artk
বৃহস্পতিবার, অক্টোবার ১৭, ২০১৯ ৩:১৯   |  ২,কার্তিক ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

বৃহস্পতিবার, জুলাই ১১, ২০১৯ ৭:৫৬

‘পতন অব্যাহত থাকলে মারা যাব’

media

পুঁজিবাজারের পতন অবস্থার প্রতিবাদে বৃষ্টি মধ্যেও সাধারণ বিনিয়োগকারীরা রাজপথে বিক্ষোভ করেছেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ভবনের সামনে ফের বিনিয়োগকারীরা এ বিক্ষোভ করেন।

পুঁজিবাজারের পতন অবস্থার প্রতিবাদে বৃষ্টি মধ্যেও সাধারণ বিনিয়োগকারীরা রাজপথে বিক্ষোভ করেছেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ভবনের সামনে ফের বিনিয়োগকারীরা এ বিক্ষোভ করেন।

গতকালের মতো আজও এ বিক্ষোভের নেতৃত্ব দেন বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদ। দুপুর দেড়টা থেকে তিনটা পর্যন্ত তাদের নেতৃত্বে ডিএসইর সামনে আন্দোলন করেছে বিনিয়োগকারীরা।

বিক্ষোভে বিনিয়োগকারীরা বলেন, আমরা দিনের পর দিন পুঁজিবাজারের উত্থানে নানা কর্মসূচি করে আসছি। কিন্তু রেগুলেটরসহ সংশ্লিষ্টদের কাছ এ ব্যাপারে কোনো প্রকার ইতিবাচক সাড়া পাচ্ছি না। কেন জানি দেখেও দেখে না। 

পতনের কারণে পুঁজি হারাচ্ছে এমন ক্ষোভ প্রকাশ করে বিক্ষোভে বিনিয়োগকারীরা বলেন, বিনিয়োগ হারিয়ে আমরা রাস্তায় এসে পড়েছি। বর্তমান অবস্থা অব্যাহত থাকলে আমরা গণহারে মারা পরব।

বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) কর্মকর্তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বিনিয়োগকারীরা বলেন, বিএসইসির কর্মকর্তারা যদি বিনিয়োগকারীদের কথা চিন্তা করে কাজ করেন তবে বাজারে যে চলমান অস্থিরতা থাকবেনা। 

বিক্ষোভে বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদের সভাপতি মিজান উর রশিদ বলেন, বাজারের চলমান দুরবস্থা কাটাতে আমরা আন্দোলন করছি। আমরা উত্থান পুঁজিবাজার চাই। রোববার বিনিয়োগকারীরা ডিএসইর সামনে আবার একযোগে আন্দোলন করব এবং বাজার ঠিক না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে।

মিজান উর রশিদ আরও বলেন, দরপতনের প্রতিবাদে আমরা রোজার ঈদের আগেও মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছি। কিন্তু পতন ঠেকাতে কেউ কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না। আমাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। তাই ফের আন্দোলনে নেমেছি। পতন রোধে আগামীতে বিনিয়োগকারীদের নিয়ে আরও কঠোর কর্মসূচি দিব।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটে পুঁজিবাজারের স্থিতিশীলতা এবং ঊর্ধ্বমুখী বাজারের স্বার্থে বেশ কিছু পদক্ষেপ নিলেও বাজারের নীতি নির্ধারক সংস্থার এদিকে ইতিবাচক নজর নেই। ইস্যুয়ার কোম্পানিবান্ধব নীতিনির্ধারক সংস্থা থাকলে বাজারের চলমান দুরবস্থা থামাতে কেউ এগিয়ে আসছে না।

আবরার হত্যার দায়ে ছাত্রলীগকে নিষিদ্ধ করার দাবি আ স ম রবের বিজ্ঞাপনে বিদেশি শিল্পী নিলে বেশি টেক্স দিতে হবে: তথ্যমন্ত্রী নভেম্বরে বাংলাদেশ-ভারত টেস্টে ইডেনে থাকতে পারেন হাসিনা-মোদি পেঁয়াজে বেশি মুনাফার চেষ্টা করা হলে ব্যবস্থা: চট্টগ্রামের ডিসি ভারতে আটকে আছে ৫০০ টন পেঁয়াজ রামপালে আ.লীগের সম্মেলন ঘিরে দুপক্ষের উত্তেজনা আমার দাদা রুদ্র ১৮ বছর পর মামলা থেকে অব্যাহতি পেলেন নিরপরাধ বাবলু শেখ পাহাড়ে অহেতুক রক্তপাত হচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অভিযোগ আমারও আছে কিন্তু বিচ্ছেদ চাই না: সিদ্দিক প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ফিফা সভাপতির সাক্ষাৎ বাংলাদেশ ফুটবল দলের পারফরমেন্স চোখে পড়ার মতো: ফিফা সভাপতি জামাল ভূঁইয়ার ফেসবুক পেজ বন্ধ! হঠাৎ কি হল তামিমের? ছাত্রদলের সভাপতি-সম্পাদককে আদালতে হাজিরের নির্দেশ রাজধানীতে জেএমবি’র তিন সদস্য আটক দুই বস্তা ইলিশসহ জনতার হাতে ৩ পুলিশ আটক আইএস যোদ্ধাদের সন্তানের ভবিষ্যৎ কী কম দামে আইফোন আনছে অ্যাপল সাদা ঘোড়ায় ছুটে কী জানান দিলেন কিম? খুলনার থ্রি ডক্টরস কোচিংয়ের বিষয়ে তদন্ত চলছে প্লাস সাইজ মার্কিনকন্যা খুঁজছেন ভারতীয় পাত্র হংকং নিয়ে ‘নাক না গলাতে’ যুক্তরাষ্ট্রকে চীনের হুঁশিয়ারি আবারও গোল্ডেন বুট জিতলেন মেসি হানিফ ফ্লাইওভারে মোটরসাইকেল আরোহী নিহত ব্রেকফাস্টে পিনাট বাটার আর আপেল একসঙ্গে নয় কক্সবাজারে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২ বর্ষপঞ্জি সংস্কার, ১ দিন পিছিয়ে হেমন্তের শুরু একজন রোগীর জন্য ওষুধ তৈরি করলেন বিজ্ঞানীরা ফরিদপুরে গাড়িচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত