artk
বুধবার, সেপ্টেম্বার ১৮, ২০১৯ ১:৫৭   |  ২,আশ্বিন ১৪২৬

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

শুক্রবার, মে ২৪, ২০১৯ ১১:২৬
‘চুপচাপ পদ্মে ছাপ’

বঙ্গে ৪০ শতাংশ পকেটস্থ বিজেপির

media

‘চুপচাপ ফুলে ছাপ’, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই স্লোগানেই বঙ্গে পতন ঘটেছিল ৩৪ বছরের বাম সাম্রাজ্যের। সালটা ছিল ২০১১। আট বছর বাদে আবারও সেই একই স্লোগান, শুধু একটা শব্দের রদবদল। মমতার স্লোগানে ছিল ‘ফুল’। সেই স্লোগান ‘এডিট’ করে অমিত শাহ বললেন, ‘‘চুপচাপ কমল (পদ্ম) ছাপ’। মমতার ওই স্লোগানকেই হাতিয়ার করে বাংলায় তৃণমূলকে বড়সড় ধাক্কা দিলো পদ্মবাহিনী। ২৩টি আসনে জেতার লক্ষ্যপূরণ না হলেও, পশ্চিমবঙ্গে ১৮ ছুঁয়েই খুশিতে ডগমগ দিলীপ ঘোষরা। ১৮টি লোকসভা কেন্দ্র দখল করে নিঃসন্দেহে বঙ্গে বড়সড় উত্থান ঘটল বিজেপির। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

২০২১ সালের বাংলায় বিধানসভা নির্বাচনের আগে এবারের লোকসভা নির্বাচন কার্যত যেন সেমিফাইনাল ম্যাচ। সেমিফাইনাল ম্যাচে যেভাবে বাংলার বুকে ঝোড়ো ইনিংস খেললো পদ্মবাহিনী, তাতে মমতা শিবিরের ধুকপুকানি যে বাড়ল, তাতে কোনো সন্দেহ নেই বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ। বঙ্গে ৪২টি আসনের মধ্যে ১৮টিতেই পদ্মফুল ফুটেছে। চারটি আসন বেশি পেয়ে তৃণমূলের দখলে ২২টি কেন্দ্র। একেবারে তৃণমূলের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছে বিজেপি। শতাংশের হিসেবে তৃণমূলের সঙ্গে জোর টক্কর কেটেছে বিজেপি। ২০১৪ সালের নির্বাচনে বঙ্গে সাকুল্যে দুটি আসন দখল করে গেরুয়াবাহিনী পেয়েছিল ১৮ শতাংশ ভোট। পাঁচ বছর বাদে বিজেপির ভোট শতাংশ দ্বিগুণ হয়ে গেল। এবার ১৮টি আসন জিতে বিজেপি পেয়েছে ৪০ শতাংশেরও বেশি ভোট।

প্রসঙ্গত, লোকসভা নির্বাচনে এবার পশ্চিমবঙ্গকে পাখির চোখ করেছিলেন মোদি-শাহরা। বঙ্গে এসে যেমন ২৩টি আসনে জেতার টার্গেট বেঁধে দিয়েছিলেন শাহ, তেমনই বারবার এ রাজ্যে এসে ভোটপ্রচার করতেও দেখা গেছে মোদি সেনাপতিকে। শুধু শাহই নন, বঙ্গে এবার বারবার ঢুঁ মেরেছেন স্বয়ং নরেন্দ্র মোদি। রাজ্যে বিজেপির সংগঠন মজবুত করতে উঠেপড়ে লেগেছিলেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাশ বিজয়বর্গীয় ও শিবপ্রকাশ। 

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালে কেন্দ্রে ক্ষমতায় আসার পরই বঙ্গে সংগঠন বাড়ানোর কাজ শুরু করে দিয়েছিল গেরুয়াবাহিনী। এজন্যই ২০১৫ সালে পাঠানো হয়েছিল বিজয়বর্গীয় ও শিবপ্রকাশের মতো কেন্দ্রীয় নেতাদের।

রাজনৈতিক বিশ্লষেকদের মতে, পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির এমন উত্থানের নেপথ্যে ছিল সুদৃঢ় পরিকল্পনা। তৃণমূল স্তর থেকেই সংগঠনের ভিত মজবুত করার কাজ শুরু করেছিল বিজেপি। সেকারণেই ২০১৫ সালে বিজেপির মণ্ডল কমিটির সংখ্যা ৪৫২ থেকে বেড়ে এখন হয়েছে ১২৮০। চার বছরে গড়ে উঠেছে ১২ হাজার ৪০৭টি শক্তিকেন্দ্র, ১০ হাজার ২৬৬ শক্তিকেন্দ্র প্রমুখ ও ৫৮ হাজার ৮৪টি কমিটি। 

বিজয়বর্গীয়, শিবপ্রকাশরা যেমন সংগঠন মজবুত করার কাজ করছিলেন, তেমনই দলকে চাঙ্গা করতে সঠিক নেতৃত্ব বাছাইয়েও ভূমিকা পালন করেছেন। লোকসভা নির্বাচনে দলের কাজ পরিচালনার জন্য গোটা রাজ্যে পাঁচ ভাগে ভাগ করেছিল বঙ্গ বিজেপি নেতৃত্ব। নির্বাচনী জয়ের থেকেও বাংলায় এবার লোকসভা নির্বাচনের সাফল্য বিজেপির কাছে যেন স্বপ্নপূরণের মতো। ১৯৫২ সালে বিজেপির পূর্বসূরী ভারতীয় জনসংঘ দুটি লোকসভা কেন্দ্র ও নয়টি বিধানসভা কেন্দ্র দখল করেছিল।

বঙ্গে বিজেপির সংগঠন বাড়ানো প্রসঙ্গে কৈলাশ বিজয়বর্গীয় বলেছেন, “যখন আমরা কাজ শুরু করেছিলাম এখানে, কাউকেই সঙ্গে পেয়েছিলাম না। হয় ভয় পেয়ে আসত না আমাদের সঙ্গে, না হলে আমাদের পছন্দ করত না। কিন্তু আমরা মণ্ডলস্তর পর্যন্ত সংগঠন মজবুত করার কাজটা আমরা চালিয়ে গিয়েছিলাম। তাই পরিস্থিতি বদলেছে।”

এদিকে, এবার লোকসভা নির্বাচনে বঙ্গে কোনো খাতা খুলতেই পারেনি বামেরা। বাম-রাম একসঙ্গে কাজ করেছে বঙ্গে- এই অভিযোগ করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সে প্রসঙ্গে দমদমের জয়ী তৃণমূল প্রার্থী সৌগত রায় বলেন, “এটা প্রমাণিত যে, সিপিএমের সব ভোট বিজেপিতে গেছে। আমাদের দলনেত্রীই বলেছিলেন, বাংলায় বাম-রাম একসঙ্গে কাজ করছে।”

 

সাইবার ক্রাইম বিভাগে দ্বারস্থ মেহজাবিন নকল বিদেশি ওষুধ বিক্রি করায় ২ প্রতিষ্ঠানকে ৪০ লাখ টাকা জরিমানা গণহত্যার ঝুঁকিতে এখনো ৬ লাখ রোহিঙ্গা: জাতিসংঘ গাজীপুরে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে অবৈধ গ্যাস লাইনে অগ্নিকাণ্ড ফেসবুক স্ট্যাটাস দেখেই শিক্ষার্থীদের বহিষ্কার করেন উপাচার্য পাবনায় ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে ট্রেন চালকের আত্মহত্যা সৌদি আরবে ফের হামলা চালিয়েছে ইয়েমেন ঢাকার শতাধিক বিএনপি নেতাকর্মী জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়েছে চাঁদাবাজির অভিযোগে ঢাকা উত্তর ছাত্রলীগ নেতা বহিস্কার ‘ডাক্তার বলার আগেই আয়া রোগীর পোশাক খুলে নেয়’ দুর্নীতি নির্মূলে টাস্কফোর্স গঠনের দাবি সম্পাদক পদে প্রার্থী হবেন না ওবায়দুল কাদের রিজার্ভ চুরির ব্যাপারে কিছুই বলা যাবে না: অর্থমন্ত্রী আলিয়ার সঙ্গে চুমুর দৃশ্যে আপত্তি সালমান খানের? মামলাকে কর ফাঁকির হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে মেঘনা গ্রুপ! খালেদা জিয়া আলেমদের কিছু দেন নাই: আল্লামা শফী অন্য প্রতিষ্ঠানেও ‘ভাগাভাগি’ হচ্ছে: আরেফিন সিদ্দিক প্রেস কাউন্সিলের বিবৃতি প্রত্যাহার চায় এলআরএফ বাংলাদেশকে হারাতে মরিয়া জিম্বাবুয়ে বুধবার শ্রীলঙ্কায় যাচ্ছে মিরাজ-মুমিনুল-সৌম্যরা মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে ট্রাকের নিচে এনজিওকর্মী কোহলিদের নিরাপত্তা দিতে আপত্তি ভারতীয় পুলিশের হাজিরা খাতায় সই করেই বেতন-ভাতা নেন আ.লীগ নেতার স্ত্রী মধ্য রাতে বৃদ্ধার গরু লুট করলো যুবলীগ-কৃষক লীগ নেতারা পুঁজিবাজারে সূচকের পতন, লেনদেনে উত্থান ছাত্রলীগে ভারপ্রাপ্ত দায়িত্ব কোন আইনে: রিজভী রাব্বানীকে একহাত নিলেন সাবেক ছাত্রলীগ নেত্রী পেঁয়াজের দাম শিগগিরই কমবে: বাণিজ্য সচিব বিমানের ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী বিভাগীয় শহরে ক্যান্সার হাসপাতালসহ ৮ প্রকল্প অনুমোদন