artk
সোমবার, জুন ১৭, ২০১৯ ৭:৫৫   |  ৩,আষাঢ় ১৪২৬
সোমবার, এপ্রিল ১৫, ২০১৯ ৮:০৫

তালাকের নোটিশের পর ভরণ-পোষণে নীতিমালার নির্দেশ কেন নয়

স্টাফ রিপোর্টার
media

বিবাহ বিচ্ছেদের (তালাকের) নোটিশ পাওয়ার পরবর্তীতে শালিসে মীমাংসার সময় আইন অনুযায়ী সম্পূর্ণ ভরণ-পোষণের জন্য একটি নীতিমালা তৈরির নির্দেশ কেন দেয়া হবে না- তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাই কোর্ট। 

বিবাহ বিচ্ছেদের (তালাকের) নোটিশ পাওয়ার পরবর্তীতে শালিসে মীমাংসার সময় আইন অনুযায়ী সম্পূর্ণ ভরণ-পোষণের জন্য একটি নীতিমালা তৈরির নির্দেশ কেন দেয়া হবে না- তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাই কোর্ট। 

এছাড়া পবিত্র কোরআন ও আইন অনুযায়ী স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিবাহবিচ্ছেদ, ভরণ-পোষণ, অন্যান্য খরচ নিষ্পত্তির বিষয়ে শালিসি কাউন্সিল কার্যকরী করতে কেন নির্দেশ দেয়া হবে না- তাও জানতে চেয়েছেন হাই কোর্ট।

আদালতে আজ আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট ফৌজিয়া করিম ফিরোজ। তার সঙ্গে ছিলেন অ্যাডভোকেট রেবেকা সুলতানা, সীমা জহুর ও শরীফুল হক। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল মোহাম্মদ সাইফুল আলম।

অ্যাডভোকেট ফৌজিয়া করিম ফিরোজ আদেশের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, রুলে পবিত্র কোরআন এবং আন্তর্জাতিক কনভেনশনের আলোকে বিবাহ বিচ্ছেদ, সন্তান হেফাজত, দেনমোহর ইত্যাদি বিষয় নিশ্চিতকরণে এ-সংক্রান্ত শালিস কাউন্সিলের ভূমিকা নিশ্চিত করতে কেন নীতিমালার নির্দেশ দেয়া হবে না- তা জানতে চেয়েছেন।

আইনজীবী জানান, পবিত্র কোরআন এবং আন্তর্জাতিক কনভেনশনের আলোকে বিবাহবিচ্ছেদ, সন্তান হেফাজত, দেনমোহর ইত্যাদি বিষয় নিশ্চিতকরণে এ-সংক্রান্ত শালিসি কাউন্সিলের ভূমিকা নিশ্চিতের রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।

ফৌজিয়া করিম ফিরোজ জানান, ১৯৬১ সালের মুসলিম পারিবারিক আইন অনুযায়ী তালাক আবেদনের ৯০ দিনের মধ্যে কোনো পক্ষ আপস বা তালাক প্রত্যাহারের আবেদন না করলে তালাক কার্যকর হয়।

তালাক আবেদনের পর শালিসি কাউন্সিল মধ্যস্থতার জন্য ৯০ দিনে তিনবার উভয়পক্ষে নোটিশ দিয়ে ডাকবেন। কিন্তু কাউন্সিলের এ ডাকে কোনো পক্ষ যদি না আসে তাহলেও তালাক কার্যকর হয়।

আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে মন্ত্রিপরিষদ সচিব, আইন সচিব, লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিভাগের সচিব (ড্রাফটিং), মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব, এলজিআরডি সচিব ও আইন কমিশনের চেয়ারম্যানকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

‘ঢাকায় ঘণ্টায় এক তালাক’ সংক্রান্ত প্রতিবেদন সংযুক্ত করে আইনজীবী কাজী মারুফুল আলমের জনস্বার্থে দায়ের করা এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে হাইকোর্টের বিচারপতি এফআরএ নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কেএম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

‘ঢাকায় ঘণ্টায় এক তালাক’ জাতীয় দৈনিকে ২০১৮ সালের ২৭ আগস্ট প্রকাশিত প্রতিবেদনসহ গণমাধ্যমে এ বিষয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদন যুক্ত করে বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা আইনজীবী সমিতির পক্ষে সেক্রেটারি সীমা জহুর ও আইনজীবী কাজী মারুফুল আলম এ রিট করেন।

পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘ঢাকা শহরে তালাকের আবেদন বাড়ছে। গড়ে প্রতি ঘণ্টায় একটি করে তালাকের আবেদন করা হচ্ছে। গত ছয় বছরের তথ্য বিশ্লেষণ করে এমন চিত্র পাওয়া গেছে। তালাকের আবেদন সবচেয়ে বেশি বেড়েছে উত্তর সিটি কর্পোরেশন এলাকায়- প্রায় ৭৫ শতাংশ। দক্ষিণ সিটিতে বেড়েছে ১৬ শতাংশ। দুই সিটিতে আপস হচ্ছে গড়ে ৫ শতাংশের কম।

গত ছয় বছরে ঢাকার উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে অর্ধলাখের বেশি তালাকের আবেদন জমা পড়েছে। এ হিসাবে মাসে গড়ে ৭৩৬টি, দিনে ২৪টির বেশি এবং ঘণ্টায় একটি তালাকের আবেদন করা হচ্ছে।

তালাকের সবচেয়ে বড় কারণ স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ‘বনিবনা না হওয়া’। স্ত্রীর করা আবেদনে কারণগুলোর মধ্যে রয়েছে স্বামীর সন্দেহবাতিক মনোভাব, পরনারীর সঙ্গে সম্পর্ক, যৌতুক, দেশের বাইরে গিয়ে আর ফিরে না আসা, মাদকাসক্তি, ফেসবুকে আসক্তি, পুরুষত্বহীনতা, ব্যক্তিত্বের সংঘাত, নৈতিকতাসহ বিভিন্ন কারণ। স্বামীর অবাধ্য হওয়া, ইসলামি শরিয়ত অনুযায়ী না চলা, বদ মেজাজ, সংসারের প্রতি উদাসীনতা, সন্তান না হওয়াসহ বিভিন্ন কারণে স্ত্রীকে তালাক দিচ্ছেন স্বামী।

বিকেলে উইন্ডিজের বিপক্ষে সেমির স্বপ্ন বাঁচানোর লড়াই এবারও ভারতের কাছে হারলো পাকিস্তান শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁস চক্রের ২ হোতা গ্রেপ্তার বিএনপি যোগ দিলেও সংসদ বৈধতা পাবে না: হারুনুর রশিদ আ. লীগ এমপি গোলাম মোস্তফার বিরুদ্ধে হিন্দু সম্পত্তি দখলের মামলা এজলাসেই মারা গেলেন বিচারক ফাইবার অপটিক ক্যাবলের রেগুলেটরি ডিউটি প্রত্যাহার চায় আইএসপিএবি সেই ১২ ডিসিকে বদলির আদেশ বাতিল এতো দিন কোথায় ছিলেন? পাচারকালে গাছসহ সরকারি গাড়ি আটকে দিলো স্থানীয়রা বাজেটে দুর্নীতির টাকা সাদা করার সুযোগ রাখা হয়েছে: মওদুদ সেনাবাহিনীকে জনগণের পাশে থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী বাজেট ঘোষণার পরবর্তী সূচকে পতন ভোক্তার অভিযোগ শুনতে হটলাইন চালুর নির্দেশ সংসদকে অবৈধ বলবেন, আবার সুযোগ-সুবিধা নেবেন: মতিয়া চৌধুরী প্রতি উপজেলায় কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হবে: শিক্ষামন্ত্রী রাজধানীতে বস্তির সংখ্যা ৩৩৩৯টি ভারতে তীব্র দাবদাহে একদিনেই ৭০ জনের মৃত্যু যুগ্ম সচিব হলেন ১৩৬ জন ‘পুঁজিবাজারের জন্য আরো প্রণোদনা জরুরি’ খালেদা জিয়ার জামিন চলতি সপ্তাহেই: মওদুদ ওসি মোয়াজ্জেম গ্রেপ্তার ডিআইজি মিজান কি দুদকের চেয়ে বেশি শক্তিশালী: হাইকোর্ট গায়ে হলুদে বাবাকে জড়িয়ে নুসরাতের কান্না নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানের নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা কারাগারের আড়াইশো বছরের নাস্তার মেন্যুতে পরিবর্তন নিউজিল্যান্ডে ৭.২ মাত্রার ভূমিকম্প অনুভূত গণমাধ্যম প্রতিনিধিদের সাথে ওয়েজবোর্ড বিষয়ে বৈঠকে ওবায়দুল কাদের বাজেটের প্রস্তাবগুলো বাস্তবায়ন হলে পুঁজিবাজার ইতিবাচক হবে যুক্তরাষ্ট্রকে জবাব দিতে পাল্টা শুল্ক বসালো ভারত