artk
সোমবার, আগষ্ট ১৯, ২০১৯ ৩:০৪   |  ৪,ভাদ্র ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮, ২০১৯ ৭:১৭

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বিনিয়োগকারীদের স্মারকলিপি পেশ

media

পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রণ করতে ব্যর্থ বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এম খায়রুল হোসেনসহ পুরো কমিশনারদের অপসারণ করে কমিশন পুনঃগঠন করার দাবিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কার্যালয়ে গিয়ে ১৫ দফার একটি স্মারকলিপি জমা দিয়েছেন বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদ নেতারা।

পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রণ করতে ব্যর্থ বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এম খায়রুল হোসেনসহ পুরো কমিশনারদের অপসারণ করে কমিশন পুনঃগঠন করার দাবিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কার্যালয়ে গিয়ে ১৫ দফার একটি স্মারকলিপি জমা দিয়েছেন বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদ নেতারা।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটে ২৭ লাখ বিনিয়োগকারী পক্ষে পরিষদের নেতারা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে গিয়ে এ স্মারকলিপি জমা দেন। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ৪ নম্বর গেটের দায়িত্বরত কর্মকর্তা রুহুল আমিনের কাছে ওই স্মারকলিপি জমা দেন তারা। এসময় ওই স্মারকলিপিতে ড. এম খায়রুল হোসেনসহ পুরো কমিশনারদের অপসারণ করে কমিশন পুনঃগঠনসহ ১৫ দফা দাবিদাবা রয়েছে তাদের।

এসব দাবিগুলো হলো- ইস্যু মূল্যের নিচে অবস্থান করা শেয়ারগুলো নিজ নিজ কোম্পানিগুলোর পরিচালনা পর্ষদকে ইস্যু মূল্যে শেয়ার বাইব্যাক করতে হবে। বাইব্যাক আইন পাশ করতে হবে; ২ সিসি আইনের বাস্তবায়ন করতে যে সকল কোম্পানির উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের ব্যক্তিগত ২ শতাংশ, সম্মিলিতভাবে ৩০ শতাংশ শেয়ার নেই, ঐ সকল উদ্যোক্তা পরিচালক ও কোম্পানিগুলোকে শেয়ার ধারণ কতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে; প্লেসমেন্ট শেয়ারের অবৈধ বাণিজ্য বন্ধ করতে হবে এবং প্লেসমেন্ট শেয়ারের লকইন পিরিয়ড ৫ বছর করতে হবে। পুঁজিবাজার স্থিতিশীল না হওয়া পর্যন্ত সকল প্রকার আইপিও, রাইট শেয়ার অনুমোদন দেওয়া বন্ধ করতে হবে; খন্দকার ইব্রাহিম খালেদের তদন্ত কমিটির রিপোর্ট অনুযায়ী শেয়ারবাজার কারসাজির সাথে জড়িত ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে আইনের আওতায় এনে বিচারের ব্যবস্থা করতে হবে; জেড ক্যাটাগরি এবং ওটিসি মার্কেট বলতে কোন মার্কেট থাকতে পারবে না। কোম্পানি আইনে কোথাও জেড ক্যাটাগরির ও ওটিসি মার্কেটের উল্লেখ নেই; পাবলিক ইস্যু রুলস ২০১৫ বাতিল করতে হবে; পুঁজিবাজারের প্রাণ মিউচ্যুয়াল ফান্ডগুলোকে পুঁজিবাজারে সক্রিয় হতে বাধ্য করুন এবং প্রত্যেক ফান্ডের নূন্যতম ৮০ শতাংশ পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ করতে হবে; সাধারণ বিনিয়োগকারী আইপিও কোটা ৮০ শতাংশ করতে হবে এবং তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোকে ১০ শতাংশ হারে লভ্যাংশ প্রদান করতে হবে; জানুয়ারি ২০১১ থেকে জুন ২০১৯ পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্থ সাধারণ বিনিয়োগকারীদের মার্জিন লোনের সুদ সম্পূর্ণ মওকুফ করতে হবে; পুঁজিবাজারে অর্থের যোগান বৃদ্ধির জন্য সহজশর্তে অর্থাৎ ৩ শতাংশ সুদে ১০ হাজার কোটি টাকার বিশেষ বরাদ্দ দিতে হবে। যা আইসিবি, বিভিন্ন মার্চেন্ট ব্যাংক ও ব্রোকার হাউজের মাধ্যমে ৫ শতাংশ হারে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা লোন হিসাবে বিনিয়োগের সুযোগ পাবে; অপ্রদর্শিত অর্থ বিনা শর্তে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের সুযোগ দিতে হবে; জীবন বীমা খাতের বিপুল অলস ও সঞ্চিত অর্থের ৪০ শতাংশ পুঁজিবাজারে বিনিয়োগে বাধ্য করুন; জীবন বাচাঁতে এবং ন্যায্য দাবিতে আন্দোলনরত সাধারণ বিনিয়োগকারীদের বিরুদ্ধে সকল প্রকার মামলা প্রত্যাহার ও পুলিশি হয়রানি বন্ধ করতে হবে; ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের বিপরীতে বাংলাদেশ স্টক এক্সচেঞ্জ নামে বিকল্প স্টক এক্সচেঞ্জ করতে হবে, এর ফলে কারসাজি বন্ধ করা যাবে।

এর আগে ওই ১৫ দফা দাবি নিয়ে বিনিয়োগকারীর পক্ষ হয়ে বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদ নেতারা বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টার দিকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের উদ্দেশ্যে রওনা শুরু করেন। আর সন্ধ্যা ৬টার কিছু আগে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রবেশ করেন। 

তারা, প্রথমে রাজেপথে পায়ে হেঁটে ডিএসইর ভবন থেকে শুরু করে মতিঝিল শাপলা চত্বর, আরামবাগ হয়ে কাকরাইলে যান। এতে ওই এলাকায় যানজট সৃষ্টি হয়। জনগনের ভোগান্তি দূর করতে পরে কাকরাইল থেকে সাদা প্রাইভেটকারে করে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পৌচ্ছান তারা। এরপর বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদের সভাপতি মিজান উর রশিদ নেতৃত্বের ওই প্রতিনিধি দল প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের ৪ নম্বর গেটে দায়িত্বরত রুহুল আমিনের কাছে ওই স্মারকলিপি জমা দেন।

এর আগে দুপুর দুইটায় রাজধানীর ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ভবনের সামনে পুঁজিবাজারের দরপতনসহ সূচক ধস রোধের প্রতিবাদে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা রাজপথে বিক্ষোভ করেছেন। গত পাঁচ কার্যদিবসের মতো আজও এ বিক্ষোভের নেতৃত্ব দেন বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদ। দুপুর তাদের নেতৃত্বে ডিএসইর সামনে আন্দোলন করেছে বিনিয়োগকারীরা। এসময় ‘পুঁজিবাজার পড়ছে কেন, জবাব চাই দিতে হবে’এমন স্লোগানে মুখরিত হয়ে পড়ে মতিঝিলের ডিএসই ভবন এলাকা।

তারা বলেন, পুঁজিবাজারে বর্তমানে জটিল অবস্থা বিরাজ করছে। এ অবস্থায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করছে। তাদের মতে, প্রধানমন্ত্রীর পদক্ষেপ নিলেই কেবল পুঁজিবাজার বিনিয়োগবান্ধব হবে।

পুঁজিবাজারের এ করুন অবস্থার জন্য বিএসইসিকে প্রধান দায়ী করে বিনিয়োগকারীরা বলেন, বাজারের এমন নাজুক দশা দূর করতে যদি বিএসইসি থেকে কার্যকরী পদক্ষেপ নেয়া হতো তাহলে বাজার ঘুরে যেত। যেহেতু দীর্ঘসময়ের পরও তারা এমন করতে ব্যর্থ হয়েছে তাদের পদত্যাগ করা উচিত।

অপত্যাশিতভাবে ডিএসইর সূচকে ধসসহ শেয়ারেরও দরপতন এমন উক্তি বিনিয়োগকারীরা বলেন, ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ধারাবাহিক কমে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার একশত পয়েন্টে। আমরা দিনের পর দিন পুঁজিবাজারের উত্থানে নানা কর্মসূচি করে আসছি বিক্ষোভে বিনিয়োগকারীরা বলেন, কিন্তু রেগুলেটরসহ সংশ্লিষ্টদের কাছ এ ব্যাপারে কোনো প্রকার ইতিবাচক সাড়া পাচ্ছি না। কেন জানি দেখেও না দেখা ভান করছে বিএসইসি।

হামলার পরেও মৌলিক সেবা থেকে বঞ্চিত করেছে- ভিপি নুর রাতে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী গুগল ম্যাপের সাহায্যে বাড়ি ফিরলো মেয়েটি নবম ওয়েজ বোর্ড নিয়ে আপিলের আদেশ মঙ্গলবার ধর্ষণের থেকে মুক্তি চাইতে গিয়ে ভাইয়ের কাছেও... রাজধানীতে ‘আল্লাহর সরকার’ ৪ জঙ্গি আটক ২০৫০-মধ্যে তলিয়ে যেতে পারে জাকার্তা মার্কিনকে চাপ অগ্রাহ্য করে জিব্রাল্টার ছাড়ল ইরানি ট্যাংকার কনস্টেবলের লক্ষ্যভ্রষ্ট গুলি এএসপির বাসায় স্বামীর লাশ দেখে মারা গেলেন স্ত্রীও পদ্মায় ফেরি-লঞ্চ সংর্ঘষ, অল্পের জন্য বেঁচে যান ৩ শতাধিক যাত্রী মেসিকে খুশি রাখতেই নেইমার ‘নাটক’ জেলা প্রশাসকের কাছে সততার পুরস্কার পেলেন অটোচালক সিরাজগঞ্জে কাপড় ব্যবসায়ীর স্ত্রী-কন্যা নিখোঁজ পেয়ারা পাড়তে গিয়ে স্কুলছাত্রীর করুণ মৃত্যু খুলনার সঙ্গে রেল যোগাযোগ বন্ধ ভারত পরমাণু যুদ্ধ বাধাতে পারে: ইমরান খান রাঙামাটিতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে সেনা সদস্য নিহত এক মাসেই তিনবার বাড়লো সোনার দাম ছাত্রদলের নেতেৃত্বে আসতে মনোনয়নপত্র কিনলেন ১০৮ জন ‘অদৃশ্য খুঁটির’ জোরে ৪ লাখ টাকার গাছ ৮০ হাজার টাকায় বিক্রি সিপিডির ভবনে এডিস মশার লার্ভা, ২০ হাজার টাকা জরিমানা শোক দিবসের আলোচনা সভা করবেন ড. কামাল চামড়া শিল্পে আপাতত সমস্যা নেই: শিল্পমন্ত্রী শোক দিবসের অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগের রক্তদান সোমবার রাতে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অতিরিক্ত ডিআইজি হলেন পুলিশের ২০ কর্মকর্তা এএসপির মেয়ের টেবিলের ওপর আঘাত হানলো কনস্টেবলের গুলি চামড়া বিক্রি বন্ধের সিদ্ধান্তে নেই আড়তদাররা দেশে এলো কলকাতায় নিহত ২ বাংলাদেশির মরদেহ