artk
মঙ্গলবার, জুলাই ২৩, ২০১৯ ১২:৩০   |  ৮,শ্রাবণ ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২৫, ২০১৯ ৮:৫৮

৯০ ভাগ স্কুলের পাশে সিগারেট বিক্রি হয়

media

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর বাইরে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের সামনে বিক্রি হচ্ছে সিগারেট। দেশের ৯০ দশমিক ৫ শতাংশ স্কুল ও খেলার মাঠের বাইরে সিগারেট বিক্রি করা হচ্ছে। ‘বিগ টোব্যাকো টিনি টার্গেট বাংলাদেশ’ শীর্ষক এক গবেষণা প্রতিবেদনে এমন তথ্য ওঠে এসেছে।

২৩ এপ্রিল মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের ঢাকা আহছানিয়া মিশনের উদ্যোগে ‘বিগ টোব্যাকো টিনি টার্গেট বাংলাদেশ’ প্রতিবেদন উপস্থাপন ও করণীয় শীর্ষক এক আলোচনা সভায় গবেষণার ফল প্রকাশ করা হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ৯০ দশমিক ৫ শতাংশ স্কুল ও খেলার মাঠের একশ মিটারের মধ্যে তামাকজাত দ্রব্য বা সিগারেট বিক্রির দোকান পাওয়া গেছে। ৮১ দশমিক ৮৭ শতাংশ দোকানে তামাকজাত দ্রব্যের প্রদর্শন শিশুদের দৃষ্টির এক মিটারের মধ্যে দেখা যায়। চকলেট এবং খেলনার পাশে তামাকজাত দ্রব্য বিক্রি করতে দেখা যায় ৬৪ দশমিক ১৯ শতাংশ দোকানে। স্কুল ও খেলার মাঠের পাশে বিভিন্ন দ্রব্য বিক্রির দোকানগুলোতে ৮২ শমিক ১৭ শতাংশ তামাকের বিজ্ঞাপন দেখা যায়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী। তিনি বলেন, বিদ্যালয়ের একশ মিটারের মধ্যে তামাকজাত দ্রব্যের বিজ্ঞাপন প্রদর্শন বন্ধে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের বিগত পদক্ষেপগুলোর অগ্রগতি পর্যালোচনা করা হবে। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের অতিরিক্ত সচিব রোকসানা কাদের, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক, জাতীয় তামাক নিয়ন্ত্রণ সেলের সমন্বয়কারী মো. খলিলুর রহমান (যুগ্মসচিব), ঢাকা জেলা শিক্ষা অফিসার মো. বেনজীর আহম্মদ, বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সহ-সভাপতি আবদুল কাইয়ুম তালুকদার এবং ক্যাম্পেইন ফর টোব্যাকো ফ্রি কিডসের ম্যানেজার আবদুস সালাম মিঞা। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের নির্বাহী পরিচালক ড. এম এহ্ছানুর রহমান। প্রতিবেদনটি উপস্থাপন করেন ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের সহকারী পরিচালক ও তামাক নিয়ন্ত্রণ প্রকল্পের সমন্বয়কারী মো. মোখলেছুর রহমান।

অনুষ্ঠানে শিশু, কিশোর ও যুবসমাজকে তামাক ও ধূমপানে আসক্ত করা ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে ধ্বংস করার লক্ষ্যে তামাক কোম্পানিগুলোর বিভিন্ন কূট কৌশল বন্ধে ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন সরকারের প্রতি কিছু সুপারিশমালা তুলে ধরেন। 

সুন্দরবনে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ বাহিনী প্রধানসহ ২ জলডাকাত নিহত ঈদে ট্রেনের আগাম টিকিট ২৯ জুলাই থেকে বাড্ডায় গণপিটুনিতে নারীকে হত্যা: আরও ২ জন গ্রেপ্তার জমি চাষ করতে গিয়ে হিরা পেল কৃষক! পাক-ভারত আলোচনায় মধ্যস্থতায় প্রস্তুত ওয়াশিংটন কে হচ্ছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী? ঈদে ‘মফিজের লাইফস্টাইল’ কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে রাখবে মধু-দারুচিনি! বয়স অনুযায়ী ত্বকের যত্ন মেহেরপুরে দু’পক্ষের গোলাগুলিতে মাদক ব্যবসায়ী নিহত পাকা চুলের ঘরোয়া সমাধান বগুড়ায় ‘ছেলেধরা’ সন্দেহে ৪ যুবককে গণপিটুনি ধর্ষণের জন্য অভিযুক্ত হচ্ছেন না রোনালদো ময়মনসিংহে ট্রলিচাপায় পুলিশ কর্মকর্তা নিহত সাত বছর পর ‘ছন্দ-আনন্দ’ হলের মালিকানা ফিরে পেলো কর্তৃপক্ষ নেশাগ্রস্ত স্বামীর হাঁসুয়ার কোপে স্ত্রী নিহত ঘুষ কেলেঙ্কারি: দুদকের এনামুল বাছির গ্রেপ্তার ছেলেধরা সন্দেহে কুষ্টিয়ায় ৮ ঘণ্টায় ৬ জনকে গণপিটুনি সন্দেহ হলে গণপিটুনি নয়, ৯৯৯ এ জানাতে পরামর্শ বন্যায় দেওয়ানগঞ্জে রেল লাইনের মাটি ধসে গেছে বন্যার্তদের পাশে বিএনপির ৫ টিম প্রিয়া সাহার এনজিও থেকে একযোগে ২৫ সদস্যের পদত্যাগ চার কারণে এসিড সন্ত্রাস কমেছে শিবপুরের ইউএনওকে লিগ্যাল নোটিশ পরিচ্ছন্ন রাজশাহীর প্রশংসা ভারতীয় হাইকমিশনারের ছেলেধরা সন্দেহে পাঁচ জেলায় ১৫ জনকে গণপিটুনি হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ থেকে বরখাস্ত প্রিয়া সোমালিয়ায় হোটেলের সামনে বোমা হামলা, নিহত ১৭ ১৭ মার্কিন গুপ্তচরকে গ্রেপ্তার করে কয়েকজনকে ফাঁসিতে ঝুলিয়েছে ইরান প্রিয়া সাহা বিভ্রান্তিমূলক ও নীতি গর্হিত বক্তব্য দিয়েছেন: বারকাত