artk
রোববার, জুন ১৬, ২০১৯ ৭:৪৮   |  ২,আষাঢ় ১৪২৬
মঙ্গলবার, মে ২১, ২০১৯ ২:০১

ঋণখেলাপিদের বিশেষ সুবিধার সার্কুলারে ‘স্থিতাবস্থা’

কোট-কাচারি ডেস্ক
media
আর যারা এক বছরের মধ্যে ঋণ শোধ করে দিতে চান, তাদের জন্য রয়েছে বড় ছাড়। তারা চাইলে তহবিল খরচের সমান সুদ দিয়েই বাকি টাকা শোধ করতে পারবেন।

ঋণখেলাপিদের জন্য বিশেষ সুবিধা দিয়ে জারি করা বাংলাদেশ ব্যাংকের ‘ঋণ পুনঃতফসিল ও এককালীন পরিশোধ-সংক্রান্ত বিশেষ নীতিমালা’র ওপর ২৪ জুন পর্যন্ত ‘স্থিতাবস্থা’ বজায় রাখতে বলেছেন হাইকোর্ট।

এ-সংক্রান্ত এক আবেদনের শুনানি নিয়ে মঙ্গলবার হাইকোর্টের বিচারপতি এফ এম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

রিটকারী আইনজীবী মনজিল মোরসেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

প্রসঙ্গত, গত ১৬ মে সন্ধ্যায় ‘ঋণ পুনঃতফসিল ও এককালীন পরিশোধ-সংক্রান্ত বিশেষ নীতিমালা’ জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক। এতে যারা ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে শোধ করছেন না, তাদের জন্য বড় সুবিধা চালু করা হয়। বকেয়া ঋণের ২ শতাংশ টাকা জমা দিয়েই তারা ঋণ নিয়মিত করতে পারবেন। এতে সুদ হার হবে সর্বোচ্চ ৯ শতাংশ। আর এক বছরের ঋণ পরিশোধে বিরতিসহ ১০ বছরের মধ্যে বাকি টাকা শোধ করতে পারবেন। আবার ব্যাংক থেকে নতুন করে ঋণও নিতে পারবেন।

আর যারা এক বছরের মধ্যে ঋণ শোধ করে দিতে চান, তাদের জন্য রয়েছে বড় ছাড়। তারা চাইলে তহবিল খরচের সমান সুদ দিয়েই বাকি টাকা শোধ করতে পারবেন। বর্তমানে ব্যাংকগুলোর তহবিল খরচের হার সাড়ে ৭ থেকে ৯ শতাংশ।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক বলছে, ঋণ বিরূপভাবে খেলাপি হয়ে পড়ায় ঋণ বিতরণ ও আদায় কার্যক্রম বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। উৎপাদনশীল খাতে স্বাভাবিক ঋণপ্রবাহ বজায় রাখতে ও খেলাপি ঋণ আদায়ে এসব সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, যেসব ঋণ মন্দ বা ক্ষতিজনক, মানে খেলাপি হয়ে পড়েছে, সে ক্ষেত্রে এ সুবিধা দেওয়া হবে।

এদিকে ওইদিন আরেকটি প্রজ্ঞাপনে কেন্দ্রীয় ব্যাংক ঘোষণা করে যে, যেসব ব্যবসায়ী ঋণের সব কিস্তি সময়মতো পরিশোধ করেছেন, কখনই কিস্তি পরিশোধে ব্যর্থ হননি, তারা ‘ভালো গ্রাহক’। তাদের থেকে এক বছরে যে পরিমাণ সুদ আদায় করা হয়েছে, তার ১০ শতাংশ ফেরত দেয়া হবে।
ব্যাংক-সংশ্লিষ্টরা বলছেন, নতুন এ সুবিধার ফলে ব্যাংক খাতের সংকট কাটবে না।

বর্তমানে ব্যাংকগুলোতে তারল্য-সংকট চলছে। কয়েকটি ব্যাংকের অবস্থা এত খারাপ যে, জমা টাকা ফেরত দেওয়া কঠিন হয়ে পড়েছে। গ্রাহকদের আস্থা ফেরাতে ঋণখেলাপিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে।

আশুগঞ্জে ট্রেনে কাটা পড়ে ২ ভাইয়ের মৃত্যু বিয়ের স্টেজ ভেঙে পড়ার ঘটনায় ‘দি স্বারথী’ ইভেন্টের দুঃখ প্রকাশ বাংলা ট্রিবিউন অফিসে জোর করে ৬ জনের প্রবেশ, থানায় জিডি কেনিয়ায় ঘুষ বন্ধে পুলিশের পোশাকে থাকছে না পকেট ব্যবসায়ীদের ধান কেনা হবে না: খাদ্যমন্ত্রী ফোন করে থানায় ডেকে নিয়ে যুবককে নির্যাতনের অভিযোগ! লাকসামে মাদরাসাছাত্রীকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেপ্তার বাজেটের নামে জনগণকে ধোকা দেয়া হয়েছে: ড. মোশাররফ ‘ভাগ্নেকে ফিরিয়ে না দিলে অপহরণকারীদের পরিচয় প্রকাশ করা হবে’ জারদারির পর এবার তার বোন গ্রেপ্তার বাবার আবেদনে মাদকাসক্ত ছেলেকে আটক করলো পুলিশ লঞ্চে আমের ঝুড়িতে মদ-ইয়াবা বাজেটকে স্বাগত জানাতে গিয়ে সংঘর্ষে জড়ালো ছাত্রলীগ শিশুকে একা পেয়ে ধর্ষণ করলো প্রতিবেশি চাচা আমিন খানের ছেলে যখন মডেল মন্ত্রীর পা ধরেও চাষাঢ়া-আদমজী সড়কে কাজ হয়নি: শামীম ওসমান ঘাটতি মেটাতে ব্যাংক ঋণের সাহায্য নিলে সমস্যা ঘনীভূত হবে: জাপা অভিনয় জগতে পা রাখলেন শাহরুখ কন্যা কর্মসংস্থান নেই বলে বিদেশ পাড়ি দিচ্ছে যুবকরা: আমীর খসরু ব্রা খুলে প্রতিবাদ পুনম পান্ডের, ভিডিও ভাইরাল প্রশিক্ষণ নিয়ে নিজেদের প্রস্তুত রাখুন: এসএসএফকে প্রধানমন্ত্রী সুইপার থেকে হেড মাস্টার! বিশ্বখ্যাত ‘ল্যাম্বরগিনি’ গাড়ি বানালেন নারায়ণগঞ্জের আকাশ ফের কলকাতার ছবিতে অপু বিশ্বাস ওসি মোয়াজ্জেম আত্মগোপনে থাকায় গ্রেফতারে দেরি হচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বিশ্বকাপ ক্রিকেট ভারতে স্থানান্তর হোক: অমিতাভ বচ্চন নিজে নিরাপদ থাকুন, নগরবাসীকে নিরাপদ রাখুন: ডিএমপি কমিশনার ডিম খেয়ে ম্যাচের সঠিক ভষিষ্যদ্বাণী করছে জিমি ভুঁড়ি কমানোর ঘরোয়া উপায় তান্ত্রিকের বিছানায় যেতে না চাওয়ায় স্ত্রীকে হত্যা