artk
শনিবার, ডিসেম্বার ৭, ২০১৯ ১১:০২   |  ২৩,অগ্রহায়ণ ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

শনিবার, এপ্রিল ১৩, ২০১৯ ২:৫৪
নুসরাত হত্যার প্রতিবাদে গণভবন থেকে বঙ্গভবন পর্যন্ত মানববন্ধন

নারী নির্যাতন প্রতিরোধের ডাক

media

মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যার প্রতিবাদে রাজধানীতে গণভবন থেকে বঙ্গভবন পর্যন্ত মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি- সিপিবি। তাদের এই কর্মসূচি থেকে এসেছে নারী নির্যাতন প্রতিরোধের ডাক।

শনিবার সকালে আসাদ গেট থেকে মতিঝিল পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে মানবন্ধনে দাঁড়ান দলটির নেতা-কর্মীরা। আরো নানা সংগঠন এই কর্মর্সূচিতে যোগ দেয়।

মতিঝিলে রাজউক ভবনের সামনে মানববন্ধনে দাঁড়িয়ে সিপিবির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, “এই আন্দোলন শুধু সিপিবির নয়, এটা সব দলের আন্দোলন। নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে আমাদের আন্দোলন শেষ হবে না।”

এসময় ২০ থেকে ২৭ এপ্রিল পর্যন্ত নারী নির্যাতন প্রতিরোধ সপ্তাহ পালন করার ঘোষণা দেন সিপিবি সভাপতি।  

প্রতিরোধ সপ্তাহের কর্মসূচির বিস্তারিত পরে জানানো হবে বলে জানান তিনি।

মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, “যে স্বপ্ন নিয়ে মুক্তিযুদ্ধ করা হয়েছিল, তা বাস্তবায়ন করতে দেয়া হয়নি। তখন সবাই পাকিস্তান আমলের জুলুম অত্যাচার নিঃশেষ হয়ে যাবে বলে আশা করছিল। আজকে দেশকে নতুন অন্ধকারের দিকে নিক্ষেপ করা হয়েছে।”

ঢাকার পাশাপাশি সারাদেশে একই ধরনের কর্মসূচি পালিত হয় বলে দলটির নেতারা জানান।

রাজধানীর আসাদ গেটে মানববন্ধনে দাঁড়িয়ে টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ইফতেখারুজ্জামান বলেন, “আমরা নুসরাত হত্যার ন্যায়বিচার চাই। এই ঘটনার সঙ্গে যারা প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে জড়িত, সবাইকে আইনের আওতায় নিয়ে কঠোর শাস্তি দিতে হবে।”

তিনি আরো বলেন, “এই ঘটনার কঠোর শাস্তি দেয়া সরকারের জন্য একটি অগ্নিপরীক্ষা। নুসরাত হত্যার কঠোর শাস্তি দিয়ে সরকারকে প্রমাণ করতে হবে যে দেশে আইনের শাসন আছে।”

আসাদ গেটের মানববন্ধনে হিউম্যান রাইটস ফোরাম বাংলাদেশ, টিআইবি, নারী পক্ষ, কেন্দ্রীয় খেলাঘর, কৃষিবিদ ইউনিয়নসহ ১২-১২ টি সংগঠন যোগ দেয়।

মানববন্ধনে এএলআরডির নির্বাহী পরিচালক সামসুল হুদা বলেন, “নূসরাতের বিচার করতে সরকার যে ঘোষণা দিয়েছে, তা যেন কথার কথা না হয়। আমরা আইনের শাসন দেখতে চাই।”

ধানমণ্ডি ২৭ নম্বর সড়কের মানববন্ধনে কলানিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, “এই ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত করতে হবে। নুসরাত হত্যার দ্রুত বিচারসহ পূর্বে এ ধরনের সবগুলো ঘটনার বিচার করতে হবে।”

সেখানে দাঁড়িয়ে মানবাধিকারকর্মী সুলতানা কামাল বলেন, “আমাদের সংস্কৃতি হলো ঘটনা ঘটে যাওয়ার পরে রাস্তায় নামি, তারপর এক সময় সব ঘটনাই ধামাচাপা পড়ে যায়, এ থেকে আমরা পরিত্রাণ চাই।”

“নুসরাতের মতো যাতে আর কোনো ঘটনা না ঘটে, এর জন্য আমরা এই ঘটনাসহ সবগুলো নারী সহিংসতায় জড়িতদের কঠোর শাস্তি চাই।” বলেন তিনি।

প্রবাসীর বাড়িতে ৩ লাশ ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ কাশ্মীরের হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের অ্যাকাউন্ট বাতিল অভিশংসনের দ্বারপ্রান্তে ট্রাম্প মুন্সিগঞ্জে লঞ্চের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ২০ বাংলাদেশের ১৭ জেলেকে ফেরত দিয়েছে মিয়ানমার বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির প্রস্তাব বাতিলের দাবিতে গণস্বাক্ষর শনিবার বাঁশখালীতে জেলের জালে বিশাল হোয়েল শার্ক! সিলেট আ.লীগের নেতৃত্ব হারালেন কামরান পৃথিবীর অনেক দেশের তুলনায় আমরা মেধাবী: তথ্যমন্ত্রী ধর্মঘটে অচল অবস্থা বিরাজ করছে ফ্রান্সে চট্টগ্রামে এবার থানায় বিক্রি হবে পেঁয়াজ ভারতের অবদান ছাড়া মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস অসম্পূর্ণ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী শিকাগোর অফিস-আদালতে বাংলা ভাষা! খালেদার স্বাস্থ্য বিষয়ে নিরপেক্ষ প্রতিবেদন নিয়ে ফখরুলের সংশয় ১৭ জেলেকে আটক করেছে মিয়ানমার উল্টোপথের বাসের চাকায় পিষ্ট পথচারী অবশেষে বিয়ের পিঁড়িতে মিথিলা-সৃজিত রুম্পার মৃত্যুর ধোঁয়াশা কাটেনি ১ জন ছাড়া অন্য যেকোনো পদে পরিবর্তন: কাদের আপিল বিভাগে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে সরকার: মন্ত্রী বীরত্বে পদক পাচ্ছেন ডিজিসহ বিজিবির ৬০ সদস্য আইএস এর সেই টুপি খুঁজে পাচ্ছে না পুলিশ নামাজ পড়লে সুস্থ থাকা যায়: মার্কিন গবেষণা মৌলভীবাজারে ৪শ একর জমিতে কমলার চাষ ২০১৯ সালের সেরা অ্যাপ কল অফ ডিউটি আ.লীগে এখন কর্মীর চেয়ে নেতার সংখ্যা বেশি: কাদের প্রকৌশল শিক্ষায়ও সৃজনশীলতার প্রচুর সুযোগ রয়েছে: রাষ্ট্রপতি ‘সুদের হার কমেনি, ১১ মাস কী করলেন অর্থমন্ত্রী’ ৬ রানে অলআউট মালদ্বীপ