artk
রোববার, জুলাই ২১, ২০১৯ ১১:১৫   |  ৬,শ্রাবণ ১৪২৬
শনিবার, মে ১১, ২০১৯ ১১:৪৬

ঝালকাঠির কেমিক্যালমুক্ত মুড়ির গ্রাম

মো. নজরুল ইসলাম, ঝালকাঠি সংবাদদাতা:
media
বছরের পর বছর মুড়ি ভেজেও শুধুমাত্র পূঁজির অভাবে ভাগ্য ফেরাতে পারেনি এই পরিবারগুলো। মুড়ি ভাজাকে কুটির শিল্প হিসেবে বিবেচনা করে বিশেষ ঋণের ব্যবস্থা করা হলে এদের ভগ্য ফিরে যেতে পারে বলে অভিজ্ঞরা মনে করেন।

সুস্বাদু ও কেমিক্যালমুক্ত মোটা মুড়ি উৎপাদনকারী এলাকা হিসেবে সারা দেশে সু-পরিচিত ঝালকাঠির বিভিন্ন এলাকার ২০টি গ্রামে এখন দিন রাত চলছে মুড়ি ভাজা। প্রতিদিন এ গ্রামগুলো থেকে ২ থেকে ৩শ মণ মুড়ি দেশের বিভিন্ন স্থানে চালান হয়। রমজানের চাহিদা মেটাতে বাড়তি শ্রম দিতে হচ্ছে মুড়ি প্রস্তুতকারী পরিবারগুলোকে।

ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার দপদপিয়া ইউনিয়নের তিমিরকাঠি, জুড়কাঠি, ভরতকাঠি, দপদপিয়া, রাজাখালি, বুড়িরহাটসহ উপজেলার ২০টি গ্রামের ৫শতাধির পরিবার বংশানুক্রমে মুড়ি ভেজে জীবিকা নির্বাহ করে আসছে। সুস্বাদু কেমিক্যালমুক্ত মুড়ি হিসেবে সারদেশে প্রশংসিত এ এলাকার মোটা মুড়ি। এই গ্রামগুলো এখন তাদের আসল নাম হারিয়ে মুড়ির গ্রাম হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে।

আমনের বিশেষ কয়েকটি জাতের ধান প্রকৃয়াজাত করে এ মুড়ির চাল তৈরি করা হয়। এখানকার মুড়িতে কোন প্রকার রাসায়নিক দ্রব্য ব্যবহার করা হয়না বলে এ মুড়ি স্বাস্থ্যসম্মত। মুড়ির কারিগরদের নিজস্ব পূঁজি না থাকায় পাইকারদের কাছ থেকে দাদন নিতে বাধ্য হয়। আর এ কাজে পরিবারের সবাই কম বেশি সহায়তা করলেও লাভের বেশিরভাগই যায় পাইকারদের পকেটে।
   
ঝালকাঠির ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক দেলোয়ার হোসেন মাতুব্বর জানান, রমজানের বাড়তি চাহিদার কারণে মুড়ি তৈরির কারিগরদের অতিরিক্ত শ্রম দিতে হয়।

তিনি আরো জানান, জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাদের খোঁজ-খবর রাখা হচ্ছে। 

বছরের পর বছর মুড়ি ভেজেও শুধুমাত্র পূঁজির অভাবে ভাগ্য ফেরাতে পারেনি এই পরিবারগুলো। মুড়ি ভাজাকে কুটির শিল্প হিসেবে বিবেচনা করে বিশেষ ঋণের ব্যবস্থা করা হলে এদের ভগ্য ফিরে যেতে পারে বলে অভিজ্ঞরা মনে করেন।
   

পুলিশ যা বলতে বলেছে আদালতে তাই বলেছি, বাবাকে মিন্নি সিনেমায় চুমু খেয়ে বিয়ে ভাঙলো নায়িকার! (ভিডিও) নোয়াখালীতে এক ব্যক্তিকে ধরে নিয়ে পিটিয়ে হত্যা এমপি হওয়ার পর ‘অসুরে’ প্রথম নুসরাত নিম্ন রক্তচাপকে স্বাভাবিক করুন খুব সহজে উদ্ভিদের বৃদ্ধিতে বাধার সৃষ্টি করছে সিগারেটের গোড়া যে ১৪ আত্মমূল্যায়নের প্রশ্নে বদলে যেতে পারে জীবন সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবিতে মস্কোতে হাজারো নাগরিকের বিক্ষোভ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মঞ্চেই মারা গেলেন ভারতীয় কৌতুকাভিনেতা নিজের পিস্তলের গুলিতে আহত ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতা কুমিল্লায় টেলিভিশন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত ছেলেধরা সন্দেহে পিটিয়ে হত্যা: ৫শ জনের বিরুদ্ধে মামলা পঞ্চগড়ে মাছ ধরতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দুই ছেলেসহ বাবার মৃত্যু হজক্যাম্পের আশপাশের রেস্তোরাঁয় পচা খাবার, জরিমানা ২৬ লাখ জনগণকে নিয়ে গণঅভ্যুত্থান ঘটাতে হবে: ফখরুল ট্রাম্পের দাবি নাকচ, এই সেই ইরানি ড্রোন! জামালপুরে বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত শ্বশুরকে হত্যা করে পলাতক জামাই ইনডোর এশিয়া কাপ হকিতে বাংলাদেশ সপ্তম আইনি লড়াইয়ে খালেদার মুক্তি নেই: গয়েশ্বর গণপিটুনির সঙ্গে জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে কাদেরের মাথায় হাত বুলিয়ে রওশনের আশীর্বাদ ‘স্থানীয় হিন্দু-মুসলমানদের হয়রানি করছেন প্রিয়া সাহা’ দিল্লির ৩ বারের মুখ্যমন্ত্রী শীলা দীক্ষিত মারা গেছেন মিন্নিকে আইনি সহায়তা দিতে বরগুনায় আসকের ৪ আইনজীবী প্রিয়া সাহার অভিযোগ নিয়ে যা বলল জামায়াত সাংবাদিক পাইলেই গুলি করে মারব: ছাত্রলীগ নেতা ইঞ্জিনে পাখির বাসা, দেড়মাস বসে থাকলেন ট্রাকচালক উইন্ডিজ সফরে না গিয়ে সেনাবাহিনীতে সময় দেবেন ধোনি ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনি, প্রাণ গেলো ৩ জনের