুসরণ করে নিজস্ব আইনের আওতায় স্ব স্ব অধিক্ষেত্র থেকে সরকার নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী রাজস্ব সংগ্রহ করে। আয়কর অধ্যাদেশ-১৯৮৪, মূল্য সংযোজন কর ও সম্পূরক শুল্ক আইন-২০১২ ও কাষ্টমস আইন ১৯৬৯ অনুযায়ী রাজস্ব আদায়ের ক্ষমতা এ দুটি ক্যাডারের কর্মকর্তাদের উপর ন্যস্ত করা হয়েছে। বর্তমান সরকার রাজস্ব সংগ্রহের স্বার্থে এনবিআরের দাপ্তরিক নিয়ন্ত্রণ উপজেলা পর্যন্ত বিস্তৃত করেছে এবং এর নিজস্ব দাপ্তরিক কাঠামো ও জনবল দিয়ে সরকারের প্রয়োজনীয় রাজস্ব সংস্থানের জন্য নিরন্তর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

আরও বলা হয়, ডিসি সম্মেলনে ডিসি-ইউএনওরা জেলা এবং উপজেলা পর্যায়ে কমিটি গঠন করে রাজস্ব সংগ্রহ পরিবীক্ষণ করতে ইচ্ছা প্রকাশ করে প্রস্তাব পেশ করেছেন। এ ধরনের প্রস্তাব কেবল অন্যান্য পেশাভিত্তিক প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব আইনের আওতায় পরিচালিত কার্যক্রমে উপর অবৈধ এবং এখতিয়ার বহির্ভুত হস্তক্ষেপই নয়; বরং এর মাধ্যমে রাজস্ব আহরণ কার্যক্রমে একটি বিশৃঙ্খখলা সৃষ্টির আশংকা রয়েছে। বর্তমান সরকার যখন দেশের আর্থিক খাতে শৃঙ্খলা আনার প্রচেষ্টায় তৎপর সেই মূহুর্তে দুরভীসন্ধিমূলক এই প্রস্তাব পেশ করার মাধ্যমে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিষ্ঠিত দেশের ৮৮ ভাগ রাজস্ব যোগানকারী প্রতিষ্ঠান এনবিআরে অস্থিরতা সৃষ্টি করার এই অপতৎপরতার মূল উদ্দেশ্য খতিয়ে দেখা প্রয়োজন।

পেশাদারিত্বের বিপরীতে অবস্থান গ্রহণকারী প্রশাসন ক্যাডার তাদের উপর ন্যস্ত ভূমি রাজস্ব আহরণের ক্ষেত্রে কতটা পেশাদারিত্বের স্বাক্ষর রেখেছে তা বিবেচনায় আনা প্রয়োজন। ভূমি ব্যবস্থাপনা এবং এর বিপরীতে রাজস্ব আহরণে যে অব্যবস্থাপনা বিরাজ করছে সে বিষয়ে মনোনিবেশ না করে আরো নতুন দায়িত্ব পাওয়ার দাবি করাটা নি:সন্দেহে উদ্দেশ্যমূলক। বর্তমান সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়নের জন্য প্রয়োজনীয় রাজস্ব সংস্থানকারী দুটি ক্যাডারের কর্মকর্তাদের মনোবল বিনষ্টকারী এ ধরনের কর্মকান্ড সার্বিক উন্নয়ন কার্যক্রমকে ব্যাহত করবে বলে দুইটি অ্যাসোসিয়েশন মনে করে। দেশের জন্য অকল্যাণকর এ ধরণের কর্মকান্ড থেকে মাঠ পর্যায়ের প্রশাসন ক্যাডার কর্মকর্তাদের বিরত রাখার জন্য সরকারের নীতি নির্ধারণী মহলের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়েছে। একই সাথে এনবিআরের কর্মের স্বাতন্ত্রিক বৈশিষ্ট্য, ঐতিহ্য ও আইনী বাধ্যবাধকতা বিবেচনায় এনে এ ধরনের এখতিয়ার বহির্ভূত প্রস্তাবকে আমলে না নেয়ার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।

মাঠ পর্যায়ের প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তারা রাজস্ব সংগ্রহে বিদ্যমান আয়কর ও ভ্যাট আইনে যেসব দায়িত্ব দেয়া হয়েছে (উৎসে কর কর্তন বা সংগ্রহ করে তা নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ট্রেজারিতে জমা দিয়ে কর অফিসকে অবহিত করা) সেগুলো নিষ্ঠার সাথে পরিপালন করার বিষয়ে মনোযোগী হলে সার্বিকভাবে দেশ উপকৃত হবে। মোট রাজস্বের ৮৮ ভাগ আসে অভ্যন্তরীণ সম্পদ থেকে; যা এনবিআরের মাধ্যমে আহরিত হয়। এ দুটি ক্যাডারের কর্মকর্তাদের অক্লান্ত পরিশ্রম, নিষ্ঠা এবং দক্ষতার মাধ্যমে অর্জিত রাজস্ব দিয়েই সরকার পরিচালনা ব্যয় ও উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিচালিত হয়। সে কারণে এনবিআরের আওতাধীন রাজস্ব আহরণ কার্যক্রমে কঠোরভাবে শৃঙ্খলা অটুট ও দৃঢ় রাখার জন্য রাষ্ট্রকে নিরন্তর প্রচেষ্টা চালাতে হবে। সেজন্য এ দুটি ক্যাডারের কর্মকর্তাদের দায়িত্ব পালনে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা প্রদানে ভূমিকা রাখার আহ্বান জানানো হয়।

হামলার পরেও মৌলিক সেবা থেকে বঞ্চিত করেছে- ভিপি নুর রাতে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী গুগল ম্যাপের সাহায্যে বাড়ি ফিরলো মেয়েটি নবম ওয়েজ বোর্ড নিয়ে আপিলের আদেশ মঙ্গলবার ধর্ষণের থেকে মুক্তি চাইতে গিয়ে ভাইয়ের কাছেও... রাজধানীতে ‘আল্লাহর সরকার’ ৪ জঙ্গি আটক ২০৫০-মধ্যে তলিয়ে যেতে পারে জাকার্তা মার্কিনকে চাপ অগ্রাহ্য করে জিব্রাল্টার ছাড়ল ইরানি ট্যাংকার কনস্টেবলের লক্ষ্যভ্রষ্ট গুলি এএসপির বাসায় স্বামীর লাশ দেখে মারা গেলেন স্ত্রীও পদ্মায় ফেরি-লঞ্চ সংর্ঘষ, অল্পের জন্য বেঁচে যান ৩ শতাধিক যাত্রী মেসিকে খুশি রাখতেই নেইমার ‘নাটক’ জেলা প্রশাসকের কাছে সততার পুরস্কার পেলেন অটোচালক সিরাজগঞ্জে কাপড় ব্যবসায়ীর স্ত্রী-কন্যা নিখোঁজ পেয়ারা পাড়তে গিয়ে স্কুলছাত্রীর করুণ মৃত্যু খুলনার সঙ্গে রেল যোগাযোগ বন্ধ ভারত পরমাণু যুদ্ধ বাধাতে পারে: ইমরান খান রাঙামাটিতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে সেনা সদস্য নিহত এক মাসেই তিনবার বাড়লো সোনার দাম ছাত্রদলের নেতেৃত্বে আসতে মনোনয়নপত্র কিনলেন ১০৮ জন ‘অদৃশ্য খুঁটির’ জোরে ৪ লাখ টাকার গাছ ৮০ হাজার টাকায় বিক্রি সিপিডির ভবনে এডিস মশার লার্ভা, ২০ হাজার টাকা জরিমানা শোক দিবসের আলোচনা সভা করবেন ড. কামাল চামড়া শিল্পে আপাতত সমস্যা নেই: শিল্পমন্ত্রী শোক দিবসের অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগের রক্তদান সোমবার রাতে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অতিরিক্ত ডিআইজি হলেন পুলিশের ২০ কর্মকর্তা এএসপির মেয়ের টেবিলের ওপর আঘাত হানলো কনস্টেবলের গুলি চামড়া বিক্রি বন্ধের সিদ্ধান্তে নেই আড়তদাররা দেশে এলো কলকাতায় নিহত ২ বাংলাদেশির মরদেহ