artk
রোববার, মে ২৬, ২০১৯ ১২:১৯   |  ১১,জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬
বুধবার, এপ্রিল ২৪, ২০১৯ ৮:৪৮

শরবত খাওয়াতে আসা মিজানুরের ‘মানসিক সমস্যা’: ওয়াসার এমডি

স্টাফ রিপোর্টার
media

ঢাকা ওয়াসার পানি শতভাগ বিশুদ্ধ বলে তাকসিম দাবি করার পর জুরাইনের বাসিন্দা মিজানুর তা মিথ্যা প্রমাণের জন্য মঙ্গলবার তার বাসায় সরবরাহ করা পানি নিয়ে হাজির হয়েছিলেন কারওয়ান বাজারে সেবা সংস্থাটির প্রধান দপ্তরে।

ঢাকা ওয়াসার পানি শতভাগ বিশুদ্ধ বলে তাকসিম দাবি করার পর জুরাইনের বাসিন্দা মিজানুর তা মিথ্যা প্রমাণের জন্য মঙ্গলবার তার বাসায় সরবরাহ করা পানি নিয়ে হাজির হয়েছিলেন কারওয়ান বাজারে সেবা সংস্থাটির প্রধান দপ্তরে।

এর প্রতিক্রিয়ায় শরবত বানাতে পানি নিয়ে আসা মিজানুর রহমানের ‘মানসিক সমস্যা’ রয়েছে বলেও মন্তব্য করেছেন  সংস্থাটির প্রধান তাকসিম এ খান।

তিনি ঘোলা ওই পানির শরবত বানিয়ে ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাকসিমকে খাওয়াতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তাতে তিনি সফল না হওয়ার পর ভালো পানি পাওয়ার আশ্বাস পেয়ে ওয়াসা ভবন ছাড়েন।

ঢাকা ওয়াসার সরবরাহ করা পানি নিয়ে রাজধানীবাসীর অভিযোগের শেষ নেই। পুরনো সরবরাহ লাইন দিয়ে যে পানি আসে তাতে ময়লা আর দুর্গন্ধ থাকার কথা এবং সেই পানির কারণে অসুস্থতার খবর সংবাদমাধ্যমগুলোতে নিয়মিতই আসে।

ফলে শতভাগ সুপেয় বলার পর ইন্টারনেটে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনায় পড়েন তাকসিম।

জুরাইন নাগরিক অধিকার বাস্তবায়ন পরিষদের সমন্বয়ক মিজানুরের ওই কর্মসূচি নিয়ে খুলেছেন তাকসিম খান বলেন, “সেটা তো পুরাটাই নাটক। তাদের বাসার পানি তো ভালো। তারা বলছে ১০ বছর ধরে পানি পাচ্ছে না। কিন্তু আমাদের কর্মকর্তারা তো সেই বাসায় গিয়ে পানি খেয়ে এসেছে।”

এদিকে ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দাবি ঠিক নয় বলে জানান মিজানুর। নিজেকে ‘খুবই গরিব মানুষ’ দাবি করে তিনি বলেন, তার কোনো বাড়ি নেই। ওয়াসার কর্মকর্তাদের মায়ের বাসার ঠিকানা দিয়ে এলেও মঙ্গলবার তারা সেখানে যাননি।

তিনি বলেন, “আমি আমার মায়ের বাসায় থাকি। আমি আমার নাম ঠিকানা, ও ফোন নম্বর দিয়া আসছি। কিন্তু তারা আমার বাসায় না গিয়ে কাছেই আমার স্ত্রীর বাসায় গিয়েছেন। হয়ত তাদের ভয়ভীতি দেখাতে গিয়েছিলেন। আমি বাসায় ছিলাম না। তাকে অনেকটা ব্ল্যাকমেইলিং করেছে। তাকে না জানিয়ে ভিডিও করেছে। ভাইয়ের বাসার ঠিকানা দেওয়ার বিষয়টি অসত্য।”

ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক বলেন, পানি নিয়ে ওয়াসা ভবনে আসার পর মিজানুরের বাড়ির ঠিকানা জানতে চেয়েছিলেন ওয়াসার কর্মকর্তারা। কিন্তু তিনি বাসার ঠিকানা দিতে ‘রাজি হচ্ছিলেন না’। তিনি বলেন, “আমাদের নিয়মটা হল, কেউ যদি কোনো অভিযোগ করে যে আমার বাসার পানি খারাপ, তাহলে আমরা বলি আপনি ঠিকানাটা দেন, আমরা লোক পাঠাচ্ছি ল্যাবরেটরি থেকে। কিন্তু কিছুতেই সে ঠিকানা বলবে না।”

এমডি বলেন, “তখন আমাদের কর্মকর্তারা বলল, আপনি বলছেন আপনার বাসার পানি খারাপ, ঠিকানা না দিলে আমরা টেস্ট করব কীভাবে? তখন সে বলে, পুরো জুরাইনের পানিই খারাপ। একবার বলে ঢাকা শহরের পুরোটা। তো কর্মকর্তারা জোর করার পরে সে একটা ঠিকানা দিয়েছে।” মিজানুরের দেওয়া ওই ঠিকানাও ‘ভুল ছিল’ বলে দাবি করেন তাকসিম খান।

তবে মিজানুরের সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি বলে জানান ওয়াসা এমডি। তিনি বলেন, “ফোনে যোগাযোগ করেও তাকে পাওয়া যায়নি।”

ওই বাড়ি থেকে আনা পানি পরীক্ষার জন্য ঢাকা ওয়াসার ল্যাবে পাঠানো হয়েছে জানিয়ে তাকসিম বলেন, ফলাফল এলে তা গণমাধ্যমে পাঠানো হবে।

ওয়াসার কর্মকর্তারা বুধবার আবার তার বাড়িতে গিয়ে ‘বাজে আচরণ’ করেছেন বলেও অভিযোগ করেন মিজানুর রহমান।

তিনি বলেন, “এটা আমার এলাকা। এছাড়া আমি ওয়াসার একজন গ্রাহক, বাংলাদেশের নাগরিক। কিন্তু আমার সঙ্গে তারা খুব বাজে আচরণ করেছে। পারলে আমাকে মারে!”

টিআইবি গত ১৭ এপ্রিল ‘ঢাকা ওয়াসা: সুশাসনের চ্যালেঞ্জ ও উত্তরণের উপায়’ শীর্ষক একটি গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশ করে জানায়, ঢাকা ওয়াসার ৯১ শতাংশ গ্রাহকই পানি ফুটিয়ে পান করেন। বাসাবাড়িতে এই পানি ফোটাতে বছরে পোড়াতে হয় ৩৬ কোটি ৫৭ লাখ ৩৭ হাজার ঘনমিটার গ্যাস, যার আর্থিক মূল্য ৩৩২ কোটি ৩৭ লাখ টাকা।

এরপর গত শনিবার সংবাদ সম্মেলন করে টিআইবির ওই প্রতিবেদনকে মনগড়া আখ্যায়িত করে তা প্রত্যাখ্যান করেন তাকসিম। ওয়াসার সরবরাহ করা পানি শতভাগ সুপেয় দাবি করার পাশাপাশি টিআইবির প্রতিবেদনকে ‘স্টান্টবাজি’ও বলেন তিনি।

মিজানুর মঙ্গলবার ওয়াসা ভবন ছাড়ার সময় বলেছিলেন, “এ পর্যন্ত ঢাকা ওয়াসার পানি খেয়ে যারা অসুস্থ হয়েছে বা মারা গেছে, তদন্ত করে ওয়াসাকে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। এ পর্যন্ত ওয়াসা দূষিত পানি দিয়ে যে বিল নিয়েছে, তা গ্রাহকদের ফেরত দিতে হবে। এই ব্যবস্থা না নেওয়া পর্যন্ত ওয়াসাকে আর এক পয়সাও বিল দেব না।”

খালেদার চিকিৎসা নিয়ে মির্জা ফখরুলের বক্তব্য দায়িত্বহীন: নাসিম নাটোরে একসঙ্গে ৪ সন্তানের জন্ম দেশের ৯০ শতাংশ সম্পদ সুপার ধনীদের হাতে বিড়ির শুল্ক প্রত্যাহার চান শতাধিক সংসদ সদস্য ‘আ.লীগের বিরুদ্ধে শাজাহান খান’ বরিশাল নগরীতে দেশের প্রথম থ্রি ডি জেব্রা ক্রসিং এবার রংপুরে কৃষকের ধান কেটে দিলো পুলিশ বান্দরবানে হরতালের ডাক দিয়েছে স্থানীয় আ.লীগ শান্তিরক্ষা মিশনে সুদান যাচ্ছে বাংলাদেশের ১৪০ পুলিশ সদস্য ১ কেজি রসমালাইয়ে ২৫০ গ্রাম কম! চালক-হেলপারদের সন্দেহ হলে ডোপ টেস্ট করান: ডিএমপি কমিশনার বাটা ও ইনফিনিটিকে ১ লাখ টাকা জরিমানা গোররক্ষকদের হাতে নারীসহ ৩ মুসলিম মারধোরের শিকার মধ্যপ্রাচ্যে আরও দেড় হাজার সেনা পাঠানোর ঘোষণা ট্রাম্পের ‘কৃষি যন্ত্রপাতি কেনার টাকা খেয়ে ফেলছেন সরকার দলীয় লোকজন’ বরুণ কুমার বিশ্বাসের ৫ কবিতা কাজী নজরুলের সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর অনেক মিল আছে: হানিফ ভারতের লোকসভায় মুসলিম এমপি বাড়লো ৪ জন প্রতি মণ ধানের দাম হওয়া উচিত ১২০০ টাকা: বারকাত অযোধ্যার সীতা রাম মন্দিরে ইফতার আয়োজন ভারতের নির্বাচন থেকে শিক্ষা নিন: ড. মোশাররফ মেট্রোরেলের পর চালু হচ্ছে বিদ্যুৎচালিত ট্রেন: প্রধানমন্ত্রী অবশেষে বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা অনুমোদনের সিদ্ধান্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রাক চাপায় অটোরিকশার ৩ যাত্রী নিহত বেহুলার বাসরঘরের দরজার ছিদ্রের কথা ভুলে গেছে আ.লীগ: রিজভী ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের কারণে বাক্‌স্বাধীনতা ব্যাহত হচ্ছে’ সেই হারের ক্ষত এখনও আমাকে কষ্ট দিচ্ছে গুড়ে টিকটিকি-তেলাপোকা-ফিটকিরি, ২ লাখ টাকা জরিমানা অভিজ্ঞদের নিয়ে ‘টিম ইউনাইটেড’ প্যানেল ৩১ কোটি টাকা আত্মসাৎ, বগুড়া যুবলীগের সাবেক নেতা গ্রেপ্তার