artk
বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বার ১৯, ২০১৯ ৫:২১   |  ৪,আশ্বিন ১৪২৬
মঙ্গলবার, মে ১৪, ২০১৯ ১০:৫৪

রোজায় শরীরে যে পরিবর্তন ঘটে

স্বাস্থ্য ও পুষ্টি ডেস্ক
media
১৬ হতে ৩০ দিন: এই সময়ে আপনার শরীর পুরোপুরি রোজার সঙ্গে মানিয়ে নেবে। শরীরের পাচনতন্ত্র, লিভার, কিডনি এবং ত্বকে এক ধরনের পরিবর্তনের ভেতর দিয়ে যাবে।

চলছে রমজান মাস। সারা পৃথিবী জুড়ে বহু মুসলমানরা এই সময় রোজা রাখেন। টানা একমাস সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত কিছু না খেয়ে থাকেন তারা। দীর্ঘ এক মাস রোজা থাকার ফলে শরীরেও বিশ কিছু পরিবর্তন আসে। রোজা রাখার সময় প্রথম কয়েক দিনই সবচেয়ে কষ্টের। শেষ বার খাবার খাওয়ার পর অন্তত আট ঘণ্টা পার না হওয়া পর্যন্ত কিন্তু শরীরে রোজার প্রভাব পড়ে না। আমরা যে খাবার খাই, পাকস্থলিতে তা পুরোপুরি হজম হতে এবং এর পুষ্টি শোষণ করতে অন্তত আট ঘণ্টা সময় নেয় শরীর। যখন এই খাদ্য পুরোপুরি হজম হয়ে যায়, তখন আমাদের শরীর যকৃৎ এবং মাংসপেশীতে সঞ্চিত গ্লুকোজ থেকে শক্তি শুষে নেয়ার চেষ্টা করে।

শরীর যখন এই চর্বি খরচ করতে শুরু করে, তা আমাদের ওজন কমাতে সাহায্য করে। এটি কোলেস্টেরলের মাত্রা কমায় এবং ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমায়। তবে যেহেতু রক্তে শর্করার মাত্রা কমে যায়, সেই কারণে হয়তো কিছুটা দুর্বল এবং ঝিমুনি আসতে পারে। এ সময়টাতেই সবচেয়ে বেশি ক্ষিদে পায়। প্রথম কয়েকদিনের পর আপনার শরীর যখন রোজায় অভ্যস্ত হয়ে উঠছে, তখন শরীরে চর্বি গলে গিয়ে তা রক্তের শর্করায় পরিণত হয়। কিন্তু রোজার সময় দিনের বেলায় যেহেতু আপনি কিছুই খেতে বা পান করতে পারছেন না, তাই রোজা ভাঙার পর অবশ্যই আপনাকে সেটার ঘাটতি পূরণের জন্য প্রচুর পানি খেতে হবে। ইফতারে যথেষ্ট শক্তিদায়ক খাবার, যেমন কার্বোহাইড্রেট বা শর্করা এবং চর্বি খেতে হবে।

৮ হতে ১৫ দিন: এই পর্যায়ে এসে আপনি অনুভব করতে পারবেন যে আপনার শরীর-মন ভাল লাগছে, কারণ রোজার সঙ্গে আপনার শরীর মানিয়ে নিতে শুরু করেছে। চিকিৎসরা বলছেন, সাধারণত দৈনন্দিন জীবনে আমরা অনেক বেশি ক্যালরিযুক্ত খাবার খাই এবং এর ফলে আমাদের শরীর অন্য অনেক কাজ ঠিকমত করতে পারে না। কিন্তু রোজার সময় না খেয়ে থাকার কারণে শরীর অন্যান্য কাজের দিকে মনোযোগ দিতে পারে।

১৬ হতে ৩০ দিন: এই সময়ে আপনার শরীর পুরোপুরি রোজার সঙ্গে মানিয়ে নেবে। শরীরের পাচনতন্ত্র, লিভার, কিডনি এবং ত্বকে এক ধরনের পরিবর্তনের ভেতর দিয়ে যাবে। সেখানে থেকে সব দূষিত পদার্থ বেরিয়ে শরীর যেন শুদ্ধ হয়ে উঠবে।

অবৈধ ব্যবসার সঙ্গে জড়িত রাজনীতি-প্রশাসনের কাউকে ছাড় নয় নারায়ণগঞ্জে মা ও দুই মেয়েকে গলাকেটে হত্যা সফলভাবে ডেঙ্গু মোকাবেলা করেছি: স্বাস্থ্যমন্ত্রী পুঁজিবাজারে ৭৫ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে প্রধানমন্ত্রী নিউইয়র্ক যাচ্ছেন শুক্রবার ‘ফেসবুকে স্ট্যাটাসের জন্য কোনো শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হবে না’ পাসপোর্ট অধিদপ্তরের নতুন ডিজি সাকিল আহমেদ আফগানিস্তানে দুই হামলায় নিহত ৪০ ক্যাসিনো মালিকরা যত প্রভাবশালীই হোক রেহাই নেই: ডিএমপি কমিশনার নারায়ণগঞ্জে ২ শিশুসহ নারীকে গলা কেটে হত্যা জাতিসংঘের অধিবেশনে যেতে ভিসা পাচ্ছেন না রুহানি কানাডায় নূর চৌধুরীর অবস্থান জানার আবেদন মঞ্জুর মাটির নিচে যুক্তরাষ্ট্রের ৬৩ কোটি ব্যারেল জরুরি তেলের ভাণ্ডার দুদুর বাড়িতে হামলা আলিয়াকে হাতছাড়া করতে চান না বানসালি নায়ক সালমান শাহর ৪৮তম জন্মবার্ষিকী দুর্ঘটনায় প্রেমিক নিহত, প্রেমিকার আত্মহত্যা কমলাপুরে যুবলীগ নেতা খালেদের টর্চার সেল ২৮ বছর পর সরাসরি ভোটে ছাত্রদলের নতুন নেতৃত্ব নির্বাচিত টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ রোহিঙ্গাসহ নিহত ৩ জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ ক্যাসিনো থেকে আটক: ৩১ জনকে ১ বছর ও বাকিদের ৬ মাসের কারাদণ্ড জাপানি মেয়েদের কাছে বাংলাদেশের অসহায় আত্মসমর্পণ কাঁপছে জিম্বাবুয়ে মির্জা আব্বাসের বাসায় হচ্ছে ছাত্রদলের কাউন্সিল মৃত্যুর আগে রিকশাচালককে রিফাতের শেষ কথা মাহমুদউল্লাহ ঝড়ে জিম্বাবুয়েকে ১৭৬ রানের টার্গেট দিলো টাইগাররা মানসম্পন্ন রিপোর্ট পুঁজিবাজারকে উচ্চস্তরে নিয়ে যাবে: ডিএসই পরিচালক যুবলীগ নেতা খালেদ মাহমুদ অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার ই-সিগারেট নিষিদ্ধ করলো ভারত সরকার