artk
বুধবার, জুন ২৬, ২০১৯ ৩:০৫   |  ১২,আষাঢ় ১৪২৬

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

বৃহস্পতিবার, জুন ১৩, ২০১৯ ১১:৪৭

৭৫ বছর পর প্রেমিক যুগলের দেখা

media

১৯৪৪ সালে অর্থাৎ দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ চলাকালীন মার্কিন সেনা কর্মকর্তা, কেটি রবিন্স পূর্ব ফ্রান্সের ব্রায়িতে একটি রেজিমেন্টে নিযুক্ত ছিলেন। জার্মানির দখলদারিত্বের বিরুদ্ধে সে সময় জোট বেঁধে লড়াই করছিল যুক্তরাষ্ট্র ও ফ্রান্স।

ফ্রান্সের সেই ঘাঁটিতে থাকাকালীন তরুণ রবিন্স, ১৮ বছর বয়সী ফরাসি মেয়ে জেনেই পিয়ারসন নি গেনেই- এর প্রেমে পড়েন। তবে তাদের দেখা হওয়ার দুই মাসের মধ্যেই, পূর্ব ফ্রন্টের উদ্দেশ্যে কেটি রবিন্সকে তাড়াহুড়ো করে গ্রাম ছেড়ে যেতে হয়। একজন আরেকজনের থেকে আলাদা হওয়ার সময় তারা ভাবছিলেন যে তাদের আবার দেখা হবে কিনা।

কেটি রবিন্স পরে জেনেইয়ের একটি ছবি তার কাছে রেখে দেন। তারপর দীর্ঘ ৭৫ বছর পেরিয়ে যায়। তাদের দেখা হয়নি ঠিকই, কিন্তু জেনেইয়ের শেষ স্মৃতি হাতছাড়া করেননি রবিন্স।

এরপর একদিন ফ্রান্সের একদল সাংবাদিক বিশেষ প্রতিবেদনের কাজে রবিন্সের সাক্ষাতকার নিতে আসেন। সে সময় ফ্রান্সের সাংবাদিকরা যুক্তরাষ্ট্রের ভেটেরান অর্থাৎ অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তাদের নিয়ে প্রতিবেদন তৈরি করছিলেন।

তাদের সঙ্গে দেখা হতেই ফ্রান্সের প্রচারমাধ্যম ফ্রান্স-টু এর সাংবাদিকদের জেনেই-এর সেই ছবিটি দেখান রবিন্স।

বলেন, তিনি ফ্রান্সে ফিরে গিয়ে জেনেইকে না হলে তার পরিবারকে খুঁজে বের করতে চান।

সাংবাদিকদের সঙ্গে এই সাক্ষাতের কয়েক সপ্তাহ পরেই রবিন্স ডি-ডে ল্যান্ডিং অর্থাৎ দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের মোড় ঘুরিয়ে দেয়া নরম্যান্ডি ল্যান্ডিং এর এর ৭৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ফ্রান্সে যান। তিনি ভাবতেও পারেননি, তার জন্য কত বড় বিস্ময় অপেক্ষা করছে।

রবিন্সকে চমকে দিতে, ফ্রান্সের ওই সাংবাদিকরা আগে থেকেই সেই নারীর খোঁজ বের করেন। এরপর মুখোমুখি করেন দুজনকে।

রবিন্সকে সাংবাদিকরা নিয়ে যান সেই রিটায়ার হোমে, যেখানে অপেক্ষায় ছিলেন গেনেই। দীর্ঘ ৭৫ বছর পর দেখা হতেই তারা একজন আরেকজনকে জড়িয়ে ধরে চুম্বন করেন।

সে সময় বিন্সের গায়ে ছিল সামরিক পোশাক আর জেনেই কালো পোশাকে নিজেকে সাজিয়েছিলেন পরিপাটি করে।

পরে গেনেই সাংবাদিকদের বলেন, তিনি সবসময় রবিন্সের কথা মনে করতেন। আশা করতেন যে, একদিন রবিন্স নিশ্চয়ই ফিরে আসবে।

নিজেদের আলাদা হওয়ার মুহূর্তটি নিয়ে সাংবাদিকদের সামনে স্মৃতিচারণ করেন গেনেই।

তিনি বলেন, “রবিন্স যখন ট্রাকে করে ফিরে যাচ্ছিল, আমার মন এতোটাই ভেঙে পড়েছিল যে আমি ভীষণ কাঁদছিলাম। আমি আশা করেছিলাম যুদ্ধ শেষে সে হয়তো আর যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে যাবে না।”

তবে বাস্তবে এই দীর্ঘ সময়ে তাদের একবারের জন্যও দেখা হয়নি। এ নিয়ে আক্ষেপের কথাও জানান গেনেই।

সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, “রবিন্স এতদিন ধরে যুক্তরাষ্ট্রে কেন ছিল? আমার কাছে আরও আগে কেন ফিরে আসেনি? আমি ভাবি, যদি সে আরও আগে ফিরতো।”

জেনেই পরে বিয়ে করেন। সেই সংসারে তার পাঁচ সন্তান রয়েছে। অন্যদিকে রবিন্সও পরে বিয়ে করেন। যুক্তরাষ্ট্রে নিজের পরিবার নিয়ে থাকছেন তিনি। তাদের দুজনই এখন নিজেদের সঙ্গীকে হারিয়েছেন।

তারা আশা করেন যে একদিন তাদের আবারও নিশ্চয়ই দেখা হবে। বিদায়ী চুম্বনে এমনটাই আশা করছিলেন দুজন।

খালে ভাসমান অবস্থায় মিললো ছাত্রলীগ নেতার ক্ষতবিক্ষত লাশ ২৮ বছর পর সচল সগিরা মোর্শেদ হত্যা মামলা সী পার্লের আইপিও শেয়ার বিওতে জমা দুদকের অমার্জনীয় ভাষায় তলব চিঠি প্রত্যাহারসহ ৪ দফা দাবি মানবতাবিরোধী অপরাধ: রণদা প্রসাদ হত্যার রায় বৃহস্পতিবার অস্ট্রেলিয়ার সৈকতে 'রহস্যময়' মাছ টকশো'তে সাংবাদিককে পেটালেন রাজনৈতিক নেতা! (ভিডিও) সহজে রান্না করুন মজাদার আম পাবদা দাঁতের সুরক্ষায় এনামেল-এর যত্ন নিন ট্রেন দুর্ঘটনা: সিলেট গেলেন দুই মন্ত্রী যেভাবে খুন হন ইন্দিরা গান্ধী নরসিংদীর দগ্ধ কলেজছাত্রী ফুলন মারা গেছেন মাশরাফি-সাকিবদের সুবিধা বাড়ানো হবে: প্রধানমন্ত্রী মসজিদ নিষিদ্ধ যে ‘পবিত্র শহরে’ ইংল্যান্ডকে হারিয়ে সেমিতে অস্ট্রেলিয়া সম্পর্ক তাজা রাখতে বাদ দিন এ সব কথা জন্মনিরোধক জেল ব্যবহার করলেন প্রথম কোনো পুরুষ সংগীতশিল্পী মিলা লাপাত্তা! সাংবাদিক নিগ্রহে সালমানের বিরুদ্ধে মামলা যাত্রাবাড়ীতে ট্রাকচাপায় কনস্টেবল নিহত পটিয়ায় মাইক্রোবাসের সিলিন্ডার বিস্ফোরণে দগ্ধ ২০ ডিআইজি মিজান সাময়িক বরখাস্ত এমন গহনা তৈ‌রি করুন ক্রেতা‌রা যেন কলকাতামুখী না হয় এখনও সাম্প্রদায়িক শক্তি হুমকি দিয়ে যাচ্ছে: কাদের পাঞ্জাবির দাম বেশি রাখায় আড়ংকে আবারও জরিমানা দুধে অ্যান্টিবায়োটিক, ফরমালিন, মসলায় টেক্সটাইল রঙ ট্রাম্পের শান্তি পরিকল্পনা মধ্যপ্রাচ্যে বিস্ফোরণ ঘটাবে: ইসরাইল সুবিধাবাদী ব্যবসায়ীরা আজ সংসদে: নাসিম চালু হচ্ছে খুলনা-কলকাতা অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস ‘ওরা কামালকে ভাড়া করল ওদের জন্য, কাজ করল আমাদের জন্য’