artk
রোববার, সেপ্টেম্বার ১৫, ২০১৯ ৪:৩৬   |  ৩১,ভাদ্র ১৪২৬
শনিবার, জুন ১৫, ২০১৯ ১১:১০

এক মাস্টারেই চলছে দুই রেল স্টেশনের কার্যক্রম!

তরিকুল ইসলাম মিঠু, যশোর প্রতিনিধি
media
রেলওয়েতে জনবল সংকটের কারণে অনেক স্টাফ দিয়ে একাধিক কাজ করানো হয়। তারই ধারাবাহিকতা হিসেবে আমাকে দিয়ে দুই স্টেশনের দায়িত্ব পালন করানো হচ্ছে।

যশোরের দু’টি রেল স্টেশনে একই মাস্টার দিয়ে চলছে কার্যক্রম। ফলে যেকোনো মুহূর্তে ঘটে যেতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা। অপূরণীয় ক্ষতি হয়ে যেতে পারে এ রুটে চলাচলকারী যাত্রীদের জানমালের এমন আশংষ্কা প্রকাশ করেছে এলাকার নিয়মিত রেল যাতায়াতকারী যাত্রীরা।

স্টেশন দু’টি হলো যশোর ও বেনাপোল। উভয় স্টেশন দু’টি রেল জংশন হওয়ায় স্টেশন দু’টিতে স্টেশন মাস্টারের গুরুত্ব অপরিসীম বলে জানিয়েছে একাধিক যাত্রী।

সরেজমিন অনুসন্ধানে জানা যায়, গত তিন মাস আগে যশোর রেলস্টেশনে দায়িত্বে থাকা অবস্থায় অবসরে যান স্টেশন মাস্টার শ্রী পুষ্পল কুমার মণ্ডল। এ গুরুত্বপূর্ণ স্টেশনটি গত তিন মাস ধরে মাস্টারশূন্য ছিল।

অপরদিকে গত চার বছর ধরে বেনাপোল রেলস্টেশনের মাস্টার হিসাবে দায়িত্বরত আছেন সাইদুর রহমান। গত এক সপ্তাহ ধরে যশোর স্টেশন মাস্টারের রুমের সামনে স্টেশন মাস্টার হিসেবে সাইদুর রহমানে নেমপ্লেট ঝুলানো হয়েছে। তবে সপ্তাহ ধরে তার অফিসে গিয়ে এক দিনও তাকে পাওয়া যায়নি।

বিষয়টি নিয়ে সহকারী নারী স্টেশন মাস্টার নিগার সুলতানার কাছে জানতে চাইলে তিনি নিউজবাংলাদেশকে ডটকমকে বলেন, স্টেশন মাস্টার সাইদুর রহমান বর্তমানে দু’টি রেল স্টেশনের একই সাথে দায়িত্বে পালন করছেন। সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৬টা পর্যন্ত তিনি বেনাপোল রেলস্টেশনের দায়িত্বে থাকেন। এর পর সন্ধায় বেনাপোল থেকে ফিরে এসে তিনি যশোর রেলস্টেশনের দায়িত্বে থাকেন। এভাবেই চলছে যশোর রেলস্টেশনের মাস্টার পদের কার্যক্রম।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে রেলের এক কর্মচারী জানান, যশোর রেল স্টেশন থেকে মাস্টার অবসরে গেছে প্রায় চার মাস আগে। কিন্তু এখানে এখনো কোন স্টেশন মাস্টার আসেনি। যে কারণে এখানকার স্টাফরা তাদের খেয়াল-খুশি মতো চলে। তাছাড়া এখানে প্রায় একশ লোক তাদের অবসরের টাকা পয়সা নিতে আসেন। স্টেশন মাস্টার না থাকায় রেলের অবসর প্রাপ্তরা টাকা তুলতে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছে প্রতিনিয়ত।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে অপর এক কর্মচারী জানান, যশোর রেলস্টেশনে অনেক মাস্টার আসার জন্য মুখিয়ে থাকে। কিন্তু উপরের কর্তা ব্যক্তিদের চাহিদা মোতাবেক ম্যানেজ করতে না পারলে এ স্টেশনে পোস্টিং দেন না।

সবাই এ স্টেশনে আসার আগ্রহের কারণ জানতে চাইলে তিনি জানান, এখানে টিকিট নিয়ে নয় ছয় আছে। এখানকার স্টেশন মাস্টারের সহযোগিতায় কাউন্টারের কিছু অসাধু লোক আছেন। যারা আগে থেকে দুরপাল্লার ট্রেনগুলোর টিকিট কেটে রাখেন। পরে দালাল বা পরিচিত জনদের মাধ্যমে অধিক মূল্যে ট্রেনের টিকিটগুলো বিক্রি করে থাকেন। কোন যাত্রী তিন দিন আগে কাউন্টারে গেলেও কাউন্টার থেকে বলা হয় ট্রেনের কোনো টিকিট নেই।

শাহিন, রাসেল, ইমরান, সুজনসহ একাধিক যাত্রী জানায়, তারা চার দিন আগে ঢাকাতে যাওয়ার জন্য স্টেশনের টিকিট কাউন্টারে গিয়েছিল টিকিট সংগ্রহের জন্য। কিন্তু কাউন্টার থেকে জানিয়ে দেওয়া হয় এক সপ্তাহের মধ্যে কোন টিকিট নেই।

বিষয়টি নিয়ে স্টেশন মাস্টার সাইদুর রহমাননের কাছে জানতে চাইলে তিনি নিউজবাংলাদেশকে বলেন, রেলওয়েতে জনবল সংকটের কারণে অনেক স্টাফ দিয়ে একাধিক কাজ করানো হয়। তারই ধারাবাহিকতা হিসেবে আমাকে দিয়ে দুই স্টেশনের দায়িত্ব পালন করানো হচ্ছে।

বাড়তি দায়িত্ব নেওয়ার জন্য কোন বেতন ভাতা দেওয়া হবে কি না তা জানতে চাইলে তিনি জানান, এর জন্য কোন বেতন ভাতা কর্তৃপক্ষ দেবে না। তবে এখানে তো আর কোন স্টেশন মাস্টার নেই।

আমি যাতে পরবর্তীতে স্থায়ীভাবে এ স্টেশনে দায়িত্ব পালন করতে পারি তার জন্য একই সাথে দু’স্টেশনের দায়িত্ব পালন করছি বলে তিনি জানান।

ছাত্রলীগের চাঁদাবাজির খবর এখন টক অব দ্য কান্ট্রি: রিজভী ‘বন্দুকযুদ্ধে' রোহিঙ্গা নিহত ভিকারুননিসার নতুন অধ্যক্ষ ফওজিয়া শোভান-রাব্বানীর বিচার চান সোহেল কোনো অন্যায়কারী, চাঁদাবাজকে প্রশ্রয় দেবে না ছাত্রলীগ: নাহিয়ান ডিএসইতে লেনদেন কমলেও সিএসইতে বেড়েছে কুমিল্লায় বাসচাপায় ৩ ছাত্রলীগ নেতা নিহত ইসরায়েলি ড্রোন ভূপাতিতের দাবি ফিলিস্তিনের ‘প্রত্যেককে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হবে’ মাসিক বেতনে বাস চালক নিয়োগের নির্দেশ নেদারল্যান্ডসের ডিপ্লোম্যাট ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদে শেখ হাসিনা ঢাকায় আসছেন ঋতুপর্ণা ক্যাডারদের জন্য অশনিসংকেত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের ৩ বছর পরেও খোঁজ নেই পরীক্ষার র‍্যাবের হামলার বিচার দাবি জবি শিক্ষার্থীদের সড়কে অবরোধ বাসর ঘরে ঢুকেই দেখলেন স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা সারদায় প্রধানমন্ত্রী শোভন-রাব্বানী পদ হারানোয় আনন্দ উল্লাস অসুস্থ নেতার শয্যাপাশে বিএনপি ও ছাত্রদল নেতারা দুর্গাপূজায় ব্যাং’র পোশাকে অর্ধেক ছাড় জবিতে বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেতাদের দৌরাত্ম্য কিশোরগঞ্জে বাসচাপায় ২ স্কুলছাত্র নিহত ফিলিস্তিন রক্ষায় কাবার ইমামের ঐক্যের ডাক পূজা ও শরৎ উপলক্ষে আর্ট এনেছ নতুন পোশাক ঢামেকে নবজাতককে রেখে পালালেন মা-বাবা আফগানিস্তানের বিপক্ষে সম্ভাব্য বাংলাদেশ একাদশ ভাসমান অভিবাসীদের উদ্ধার করা জাহাজটিকে বন্দরে ভিড়তে দিল ইতালি সাভারে আ.লীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা মহাকাশে সিমেন্ট গুলছেন বিজ্ঞানীরা ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে মাদরাসা শিক্ষক গ্রেপ্তার