artk
রোববার, জুলাই ২১, ২০১৯ ১১:১৪   |  ৬,শ্রাবণ ১৪২৬

নিউজ ডেস্ক

বৃহস্পতিবার, মে ১৬, ২০১৯ ৭:০৯

বাবা-ছেলের বিরল মুহূর্তের সেলফি!

media

বাবা-ছেলে দুইজনেই রেলওয়েতে কাজ করেন। বাবা সীমান্ত এক্সপ্রেস ট্রেনের গার্ড হলেও ছেলে টিকিট পরীক্ষক (টিটিই)। চলার পথে দুইজনের দেখা হয় না কখনো। তবে অদ্ভুতভাবে চলারপথে এবার বাবা-ছেলের দেখা হয়ে গেলো। আর সেই মুহূর্তটি ধরে রাখার জন্য দুই ট্রেনের দরজায় দাঁড়িয়ে সেলফি তুলেছেন বাবা-ছেলে।

বাবা-ছেলে দুইজনেই রেলওয়েতে কাজ করেন। বাবা সীমান্ত এক্সপ্রেস ট্রেনের গার্ড হলেও ছেলে টিকিট পরীক্ষক (টিটিই)। চলার পথে দুইজনের দেখা হয় না কখনো। তবে অদ্ভুতভাবে চলারপথে এবার বাবা-ছেলের দেখা হয়ে গেলো। আর সেই মুহূর্তটি ধরে রাখার জন্য দুই ট্রেনের দরজায় দাঁড়িয়ে সেলফি তুলেছেন বাবা-ছেলে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বাবা সীমান্ত এক্সপ্রেস ট্রেনের গার্ড। তিনি খুলনা থেকে ট্রেন নিয়ে চিলাহাটি যাচ্ছিলেন। পাশাপাশি দিনাজপুর থেকে পার্বতীপুর হয়ে ট্রেন নিয়ে রাজধানী অভিমুখে যাচ্ছিলেন ছেলে। কিন্তু পথেই ডিউটিরত অবস্থায় বাবার সঙ্গে দেখা হয়ে গেলো ছেলের।

তবে এই দেখার সঙ্গে আর দশটা দেখার পার্থক্য রয়েছে অনেক। ট্রেন যখন ফুলবাড়ি রেল স্টেশন অতিক্রম করছিল তখন বাবা ট্রেনের শেষদিকে গার্ডরুমে আর ছেলে ওয়াসিবুর রহমান শুভ তখন দ্রুতযান এক্সপ্রেসের ইঞ্জিনের কাছাকাছি একটি কামরায়। বাবার সঙ্গে চলন্ত পথে হঠাৎ দেখা ছেলের। স্বল্প সময়ের এই কুশল এবং সময়টাকে কাজে লাগিয়ে মোবাইলে বাবাকে ফ্রেমবন্দী করে সেলফি তুলে ফেলেন ছেলে। ফলে চলন্ত পথে বাবা-ছেলের দেখা হওয়ার মুহূর্তটি হয়ে যায় অনন্য।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছবিটি শেয়ার করে ছেলে ওয়াসিবুর রহমান শুভ ক্যাপশন দিয়েছেন, ‘বাবা ও আমি, ফুলবাড়ি স্টেশনে ক্রসিং, চিলাহাটিগামী সীমান্ত এবং ঢাকাগামী দ্রুত যান এক্সপ্রেস। বাবা ডিউটিরত আমিও ডিউটিরত।

ছবিটি ফেসবুকে পোস্ট করার কিছুক্ষণ পরই সবার ফেসবুক ওয়ালে ছড়িয়ে যায়। অনেকেই এই ছবি শেয়ার দিয়ে বাবা-ছেলের এই অদ্ভুত সুন্দর মুহূর্তটির প্রশংসা করেছেন।

ছবিটি শেয়ার করে খায়রুল ইসলাম নামে একজন লিখেছেন, ‘এমন পিতা-পুত্র হওয়া সৌভাগ্যের। আপনাদের জন্য শুভ কামনা।’

স্বপন আমান নামের একজন লিখেছেন, ‘আমাদের কপালে হয়তো এমন ছবি নেয়ার সৌভাগ্য হবে না, তবে সুন্দর হয়েছে ছবিটা। শুভ কামনা।’

পুলিশ যা বলতে বলেছে আদালতে তাই বলেছি, বাবাকে মিন্নি সিনেমায় চুমু খেয়ে বিয়ে ভাঙলো নায়িকার! (ভিডিও) নোয়াখালীতে এক ব্যক্তিকে ধরে নিয়ে পিটিয়ে হত্যা এমপি হওয়ার পর ‘অসুরে’ প্রথম নুসরাত নিম্ন রক্তচাপকে স্বাভাবিক করুন খুব সহজে উদ্ভিদের বৃদ্ধিতে বাধার সৃষ্টি করছে সিগারেটের গোড়া যে ১৪ আত্মমূল্যায়নের প্রশ্নে বদলে যেতে পারে জীবন সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবিতে মস্কোতে হাজারো নাগরিকের বিক্ষোভ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মঞ্চেই মারা গেলেন ভারতীয় কৌতুকাভিনেতা নিজের পিস্তলের গুলিতে আহত ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতা কুমিল্লায় টেলিভিশন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত ছেলেধরা সন্দেহে পিটিয়ে হত্যা: ৫শ জনের বিরুদ্ধে মামলা পঞ্চগড়ে মাছ ধরতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দুই ছেলেসহ বাবার মৃত্যু হজক্যাম্পের আশপাশের রেস্তোরাঁয় পচা খাবার, জরিমানা ২৬ লাখ জনগণকে নিয়ে গণঅভ্যুত্থান ঘটাতে হবে: ফখরুল ট্রাম্পের দাবি নাকচ, এই সেই ইরানি ড্রোন! জামালপুরে বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত শ্বশুরকে হত্যা করে পলাতক জামাই ইনডোর এশিয়া কাপ হকিতে বাংলাদেশ সপ্তম আইনি লড়াইয়ে খালেদার মুক্তি নেই: গয়েশ্বর গণপিটুনির সঙ্গে জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে কাদেরের মাথায় হাত বুলিয়ে রওশনের আশীর্বাদ ‘স্থানীয় হিন্দু-মুসলমানদের হয়রানি করছেন প্রিয়া সাহা’ দিল্লির ৩ বারের মুখ্যমন্ত্রী শীলা দীক্ষিত মারা গেছেন মিন্নিকে আইনি সহায়তা দিতে বরগুনায় আসকের ৪ আইনজীবী প্রিয়া সাহার অভিযোগ নিয়ে যা বলল জামায়াত সাংবাদিক পাইলেই গুলি করে মারব: ছাত্রলীগ নেতা ইঞ্জিনে পাখির বাসা, দেড়মাস বসে থাকলেন ট্রাকচালক উইন্ডিজ সফরে না গিয়ে সেনাবাহিনীতে সময় দেবেন ধোনি ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনি, প্রাণ গেলো ৩ জনের