artk
সোমবার, আগষ্ট ২৬, ২০১৯ ১:১১   |  ১০,ভাদ্র ১৪২৬

বান্দরবান সংবাদদাতা

বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২৫, ২০১৯ ১০:৫৮

টিউবওয়েল থেকে পানি নেয়ায় নারীকে রাস্তায় পেটালেন মাদ্রাসার পরিচালক

media

বান্দরবানের আলীকদম উপজেলায় টিউবওয়েল থেকে খাবার পানি নেয়ায় প্রকাশ্যে এক নারীকে নির্যাতন করেছেন মাদ্রাসার পরিচালক। এই ঘটনার ভিডিও চিত্র প্রকাশ হলে জেলাজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়। অনেকে এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের শাস্তির দাবি করেছেন। 

মঙ্গলবারের এ ঘটনায় নির্যাতনের শিকার সালমা বেগম বাদী হয়ে বুধবার ফয়জুল উলুম নামে ওই মাদ্রাসার পরিচালক শামশুল হুদাসহ পাঁচজনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত দুই-তিনজনের বিরুদ্ধে আলীকদম থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ফয়জুল উলুম মাদ্রাসার টিউবওয়েল থেকে প্রতিদিন এলাকাবাসী খাবার পানি নিয়ে যায়। মঙ্গলবার সকালে সালমা বেগমের বড় ছেলে আলম কলসি নিয়ে মাদরাসায় পানি আনতে গেলে তাকে বাধা দেয়া হয়। এর প্রতিবাদ করলে মাদ্রাসার পরিচালক শামশুল হুদা মসজিদের ঝাড়ু দিয়ে পিটিয়ে আলমের ডান হাত, ডান কান ও পিঠে জখম করেন। পরে সালমার মেঝ ছেলে রফিক মারার কারণ জানতে চাইলে তাকেও শামশুল হুদার নির্দেশে কিল-ঘুষি মেরে মাদ্রাসা থেকে বের করে দেয়া হয়।

খবর পেয়ে সালমা বেগম ও তার মেয়ে এলে শামশুল হুদা সালমাকে গলা চেপে ধরে মাদ্রাসার দেয়ালে জোরে ধাক্কা মারেন। তাকে ইটের টুকরো দিয়ে আঘাত করা হয়। সামলা বেগম এতে মারাত্মকভাবে আঘাত পান এবং ঘটনাস্থলে পড়ে যান। স্থানীয়রা তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে যায়। তিনি বর্তমানে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি আছেন।

ঘটনার পর উল্টো সালমা বেগম ও তার ছেলেদের মারধরসহ মামলায় জড়ানোর ভয়ভীতি প্রদর্শন করেন শামশুল হুদা।

এ বিষয়ে আলীকদমের ফয়জুল উলুম মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক মুফতি শফিউল আলম বলেন, “ইসলামী শরিয়ত মতে একজন নারীর গায়ে হাততোলা চরম অপরাধ, এটা অন্যায়। এটা চরম লজ্জারও।”

মাদ্রাসার কাজের বুয়া আম্বিয়া খাতুন বলেন, “মাহফিল উপলক্ষে সবাইকে পানি না দিতে মাদ্রাসার পরিচালক নিষেধ করেন, তাই আমি সালমা বেগমের ছেলেকে পানি নিতে বাধা দিই, কিন্তু সে গালাগালি করে। পরে হুজুর (শামশুল হুদা) আসলে তাকে বিষয়টি জানাই এবং হুজুর ঝাড়ু দিয়ে আলমকে আঘাত করে এবং মাদ্রাসা থেকে বের করে দেয়।”

ফয়জুল উলুম মাদ্রাসার শিক্ষক তৌফিক বলেন, “আলীকদম থানা থেকে এএসআই খালেদসহ কয়েকজন পুলিশ এসে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করেন। পরে দুই পক্ষকে থানায় যেতে বলেন। সেখানে আলীকদম থানার ওসি রফিক উল্লাহ ঘরোয়াভাবে দুই পক্ষকে আলাদাভাবে বুঝিয়ে মীমাংসা করেন এবং সালমা বেগম ও তার ছেলের চিকিৎসাসহ যাবতীয় খরচ বহন করার জন্য মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন।

সালমা বেগমের ছেলে মো. রফিক বলেন, “তিনি (হুজুর) আমাদের মারতে পারেন কিন্তু একজন মহিলার গায়ে হাত তুলতে পারেন না। ওসি স্যার বলার পর আমরা সমাধানে আসছি কিন্তু মাদ্রাসার পরিচালকের হুমকি প্রদান আরও বেড়ে যায়।”

আলীকদম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্তব্যরত চিকিৎসক রনি কর্মকার জানান, সালমা বেগমের কোমরে প্রচুর ব্যথা হচ্ছে তাই শারীরিক পরীক্ষার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।

আলীকদম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রফিক উল্লাহ বলেন, এ ঘটনায় সালমা বেগম পাঁচজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত দুই-তিনজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। ইতোমধ্যে তালিকাভুক্ত দুইজনকে আটক করা হয়েছে। বাকিদের দ্রুত গ্রেপ্তার করা হবে।

সত্যকে এড়ানোর উপায় নেই: কাদের শিক্ষকদের কোচিং বাণিজ্য বন্ধে কমিটি হচ্ছে বিদ্যালয়ে বিশ্বের সবচেয়ে দামি অভিনেত্রী স্কারলেট বিএনপি নেতা-কর্মীদের খুন করেছে আ.লীগ: ফখরুল যেভাবে চিনবেন ভালো সিমেন্ট ডেঙ্গুর যাতনা ভুলতেই পারছি না: অর্থমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি করার অভিযোগে সোনাইমুড়ির মেয়র বরখাস্ত কানে এয়ারফোন, ট্রেনের ধাক্কায় প্রাণ গেলো তরুণের সোনার বাংলা বিনির্মাণে এক সঙ্গে কাজ করতে হবে: অর্থমন্ত্রী কাবিননামায় ‘কুমারী’ শব্দ বাদ দেয়ার নির্দেশ খেলাপি ঋণ কমার সুযোগ নেই স্টোকসের হেলমেট ভাঙলেন হ্যাজলউড শতকোটি টাকা আত্মসাতে ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা সিঙ্গাপুরের ব্যবসায়ীরা বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী রশিদ খানের হুঙ্কার! দক্ষ জনশক্তির প্রয়োজনে ২ প্রতিষ্ঠান রাতের আঁধারে জামালপুর ছাড়লেন সেই ডিসি শ্রীলঙ্কাকে ৭-১ গোলে গুড়িয়ে দিলো বাংলাদেশের কিশোররা রোগীর ওপর খসে পড়ল হাসপাতালের ছাদের পলেস্তারা রাজাকারদের তালিকা সংগ্রহ করছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আফগানিস্তানের বিপক্ষে নিজেদেরই এগিয়ে রাখছেন মিরাজ দুদকের কাছে ৩ মাসের সময় চেয়েছেন নূর আলী পৃথিবী ধ্বংসে মেতেছেন ট্রাম্প আর বোলসোনারো আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য সেবা কার্ড নিয়ে এলো ‘মেডিএইডার’ পদ্মায় ১৬০ টন সিমেন্টসহ কার্গো ডুবি পূর্বাচলে ১০ কাঠার প্লট চান বিএনপির রুমিন খেলোয়াড়দের দাঁত অন্যদের দাঁতের চেয়েও খারাপ কেড়ে নেয়া হবে সেই ডিসির শুদ্ধাচার সনদ কাবিননামা থেকে ‘কুমারী’ শব্দ বাদ দেয়ার নির্দেশ উদাহরণ সৃষ্টির মতো শাস্তি হবে ডিসির: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী