artk
রোববার, মে ২৬, ২০১৯ ১২:২১   |  ১১,জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

স্বাস্থ্য ডেস্ক

বুধবার, এপ্রিল ২৪, ২০১৯ ৮:৩৮

ডায়াবেটিস নিরাময় করতে জার্মানিতে অভিনব উদ্যোগ

media

ডায়াবেটিস আজও বিশ্বব্যাপী এক বড় সমস্যা৷ রোগীদের সাধারণত সারা জীবন ধরে ওষুধ ও ইনসুলিন ইঞ্জেকশনের উপর নির্ভর করতে হয়৷ কিন্তু প্রথম পর্যায়ে ওজন কমিয়ে ও কিছু নিয়ম মেনে এই রোগ পুরোপুরি দূর করা সম্ভব৷

জার্মানিতে প্রায় ৬০ লক্ষ ডায়াবেটিসের রোগী রয়েছেন৷ প্রতিদিন প্রায় হাজারখানেক মানুষ সেই তালিকায় যুক্ত হচ্ছেন৷ নাটকীয় এই পরিস্থিতির মাঝে এক গবেষণা অনুযায়ী, শুধু ওজন কমিয়ে ডায়াবেটিসের মোকাবিলা করা সম্ভব৷ পুষ্টি বিশেষজ্ঞ ড. মাটিয়াস রিডেল বলেন, ‘‘আমার কাছে এটা একটা মাইলফলক৷ এটা স্পষ্ট, যে  ডায়াবেটিস নিরাময় করা সম্ভব৷ আগের মতো এই রোগকে আর নিয়তি হিসেবে মেনে নিতে হবে না৷''

ইংল্যান্ডের এই গবেষণায় প্রমাণ পাওয়া গেছে, যে রোগ দেখা দেওয়ার পর প্রথম ৬ মাসের মধ্যে শুধু ওজন কমিয়ে সেটি নিরাময় করা সম্ভব৷ তাতে কোনো ওষুধের প্রয়োজন পড়ে না৷

এক পরীক্ষার আওতায় খাদ্য তালিকার অত্যন্ত কড়া নিয়ম অনুযায়ী অংশগ্রহণকারীদের খেতে দেওয়া হয়েছিল৷ তিন মাস ধরে তাঁদের দিনে শুধু ৯০০ ক্যালোরি পরিমাণ নিউট্রিশন শেক খেতে হয়েছে৷ সেইসঙ্গে মনস্তাত্ত্বিক ও পুষ্টি বিশেষজ্ঞরা তাঁদের পরামর্শ দিয়েছেন৷ বেশ কিছু ব্যায়ামও করতে হয়েছে৷ তার ফল ছিল বেশ চমকপ্রদ৷

যারা ৭ কিলোগ্রাম পর্যন্ত ওজন কমাতে পেরেছেন, তাঁদের মধ্যে ৭ শতাংশ মানুষ পুরোপুরি ডায়াবেটিস ট্যাবলেট ছাড়াই সুস্থ হয়ে উঠেছেন৷ যারা ১৫ কিলো ওজন কমাতে পেরেছেন, তাঁদের মধ্যে ৮৬ শতাংশ এই লক্ষ্য পূরণ করতে পেরেছেন৷ ড. মাটিয়াস রিডেল এ বিষয়ে বলেন, ‘‘এই গবেষণা ডায়াবেটিস চিকিৎসার ক্ষেত্রে বিপ্লব এনেছে৷ ডাক্তার ও রোগীদের নতুন করে ভাবতে হবে৷ সারা জীবন ধরে ট্যাবলেট ও ইনসুলিন গ্রহণ না করেও রোগ নিরাময় সম্ভব৷''

ডিয়র্ক ফন গ্রুবে নিজের ওজন কমিয়ে ইনসুলিন ইঞ্জেকশনের উপর নির্ভরতা কাটাতে পেরেছেন৷ আগে তিনি সব সময়ে কিছু না কিছু খেয়ে যেতেন৷ প্রচুর পরিমাণ কার্বোহাইড্রেট ও তার মাঝে মিষ্টি জাতীয় খাদ্য৷ এভাবে তিনি মোটা হতে হতে ডায়াবেটিস রোগে আক্রান্ত হন৷ ড. মাটিয়াস রিডেল এই প্রক্রিয়ার ব্যাখ্যা করে বলেন, ‘‘শরীরের ইন্দ্রিয়গুলি ও পেটে মেদের আধিক্যই ডায়াবেটিসের প্রধান কারণ৷ যত বেশি চর্বি, তত বেশি  ইনসুলিনের প্রয়োজন হয়৷ ইনসুলিনের প্রয়োজনীয়তা যত বাড়ে, তত বেশি মেদ জমা হয়৷ এই দুষ্টচক্র অনেক মানুষের জন্য অত্যন্ত বিপজ্জনক৷ এমনকি মৃত্যুও হতে পারে৷ তাই সেই চক্র ভেঙে দিতে হবে৷''

শরীর কার্বোহাইড্রেটকে গ্লুকোজে পরিণত করে৷ প্যানক্রিয়া বা অগ্ন্যাশয় ইনসুলিন উৎপাদন করে, যা রক্ত থেকে শর্করা শরীরের কোষে পাঠায়৷ এভাবে রক্তে শর্করার মাত্রা কম থাকে৷

খাদ্যাভ্যাসে পরিবর্তন এনে অতিরিক্ত ওজন কমানোর মাধ্যমে ডায়বেটিস শতকরা ৯০ ভাগ কমানো সম্ভব৷ যদি সে রোগীর ডায়বেটিসে ভোগার সময়কাল চার বছরের কম হয়ে থাকে৷ একথা জানান, জার্মান ডায়বেটিস বিশেষজ্ঞ প্রফেসার স্টেফান মার্টিন৷

অতিরিক্ত চিনি খেলে কোষগুলি ইনসুলিন প্রতিরোধ করতে শেখে৷ ফলে দীর্ঘমেয়াদী ভিত্তিতে অগ্ন্যাশয়ের উপর বেশি চাপ পড়ে৷ কোনো এক সময় ইনসুলিন উৎপাদন কমে যায়৷ তখন শর্করা আর রক্ত থেকে কোষের মধ্যে যায় না৷ সেই শর্করা ভাঙতে তখন ইনসুলিন ইঞ্জেকশন দিতে হয়৷ ডায়াবেটিস বিশেষজ্ঞ ড. ক্র্যোগার বলেন, ‘‘ওজন যত বেশি হবে, ইনসুলিনের প্রভাব তত খারাপ হবে৷ অর্থাৎ আমি ওজন কমানোর চেষ্টা না করলে আমার শরীরের মধ্যের ইনসুলিনের প্রভাবের আরও অবনতি হয়৷ এমনকি আমি ইনসুলিন ইঞ্জেকশন নিলে তার প্রভাবও খারাপ হয়৷ ফলে সহজেই ওজন বাড়তে থাকে৷''

ডিয়র্ক ফন গ্রুবে একজন পুষ্টি বিশেষজ্ঞের সাহায্য নিয়ে নিজের খাদ্যাভ্যাস বদলে ফেলেছিলেন৷ এভাবে তিনি ২৩ কিলো ওজন কমিয়েছিলেন৷ ফলে তিনি ওষুধ খাওয়াও অনেক কমাতে পেরেছিলেন৷ ড. রিডেল তাঁকে মনে করিয়ে দেন, ‘‘যখন আপনি আমাদের কাছে এসেছিলেন, তখন অনেক ইঞ্জেকশন নিতে হতো৷ আর এখন সামান্য কিছু ট্যাবলেট খেতে হয়৷ এমনটা অব্যাহত থাকলে আরও উন্নতি হবে৷''

ডিয়র্ক ফন গ্রুবে রক্তের শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে আনতে পেরেছেন৷ তবে তিনি অত্যন্ত ব্যতিক্রমী এক দৃষ্টান্ত৷ বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই চিকিৎসা হিসেবে পুষ্টি ও ব্যায়ামের উপকারিতা পরখ করার আগেই ডাক্তার ট্যাবলেট ও ইঞ্জেকশন লিখে দেন৷

খালেদার চিকিৎসা নিয়ে মির্জা ফখরুলের বক্তব্য দায়িত্বহীন: নাসিম নাটোরে একসঙ্গে ৪ সন্তানের জন্ম দেশের ৯০ শতাংশ সম্পদ সুপার ধনীদের হাতে বিড়ির শুল্ক প্রত্যাহার চান শতাধিক সংসদ সদস্য ‘আ.লীগের বিরুদ্ধে শাজাহান খান’ বরিশাল নগরীতে দেশের প্রথম থ্রি ডি জেব্রা ক্রসিং এবার রংপুরে কৃষকের ধান কেটে দিলো পুলিশ বান্দরবানে হরতালের ডাক দিয়েছে স্থানীয় আ.লীগ শান্তিরক্ষা মিশনে সুদান যাচ্ছে বাংলাদেশের ১৪০ পুলিশ সদস্য ১ কেজি রসমালাইয়ে ২৫০ গ্রাম কম! চালক-হেলপারদের সন্দেহ হলে ডোপ টেস্ট করান: ডিএমপি কমিশনার বাটা ও ইনফিনিটিকে ১ লাখ টাকা জরিমানা গোররক্ষকদের হাতে নারীসহ ৩ মুসলিম মারধোরের শিকার মধ্যপ্রাচ্যে আরও দেড় হাজার সেনা পাঠানোর ঘোষণা ট্রাম্পের ‘কৃষি যন্ত্রপাতি কেনার টাকা খেয়ে ফেলছেন সরকার দলীয় লোকজন’ বরুণ কুমার বিশ্বাসের ৫ কবিতা কাজী নজরুলের সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর অনেক মিল আছে: হানিফ ভারতের লোকসভায় মুসলিম এমপি বাড়লো ৪ জন প্রতি মণ ধানের দাম হওয়া উচিত ১২০০ টাকা: বারকাত অযোধ্যার সীতা রাম মন্দিরে ইফতার আয়োজন ভারতের নির্বাচন থেকে শিক্ষা নিন: ড. মোশাররফ মেট্রোরেলের পর চালু হচ্ছে বিদ্যুৎচালিত ট্রেন: প্রধানমন্ত্রী অবশেষে বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা অনুমোদনের সিদ্ধান্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রাক চাপায় অটোরিকশার ৩ যাত্রী নিহত বেহুলার বাসরঘরের দরজার ছিদ্রের কথা ভুলে গেছে আ.লীগ: রিজভী ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের কারণে বাক্‌স্বাধীনতা ব্যাহত হচ্ছে’ সেই হারের ক্ষত এখনও আমাকে কষ্ট দিচ্ছে গুড়ে টিকটিকি-তেলাপোকা-ফিটকিরি, ২ লাখ টাকা জরিমানা অভিজ্ঞদের নিয়ে ‘টিম ইউনাইটেড’ প্যানেল ৩১ কোটি টাকা আত্মসাৎ, বগুড়া যুবলীগের সাবেক নেতা গ্রেপ্তার