artk
শনিবার, আগষ্ট ১৭, ২০১৯ ৫:৫৮   |  ২,ভাদ্র ১৪২৬
মঙ্গলবার, মে ৭, ২০১৯ ৯:৫১

জেনে নিন রোজা ভঙ্গের কারণগুলো

লাইফস্টাইল ডেস্ক
media
রোজা রাখা মানে শুধু পানাহার থেকে না, ইন্দ্রীয় তৃপ্তি থেকেও নিজেকে বিরত রাখা। সেই অর্থে রোজা থাকা অবস্থায় যদি কেউ সহবাস করে তাহলে রোজা ভেঙ্গে যাবে। এক্ষেত্রে তাকে কাজা ও কাফফারা দুটোই করতে হবে।

চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে শুরু হচ্ছে পবিত্র মাহে রমজান। আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনের জন্যে সুবহি সাদিক থেকে সূর্য অস্ত যাওয়া পর্যন্ত সকল প্রকার পানাহার ও ইন্দ্রিয় তৃপ্তি থেকে বিরত থাকার নামই হচ্ছে সাওম বা রোজা। রোজার রাখার পড়ে এমন কোনো কাজ করা যাবে না যার জন্য রোজা ভেঙে যেতে পারে। তাই রোজা রাখার পর কিছু বিষয় মেনে চলতে হবে। অনেক কারণে রোজা ভঙ্গ হতে পারে। আসুন জেনে নেই যেসব কারণে রোজা ভাঙে।

পানাহার বা ধূমপান:

কেউ যদি রোজা থাকা অবস্থায় কোন প্রকার পানাহার বা ধূমপান করে তাহলে নিঃসন্দেহে তা রোজা ভঙ্গের একটি কারণ হবে। ডুবে ডুবে পানি খাওয়ার মতো করে যদি কেউ সবার অজান্তে লুকিয়ে পানাহার করে সেক্ষেত্রেও রোজা ভেঙ্গে যাবে। কারণ আর কেউ না দেখুক, আল্লাহ তাআলা ঠিকই দেখছেন। তবে কেউ যদি অনিচ্ছাকৃত ভাবে পানি খেয়ে ফেলে বা অন্য কোন খাবার খেয়ে ফেলে তাহলে রোজা ভাঙ্গবে না।

ওজু করার সময় অসর্তক হলে:

ওজু করার সময় গড়গড়া করা যাবে না। আর নাকে পানি দেওয়ার সময় সাবধান থাকতে হবে যেন পানি ভেতরে চলে না যায়। ইচ্ছাকৃত ভাবে পানি ঢোকালে রোজা ভেঙ্গে যাবে, অনিচ্ছাকৃত হলে সেটা আলাদা।

স্ত্রীর সঙ্গে মিলিত হলে:


রোজা রাখা মানে শুধু পানাহার থেকে না, ইন্দ্রীয় তৃপ্তি থেকেও নিজেকে বিরত রাখা। সেই অর্থে রোজা থাকা অবস্থায় যদি কেউ সহবাস করে তাহলে রোজা ভেঙ্গে যাবে। এক্ষেত্রে তাকে কাজা ও কাফফারা দুটোই করতে হবে।

বমি করলে:


অনিচ্ছাকৃতভাবে বমি হয়ে থাকে তাহলে তাতে কোন সমস্যা নেই। অনিচ্ছাকৃত বমি হলে রোজা ভেঙে যায় না। বমি করার পর সমস্ত মুখ ভালো করে পানি দিয়ে কুলি করে ধুয়ে নিতে হবে। মুখের কোথাও বিন্দুমাত্র খাবারের কণা জমে না থাকে।

হস্তমৈথুন:


হস্তমৈথুন বা অন্য কোনভাবে যদি কেউ ইচ্ছাকৃত ভাবে বীর্যপাত ঘটায় তাহলে তা রোজা ভঙ্গের কারণ হবে। এক্ষেত্রে যদি কেউ কামভাবে স্ত্রীকে স্পর্শ করার মাধ্যমেও বীর্যপাত ঘটায় তাহলেও রোজা ভেঙ্গে যাবে। তবে স্বপ্নদোষ হলে রোজা ভাঙ্গবে না।

ঋতুস্রাব:


রোজা রাখা অবস্থায় যদি মহিলাদের মাসিকের রক্ত দেখা দেয় তাহলে রোজা ভেঙে যাবে। এমনিভাবে প্রসবজনিত রক্ত প্রবাহিত হতে থাকলে রোজা নষ্ট হয়ে যায়। এক্ষেত্রে যে কয়টি রোজা নষ্ট হবে সে কয়টি পরে কাজা করে নিতে হবে।

শক্তিবর্ধক ইনজেকশন:


ইনজেকশনের মাধ্যমে শরীরে জীবনী শক্তি বৃদ্ধি করার জন্যে কিংবা অন্য কোন কারণে শরীরে ওষুধ প্রবেশ করানো হলে রোজা ভেঙে যাবে।

সৌদিতে বাস দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি হাজি নিহত সিরিজ বোমা হামলার বিচার অবশ্যই হবে: পরিকল্পনামন্ত্রী একটি অসাধু চক্র চামড়ার দরপতনের খেলায় নেমেছে: তথ্যমন্ত্রী বিএনপির হাত ধরেই 'জঙ্গিবাদের' উত্থান: হানিফ ১ হাজার যাত্রীর অতিরিক্ত ভাড়ার টাকা ফেরত চিকিৎসা ও শিক্ষার উন্নয়নে সবকিছু করবে সরকার: প্রধানমন্ত্রী গাজীপুরের সাবেক মেয়র করিম বিএনপিতে ইসরাইলের শর্ত মেনে পশ্চিম তীর সফরে যাবেন না রাশিদা ক্রিকেট না খেলেই টাইগারদের কোচ রাসেল ডমিঙ্গো! ভেসে যাওয়া ২ ভাইয়ের একজনের লাশ উদ্ধার নাঙ্গলকোটে ট্রেনের ধাক্কায় ১ ব্যক্তি নিহত ডেঙ্গুতে ঢাকা মেডিকেলে আরও একজনের মৃত্যু অবসরের জন্য দুই মাস সময় চেয়েছেন মাশরাফি-পাপন ছাত্রদলের মনোনয়নপত্র বিতরণ শুরু ঢাকায় পৌঁছেছে হজের প্রথম ফিরতি ফ্লাইট টাইগারদের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো ব্রাজিলের দল ঘোষণা, থাকছেন নেইমার ইসি বাতিল করে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন চাইলেন ফখরুল বকেয়া না পেলে ট্যানারিতে চামড়া দেবেন না আড়তদাররা আ.লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য হলেন আতাউর রহমান চিকিৎসার হাল: ম্যাজিস্ট্রেটই চরম হয়রানির শিকার শামসুর রাহমানের ১৩তম মৃত্যুবার্ষিকী প্রথম বিদেশ সফরে বাংলাদেশ আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বার্সার হারে নেইমারকে ফেরানোর দাবি জোরালো হচ্ছে যমুনায় বেড়ানোর কথা বলে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ প্রেম করে বিয়ে, পরে তরুণীকে গলা কেটে হত্যা কাশ্মীর সঙ্কট নিয়ে রাষ্ট্রদূতদের বাকযুদ্ধ পুলিশি অভিযানের মধ্যেই গণপিটুনিতে নিহত ২ ফেসবুকে মেয়ে সেজে র‌্যাবের হাতে ধরা ছাত্রলীগ নেতা মেসিকে ছাড়া আরও একবার টের পেল বার্সা