artk
রোববার, অক্টোবার ২০, ২০১৯ ৩:০৬   |  ৪,কার্তিক ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

সোমবার, জুলাই ৮, ২০১৯ ১০:০৭

বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে ১ লাখ গায়েবি মামলা: রুমিন

media

বিএনপির সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা বলেছেন, এক-এগারোর সরকারের সময় মামলা হয়েছে দুই বৃহৎ রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে। পরবর্তীতে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে কমিটি গঠন করে তাদের বিরুদ্ধে মামলাগুলো তুলে নিয়েছে।

বিএনপির সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা বলেছেন, এক-এগারোর সরকারের সময় মামলা হয়েছে দুই বৃহৎ রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে। পরবর্তীতে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে কমিটি গঠন করে তাদের বিরুদ্ধে মামলাগুলো তুলে নিয়েছে।

পুরনো মামলার সঙ্গে বিএনপির ২৬ লাখ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে যুক্ত হয়েছে নতুন একলাখ মামলা। নতুন করে গায়েবি মামলা বলে এক অদ্ভুত মামলা শুরু হয়েছে নির্বাচনের আগে আগে।

সোমবার জাতীয় সংসদে জরুরি জনগুরুত্ব বিষয়ে স্পিকারের মনোযোগ আকর্ষণ করে তিনি এ কথা বলেন।

রুমিন ফারহানা বলেন, মৃত ব্যক্তি, পঙ্গু ব্যক্তি, বিদেশে থাকা ব্যক্তি, ঘটনা ঘটবার আগেই এ ধরণের অদ্ভুত সব মামলা করা হয়েছে গায়েবি মামলার অধীনে। আইনের শাসন আর বিচার বিভাগের স্বাধীনতা নিয়ে সাবেক প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহা বলেছিলেন, দেশে আইনের শাসন নেই। সরকার নিম্ন আদালতকে কব্জা করার পর এখন হাত বাড়িয়েছে উচ্চ আদালতের দিকে।

তিনি আরও বলেন, ষোড়শ সংশোধনীর রায় বাতিলের কারণে সিনহাকে বিদেশ যেতে হয়েছে। সেই রায়ে তিনি বলেছিলেন, ডুবন্ত বিচার বিভাগ কোনো রকম নাক উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে।

তিনি আরও বলেছিলেন, আমিত্বের দম্ভের কথা। তারেক রহমানকে যে নিম্ন আদালত খালাস দিয়েছিলেন, তাকে পরে দেশ ছাড়তে বাধ্য করা হয়। সংবিধানের ১১৫ এবং ১১৬ অনুচ্ছেদের কারণে নিম্ন আদালত এখনো কার্যত সরকারের অধীনে রয়ে গেছে। সেপারেশন অব পাওয়ার বাংলাদেশে এক কেতাবি কথা। অনেকটা সোনার পাথর বাটির মতো। রাষ্ট্রের একটি অঙ্গ যদি স্বাধীন ও স্বচ্ছভাবে কাজ করতে না পারে। তাহলে তা রাষ্ট্রের জন্য সমূহ বিপদ তৈরি করে।

রুমিন ফারহানা বলেন, মিথ্যা, ষড়যন্ত্রমূলক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে খালেদা জিয়াকে কারাগারে আটকে রেখে সরকার তাকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে। অথচ মামলার মেরিট, তার বয়স, সামাজিক অবস্থান, জেন্ডার- যে কোনো বিবেচনায় বাংলাদেশের আইন অনুযায়ী জামিন তার অধিকার।

এই নারী এমপি জানান, তিনি (খালেদা জিয়া) যাতে সহজে মুক্তি না পান, তাই একটির পর একটি মিথ্যা মামলা সামনে আনা হচ্ছে। বর্তমান শাসক গোষ্ঠী তাদের ক্ষমতা প্রলম্বিত করার পথে তিন বারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে একমাত্র বাধা মনে করে। তাই মিথ্যা, ষড়যন্ত্রমূলক এবং উদ্দেশ্যেপ্রণোদিত রাজনৈতিক মামলায় তাকে কারাগারে আটকে রেখে ধীরে ধীরে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে।

ঐক্যফ্রন্ট এখন ইস্যু খুঁজে পাচ্ছেন না: তথ্যমন্ত্রী পরীক্ষায় জালিয়াতি: এমপি বুবলীকে গণভবনে তলব করেছেন প্রধানমন্ত্রী বালিশকাণ্ডের দায় প্রকৌশলীদের সঙ্গে মন্ত্রণালয়েরও: আ.লীগ নেতা সবুর ‘অ্যাকশনএইড মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড’ পেলেন ৫ সাংবাদিক দোয়া পাওয়ার জন্য রাজনীতি করি: শামীম ওসমান নেত্রকোনায় পেঁয়াজের দাম বেশি রাখায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা আ.লীগ নেতার বিরুদ্ধে সরকারি চাল আত্মসাতের অভিযোগ মাথাপিছু আয়ে কয়েক বছরে ভারতকেও ছাড়াবে বাংলাদেশ: তথ্যমন্ত্রী এমপি বুবলীকে বহিষ্কার! আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি, গত নির্বাচনে মানুষ ভোট দিতে পারেনি: মেনন ‘আবরার হত্যা প্রমাণ করে এদেশে ভিন্নমত পোষণ করলে তাকে হত্যা করা হয়’ জনগণের সঙ্গে রাষ্ট্রের বৈরী সম্পর্ক তৈরি হয়েছে: সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী নকল ঠেকাতে ভারতের কলেজে অভিনব পদ্ধতি নিষাদ-নিনিত ছাড়াও শাওনের একটি পুত্র আছে! চট্টগ্রামে লিটনের পর নাঈমের সেঞ্চুরি বিএসএফ বাংলাদেশে এসে ‘বাহাদুরি’ দেখিয়েছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশের বিপক্ষে বিশ্রামে থাকবেন কোহলি! আ.লীগের সহযোগী সংগঠনগুলোর কমিটি হবে নবীন-প্রবীণের সমন্বয়ে: কাদের গান গেয়ে ২০ লাখ টাকা জিতে নিলেন এই গৃহিনী ভারতের আর্থিক খাতে ফের ভয়াবহ পতন আসছে আইএসপিএবির স্বার্থ রক্ষায় কাজ করতে চায় ‘টিম ইউনাইটেড’ পেট ব্যথায় ২ যুবককে প্রেগন্যান্সি টেস্ট দিলেন চিকিৎসক! মঞ্চে নেহা কক্করকে জোর করে চুমু দিলেন প্রতিযোগী! এবার ফরিদপুরে বাবার হাতে তিন বছরের শিশুপুত্র খুন! অনশনে গৃহবধূ ভারতে ‘কল্কি বাবার’ আশ্রমে ৫শ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ সুদের টাকা না দেয়ায় ইমামকে হত্যার অভিযোগ দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান কন্টিনিউ করতেই হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ‘মিয়ানমারের কাছে রোহিঙ্গাদের মানবাধিকার রক্ষার নিশ্চয়তা চায় বাংলাদেশ’ স্থানীয়দের ধাওয়ায় ইলিশ নিয়ে পালাতে গিয়ে প্রাণ গেলো প্রবাসীর