artk
সোমবার, ডিসেম্বার ৯, ২০১৯ ৭:০৫   |  ২৫,অগ্রহায়ণ ১৪২৬
বৃহস্পতিবার, জুন ৬, ২০১৯ ৯:৫০

ভারতে হালিমের নাম নিয়ে বিতর্ক!

বিশেষ সংবাদ ডেস্ক
media
অধ্যাপক পন্থ বলছিলেন, 'সারা পৃথিবী যে পদটিকে হালিম বলে চেনে- আমি ধর্মভীরু মুসলিম বলেই সেটির নাম কি পাল্টে দেওয়া যায় না কি?'

সুস্বাদু ও পুষ্টিকর হালিম সারা ভারতেই অত্যন্ত জনপ্রিয়, বিশেষ করে রোজার মাসে যার চাহিদা থাকে খুব বেশি। তবে সম্প্রতি কলকাতা, হায়দরাবাদ, মুম্বাইয়ের বিভিন্ন রেস্তোরাঁয় এই হালিমটিকে 'দালিম' নামে ডাকা শুরু হয়েছে, মেনুতেও লেখা হচ্ছে দালিম।

এই নাম পরিবর্তনের পেছনে আছে হোয়াটসঅ্যাপ বা ফেসবুকে কিছুদিন ধরে ছড়িয়ে পড়া বিভিন্ন বার্তা, যাতে বলা হচ্ছে হালিম আল্লাহরই একটি নাম-কাজেই কোনো খাবারের নাম আল্লাহর নামে হওয়া উচিত নয়।

ইসলামিক পন্ডিতরা কেউ কেউ এই মতকে সমর্থনও করছেন, অনেকে আবার বলছেন হালিমের নাম পাল্টানোর কোনো যুক্তিই থাকতে পারে না।

কিন্তু কেন হালিমের নাম নিয়ে বিতর্ক?

কলকাতা শহরের পার্ক সার্কাস, এন্টালি, খিদিরপুরসহ বিভিন্ন এলাকার বহু রেস্তোরাঁ তাদের হালিমের জন্য বিখ্যাত, রোজার মাসে হালিমের জন্য সেখানে লম্বা লাইনও খুব পরিচিত দৃশ্য।

কিন্তু দিলখুশা স্ট্রীটের সাইকা, বেকবাগানের জম জমে'র মতো বহু রেস্তোরাঁই ইদানিং এই হালিমটির নাম পাল্টে করেছে দালিম।

সাইকার কর্ণধার মহম্মদ আসগর আলি কিছুদিন আগে হোয়াটসঅ্যাপে একটি মেসেজ পেয়েই এই নাম পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নেন।

ওই ভিডিও বার্তাটিতে হায়দরাবাদের জনৈক মুসলিম বাবুর্চিকে বলতে শোনা যাচ্ছে, 'হালিম আল্লাহরই একটি নাম। কোরআনের ২২৫ নম্বর আয়াতেও এর উল্লেখ আছে।'

'কাজেই আমরা যখন বলি দুই প্লেট হালিম আনো, বা এই হালিম জ্বলে গেল বা কালো হয়ে গেল তখন আমরা আল্লাহর প্রতি কোনো সম্মান প্রদর্শন করি না। আল্লাহর কোনো দাগ লাগে না, কাজেই এই খাবারটিকে দয়া করে হালিম বলে ডাকবেন না।'

কলকাতার কিছু রেস্তোরাঁর মতোই হায়দরাবাদ বা মুম্বাইয়ের কোনো কোনো এলাকাতেও সম্প্রতি দালিম নামটির প্রচলন শুরু হয়েছে।

তবে কলকাতার বিখ্যাত আর্সালান রেস্তোরাঁ কিন্তু পুরনো হালিম শব্দটিই আঁকড়ে ধরে আছে, তাদের পক্ষে মহম্মদ গুলাম মুস্তাফা জানাচ্ছেন 'হোয়াটসঅ্যাপ ইউনিভার্সিটিতে পড়া আলেম'দের কথায় তারা এই জনপ্রিয় খাবারটির নাম পাল্টাবেন না।

ভারতের অ্যারাবিক অ্যান্ড ইসলামিক সায়েন্সেস ইনস্টিটিউটের প্রধান মহম্মদ জাভেদ হুসেন আবার দালিমের পক্ষেই রায় দিচ্ছেন।

তিনি বলছিলেন, 'আল্লাহর ৯৯টি নামের মধ্যে একটি হলো হালিম- যেটির বানান ও উচ্চারণও অবিকল খাবার হালিমের মতোই।'

'যে বা যারা এই খাবারটির নাম রেখেছিলেন, তারা হয়তো সেটা খেয়াল করেননি- কিন্তু আজ আমাদের আরবি ভাষা সম্পর্কে সম্যক জ্ঞান আছে, এখনো কেন আমরা আল্লাহর নামে এই বেরহমতি করে যাব?'

'তার চেয়ে বরং এই পদটিকে দালিম বলেই ডাকা উচিত, কারণ এটির প্রধান উপাদান হলো ডাল।'

ভারতের বিখ্যাত ফুড হিস্টোরিয়ান ও গবেষক পুষ্পেশ পন্থ কিন্তু এই যুক্তির সঙ্গে একেবারেই একমত নন।

অধ্যাপক পন্থ বলছিলেন, 'সারা পৃথিবী যে পদটিকে হালিম বলে চেনে- আমি ধর্মভীরু মুসলিম বলেই সেটির নাম কি পাল্টে দেওয়া যায় না কি?'

'আমি নিজেও হালিমের ভক্ত- আর আল্লাহর তো প্রায় এক শ নাম, তাহলে কত কিছুর নাম আপনাকে পাল্টাতে হবে ভেবে দেখেছেন?'

'ধর্মপ্রাণ হিন্দু বা খ্রিস্টানরাও অনেকেই খাবার আগে নিজেদের ঈশ্বরকে স্মরণ করেন, আর খাবারের নামে ওপরওলা জুড়ে থাকলে তাতে কোনও অসম্মান আছে বলেও মনে করি না।'

'আসলে এটা সৌদি থেকে আসা আগ্রাসী ও বিষাক্ত ওয়াহাবি ইসলামের প্রভাব বলেই আমার ধারণা', বলছেন পুষ্পেশ পন্থ।

কলকাতায় খাদ্যরসিক ও দার্শনিক ড. মীরাতুন নাহার আবার মনে করছেন আল্লাহর নামে নামটা হয়তো বাহ্যিক কারণ- কিন্তু নতুন নাম দালিমের পেছনে ভারতের বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটও দায়ী হতে পারে।

তার কথায়, 'যতদূর জানি, মুসলিম পুরুষদের প্রায় সব নামই কিন্তু আল্লাহর নামে বা তার বিশেষণে। যেমন রহমান শব্দটা বহু মুসলিমের নামেই আছে- এর মানে হলো দয়াময়, যা আল্লাহরই একটা বিশেষণ।'

'এখন ওপরে ওপরে হয়তো এই কারণটাই বলা হচ্ছে, যে আল্লাহর নামে খাবারটার নাম বলেই এটা বদলানো দরকার- কিন্তু এর পেছনে ভারতীয় মুসলিমদের অন্য আর একটা শঙ্কাও কাজ করছে না তো?'

'হালিম কিন্তু হিন্দু-মুসলিম নির্বিশেষে সবার কাছে ভীষণ জনপ্রিয়। এখন শুধু একটা মুসলিম নামের কারণেই সেই খাবারটা ভারতে আক্রমণের শিকার হতে পারে, কারণ ভারতের রাজনীতিতে এখন এই জিনিসই কিন্তু বার বার ঘটছে।'

'এমন একটা সম্ভাবনার কথা মাথায় রেখেই এই জনপ্রিয় খাবারটার নাম পাল্টানোর চেষ্টা হচ্ছে কি না, সেটাও কিন্তু আমাদের ভাবা দরকার!', বলছেন মীরাতুন নাহার।

তাঁর এ প্রশ্নের উত্তর এখনো নিশ্চিতভাবে জানা নেই- কিন্তু ভারতীয়দের চিরচেনা হালিম যে এখন নতুন নামে টেবিলে সার্ভ হওয়া শুরু হয়েছে, তার পেছনে একটা গূঢ় ধর্মীয় ও সমাজভাবনা কাজ করছে তা কিন্তু বোঝাই যাচ্ছে। সূত্র: বিবিসি বাংলা

নিউজিল্যান্ডে অগ্নুৎপাতে ৫ পর্যটকের মৃত্যু ‘বিশ্ববিদ্যালয়কে ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে পরিণত করছেন এক শ্রেণির শিক্ষক’ আন্তর্জাতিক ক্রীড়াঙ্গনে ৪ বছর নিষিদ্ধ রাশিয়া বিশ্বের সর্বকনিষ্ঠ প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন সানা ম্যারিন ৬৪ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে সেই শ্রীলঙ্কাকেই হারিয়ে স্বর্ণ জয় সৌম্য-শান্তদের কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে অবৈধ স্থাপনা ধ্বংসে কেন নির্দেশ নয় মন্ত্রিসভায় ভালো না করলে দায়িত্ব পরিবর্তন করা হবে: কাদের চলতি মাসেই পুরান ঢাকায় চক্রাকার বাস মিস ইউনিভার্স হলেন আফ্রিকান সুন্দরী ইতিবাচক মনোভাবে প্রজন্ম হবে দুর্নীতিবিরোধী: ড. আনিসুজ্জামান মারা গেলেন বরেণ্য অধ্যাপক অজয় রায় ধর্ষণ মামলা: যুক্তরাষ্ট্র আ.লীগের সেই নেতাকে বহিষ্কার দেশে সর্বক্ষেত্রে দুর্নীতি শুরু হয়েছে: ফখরুল সামাজিক-রাজনৈতিক দুর্নীতিই বড় দুর্নীতি: মির্জা ফখরুল শ্রমজীবীরা নয়, কর্মকর্তারাই দুর্নীতি করে: আমু পাঁচ বিশিষ্ট নারীকে বেগম রোকেয়া পদক তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকে অনেক ভালোবাসি: সালমান খান আর্চারির চার ইভেন্টের সব ক’টিতে সোনা জিতল বাংলাদেশ শত্রুতা করলে সবই হারাবেন কিম: ট্রাম্প অবৈধ সম্পদ নিয়ে কাউকে শান্তিতে থাকতে দেয়া হবে না: দুদক চেয়ারম্যান কায়রো থেকে রাজধানী সরাচ্ছে মিশর মিয়ানমার থেকে এলো আরও ৪১ হাজার মণ পেঁয়াজ এসএ গেমসে সোনা জিতে কাঁদলেন সোমা সমাবর্তনে উৎসবমুখর ঢাবি ক্যাম্পাস প্রেমিকার বাবা-মাকে দায়ি করে স্টামফোর্ড ছাত্রের আত্মহত্যা বাসে যৌন হয়রানি: যাত্রীকে ৬ মাসের কারাদণ্ড উগ্রবাদবিরোধী জাতীয় সম্মেলন শুরু শাজাহান খানের বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে নিসচার বিবৃতি উগান্ডায় বৃষ্টি ও ভূমিধসে ১৬ জনের প্রাণহানী