artk
বৃহস্পতিবার, নভেম্বার ২১, ২০১৯ ১১:২৬   |  ৭,অগ্রহায়ণ ১৪২৬
শনিবার, মে ১১, ২০১৯ ১০:০৯

ডায়াবেটিস রোগীদের যে ধরনের ইফতার করা উচিত

স্বাস্থ্য ও পুষ্টি ডেস্ক
media
খানিকটা লবণ দিয়ে টকদইয়ের লাচ্ছি বা ঘোল পান করা যেতে পারে। যাদের কোষ্ঠকাঠিন্য আছে, তারা ইসবগুল বা তোকমা মেশানো পানীয় বেছে নিতে পারেন।

ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। আর তার জন্য আলাদা খাবার তালিকাও বানাতে হচ্ছে। সেটা রোজায়ও। আসুন দেখা যাক একজন ডায়াবেটিস রোগী ইফতারে কী খেতে পারবে আর কী খেতে পারবে না।

১. চিনি বা গুড় মেশানো কোনো খাবার বা শরবত খাওয়া যাবে না। তবে ডাবের পানি, ফলের রস, লেবু-লবণের শরবত খেলে শরীরের পানি ও লবণশূন্যতা দূর হবে।

২. খানিকটা লবণ দিয়ে টকদইয়ের লাচ্ছি বা ঘোল পান করা যেতে পারে। যাদের কোষ্ঠকাঠিন্য আছে, তারা ইসবগুল বা তোকমা মেশানো পানীয় বেছে নিতে পারেন।

৩. ইফতারে ভাজা-পোড়া কম খেয়ে স্বাস্থ্যকর প্রোটিন বেশি খেতে হবে। যেমন- আদা-পুদিনা দিয়ে কাঁচা ছোলা, সেদ্ধ ছোলা না ভেজে শসা, টমেটো দিয়ে সালাদ করে খেতে পারবেন। টক-মিষ্টি ফলের সালাদ খেতে হবে। ইফতারে একটি খেজুর খাওয়া যেতে পারে।

৪. মূল খাবারটা সেহেরিতে খেতে হবে, দুপুরের সমপরিমাণ। ডায়াবেটিসের রোগীদের সেহেরি না খেয়ে কখনো রোজা রাখা উচিত নয়। ইফতারের পর সন্ধ্যা রাতে ভাত না খেয়ে বরং রুটি, ফলমূল, ওটস, দুধ, দই-চিড়া ইত্যাদি খেতে হবে।

ডায়াবেটিক রোগীর জন্য দুটি আদর্শ খাদ্যতালিকা

মোট ১ হাজার ৩০০ কিলোক্যালরি

ইফতার: ছোলা আধা কাপ (৮০ গ্রাম), ছোট পেঁয়াজি ২টা, বেগুনি বা আলুর চপ ১টা, মুড়ি ১ কাপ, খেজুর ১টি, ফলের সালাদ আধা বাটি, রায়তা আধা কাপ।

সন্ধ্যারাত: আটার রুটি ২টা অথবা ১ কাপ ভাত বা ১ কাপ ওটস, সবজি ইচ্ছামতো, ১ টুকরো মাছ বা মাংস।
সেহেরি: ভাত ২ কাপ, মাছ বা মাংস ১ টুকরো, ডাল ১ কাপ বা দুধ ১ কাপ, সবজি ইচ্ছামতো।

মোট ১ হাজার ৮০০ কিলোক্যালরি

ইফতার: ছোলা ৩ কাপ (১২০ গ্রাম), পেঁয়াজু ৩টা, বেগুনি ২টা বা আলুর চপ ১টা, মুড়ি ২ কাপ, খেজুর ১টা, ফলের সালাদ ১ কাপ, রায়তা আধা কাপ।

সন্ধ্যারাত: আটার রুটি ৩টা অথবা ভাত দেড় কাপ, মাছ-মাংস ২ টুকরো, সবজি ইচ্ছামতো।
সেহেরি: ভাত আড়াই কাপ (৩০০ গ্রাম), মাছ বা মাংস ২ টুকরো (৬০ গ্রাম), ডাল বা দুধ ১ কাপ, সবজি ইচ্ছামতো।

আইন মেনে চললে দুর্ঘটনা অনেকাংশে কমবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ইটিভির সাবেক চেয়ারম্যান সালামের মামলা বাতিল পিইসি পরীক্ষায় শিক্ষার্থী বহিষ্কার কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট বিএনপি নেতাদের বাড়ি ঘেরাও হচ্ছে না কেন: গয়েশ্বর শফিকুরের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা অপরাধীরা মোবাইল ব্যাংকিং চ্যানেল ব্যবহারে করছে: দুদক চেয়ারম্যান সড়ক আইন প্রয়োগে বাড়াবাড়ি না হলে সমস্যা হবে না: কাদের পুঁজিবাজারে সব ধরনের সূচকের উত্থান ‘চাল নেই লবণ নেই বলে অপপ্রচার চালাচ্ছে একটি গোষ্ঠী’ বুরকিনা ফাসোতে পুলিশের অভিযানে ১৮ জিহাদি নিহত জীবনযাত্রায় বদল এনে নিয়ন্ত্রণে রাখুন রক্তচাপ সশস্ত্র বাহিনী দিবসে শিখা অনির্বাণে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা তিনদিনব্যাপী ‘শালুক’-এর নিবিড় সম্মিলন শুরু শুক্রবার ভারতের সাথে ১০০ কোটি ডলারের নৌ-অস্ত্র চুক্তি যুক্তরাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর আশ্বাসে কর্মবিরতি প্রত্যাহার মালিক-শ্রমিকদের চেকপোস্টে ডাকাতের হামলা, ৪ পুলিশ আহত মেলায় রাজস্ব আদায় ২৬১৩ কোটি টাকা রাজধানী সুপার মার্কেটের আগুন নিয়ন্ত্রণে ময়মনসিংহে এক বাড়িতেই ৭ হাজার কেজি লবণ ট্রান্সফাররেবল এলসির সঠিক ব্যবহারে বায়িং হাউজের দক্ষতা বাড়ানো জরুরী জনগণকে শাস্তি দেবেন না প্লিজ: কাদের কাউন্সিলর সাঈদের বিরুদ্ধে মামলা সৈয়দ নূরুল আলমের ‘আমার জীবন ও উন্নয়নের ৪৪ বছর’ টিকাটুলিতে রাজধানী সুপার মার্কেটে ভয়াবহ আগুন শিগগিরই ২২১ বন্ড লেনদেনযোগ্য হবে দেশের মানুষ এখন খোলা জেলে বন্দী: মির্জা আব্বাস ধর্মঘটের প্রভাব চালের বাজারে পড়বে না: খাদ্যমন্ত্রী বায়ুদূষণে শীর্ষে ঢাকা, ২৫ নভেম্বর আন্তমন্ত্রণালয় সভা চট্টগ্রামে পাহাড়ে অস্ত্র তৈরির কারখানা: ২০ অস্ত্রসহ ‘ডাকাত সর্দার’ গ্রেপ্তার ঢাকা-চট্টগ্রাম-সিলেট মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক