artk
বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮, ২০১৯ ৫:৩৩   |  ২,শ্রাবণ ১৪২৬
সোমবার, এপ্রিল ১৫, ২০১৯ ১২:৩৫

রাবি শিক্ষক সফিউল হত্যায় ৩ জনের মৃত্যুদণ্ড

রাবি সংবাদদাতা
media
২০১৪ সালের ১৫ নভেম্বর বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন চৌদ্দপাই এলাকায় নিজ বাড়ির সামনে কুপিয়ে হত্যা করা হয় অধ্যাপক শফিউলকে

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক এ কে এম শফিউল ইসলাম লিলন হত্যা মামলার রায়ে তিনজনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। রায়ে অপরাধ প্রমাণ না হওয়ায় আটজনকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে।

রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক অনুপ কুমার রায় সোমবার এ রায় দেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন-আব্দুস সামাদ পিন্টু, আরিফুল ইসলাম মানিক ও লুৎফুল ইসলাম সবুজ। এর মধ্যে সবুজ পলাতক রয়েছেন।

আর খালাসপ্রাপ্তরা হলেন-আনোয়ার হোসেন উজ্জ্বল, পিন্টুর স্ত্রী নাসরিন আক্তার রেশমা, সিরাজুল ইসলাম কালু, আল-মামুন, সাগর, জিন্নাত আলী, ইব্রাহীম খলীল ও আরিফ।

গত ৪ এপ্রিল যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে চাঞ্চল্যকর এ মামলার রায়ের দিন ধার্য করেন ট্রাইব্যুনাল।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ১৫ নভেম্বর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন চৌদ্দপাই এলাকায় নিজ বাড়ির সামনে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যা করা হয় ড. শফিউল ইসলাম লিলনকে। পরদিন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক মুহাম্মদ এন্তাজুল হক বাদী হয়ে অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করে মতিহার থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

এ ঘটনার পর ড. শফিউল ইসলামকে ধর্ম অবমাননাকারী হিসেবে আখ্যা দিয়ে তাকে হত্যার দায় স্বীকার করে নিষিদ্ধঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলাম বাংলাদেশ-২। ফেসবুক পেজে এই হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করে বিবৃতিও দেয় সংগঠনটি। তবে শেষ পর্যন্ত তাদের কোনো সম্পৃক্ততা খুঁজে পায়নি পুলিশ।

তদন্ত শেষে দেশজুড়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টিকারী এই মামলার চার্জশিটে বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাব শাখায় কর্মরত নাসরিন আখতার রেশমার সঙ্গে শফিউল ইসলামের দ্বন্দ্বের জের ধরেই তার স্বামী যুবদল নেতা আব্দুস সালাম পিন্টু অন্যদের নিয়ে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছেন। পরে রেশমাও বিষয়টি স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেন।

হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে ওই বছরের ২৩ নভেম্বর যুবদল নেতা আব্দুস সালাম পিন্টুসহ ছয়জনকে ঢাকা থেকে আটক করে র‌্যাব। পরে পিন্টুর স্ত্রী নাসরিন আখতার রেশমাকে আটক করে গোয়েন্দা শাখা পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করে রেশমা আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

ঘটনার এক বছর পর ২০১৫ সালের ৩০ নভেম্বর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মহানগর গোয়েন্দা শাখা পুলিশের তৎকালীন পরিদর্শক রেজাউস সাদিক আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। এতে রাজশাহী জেলা যুবদলের তৎকালীন আহ্বায়ক জেলা বিএনপির বর্তমান যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন উজ্জলসহ ১১ জনকে অভিযুক্ত করা হয়। মামলার একজন ছাড়া বাকি ১০ আসামি জামিনে ছিলেন।

চার্জশিটে অভিযুক্ত আসামিরা ছিলেন- আনোয়ার হোসেন উজ্জ্বল, আব্দুস সামাদ পিন্টু, পিন্টুর স্ত্রী নাসরিন আক্তার রেশমা, যুবদল নেতা আরিফুল ইসলাম মানিক, লুৎফুল ইসলাম সবুজ, সিরাজুল ইসলাম কালু, আল-মামুন, সাগর, জিন্নাত আলী, ইব্রাহীম খলীল ও আরিফ।

গত ১৩ মার্চ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়। মামলায় মোট ৩৩ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়। পরে রাষ্ট্রপক্ষের পাবলিক প্রসিকিউটর আদালতে যুক্তি উপস্থাপন করে হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি জানান। তবে আসামিপক্ষের আইনজীবীরা জানান, মামলায় আসামিরা জড়িত থাকার বিষয়টি প্রমাণে রাষ্ট্রপক্ষ পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছে।

ফলে রায়ে আসামিরা বেকসুর খালাস পাওয়ার দাবি রাখে। উভয়পক্ষের যুক্তিতর্ক শেষে ১৫ এপ্রিল চাঞ্চল্যকর এই মামলার রায়ের জন্য দিন ধার্য করেন রাজশাহী দ্রুতবিচার ট্রাব্যুনাল আদালতের বিচারক। পরে আসামিদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় সোমবার এ রায় ঘোষণা করা হয়।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন আদালতের স্পেশাল পিপি অ্যাডভোকেট এন্তাজুল হক বাবু। আসামি পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট মো. একরামুল হক, মিজানুল ইসলাম, আবু বাক্কার, রাইসুল ইসলাম ও আব্দুল মালেক রানা।

‘রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা চাইলে খালেদা জিয়ার মুক্তি হতে পারে’ এইচএসসিতে ফেল করে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ বৈদেশিক বাণিজ্য আধুনিকায়নে এনবিআরের কর্মপরিকল্পনা উপস্থাপন কিশোর গ্যাং নিয়ন্ত্রণে মাঠে নামছে র‌্যাব আদালতে মিন্নির পক্ষে কোনো আইনজীবী দাঁড়াননি কেন? মা পেলেন জিপিএ ৪, মেয়ে ৫ চাঁদের সাতটি মজার তথ্য জেনে নিন দীর্ঘমেয়াদে বাংলাদেশ দলের কোচ হতে চান সুজন সিবিএর সভাপতি ও সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলা বিশ্বকাপ ব্যর্থতায় নতুন কোচ খুঁজছে এশিয়ার দেশগুলো হিন্দু ছাত্রীকে কোরআন বিলি করার নির্দেশ দিলেন ভারতের আদালত রেললাইনের পাশের অবৈধ স্থাপনাও উচ্ছেদ করা হবে পাকিস্তানে জামাত-উদ-দাওয়ার প্রধান হাফিজ সাঈদ গ্রেপ্তার শেরেবাংলা নগর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রবেশ মুখে চরম দুর্ভোগ! এইচএসসিও পাস করলেন সেই মা আমিরাতের তেল ট্যাংকার গায়েব করেছে ইরান! ব্যাংক ঋণে করপোরেট গ্যারান্টিতে সতর্কতার তাগিদ পুরান ঢাকায় শতবর্ষী ভবন ধস সেটেলমেন্ট অফিসের দুই কর্মকর্তা গ্রেপ্তার সরকারি জমি উদ্ধারে ডিসিদের দেয়া হবে পুরস্কার ইউরোমানি অ্যাওয়ার্ডস পেলেন আইডিএলসি ইনভেস্টমেন্ট ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি নিয়ে আমেরিকার সঙ্গে কখনোই আলোচনা হবে না: ইরান প্রধান নির্বাচকের পদ থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন ইনজামাম ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জনের পথে মুশফিকুর রহিম দলে অনেক অতিথি পাখি ঢুকেছে: তথ্যমন্ত্রী শ্রীলঙ্কায় সব ম্যাচ জিততে চায় বাংলাদেশ ‘পুঁজিবাজার ধসের জবাব চাই’ স্লোগানে মতিঝিলে বিক্ষোভ শ্রীলঙ্কা সফরে টাইগারদের ব্যাটিং কোচ ভারতের ওয়াসিম জাফর বিশ্বকাপ বাছাইয়ে ‘ই’ গ্রুপে বাংলাদেশ নারী-শিশু নির্যাতনের ঘটনা আগেও ঘটেছে: প্রতিমন্ত্রী ইন্দিরা