artk
বুধবার, ডিসেম্বার ১১, ২০১৯ ১:৪৭   |  ২৬,অগ্রহায়ণ ১৪২৬
রোববার, জুন ১৬, ২০১৯ ১২:৪০

বাজেটের প্রস্তাবগুলো বাস্তবায়ন হলে পুঁজিবাজার ইতিবাচক হবে

স্টাফ রিপোর্টার
media
এবারের বাজেটে অপ্রদর্শিত আয় নির্দিষ্ট করা প্রদানের সাপেক্ষে বৈধ করণের বিধান রাখা হয়েছে যা ফ্ল্যাট, জমি কেনা এবং ইকোনমিক জোনে বিনিয়োগ করা হবে।

২০১৯-২০২০ অর্থবছরের ঘোষিত বাজেটে পুঁজিবাজারের জন্য যেসব প্রস্তাব করা হয়েছে, সেগুলো বাস্তবায়ন হলে বাজারে ইতিবাচক প্রভাব পড়বে বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. গোলাম ফারুক।

রোববার রাজধানীর মতিঝিলে সিএসইর প্রধান কার্যালয়ে ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণা পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন সিএসইর সচিব রাজিব শাহা, উপ-মহাব্যবস্থাপক হাসনাইন বারী।

সিএসই ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. গোলাম ফারুক বলেন, প্রস্তাবিত বাজেটে রুগ্ন কোম্পানিকে ভালো কোম্পানি কর্তৃক একত্রীকরণ/অধিভূক্ত করার কথা বলা হয়েছে। যা পুঁজিবাজারের জন্য ভালো প্রস্তাব বলে মনে করছি।

আবার ঘোষিত বাজেটে নগদ লভ্যাংশের পরিবর্তে বোনাস লভ্যাংশের উপর ১৫ শতাংশ হারে করারোপের প্রস্তাব করা রয়েছে। আবার রিটেইনড আর্নিংস বা রিজার্ভ যদি পরিশোধিত মূলধনের ৫০ শতাংশের বেশি হয় তবে বাড়তি রিজার্ভের উপর ১৫ শতাংশ হারে করের প্রস্তাব করেছে। যা কোম্পানিগুলোকে নগদ লভ্যাংশ প্রদানে উৎসাহিত করবে বলে এবং বিনিয়োগকে উৎসাহিত করার জন্য লভ্যাংশ আয়ের দ্বৈত কর তুলে নেওয়ার প্রস্তাব রয়েছে। এতে পুঁজিবাজারে ইতিবাচক প্রভাব পড়বে।

গোলাম ফারুক বলেন, পুঁজিবাজারের টেকসই উন্নয়ন এবং গুণগত সম্প্রসারণের জন্য চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের মাধ্যমে সরকারের কাছে ৮টি প্রস্তাবনা উপস্থাপন করেছে। এর মধ্যে করমুক্ত লভ্যাংশের সীমা প্রস্তাবটি আংশিকভাবে গ্রহণ করা হয়। সিএসইর বাকি প্রস্তাবনার বিষয়গুলো পুনর্বিবেচনার জন্য সিএসইর পক্ষ থেকে অর্থমন্ত্রীকে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

এবারের বাজেটে অপ্রদর্শিত আয় নির্দিষ্ট করা প্রদানের সাপেক্ষে বৈধ করণের বিধান রাখা হয়েছে যা ফ্ল্যাট, জমি কেনা এবং ইকোনমিক জোনে বিনিয়োগ করা হবে। এক্ষেত্রে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের জন্য কোন বিশেষ সুবিধা দেয়া হয়নি। পাচার রোধ করা ও বিনিয়োগের স্বার্থে অপ্রদর্শিত অর্থ বিনা প্রশ্নে নির্দিষ্ট পরিমান কর দেয়া সাপেক্ষে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগে সুযোগ দেয়ার জন্য অনুরোধ করেন তিনি।

মিয়ানমারকে হত্যাযজ্ঞ বন্ধ করতে বলুন: জাতিসংঘ আদালতে গাম্বিয়া ডাকসু ভিপি নুরের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা ‘খালেদার মুক্তির নামে নতুন করে নৈরাজ্য সৃষ্টির পায়তারা হচ্ছে’ এস কে সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট নোয়াখালীতে পৃথক দুর্ঘটনায় ছাত্রদল নেতাসহ নিহত ৩ ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নিরাপদ রাখতে করণীয় মানবাধিকার লঙ্ঘনের সব ঘটনার বিচার নিশ্চিত করা হবে: শেখ হাসিনা অপরাধ স্বীকার করতে সু চির প্রতি ৭ নোবেল বিজয়ীর আহ্বান বিপিএল-পিএসএলে ফিক্সিংয়ের কথা স্বীকার করলেন জামশেদ বিপিএলে রংপুর রেঞ্জার্সের অধিনায়ক মোহাম্মদ নবি কোনো কিছু বিশ্বাস করার আগে যাচাই করে নিন: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জয় বাংলাকে জাতীয় স্লোগান হিসেবে ব্যবহারের নির্দেশ হাইকোর্টের ভিপি নুরের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা মাটির নিচে পাওয়া গেল ১৭০০ বছর আগের মুরগির ডিম সুপ্রিম কোর্টের এফিডেভিট শাখার অনিয়ম রুখতে দুই কর্মকর্তাকে দায়িত্ব অমিত শাহর বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার দাবি জানিয়েছে মার্কিন কমিশন গাজীপুরে পুলিশ পরিচয়ে ৫ সোনার দোকান লুট ভ্যাট নিবন্ধন না করলে আইনি ব্যবস্থা: এনবিআর চেয়ারম্যান ক্ষমতায় টিকে থাকতে মানবাধিকার লঙ্ঘন করছে সরকার: মির্জা ফখরুল জিডির হয়রানি বন্ধে পুলিশের নতুন উদ্যোগ সুচির বিচার দাবিতে কক্সবাজারে রোহিঙ্গাদের বিক্ষোভ আশুলিয়ায় পোশাক কারখানায় সিলিন্ডার বিস্ফোরণে শ্রমিক নিহত টেকনাফে বিজিবির সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত বিআরটিসির ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে ময়মনসিংহে বাস চলাচল বন্ধ ৩৮ আরোহী নিয়ে চিলির সামরিক বিমান ‘নিখোঁজ’ পায়ুপথে ২ হাজার পিস ইয়াবা নিয়ে আকাশপথে ঢাকায় ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ১৩৩ আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাতে ১৩ জনের মৃত্যুর আশঙ্কা বিতর্কের মধ্যেই ভারতের লোকসভায় নাগরিকত্ব বিল পাস ডাকসু নেতাদের কর্মকাণ্ডে অসন্তোষ রাষ্ট্রপতি