artk
মঙ্গলবার, জুলাই ১৬, ২০১৯ ১:০১   |  ৩১,আষাঢ় ১৪২৬
মঙ্গলবার, এপ্রিল ৯, ২০১৯ ৭:৪৫

কর্ণফুলীর তীরের অবৈধ স্থাপনা সরাতে বন্দর চেয়ারম্যানকে নির্দেশ

স্টাফ রিপোর্টার
media

আদালতের নির্দেশ অনুসারে ২০১৫ সালে কর্ণফুলী নদীর পাড়ে যেসব অবৈধ স্থাপনা আছে, তার তালিকা আদালতে দাখিল করা হয়েছিল। এসব স্থাপনা উচ্ছেদে ২০১৬ সালে হাই কোর্ট রায় দেন। তবে রায় অনুসারে ব্যবস্থা না নেওয়ায় জেলা প্রশাসকসহ কয়েকজন বিবাদীর প্রতি আদালত অবমাননার রুল হয়। 

চট্টগ্রামের কর্ণফুলী নদীর তীরে অবৈধভাবে গড়ে ওঠা স্থাপনা অবিলম্বে অপসারণ করতে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। 

বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এক আবেদনের শুনানি নিয়ে আজ মঙ্গলবার এ আদেশ দেন। একই সঙ্গে পরবর্তী আদেশের জন্য আগামী ১৯ মে দিন রেখেছেন আদালত।

অপসারণের আদেশ বাস্তবায়ন করে ৩০ দিনের মধ্যে বন্দরের চেয়ারম্যানকে আদালতে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

কর্ণফুলী নদী সীমানায় থাকা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ কার্যক্রম চলমান না থাকার পরিপ্রেক্ষিতে মানবাধিকার ও পরিবেশবাদী সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশ (এইচআরপিবি) গত রোববার ওই আবেদন করে।

আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মনজিল মোরসেদ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল পূরবী সাহা।

কর্ণফুলী নদীর তীরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের কার্যক্রম স্থগিত থাকার প্রেক্ষাপটে ওই আবেদন করা হয় বলে জানান মনজিল মোরসেদ। 

মনজিল মোরসেদ বলেন, আদালতের নির্দেশ অনুসারে ২০১৫ সালে কর্ণফুলী নদীর পাড়ে যেসব অবৈধ স্থাপনা আছে, তার তালিকা আদালতে দাখিল করা হয়েছিল। এসব স্থাপনা উচ্ছেদে ২০১৬ সালে হাই কোর্ট রায় দেন। তবে রায় অনুসারে ব্যবস্থা না নেওয়ায় জেলা প্রশাসকসহ কয়েকজন বিবাদীর প্রতি আদালত অবমাননার রুল হয়। এরপর চলতি বছরের ৪ ফেব্রুয়ারি জেলা প্রশাসক উচ্ছেদ কার্যক্রম, যা পাঁচ দিন পর বন্ধ হয়ে যায়। এ অবস্থায় ওই আবেদন করা হয়। 

কর্ণফুলী নদী রক্ষায় প্রয়োজনীয় নির্দেশনা চেয়ে নয় বছর আগে হাইকোর্টে রিট করে মানবাধিকার ও পরিবেশবাদী সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশ (এইআরপিবি)। এর চূড়ান্ত শুনানি নিয়ে ২০১৬ সালের ১৬ আগস্ট হাইকোর্ট কয়েক দফা নির্দেশনাসহ রায় দেন। 

রায়ে ওই নদীর তীরে থাকা ২ হাজার ১৮১টি অবৈধ স্থাপনা সরাতে নির্দেশ দেওয়া হয়। রায়ে অপসারণের বিষয়ে আদালতের নির্দেশনা বাস্তবায়নের অগ্রগতি প্রতিবেদন জেলা প্রশাসকসহ বিবাদীদের দাখিল করতে নির্দেশ দিয়ে বলা হয়, বিষয়টি চলমান পর্যবেক্ষণ থাকবে।

ঈদুল আজহা উপলক্ষে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট ২৯ জুলাই বিএনপি ডিজিটাল বাংলাদেশ বোঝে না, ডিজিটাল চুরি বোঝে: তথ্যমন্ত্রী বিদিশাও বললেন, তাই যেন হয় কুড়িগ্রামে পানিতে ডুবে ৫ শিশুর মৃত্যু টমেটো ছাড়াই তৈরি হচ্ছে টমেটো সস, জরিমানা ২০ লাখ মাদ্রাসার ভেতরেই মন্দির! সেই ছয় রান নিয়ে বিতর্ক চলছেই হজ ব্যবস্থাপনার কাজে সৌদি যাচ্ছেন সিইসি চড়া দামের ইলেকট্রিক বাইক আনছে হার্লে ডেভিডসন পাটকলের সাড়ে ৭ কোটি টাকা আত্মসাত: ৩ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট সামনে কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি সিরাজগঞ্জে ট্রেনের ধাক্কায় বর-কনেসহ নিহত ৮ আইসিসির বিশ্বকাপ একাদশে সাকিব আল হাসান রামপুরায় ভারতীয় জাল রুপি তৈরির কারখানার সন্ধান শ্রীলংকা সফরে টাইগারদের প্রধান কোচ সুজন-আকরাম আফগানদের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচেও জিততে পারেনি বাংলাদেশ মেয়াদোত্তীর্ণ লবণ বিক্রির দায়ে ৩ দোকানিকে জরিমানা কন্যার প্রথম ছবি শেয়ার করলেন সামিরা রেড্ডি আইসিসির এ নিয়ম মানি না: যুবরাজ তরুণদের মধ্যে যারা বিশ্বকাপ মাতিয়েছেন নিউজিল্যান্ডে এখন সবচেয়ে ‘ঘৃণিত’ স্টোকসের বাবা! নাটকীয় ফাইনালের আলোচিত যত ঘটনা নিয়মের ঘেরাটোপে এমন হার হজম করা কঠিন: উইলিয়ামসন ছোটদের ক্রিকেট খেলতে মানা করলেন জিমি নিশাম! রংপুরে এরশাদের কবর খোঁড়া হচ্ছে সাভারে ময়লার ভাগাড়ে নারীর ৬ টুকরো লাশ! দেব-রাধিকার গোপন ভিডিও ফাঁস! সুইডেনের উত্তরাঞ্চলে বিমান বিধ্বস্ত হয়ে নিহত ৯ ‘সত্যিকারের অনলাইন মিডিয়ার নিবন্ধন শিগগিরই’ কুমিল্লায় আদালত কক্ষে আসামির হাতে আসামি খুন