artk
রোববার, জুলাই ২১, ২০১৯ ১০:০১   |  ৬,শ্রাবণ ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

বৃহস্পতিবার, জুলাই ১১, ২০১৯ ১০:৫২

অস্ত্র আইনে দণ্ড কমের ব্যাখ্যা চান হাইকোর্ট

media

অস্ত্র মামলা আইনের বিধান অনুযায়ী আসামিকে নির্ধারিত সাজার (সর্বনিম্ন ১০ বছর) থেকে কম (৭ বছরের দণ্ড) সাজা দেয়ার কারণ জানাতে নাটোরের তিন নম্বর বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক বেগম রুবাইয়া ইয়াসমিনের কাছে ব্যাখ্যা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট।

অস্ত্র মামলা আইনের বিধান অনুযায়ী আসামিকে নির্ধারিত সাজার (সর্বনিম্ন ১০ বছর) থেকে কম (৭ বছরের দণ্ড) সাজা দেয়ার কারণ জানাতে নাটোরের তিন নম্বর বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক বেগম রুবাইয়া ইয়াসমিনের কাছে ব্যাখ্যা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট।

আগামী ২৫ জুলাইয়ের মধ্যে তাকে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে। সেদিন পরবর্তী আদেশের জন্য দিন ধার্য করেছেন আদালত।

ওই কোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে আসামির আপিল আবেদনের শুনানিতে বৃহস্পতিবার হাইকোর্টের বিচারপতি এএনএম বশির উল্লাহ ও বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলামের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে আসামিপক্ষের শুনানিতে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট মো. তাহেরুল ইসলাম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. আমিনুল ইসলাম ও আনোয়ারা শাহজাহান এবং সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল ফাতেমা রশিদ।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আমিনুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, ২০১৭ সালের ২৭ জুলাই পিস্তলসহ মো. রাজ্জাককে গ্রেফতার করে পুলিশ। একইদিন তার বিরুদ্ধে নাটোর সদর থানায় মামলা হয়। এই মামলায় বিচার শেষে চলতি বছরের ২৮ মার্চ রাজ্জাককে সাত বছরের কারাদণ্ড দেন নাটোরের তিন নম্বর বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক বেগম রুবাইয়া ইয়াসমিন। ১৮৭৮ সালের অস্ত্র আইনের ১৯(ক) ধারায় এই সাজা দেয়া হয়। অথচ আইনের এই ধারায় সর্বোচ্চ শাস্তি যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং সর্বনিম্ন সাজা ১০ বছর কারাদণ্ড।

আসামি ওই রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল আবেদন করেন। বৃহস্পতিবার আদালত তার আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ করে নথি তলব করেছেন। একই সঙ্গে দণ্ডের বিষয়টি নজরে আসায় ওই বিচারকের কাছে বিষয়টি জানতে ব্যাখ্যা চেয়েছেন হাইকোর্ট।

আইনের কোন কর্তৃত্ববলে এ আদেশ দিয়েছেন তা আগামী ২৫ জুলাইয়ের মধ্যে বিচারক বেগম রুবাইয়া ইয়াসমিনকে ব্যাখ্যা দিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আদালত আগামী ২৫ জুলাই পরবর্তী আদেশের জন্য দিন ধার্য করেছেন।

যে ১৪ আত্মমূল্যায়নের প্রশ্নে বদলে যেতে পারে জীবন সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবিতে মস্কোতে হাজারো নাগরিকের বিক্ষোভ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মঞ্চেই মারা গেলেন ভারতীয় কৌতুকাভিনেতা নিজের পিস্তলের গুলিতে আহত ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতা কুমিল্লায় টেলিভিশন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত ছেলেধরা সন্দেহে পিটিয়ে হত্যা: ৫শ জনের বিরুদ্ধে মামলা পঞ্চগড়ে মাছ ধরতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দুই ছেলেসহ বাবার মৃত্যু হজক্যাম্পের আশপাশের রেস্তোরাঁয় পচা খাবার, জরিমানা ২৬ লাখ জনগণকে নিয়ে গণঅভ্যুত্থান ঘটাতে হবে: ফখরুল ট্রাম্পের দাবি নাকচ, এই সেই ইরানি ড্রোন! জামালপুরে বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত শ্বশুরকে হত্যা করে পলাতক জামাই ইনডোর এশিয়া কাপ হকিতে বাংলাদেশ সপ্তম আইনি লড়াইয়ে খালেদার মুক্তি নেই: গয়েশ্বর গণপিটুনির সঙ্গে জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে কাদেরের মাথায় হাত বুলিয়ে রওশনের আশীর্বাদ ‘স্থানীয় হিন্দু-মুসলমানদের হয়রানি করছেন প্রিয়া সাহা’ দিল্লির ৩ বারের মুখ্যমন্ত্রী শীলা দীক্ষিত মারা গেছেন মিন্নিকে আইনি সহায়তা দিতে বরগুনায় আসকের ৪ আইনজীবী প্রিয়া সাহার অভিযোগ নিয়ে যা বলল জামায়াত সাংবাদিক পাইলেই গুলি করে মারব: ছাত্রলীগ নেতা ইঞ্জিনে পাখির বাসা, দেড়মাস বসে থাকলেন ট্রাকচালক উইন্ডিজ সফরে না গিয়ে সেনাবাহিনীতে সময় দেবেন ধোনি ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনি, প্রাণ গেলো ৩ জনের যে পরিচয়ে হোয়াইট হাউসে গিয়েছেন প্রিয়া সাহা টাইগারদের বিপক্ষে খেলেই অস্ট্রেলিয়ায় স্থায়ী হচ্ছেন মালিঙ্গা! পদ্মার পানি বাড়লে মধ্যাঞ্চলে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে বাসা ভাড়া নিয়ে দেহ ব্যবসা সৈয়দপুরে জনসমাগম দেখলেই সরকার আতঙ্কে শিউরে ওঠে: ফখরুল নেত্রী ও গণতন্ত্র মুক্ত করার আন্দোলন শুরু হয়েছে: দুদু