artk
বুধবার, ডিসেম্বার ১১, ২০১৯ ১:২৩   |  ২৬,অগ্রহায়ণ ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

রোববার, জুন ১৬, ২০১৯ ৮:২২

এতো দিন কোথায় ছিলেন?

media

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির ২০ দিন পর ফেনীর সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তবে তিনি এতদিন কোথায় ছিলেন- সে বিষয়ে কিছু জানাতে পারেনি পুলিশ।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির ২০ দিন পর ফেনীর সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তবে তিনি এতদিন কোথায় ছিলেন- সে বিষয়ে কিছু জানাতে পারেনি পুলিশ।

রোববার বিকেলে পুলিশের রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মারুফ হোসেন সরদার এ বিষয়ে একটি সংবাদ সম্মেলন করেছেন। এতে এক সাংবাদিক প্রশ্ন করেন- ‘মোয়াজ্জেম ২০ দিন পলাতক ছিল। এতদিন সে কোথায় ছিল? কেন তাকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি?’ জবাবে ডিসি মারুফ হোসেন বলেন, ‘এটা বলা যাবে না। কারণ কেউ গ্রেপ্তারের পর বলবে না যে সে কোথায় ছিল।’

জিজ্ঞাসাবাদে মোয়াজ্জেম কী বলেছেন? জানতে চাইলে মারুফ হোসেন বলেন, আমাদের এই থানায় তার নামে কোনো মামলা নেই। তাই আমাদের জিজ্ঞাসাবাদ করার কোনো কারণ নেই। তারপরও আমরা মাত্র কিছুক্ষণ আগেই ধরেছি, এখনও কথা বলারই সময় পাইনি।

গ্রেপ্তারের বিষয়ে ডিসি মারুফ হোসেন সরদার বলেন, শাহবাগ থানাধীন কদম ফোয়ারার সামনে থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আমাদের কাছে গোপন তথ্য ছিল তিনি এখানে থাকতে পারেন। সেখান থেকেই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

তিনি বলেন, সোনাগাজী থানায় তার নামে অ্যারেস্ট ওয়ারেন্ট আছে। গ্রেপ্তারের পরপরই আমরা সোনাগাজী থানায় যোগাযোগ করেছি। সেই থানার প্রতিনিধি আসলে তাদের কাছে মোয়াজ্জেমকে হস্তান্তর করা হবে। যতক্ষণ হস্তান্তর না করা হবে ততক্ষণ শাহবাগ থানায় রাখা হবে তাকে। আদালতে কখন তুলবে এটা সোনাগাজী থানা পুলিশের সিদ্ধান্ত।

মোয়াজ্জেম সকালে আদালতে জামিনের জন্য গিয়েছিলেন, সেখান থেকে ফেরার সময় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বিষয়টি সত্য কি না? এ বিষয়ে ডিসি মারুফ বলেন, জামিন নিতে গিয়েছিলেন কি না সেটা তার ব্যক্তিগত বিষয়। আমাদের কাছে আসা গোপন তথ্য অনুযায়ী আমরা কদম ফোয়ারা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করি।

এর আগে ফেনীতে হত্যাকাণ্ডের শিকার মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির জবানবন্দির ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়ানোয় অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়।

মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহানকে গত ৬ এপ্রিল পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয়। তার দিন দশেক আগে মাদরাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলার বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ জানাতে সোনাগাজী থানায় যান নুসরাত। থানার তৎকালীন ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন সে সময় নুসরাতকে আপত্তিকর প্রশ্ন করে বিব্রত করেন এবং তা ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেন।

ওই ঘটনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হলে আদালতের নির্দেশে সেটি তদন্ত করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। পিবিআই গত ২৭ মে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দিলে ওইদিনই গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হয়। পরোয়ানা জারির দুইদিন পর মোয়াজ্জেম হোসেন হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেন।

মিয়ানমারকে হত্যাযজ্ঞ বন্ধ করতে বলুন: জাতিসংঘ আদালতে গাম্বিয়া ডাকসু ভিপি নুরের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা ‘খালেদার মুক্তির নামে নতুন করে নৈরাজ্য সৃষ্টির পায়তারা হচ্ছে’ এস কে সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট নোয়াখালীতে পৃথক দুর্ঘটনায় ছাত্রদল নেতাসহ নিহত ৩ ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নিরাপদ রাখতে করণীয় মানবাধিকার লঙ্ঘনের সব ঘটনার বিচার নিশ্চিত করা হবে: শেখ হাসিনা অপরাধ স্বীকার করতে সু চির প্রতি ৭ নোবেল বিজয়ীর আহ্বান বিপিএল-পিএসএলে ফিক্সিংয়ের কথা স্বীকার করলেন জামশেদ বিপিএলে রংপুর রেঞ্জার্সের অধিনায়ক মোহাম্মদ নবি কোনো কিছু বিশ্বাস করার আগে যাচাই করে নিন: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জয় বাংলাকে জাতীয় স্লোগান হিসেবে ব্যবহারের নির্দেশ হাইকোর্টের ভিপি নুরের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা মাটির নিচে পাওয়া গেল ১৭০০ বছর আগের মুরগির ডিম সুপ্রিম কোর্টের এফিডেভিট শাখার অনিয়ম রুখতে দুই কর্মকর্তাকে দায়িত্ব অমিত শাহর বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার দাবি জানিয়েছে মার্কিন কমিশন গাজীপুরে পুলিশ পরিচয়ে ৫ সোনার দোকান লুট ভ্যাট নিবন্ধন না করলে আইনি ব্যবস্থা: এনবিআর চেয়ারম্যান ক্ষমতায় টিকে থাকতে মানবাধিকার লঙ্ঘন করছে সরকার: মির্জা ফখরুল জিডির হয়রানি বন্ধে পুলিশের নতুন উদ্যোগ সুচির বিচার দাবিতে কক্সবাজারে রোহিঙ্গাদের বিক্ষোভ আশুলিয়ায় পোশাক কারখানায় সিলিন্ডার বিস্ফোরণে শ্রমিক নিহত টেকনাফে বিজিবির সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত বিআরটিসির ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে ময়মনসিংহে বাস চলাচল বন্ধ ৩৮ আরোহী নিয়ে চিলির সামরিক বিমান ‘নিখোঁজ’ পায়ুপথে ২ হাজার পিস ইয়াবা নিয়ে আকাশপথে ঢাকায় ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ১৩৩ আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাতে ১৩ জনের মৃত্যুর আশঙ্কা বিতর্কের মধ্যেই ভারতের লোকসভায় নাগরিকত্ব বিল পাস ডাকসু নেতাদের কর্মকাণ্ডে অসন্তোষ রাষ্ট্রপতি