artk
শনিবার, নভেম্বার ২৩, ২০১৯ ৬:১৭   |  ৯,অগ্রহায়ণ ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

সোমবার, এপ্রিল ২২, ২০১৯ ৯:১৯

এই রাষ্ট্রটি একেবারেই লুটেরা পুঁজিপতিদের: মেনন

media

খেলাপি হয়ে গেলেই তো আমার সুবিধা, ২ শতাংশ ডাউন পেমেন্ট দিয়ে ১২ বছরে ৯ শাতংশ হারে সুদ দেব। নিয়মিত সুদ দিলে তো ১৩ শতাংশ দিতে হবে। তাহলে এ অর্থনীতি কার জন্য- প্রশ্ন রাখেন মেনন।

এই রাষ্ট্রটি একেবারেই লুটেরা পুঁজিপতিদের বলে মন্তব্য করেছেন ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন।

সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবে রুশ বিপ্লবের নেতা ভ্লাদিমির ইলিচ লেনিনের ১৪৯তম জন্মবার্ষিকীর এক অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, এই রাষ্ট্রটি একেবারেই লুটেরা পুঁজিপতিদের। এ কথা শুনলে আমাদের যারা শাসন করছেন বা সরকারে আছেন, তারা হয়তো রাগ করতে পারেন।

তবে এ কথা সত্য যে, বর্তমানে দেশে খেলাপি ঋণের পরিমাণ এক লাখ ৩৩ হাজার কোটি টাকা। আর এই টাকার বেশির ভাগই বিদেশে পাচার হয়ে গেছে বলে দাবি করেন তিনি।

মেনন বলেন, বাংলাদেশর কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কঠিন শর্তারোপের কারণে খেলাপি ঋণের টাকা বিদেশে বিনিয়োগ না করে সেখানে সেকেন্ড হোম গড়ে তুলছেন খেলাপিরা।

তিনি বলেন, গরিব মানুষ বা একজন কৃষক ঋণ নিয়ে ফেরত দিতে না পারলে হাতকড়া পরিয়ে জেলে নেয়া হচ্ছে। অথচ বড় বড় রাঘব-বোয়ালদের ছাড় দিতে আমাদের অর্থমন্ত্রী ব্যবস্থাপত্র ঘোষণা করলেন।

ব্যবস্থাপত্রে বড় বড় ঋণখেলাপিদের ২ শতাংশ ডাউন পেমেন্ট দিয়ে এবং ৯ শতাংশ সুদ ধরে ১২ বছরের সময় বেঁধে দিয়েছেন।

এর মধ্যে কতবার রিশিডিউল হবে সেটা তিনি বলেননি। এই ব্যবস্থাপত্রটা বিশেষ করে যারা বিনিয়োগকারী ব্যবসায়ী, তাদের জন্য, বলেন মেনন।

তিনি বলেন, সাধারণ ব্যবসায়ী বা মানুষ যখন ঋণের রিশিডিউল করতে চান তখন কিন্তু তাকে ১০ শতাংশ ডাউন পেমেন্ট দিতে হয়।

আর এমনি ঋণ নিয়ে একজনকে সুদ দিতে হচ্ছে ১২ থেকে ১৩ শতাংশ। তাহলে সোজা কথা আমি ব্যাংক থেকে এক হাজার কোটি টাকা ঋণ নিয়ে খেলাপি হয়ে যাব।

খেলাপি হয়ে গেলেই তো আমার সুবিধা, ২ শতাংশ ডাউন পেমেন্ট দিয়ে ১২ বছরে ৯ শাতংশ হারে সুদ দেব। নিয়মিত সুদ দিলে তো ১৩ শতাংশ দিতে হবে। তাহলে এ অর্থনীতি কার জন্য- প্রশ্ন রাখেন মেনন।

বিয়েবাড়িতে মদপানে দুই যুবকের মৃত্যু বিএনপি নেতাদের মুখ ছাড়া আর সব কিছুই সরকারের নিয়ন্ত্রণে আছে: কাদের ‘বেপরোয়া বাসচালক নিয়ন্ত্রণ হারানোয়’ শ্রীনগরের দুর্ঘটনা এমপি বুবলীকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার লন্ডনে সন্ত্রাসীদের গুলিতে বাংলাদেশি যুবক নিহত কুমিল্লায় ট্রেনে কাটা পড়ে দুই নারীর মৃত্যু এই সরকারও মুনতাসীর ফ্যান্টাসির মধ্যে পড়েছে: মির্জা ফখরুল উত্তরায় গাড়িমুক্ত সড়ক উদ্বোধন করলেন মেয়র আতিক সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুজব প্রচার এখন বড় সমস্যা: তথ্যমন্ত্রী বিএনপি এখন গুজবনির্ভর রাজনীতি করছে: খালিদ মাহমুদ শ্রীনগরে বাস-মাইক্রো সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১০ টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ সিরাজগঞ্জে নেশাজাতীয় পানীয় পানে ২ যুবকের মৃত্যু দিন-রাতের টেস্টকে যুগান্তকারী উপলক্ষ বললেন বিরাট কোহলি গ্রেটা থানবার্গের আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কার জয় ঐতিহাসিক ইডেন টেস্টে সম্ভাব্য বাংলাদেশ একাদশ প্রথম দিবা-রাত্রির টেস্ট স্মরণীয় করে রাখতে চায় বাংলাদেশ লক্ষ্মীপুরে 'গণপিটুনিতে' নিহত ১ ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনে আসছেন বান কি মুন ইডেন ম্যাচের ফাঁকেই হাসিনা-মমতা বৈঠক দুপুরে ইডেন গার্ডেনে গোলাপি টেস্ট উদ্বোধন করবেন শেখ হাসিনা বুয়েটের ২৬ শিক্ষার্থীকে আজীবন বহিষ্কার আইন মেনে চললে দুর্ঘটনা অনেকাংশে কমবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ইটিভির সাবেক চেয়ারম্যান সালামের মামলা বাতিল পিইসি পরীক্ষায় শিক্ষার্থী বহিষ্কার কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট বিএনপি নেতাদের বাড়ি ঘেরাও হচ্ছে না কেন: গয়েশ্বর শফিকুরের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা অপরাধীরা মোবাইল ব্যাংকিং চ্যানেল ব্যবহারে করছে: দুদক চেয়ারম্যান সড়ক আইন প্রয়োগে বাড়াবাড়ি না হলে সমস্যা হবে না: কাদের পুঁজিবাজারে সব ধরনের সূচকের উত্থান