artk
বৃহস্পতিবার, অক্টোবার ১৭, ২০১৯ ৩:১০   |  ২,কার্তিক ১৪২৬
রোববার, এপ্রিল ৭, ২০১৯ ৬:৪৪

টবেই ফলাতে পারেন সুস্বাদু ‘রক মেলন’

ফিচার ডেস্ক
media

ফলন: এই গাছের সঠিক যত্ন এবং ফলের পরাগায়ণ ভালোমত হলে এক একটি গাছ থেকে ৮ থেকে ১২ টি পর্যন্ত ফল পেতে পারেন। পরাগায়নের ক্ষেত্রে প্রয়োজনে হাতে পরাগায়ণ করতে পারেন। ফলের আকৃতি গোলাকার হবে এবং এক একটি ফলের ওজন ৫০০ থেকে ৮০০ গ্রাম অনেক ক্ষেত্রে এর চেয়ে বেশি ওজন হতে পারে। পরিপক্কভাবে ফল পাকার ২ থেকে ৩ দিন আগেই ফলটি গাছ থেকে কেটে সংরক্ষণ করতে পারেন এবং বাজারজাত করতে পারেন।

রক মেলন, সুইট মেলন, মাস্ক মেলন, হানিডিউ মেলন, গালিয়া মেলন ও পার্সিয়ান মেলন নামে পরিচিত এই সুস্বাদু ফল। আরবিতে অনেক দেশে সাম্মামও বলে থাকে এটিকে। এই ফল অনেক প্রজাতির হয়ে থাকে, রং ও আকৃতি যেমনই হোক ভিতরটা একদম আমাদের দেশি বাঙ্গির মতো এবং মিষ্টি-সুস্বাদু।

বীজ বপনের সময়: রক মেলনের বীজ বপন করতে হয় গরমের সময়। এছাড়া, শীত আসার পূর্বে সেপ্টেম্বর থেকে নভেম্বর এবং মার্চ থেকে জুন মাসেও করা যায়। তবে বিশেষভাবে লক্ষ রাখতে হবে বীজ থেকে চারা হবার পর যাতে অতি বৃষ্টির পানির মধ্যে এই গাছ না পড়ে।

মাটি: যে কোন ভালো মানের মাটি যেমন বেলে মাটি, বেলে দোআশ মাটি। তবে মাটি অবশ্যই ঝুরঝুরে হতে হবে যাতে তলদেশ পর্যন্ত সেঁচের ব্যাবস্থা হয়। মাটির উপরের অংশে কোনভাবেই পানি জমতে দেয়া যাবে না।

বীজ বপন: টবে লাগানোর ক্ষেত্রে ১০ থেকে ১২ ইঞ্চি টবে বা এমন মাপের যে কোন পাত্রে মাটির আধা ইঞ্চি নিচে দুটি বীজ বপন করতে হবে। মাটি পরিমাণে কম হলেও এর মধ্যে যথেষ্ট পরিমান জৈবসার এবং জৈব উপাদান বিদ্যমান থাকতে হবে। পাত্রের মাটি সবসময় ঝুরঝুরে রাখতে হবে এবং ভালো হবে টব বা পাত্রের মাটির উপরের অংশ কোন প্লাষ্টিক কাগজ বা ভালো গেঞ্জির কাপড় দিয়ে ঢেকে রাখলে।

একটি টবে দুই থেকে তিনটি বীজ বপন করতে হবে। বীজ অথবা চারা রোপন শেষে হালকা সেঁচ দিতে হবে। টবে যাতে অতিরিক্ত পানি না জমে। মাটির উপরের অংশ অবশ্যই মালচিং করতে হবে। প্লাস্টিক কাগজ বা মোটা কাগজ অথবা মোটা গেঞ্জির কাপড় দিয়ে ও সিমেন্টের ব্যাগ দিয়ে এই মালচিং করতে পারেন। 

৫ থেকে ১০ দিনের মধ্যেই অনেক সময় তাপমাত্রা কম হলে ১২ থেকে ১৫ দিন সময় লাগতে পারে। বীজ অঙ্কুরোদগম হওয়ার পর থেকে ৭০ থেকে ৮০ দিনে ফুল আসে এবং ১০০ দিনের মধ্যে পরিপূর্ণ ফল পাওয়া যায়। 

চারা অঙ্কুরোদগম হওয়ার পর থেকে ২ থেকে ৩ দিন পর পর হাল্কা সেঁচ দিতে হবে এবং কোন অবস্থাতে সেঁচ এমনভাবে দেওয়া যাবে না যে পাত্রে অথবা চারার নিচে পানি জমে থাকে। ফুল আসার সাথে সাথে সেঁচ প্রতি একদিন পর পর দিতে পারলে ভাল। ২ থেকে ৩ দিন পর পর দিলেও চলবে।

যেহেতু এটি একটি লতা জাতীয় গাছ এবং এর লতা দ্রুত বৃ্দ্ধি পায় তাই এর লতা ধারনের জন্য অতিরিক্ত ব্যবস্থা নিতে হবে। দুইভাবে এর ব্যবস্থা নেয়া যেতে পারে। মাচা পদ্ধতি বা মাটিতে খড়কুটো বিছিয়ে দিয়ে।

পরিচর্যা: এই ফলে হলুদ মাছি পোকা এসে গাছের পাতা ফুটো করে দেয়, পাতা এবং কান্ডের রস টেনে গাছের ক্ষতি করে এবং ফল আসার পরে ফল ছিদ্রকারী পোকার আক্রমণ হয়। তাতে ফল পঁচা রোগের সৃষ্টি হয় এবং ফল পঁচে যায়, সমাধান হলো- মাটি এবং গাছ প্রতিদিন লক্ষ্য রাখতে হবে। মাছি যাতে না আসে তার জন্য প্রায়শ জৈব বালাই নাশক নিতে হবে। ফল যাতে ছিদ্র না করতে পারে তার জন্য ফল আসার সাথে সাথেই আপনার গাছের ফলটি পলি ব্যাগ দিয়ে ঢেকে দিতে পারেন।

ফলন: এই গাছের সঠিক যত্ন এবং ফলের পরাগায়ণ ভালোমত হলে এক একটি গাছ থেকে ৮ থেকে ১২ টি পর্যন্ত ফল পেতে পারেন। পরাগায়নের ক্ষেত্রে প্রয়োজনে হাতে পরাগায়ণ করতে পারেন। ফলের আকৃতি গোলাকার হবে এবং এক একটি ফলের ওজন ৫০০ থেকে ৮০০ গ্রাম অনেক ক্ষেত্রে এর চেয়ে বেশি ওজন হতে পারে। পরিপক্কভাবে ফল পাকার ২ থেকে ৩ দিন আগেই ফলটি গাছ থেকে কেটে সংরক্ষণ করতে পারেন এবং বাজারজাত করতে পারেন।

বিজ্ঞাপনে বিদেশি শিল্পী নিলে বেশি টেক্স দিতে হবে: তথ্যমন্ত্রী নভেম্বরে বাংলাদেশ-ভারত টেস্টে ইডেনে থাকতে পারেন হাসিনা-মোদি পেঁয়াজে বেশি মুনাফার চেষ্টা করা হলে ব্যবস্থা: চট্টগ্রামের ডিসি ভারতে আটকে আছে ৫০০ টন পেঁয়াজ রামপালে আ.লীগের সম্মেলন ঘিরে দুপক্ষের উত্তেজনা আমার দাদা রুদ্র ১৮ বছর পর মামলা থেকে অব্যাহতি পেলেন নিরপরাধ বাবলু শেখ পাহাড়ে অহেতুক রক্তপাত হচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অভিযোগ আমারও আছে কিন্তু বিচ্ছেদ চাই না: সিদ্দিক প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ফিফা সভাপতির সাক্ষাৎ বাংলাদেশ ফুটবল দলের পারফরমেন্স চোখে পড়ার মতো: ফিফা সভাপতি জামাল ভূঁইয়ার ফেসবুক পেজ বন্ধ! হঠাৎ কি হল তামিমের? ছাত্রদলের সভাপতি-সম্পাদককে আদালতে হাজিরের নির্দেশ রাজধানীতে জেএমবি’র তিন সদস্য আটক দুই বস্তা ইলিশসহ জনতার হাতে ৩ পুলিশ আটক আইএস যোদ্ধাদের সন্তানের ভবিষ্যৎ কী কম দামে আইফোন আনছে অ্যাপল সাদা ঘোড়ায় ছুটে কী জানান দিলেন কিম? খুলনার থ্রি ডক্টরস কোচিংয়ের বিষয়ে তদন্ত চলছে প্লাস সাইজ মার্কিনকন্যা খুঁজছেন ভারতীয় পাত্র হংকং নিয়ে ‘নাক না গলাতে’ যুক্তরাষ্ট্রকে চীনের হুঁশিয়ারি আবারও গোল্ডেন বুট জিতলেন মেসি হানিফ ফ্লাইওভারে মোটরসাইকেল আরোহী নিহত ব্রেকফাস্টে পিনাট বাটার আর আপেল একসঙ্গে নয় কক্সবাজারে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২ বর্ষপঞ্জি সংস্কার, ১ দিন পিছিয়ে হেমন্তের শুরু একজন রোগীর জন্য ওষুধ তৈরি করলেন বিজ্ঞানীরা ফরিদপুরে গাড়িচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত ঘুষের টাকাসহ সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের ২ জনকে আটক