artk
শনিবার, ডিসেম্বার ৭, ২০১৯ ৭:৪৫   |  ২৩,অগ্রহায়ণ ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

মঙ্গলবার, জুলাই ১৬, ২০১৯ ৮:০২

ক্যাপটেক পপুলার ফান্ড ও ব্যাংক এশিয়ার বন্ড অনুমোদন

media

জানা গেছে, বে-মেয়াদী মিউচ্যুয়াল ফান্ড ক্যাপটেক পপুলার লাইফ ইউনিট ফান্ডটির প্রাথমিক লক্ষ্যমাত্রা হচ্ছে ২৫ কোটি টাকা। ফান্ডটির উদ্যোক্তার অংশ ৫ কোটি টাকা এবং সকল বিনিয়োগকারীদের জন্য বরাদ্দ রাখা হয়েছে ২০ কোটি টাকা। যা ইউনিট আকারে বিক্রির মাধ্যমে উত্তোলন করা হবে।

বে-মেয়াদী মিউচ্যুয়াল ফান্ড ক্যাপটেক পপুলার লাইফ ইউনিট ফান্ডের খসড়া প্রসপেক্টাস অনুমোদন করেছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। 

একইদিনে ব্যাংক এশিয়ার ৫শত কোটি টাকার নন-কনভার্টেবল সাবঅর্ডিনেটেড বন্ডের প্রস্তাব অনুমোদন করে সংস্থাটি।  

বিএসইসর ৬৯৩তম কমিশন সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে বিএসইসির নির্বাহি পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সাইফুর রহমান সাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, বে-মেয়াদী মিউচ্যুয়াল ফান্ড ক্যাপটেক পপুলার লাইফ ইউনিট ফান্ডটির প্রাথমিক লক্ষ্যমাত্রা হচ্ছে ২৫ কোটি টাকা। ফান্ডটির উদ্যোক্তার অংশ ৫ কোটি টাকা এবং সকল বিনিয়োগকারীদের জন্য বরাদ্দ রাখা হয়েছে ২০ কোটি টাকা। যা ইউনিট আকারে বিক্রির মাধ্যমে উত্তোলন করা হবে।

ফান্ডটির প্রতিটি ইউনিটের অভিহিত মূল্য ১০ টাকা। ফান্ডটির উদ্যোক্তা পপুলার লাইফ ইন্স্যুরেন্স এবং সম্পদ ব্যবস্থাপক ক্যাপটেক অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট। এছাড়া ফান্ডটিরর ট্রাস্টি ও কাস্টডিয়ান হিসেবে কাজ করছে ইনভেস্টমেন্ট কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ।

অপরদিকে, ব্যাংক এশিয়ার ৫ শত কোটি টাকার নন-কনভার্টেবল সাবঅর্ডিনেটেড বন্ডের প্রস্তাব অনুমোদন করেছে বিএসইসি। ৭ বছর মেয়াদী এই বন্ডের বৈশিষ্ট্য হচ্ছে নন-কনভার্টেবল, আনলিস্টেড, ফুল্লি রিডেম্বল, ফ্লাটিং রেটেড এবং সাবঅর্ডিনেটেড বন্ড। ৭ বছরে বন্ডটি পূর্ণ অবসায়ন হবে। যা শুধুমাত্র স্থানীয় আর্থিক প্রতিষ্ঠান, বীমা কোম্পানি, কর্পোরেট বডি এবং যোগ্য বিনিয়োগকারীদের মধ্যে প্রাইভেট প্লেসমেন্টের মাধ্যমে ইস্যু করা হবে।

এ বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে অর্থ উত্তোলন করে ব্যাংক এশিয়ার টায়ার-টু মূলধন ভিত্তি শক্তিশালী করবে। বন্ডের প্রতিটি ইউনিটির অভিহিত মূল্য ১ কোটি টাকা। বন্ডেরর ম্যানডেটেড লিড অ্যারেঞ্জার এবং ট্রাস্টি হিসাবে যথাক্রমে স্ট্যান্ডার্ড চাটার্ড ব্যাংক এবং গ্রিন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স কাজ করছে।

বাংলাদেশের ১৭ জেলেকে ফেরত দিয়েছে মিয়ানমার বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির প্রস্তাব বাতিলের দাবিতে গণস্বাক্ষর শনিবার বাঁশখালীতে জেলের জালে বিশাল হোয়েল শার্ক! সিলেট আ.লীগের নেতৃত্ব হারালেন কামরান পৃথিবীর অনেক দেশের তুলনায় আমরা মেধাবী: তথ্যমন্ত্রী ধর্মঘটে অচল অবস্থা বিরাজ করছে ফ্রান্সে চট্টগ্রামে এবার থানায় বিক্রি হবে পেঁয়াজ ভারতের অবদান ছাড়া মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস অসম্পূর্ণ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী শিকাগোর অফিস-আদালতে বাংলা ভাষা! খালেদার স্বাস্থ্য বিষয়ে নিরপেক্ষ প্রতিবেদন নিয়ে ফখরুলের সংশয় ১৭ জেলেকে আটক করেছে মিয়ানমার উল্টোপথের বাসের চাকায় পিষ্ট পথচারী অবশেষে বিয়ের পিঁড়িতে মিথিলা-সৃজিত রুম্পার মৃত্যুর ধোঁয়াশা কাটেনি ১ জন ছাড়া অন্য যেকোনো পদে পরিবর্তন: কাদের আপিল বিভাগে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে সরকার: মন্ত্রী বীরত্বে পদক পাচ্ছেন ডিজিসহ বিজিবির ৬০ সদস্য আইএস এর সেই টুপি খুঁজে পাচ্ছে না পুলিশ নামাজ পড়লে সুস্থ থাকা যায়: মার্কিন গবেষণা মৌলভীবাজারে ৪শ একর জমিতে কমলার চাষ ২০১৯ সালের সেরা অ্যাপ কল অফ ডিউটি আ.লীগে এখন কর্মীর চেয়ে নেতার সংখ্যা বেশি: কাদের প্রকৌশল শিক্ষায়ও সৃজনশীলতার প্রচুর সুযোগ রয়েছে: রাষ্ট্রপতি ‘সুদের হার কমেনি, ১১ মাস কী করলেন অর্থমন্ত্রী’ ৬ রানে অলআউট মালদ্বীপ পিরোজপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ২ জনের মৃত্যু পুঁজিবাজারে সূচকের পতন, লেনদেনও মন্দা রোহিঙ্গাদের কারণে স্থানীয়দের কর্মসংস্থানের সুযোগ কমছে: টিআইবি বিএনপির আইনজীবীদের বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করা উচিত: নাসিম আপিল বিভাগে এমন অবস্থা আগে কখনো দেখিনি: প্রধান বিচারপতি