artk
বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২৫, ২০১৯ ২:৪৭   |  ১২,বৈশাখ ১৪২৬
মঙ্গলবার, এপ্রিল ৯, ২০১৯ ৭:৪৫

কর্ণফুলীর তীরের অবৈধ স্থাপনা সরাতে বন্দর চেয়ারম্যানকে নির্দেশ

স্টাফ রিপোর্টার
media

আদালতের নির্দেশ অনুসারে ২০১৫ সালে কর্ণফুলী নদীর পাড়ে যেসব অবৈধ স্থাপনা আছে, তার তালিকা আদালতে দাখিল করা হয়েছিল। এসব স্থাপনা উচ্ছেদে ২০১৬ সালে হাই কোর্ট রায় দেন। তবে রায় অনুসারে ব্যবস্থা না নেওয়ায় জেলা প্রশাসকসহ কয়েকজন বিবাদীর প্রতি আদালত অবমাননার রুল হয়। 

চট্টগ্রামের কর্ণফুলী নদীর তীরে অবৈধভাবে গড়ে ওঠা স্থাপনা অবিলম্বে অপসারণ করতে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। 

বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এক আবেদনের শুনানি নিয়ে আজ মঙ্গলবার এ আদেশ দেন। একই সঙ্গে পরবর্তী আদেশের জন্য আগামী ১৯ মে দিন রেখেছেন আদালত।

অপসারণের আদেশ বাস্তবায়ন করে ৩০ দিনের মধ্যে বন্দরের চেয়ারম্যানকে আদালতে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

কর্ণফুলী নদী সীমানায় থাকা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ কার্যক্রম চলমান না থাকার পরিপ্রেক্ষিতে মানবাধিকার ও পরিবেশবাদী সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশ (এইচআরপিবি) গত রোববার ওই আবেদন করে।

আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মনজিল মোরসেদ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল পূরবী সাহা।

কর্ণফুলী নদীর তীরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের কার্যক্রম স্থগিত থাকার প্রেক্ষাপটে ওই আবেদন করা হয় বলে জানান মনজিল মোরসেদ। 

মনজিল মোরসেদ বলেন, আদালতের নির্দেশ অনুসারে ২০১৫ সালে কর্ণফুলী নদীর পাড়ে যেসব অবৈধ স্থাপনা আছে, তার তালিকা আদালতে দাখিল করা হয়েছিল। এসব স্থাপনা উচ্ছেদে ২০১৬ সালে হাই কোর্ট রায় দেন। তবে রায় অনুসারে ব্যবস্থা না নেওয়ায় জেলা প্রশাসকসহ কয়েকজন বিবাদীর প্রতি আদালত অবমাননার রুল হয়। এরপর চলতি বছরের ৪ ফেব্রুয়ারি জেলা প্রশাসক উচ্ছেদ কার্যক্রম, যা পাঁচ দিন পর বন্ধ হয়ে যায়। এ অবস্থায় ওই আবেদন করা হয়। 

কর্ণফুলী নদী রক্ষায় প্রয়োজনীয় নির্দেশনা চেয়ে নয় বছর আগে হাইকোর্টে রিট করে মানবাধিকার ও পরিবেশবাদী সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশ (এইআরপিবি)। এর চূড়ান্ত শুনানি নিয়ে ২০১৬ সালের ১৬ আগস্ট হাইকোর্ট কয়েক দফা নির্দেশনাসহ রায় দেন। 

রায়ে ওই নদীর তীরে থাকা ২ হাজার ১৮১টি অবৈধ স্থাপনা সরাতে নির্দেশ দেওয়া হয়। রায়ে অপসারণের বিষয়ে আদালতের নির্দেশনা বাস্তবায়নের অগ্রগতি প্রতিবেদন জেলা প্রশাসকসহ বিবাদীদের দাখিল করতে নির্দেশ দিয়ে বলা হয়, বিষয়টি চলমান পর্যবেক্ষণ থাকবে।

সিদ্ধান্ত অমান্য করে শপথগ্রহণকারীরা জাতীয়তাবাদী শক্তির দুশমন: গয়েশ্বর পরীক্ষা কেন্দ্রে যৌন হয়রানির অভিযোগে শিক্ষক গ্রেপ্তার শ্রীলঙ্কার নেগোম্বো থেকে মুসলিমরা পালাচ্ছে ১৭ প্রতিষ্ঠানের বোর্ড সভার তারিখ ঘোষণা ১৯ প্রতিষ্ঠানের বোর্ড সভা বিকেলে জুমার খুতবায় জঙ্গিবাদ নিয়ে কথা বলার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর শপথ নিলেন বিএনপির জাহিদুর কেঁপে উঠলো মঙ্গল, শোনা গেল গোঙানি বনলতা এক্সপ্রেস উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ঘরে ঢুকে ৪ ঘুমন্ত শ্রমিকের প্রাণ কাড়লো ট্রাক টিউবওয়েল থেকে পানি নেয়ায় নারীকে রাস্তায় পেটালেন মাদ্রাসার পরিচালক স্কুলছাত্রীকে অচেতন করে অপহরণকালে যুবক আটক শ্রীলংকায় হামলা: এক হামলাকারীকে ঠেকিয়েছেন যিনি চুকুরের গুণ ১৩৭তম খুলনা দিবস ‘অনেকের সঙ্গেই পরকীয়ায় আসক্ত আমার স্বামী’ মোবাইল চুরি: সাংবাদিকদের আটকে রাখলেন শমী কায়সার অস্বাভাবিক কিছু দেখলেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে জানাবেন: প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর ফুফু হামিদা খানমের ইন্তেকাল বাসা-বাড়িতে নতুন গ্যাস সংযোগ আর নয়: প্রতিমন্ত্রী ১০ জন নারীর মধ্যে সাতজনই পরকীয়ায় লিপ্ত শরবত খাওয়াতে আসা মিজানুরের ‘মানসিক সমস্যা’: ওয়াসার এমডি ডায়াবেটিস নিরাময় করতে জার্মানিতে অভিনব উদ্যোগ গেম অফ থ্রোনসের শুটিং হলো যে জাদুময় জায়গায় চাপমুক্ত থাকবে ইউনাইটেড ফাইন্যান্সের শেয়ার হোল্ডাররা শ্রীলঙ্কার পুলিশ প্রধান ও স্বরাষ্ট্র সচিবকে পদত্যাগের নির্দেশ ‘ধর্ষণ মহামারি আকার ধারণ করেছে, আইন শৃঙ্খলার অবনতি হয়েছে’ মানুষের দাড়ি কি কুকুরের পশমের চেয়েও বিপজ্জনক? ৩০ এপ্রিল শাহাবাগে ঐক্যফ্রন্টের গণজমায়েত ভোটের মেশিন থেকে বের হলো সাপ