artk
বুধবার, সেপ্টেম্বার ১৮, ২০১৯ ৪:১০   |  ৩,আশ্বিন ১৪২৬
মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৩, ২০১৯ ৮:৪৯

আদা কখন স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক জানেন?

স্বাস্থ্য ও পুষ্টি ডেস্ক
media
যদি আপনি ওজন বাড়ানোর চেষ্টা করে থাকেন তা হলে আদাযুক্ত খাবার বা আদা চা খাওয়া এড়িয়ে চলুন।

আদা উপকারী ভেষজ খাবার হিসেবেই আমরা জানি। মসলা হিসেবে বিভিন্ন খাদ্য উপাদানে আদা ব্যবহৃত হয়। এছাড়া ঠাণ্ডা লাগা, ব্যথা কমানো, হজমের সমস্যাও দূর করে আদা। তবে কখনো কখনো আদা আমাদের শরীরের জন্য ক্ষতিকর। আসুন জেনে নিন কোন কোন ক্ষেত্রে আদা ক্ষতিকারক হতে পারে-

রক্তজনিত রোগ:
আদা শরীরে রক্ত সঞ্চালন বাড়াতে সাহায্য করে। ওবেসিটি বা ডায়াবেটিসের সমস্যায় তাই আদা খুবই উপকারি। আবার হিমোফিলিয়ার সমস্যা থাকলে আদার এই গুণ নেগেটিভ প্রভাব ফেলতে পারে। হিমোফিলিয়া বংশগত ডিজঅর্ডার। হিমোফিলিয়ার ওষুধের সঙ্গে আদা খেলে তা ওষুধের প্রভাবে ব্যাঘাত ঘটাতে পারে।

গর্ভাবস্থায়:
আদার মধ্যে এমন অনেক পদার্থ থাকে যা পেশীর স্বাস্থ্য ভালো রাখতে ও হজমে সাহায্য করে। গর্ভকালীন অবস্থায় বেশি আদা খেলে তা পেশীর সংকোচন ঘটিয়ে প্রিটার্ম লেবরের সম্ভাবনা থাকে। তাই অবশ্যই চিকিত্সকের পরামর্শ নিয়ে আদা খান।

বিশেষ ওষুধ সেবনের সময়:
হাইপারটেনসন বা ডায়াবেটিসের ওষুধ খেলে আদা খাওয়া এড়িয়ে চলাই ভাল। আদা রক্তকে পাতলা করে রক্তচাপ কমিয়ে দেয়। তাই সাধারণভাবে আদা খাওয়া উপকারী হলেও অ্যান্টি-কোয়াগুলান্ট, বিটা-ব্লকারস বা ইনসুলিনের মতো ওষুধের প্রভাব কমিয়ে দিতে পারে আদা।

কম ওজন:
যদি আপনি ওজন বাড়ানোর চেষ্টা করে থাকেন তা হলে আদাযুক্ত খাবার বা আদা চা খাওয়া এড়িয়ে চলুন। আদার মধ্যে প্রচুর পরিমাণ ফাইবার থাকে। যা পাকস্থলীর পিএইচ মাত্রা বাড়িয়ে দিয়ে পৌষ্টিকতন্ত্রকে উত্তেজিত করে তোলে।

ঢাবিতে আন্দোলনকারীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা (ভিডিও) শাহজালালে কোটি টাকার সোনা জব্দ ছাত্রদলের কাউন্সিলরদের বিকেলের মধ্যে নয়াপল্টনে থাকার নির্দেশ পটুয়াখালীতে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় দুই আরোহী নিহত বিএসএফের গুলিতে নিহত বাংলাদেশির মরদেহ ফেরত জাবিতে আন্দোলনকারী শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মোবাইল সেবা বন্ধ রাঙামাটিতে ২ জেএসএস কর্মীকে গুলি করে হত্যা গাজীপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত জাকির নায়েককে কেউ নিতে চায় না: মাহাথির সকালের নাস্তায় ভুল খাবার নয়, রাখুন এসব যে গ্রামের সব মানুষ দৃষ্টিহীন গণধর্ষণ মামলার বাদীর দুই পা গুড়িয়ে দিয়েছে আসামিরা নারায়ণগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শীর্ষ সন্ত্রাসী নিহত বিপদসীমার ২১ সেন্টিমিটার ওপরে তিস্তার পানি, নিম্নাঞ্চল প্লাবিত সাইবার ক্রাইম বিভাগে দ্বারস্থ মেহজাবিন নকল বিদেশি ওষুধ বিক্রি করায় ২ প্রতিষ্ঠানকে ৪০ লাখ টাকা জরিমানা গণহত্যার ঝুঁকিতে এখনো ৬ লাখ রোহিঙ্গা: জাতিসংঘ গাজীপুরে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে অবৈধ গ্যাস লাইনে অগ্নিকাণ্ড ফেসবুক স্ট্যাটাস দেখেই শিক্ষার্থীদের বহিষ্কার করেন উপাচার্য পাবনায় ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে ট্রেন চালকের আত্মহত্যা সৌদি আরবে ফের হামলা চালিয়েছে ইয়েমেন ঢাকার শতাধিক বিএনপি নেতাকর্মী জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়েছে চাঁদাবাজির অভিযোগে ঢাকা উত্তর ছাত্রলীগ নেতা বহিস্কার ‘ডাক্তার বলার আগেই আয়া রোগীর পোশাক খুলে নেয়’ দুর্নীতি নির্মূলে টাস্কফোর্স গঠনের দাবি সম্পাদক পদে প্রার্থী হবেন না ওবায়দুল কাদের রিজার্ভ চুরির ব্যাপারে কিছুই বলা যাবে না: অর্থমন্ত্রী আলিয়ার সঙ্গে চুমুর দৃশ্যে আপত্তি সালমান খানের? মামলাকে কর ফাঁকির হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে মেঘনা গ্রুপ! খালেদা জিয়া আলেমদের কিছু দেন নাই: আল্লামা শফী