artk
মঙ্গলবার, আগষ্ট ২০, ২০১৯ ৯:০৫   |  ৫,ভাদ্র ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

বৃহস্পতিবার, জুন ১৩, ২০১৯ ৪:২৪

বাজেট ৫ লাখ ২৩ হাজার কোটি টাকা

media

‘সমৃদ্ধ আগামীর’ প্রত্যাশা সামনে রেখে পাঁচ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকার বাজেট জাতীয় সংসদের সামনে উপস্থাপন করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। প্রস্তাবিত এই খরচ চলতি অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটের ১৮ শতাংশ বেশি। পাশাপাশি তার প্রথম বাজেটে ব্যয় যে ধরেছেন, তা দেশের মোট জিডিপির ১৮.১ শতাংশের সমান।

‘সমৃদ্ধ আগামীর’ প্রত্যাশা সামনে রেখে পাঁচ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকার বাজেট জাতীয় সংসদের সামনে উপস্থাপন করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। প্রস্তাবিত এই খরচ চলতি অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটের ১৮ শতাংশ বেশি। পাশাপাশি তার প্রথম বাজেটে ব্যয় যে ধরেছেন, তা দেশের মোট জিডিপির ১৮.১ শতাংশের সমান।

বৃহস্পতিবার বিকালে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে জাতীয় সংসদে ২০১৯-২০ অর্থবছরের এ বাজেট প্রস্তাব উপস্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী। এর আগে মন্ত্রিসভার অনুমোদনের পর ওই প্রস্তাবে সই করেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

এবার সোয়া পাঁচ লাখ কোটি টাকার বাজেটে উন্নয়ন ব্যয় ধরা হচ্ছে ২ লাখ ১১ হাজার ৬৮৩ কোটি টাকা, যা চলতি অর্থবছরের সংশোধিত উন্নয়ন বাজেটের ২২ শতাংশ বেশি। এর মধ্যে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) আকার দুই লাখ ২ হাজার ৭২১ কোটি টাকা। এরই মধ্যে এডিপি অনুমোদন করা হয়েছে।

এবার পরিচালন ব্যয় ধরা হয়েছে তিন লাখ ১০ হাজার ২৬২ কোটি টাকা, যা চলতি অর্থবছরের সংশোধিত অনুন্নয়ন বাজেটের চেয়ে ১৬ শতাংশের বেশি। এর মধ্যে ৬০ হাজার ১০৯ কোটি টাকা প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীদের বেতন-ভাতা পরিশোধেই যাবে, যা মোট অনুন্নয়ন ব্যয়ের ১৯ শতাংশের বেশি।

অর্থমন্ত্রী তার প্রস্তাবিত বাজেটে রাজস্ব খাতে আয় ধরেছেন ৩ লাখ ৭৭ হাজার ৮১০ কোটি টাকা। এই পরিমান অংক চলতি অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটের ১৯ শতাংশের বেশি। এর মধ্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের  (এনবিআর) মাধ্যমে কর হিসেবে ৩ লাখ ২৫ হাজার ৬০০ কোটি টাকা আদায় করা হবে। এ জন্য এনবিআরের কর আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা বাড়ছে ১৬ দশমিক ২৮ শতাংশ।

গতবারের মত এবারে সবচেয়ে বেশি কর আদায়ের লক্ষ্য ঠিক করা হয়েছে মূল্য সংযোজন কর বা ভ্যাট থেকে, এক লাখ ২৩ হাজার ৬৭ কোটি টাকা। এই অংক বিদায়ী অর্থবছরের সংশোধিত লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় ১৭ দশমিক ২১ শতাংশের মত।

চলতি অর্থবছরের বাজেটে ভ্যাট থেকে রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্য ধরা ছিল ১ লাখ ১০ হাজার ৫৫৪ কোটি টাকা। লক্ষ্য পূরণ না হওয়ায় সংশোধিত বাজেটে তা কমিয়ে ১ লাখ ৪ হাজার ৭৯৭ কোটি টাকায় নামিয়ে আনা হয়।

আয়করের উপর কর থেকে ১ লাখ ১৩ হাজার ৯১২ কোটি টাকা রাজস্ব পাওয়ার আশা করা হয়েছে আগামী বাজেটে। চলতি অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটে পরিমাণ ছিল ৯৫ হাজার ১৬৭ কোটি টাকা। আগামী বাজেটে আমদানি শুল্ক থেকে ৩৬ হাজার ৪৯৮ কোটি টাকা, সম্পূরক শুল্ক থেকে ৪৮ হাজার ১৫৩ কোটি টাকা, রপ্তানি শুল্ক থেকে ৫৪ কোটি টাকা, আবগারি শুল্ক থেকে ২ হাজার ২৩৯ কোটি টাকা এবং অন্যান্য কর ও শুল্ক থেকে ১ হাজার ৬৭৭ কোটি টাকা আদায়ের পরিকল্পনা করেছে অর্থমন্ত্রী।

আবার বৈদেশিক অনুদান থেকে ৪ হাজার ১৬৮ কোটি টাকা পাওয়া যাবে আশা প্রকাশ করেছেন তিনি।

অর্থমন্ত্রী বলেছেন, রাজস্ব আদায় বাড়াতে তিনি এবার নতুন কোনো কর আরোপ করছেন না। বরং করের আওতা বাড়িয়ে তিনি রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করতে চান। চলতি অর্থবছরের মূল বাজেটে মোট রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্য ধরা হয়েছিল ৩ লাখ ৩৯ হাজার ২৮০ কোটি টাকা, আদায় সন্তোষজনক না হওয়ায় তা সংশোধন করে ৩ লাখ ১৬৬১২ কোটি টাকায় নামিয়ে আনা হয়।

২০১৮-১৯ অর্থবছরের মূল বাজেটের আকার ছিল ৪ লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকা। সংশোধনে তা ৪ লাখ ৪২ হাজার ৫৪১ কোটি টাকায় নেমে এসেছে।

অর্থমন্ত্রী সংসদের সামনে যে বাজেট প্রস্তাব তুলে ধরেছেন, তাতে আয় ও ব্যয়ের হিসাবে সামগ্রিক ঘাটতি থাকছে প্রায় এক লাখ ৪৫ হাজার ৩৮০ কোটি টাকা, যা জিডিপির ৫ শতাংশের সমান। অর্থনীতিবিদরা বাজেট ঘাটতির এই পরিমাণকে গ্রহণযোগ্য সীমার মধ্যেই ধরেন।

এই ঘাটতি পূরণে অর্থমন্ত্রীর সহায় অভ্যন্তরীণ এবং বৈদেশিক ঋণ। তিনি আশা করছেন, বিদেশ থেকে ৬৩ হাজার ৮৪৮ কোটি টাকা এবং অভ্যন্তরীণ খাত থেকে ৭৭ হাজার ৩৬৩ কোটি টাকা ঋণ করে ওই ঘাটতি মেটানো যাবে।

এ বাজেট বাস্তবায়ন করতে পারলে মূল্যস্ফীতি ৫ দশমিক ৫ শতাংশের মধ্যে আটকে রেখেই ৮ দশমিক ২০ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি পাওয়া সম্ভব হবে বলে আশা প্রকাশ করেছে অর্থমন্ত্রী।

জামিনে বের হয়ে গণপিটুনিতে মৃত্যু আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর এমন প্রেস ব্রিফিং দুনিয়ার কোথায় আছে: হাইকোর্ট দেশে এসে ডেঙ্গুতে মারা গেলেন ডা. রেহানা বেগম ইলেকট্রনিক রেকর্ডকে সাক্ষ্য আইনে অন্তর্ভুক্তির জন্য চিঠি ৬০০ টাকার শাড়িতে সাজলেন কঙ্গনা যে ৫ দাবিতে অটল রোহিঙ্গারা গণতন্ত্র ছাড়া কাশ্মীর সমস্যার সমাধান সম্ভব নয়: অমর্ত্য সেন বিপিএলে মাশরাফি-সাকিব দুজনকেই চায় রংপুর কিশোরগঞ্জের সাবেক হিসাবরক্ষক সিরাজুল গ্রেফতার মিল্ক ভিটার ৫ হাজার একর জায়গার ৪ হাজার একরই বেহাত সুযোগ চান ফরহাদ, আত্মবিশ্বাসী জহুরুলও ‘নিজ বাড়ি-আশপাশ পরিচ্ছন্ন রাখলে ডেঙ্গু প্রতিরোধ সম্ভব: অধ্যাপক সায়ীদ লেনদেন ডিএসইতে কমলেও সিএসইতে বেড়েছে ক্ষতিকর প্রাণীর অনিষ্টতা থেকে মুক্ত থাকার দোয়া টাইগারদের দায়িত্ব নিতে ঢাকায় রাসেল ডমিঙ্গো এফআর টাওয়ার মামলা: তাসভীরের পর ফারুকের জামিন তৃতীয় টেস্ট থেকে ছিটকে পড়লেন স্মিথ বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দলের বিপক্ষে দল ঘোষণা করলো ভারত সংসদ সদস্য না হয়েও শুল্কমুক্ত ল্যান্ড ক্রুজার গাড়ি মুহিতের ত্রিদেশীয় সিরিজ: বাংলাদেশ সফরে আফগানদের দল ঘোষণা খালেদা জিয়ার জামিনের মেয়াদ বাড়লো এক বছর মিন্নিকে কেন জামিন নয়, ৭ দিনের মধ্যে জানানোর নির্দেশ হাইকোর্টের সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে আসবে: মেয়র খোকন কাশ্মীরে স্কুল খুলেছে, শিক্ষার্থী নেই আন্তর্জাতিক চক্রান্তে ট্যানারি শিল্পে বিপর্যয়: ফখরুল পানি বণ্টনে দুপক্ষই লাভবান ফর্মুলা বের করবেন: জয়শঙ্কর কাশ্মীর ইস্যুতে খোঁজ মিলছে না অভিনেত্রী জায়রার মঙ্গলবার মুক্তি পাচ্ছে ‘টিয়ার গপ্পো’ আইপিএলে হায়দরাবাদের সহকারী কোচ ব্র্যাড হ্যাডিন ছাগল ছিনতাইয়ের মামলায় ছাত্রলীগ নেতার আগাম জামিন