artk
মঙ্গলবার, জুলাই ১৬, ২০১৯ ১১:০৬   |  ১,শ্রাবণ ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

মঙ্গলবার, জুলাই ৯, ২০১৯ ২:২৯

বাগেরহাটে শিশু হত্যা: মাসহ মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ৩ আসামি খালাস

media

বাগেরহাটের মোল্লাহাট উপজেলায় দেড় বছরের শিশু ডিপজলকে পানিতে ফেলে হত্যার ঘটনায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত শিশুটির মাসহ তিনজনকে খালাস দিয়েছেন হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার বিচারপতি কৃষ্ণা দেবনাথ ও বিচারপতি সহিদুল করিমের হাইকোর্ট বেঞ্চ আসামিদের আপিল মঞ্জুর এবং ডেথ রেফারেন্স খারিজ করে এ রায় দেন।

আদালতে আসামিপক্ষে ছিলেন এ কে এম ফজলুল হক খান ফরিদ। সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী সাইফুর রহমান রাহি। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এম এ মান্নান মোহন ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল আতিকুল হক সেলিম।

রায়ে আদালত বলেন, “রাষ্ট্রপক্ষ অভিযোগ প্রমাণে ব্যর্থ হওয়ায় আসামিদের বেকসুর খালাস দেয়া হলো।”

এ বিষয়ে আসামিপক্ষের আইনজীবী এ কে এম ফজলুল হক খান ফরিদ সাংবাদিকদের বলেন, “মামলার বাদী শিশুটির বাবা নিজেই বলেছেন, ঘটনার দিন শিশু ডিপজল তার মায়ের সঙ্গে রাতে ঘুমিয়ে ছিল। সঙ্গে শিশুটির নানিও ছিলেন। এক কক্ষবিশিষ্ট কক্ষ হওয়ায় আমি ঘরের বারান্দায় ঘুমিয়ে ছিলাম। কিন্তু আসামি মনির মোল্লা হত্যা করেছেন কিনা এ বিষয়ে আমার সন্দেহ রয়েছে। এ ছাড়া মামলার চাক্ষুস সাক্ষী না থাকায় আসামিরা খালাস পেয়েছেন।”

অপর আইনজীবী এম এ মান্নান মোহন বলেন, “সাক্ষীদের সাক্ষ্যে গরমিল থাকাসহ বিভিন্ন কারণে ডেথ রেফারেন্স রিজেক্ট করা হয়েছে। এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আপিল করা হবে।”

এর আগে ২০০৪ সালের ২১ এপ্রিল শিশু ডিপজল হত্যা মামলায় বাগেরহাটের দায়রা জজ আদালত মামলার বাদী ইকু বিশ্বাসের স্ত্রী ও ডিপজলের মা লতিফা বেগম, একই গ্রামের আয়েন উদ্দিন মোল্যার ছেলে মনির মোল্যা ও লুৎফর রহমানের স্ত্রী নাজমা বেগমকে মৃত্যুদণ্ড দেন। তাদের মধ্যে মনির মোল্যা ও নাজমা বেগম সম্পর্কে ভাইবোন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, লতিফা বেগমের সঙ্গে প্রতিবেশী মনির মোল্যার পরকীয়া সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এ নিয়ে ঝগড়ার পর স্ত্রী লতিফা বেগমকে মারধর করেন ইকু বিশ্বাস। পরকীয়ায় বাধা ও মারধরের ঘটনায় আসামিরা ইকু বিশ্বাসের ওপর ক্ষিপ্ত হন।

২০০৫ সালের ১২ এপ্রিল ভোরে ডিপজল নিখোঁজ হয়। পরের দিন বাড়ির পাশের একটি পুকুর থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ওই দিনই মোল্লাহাট থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা করা হয়।

তবে ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর ওই বছরের ২৯ অক্টোবর মনির মোল্যা ও নাজমা বেগমকে আসামি করে মোল্লাহাট থানায় একটি হত্যা মামলা করেন ইকু বিশ্বাস। তদন্ত শেষে ২০০৬ সালের ১০ মে এজাহারভুক্ত দুই আসামি ও শিশুটির মা লতিফা বেগমকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়।

এরপর বিচার শেষে ২০১৪ সালের ২১ এপ্রিল রায় ঘোষণা করা হয়। পরে নিম্ন আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে আসামিদের করা আপিল ও ডেথ রেফারেন্স শুনানি শেষে আজ আদালত এ আদেশ দেন।

অর্থ আত্মসাতের মামলায় ফারইস্ট কো-অপারেটিভের চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার রংপুরে নেওয়া হচ্ছে এরশাদের মরদেহ শ্রীলঙ্কা সফরে বাংলাদেশের কোচ সুজন মেহেরপুরে টানা ষষ্ঠ দিনের মতো বাস চলাচল বন্ধ যে তেল মুখে মাখলে বয়স বাড়বে না অনবরত হাঁচি হলে যা করবেন ফাইভ-জি নেটওয়ার্ক কি ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়াবে? রাজশাহীতে বন্দুকযুদ্ধের সময় ‘পানিতে ডুবে’ মাদক ব্যবসায়ীর মৃত্যু রাজধানীতে ১৯ লাখ জাল রুপিসহ গ্রেপ্তার ৩ ৩৭তম বিসিএসের সবাই চাকরি পাচ্ছেন শেরপুরে বন্যার কারণে ৪২ বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা নারায়ণগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে কার্যকর নতুন টিকা ঈদুল আজহা উপলক্ষে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট ২৯ জুলাই বিএনপি ডিজিটাল বাংলাদেশ বোঝে না, ডিজিটাল চুরি বোঝে: তথ্যমন্ত্রী বিদিশাও বললেন, তাই যেন হয় কুড়িগ্রামে পানিতে ডুবে ৫ শিশুর মৃত্যু টমেটো ছাড়াই তৈরি হচ্ছে টমেটো সস, জরিমানা ২০ লাখ মাদ্রাসার ভেতরেই মন্দির! সেই ছয় রান নিয়ে বিতর্ক চলছেই হজ ব্যবস্থাপনার কাজে সৌদি যাচ্ছেন সিইসি চড়া দামের ইলেকট্রিক বাইক আনছে হার্লে ডেভিডসন পাটকলের সাড়ে ৭ কোটি টাকা আত্মসাত: ৩ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট সামনে কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি সিরাজগঞ্জে ট্রেনের ধাক্কায় বর-কনেসহ নিহত ৯ আইসিসির বিশ্বকাপ একাদশে সাকিব আল হাসান রামপুরায় ভারতীয় জাল রুপি তৈরির কারখানার সন্ধান শ্রীলংকা সফরে টাইগারদের প্রধান কোচ সুজন-আকরাম আফগানদের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচেও জিততে পারেনি বাংলাদেশ মেয়াদোত্তীর্ণ লবণ বিক্রির দায়ে ৩ দোকানিকে জরিমানা