artk
বুধবার, জুন ১৯, ২০১৯ ১২:০১   |  ৫,আষাঢ় ১৪২৬
মঙ্গলবার, মার্চ ২৬, ২০১৯ ২:৩৯

ষোলো আনা মুক্তির জন্য আন্দোলন অব্যাহত রাখতে হবে: ড. কামাল

নিউজ ডেস্ক
media
আজ স্মৃতিসৌধে কামাল হোসেনের সঙ্গে গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসীন মন্টু, নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, “স্বাধীনতার ৪৮ বছর পরও দেশের মানুষকে ভোটাধিকারের জন্য লড়াই করতে হচ্ছে। আমরা আন্দোলনের মধ্যেই আছি। তবে ষোলো আনা মুক্তি পাওয়ার জন্য আন্দোলন অব্যাহত রাখতে হবে। এবার ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে আদায় করা হবে নিজেদের অধিকার।”

মঙ্গলবার জাতীয় স্মৃতিসৌধে মহান স্বাধীনতাযুদ্ধে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

ড. কামাল বলেন, ‘এ দেশের মানুষের কথা বলার অধিকার নেই, গণতান্ত্রিক অধিকার নেই। ৩০ ডিসেম্বর একটি ভুয়া ভোটের মাধ্যমে অবৈধ সরকার গঠিত হয়েছে। স্বাধীনতার ৪৮ বছর পর আমরা এমনটি আশা করিনি।’

সংবিধান প্রণেতা ড. কামাল বলেন, ‘‘গণতন্ত্রের জন্য দেশ স্বাধীন হয়েছে। অথচ সেই গণতন্ত্রই এ দেশে অনুপস্থিত। এমন অবস্থা চলতে দেয়া যাবে না। ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে মানুষের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠা করা হবে। দেশের মালিকানা জনগণের হাতে তুলে দেয়া হবে।’’

গণফোরাম সভাপতি আরও বলেন, ‘‘সংবিধানে স্বাধীনতার লক্ষ্য সম্পর্কে বলা বলা আছে, জনগণ সব ক্ষমতার মালিক। এ মালিকানা থেকে যদি কেউ তাদের বঞ্চিত করে, তবে তারা সংবিধানবিরোধী কাজ করছে, স্বাধীনতাবিরোধী কাজ করছে। কেউ যেন তাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত না হয়, সে জন্য আমাদের ঐক্যবদ্ধভাবে লড়াই করতে হবে।’’

কামাল হোসেন বলেন,‘‘ বঙ্গবন্ধু সব সময় বলতেন, ঐক্য ধরে রাখতে হবে। তার অসাধারণ নেতৃত্বেই জাতি একতা ধরে রাখতে পেরেছিল।’’

দেশে বাকশালের শাসনব্যবস্থা কায়েম হতে চলেছে কি না—এমন প্রশ্নের জবাবে কামাল হোসেন বলেন, ‘‘আমরা তো বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে সংবিধানে বহুদলীয় গণতন্ত্রের কথা লিখেছিলাম। বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকাকালে আমরা বহুদলীয় গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে পেরেছিলাম। এখন যেন একনায়কতন্ত্র না আসে, সেটাই ঐক্যবদ্ধভাবে সবাইকে নিশ্চিত করতে হবে।’’

গণফোরাম সভাপতি আরও বলেন, ‘‘জনগণের ঐক্য হলো সব শক্তির মূলে। সেই শক্তি থেকে যারা আমাদের বঞ্চিত করতে চায়, তারা জনগণের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করতে চায়। ষোলো আনা মুক্তি পেতে গেলে আমাদের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন করতে হবে।’’

আজ স্মৃতিসৌধে কামাল হোসেনের সঙ্গে গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসীন মন্টু, নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বিকল্প পথে ঢাকা থেকে সিলেট, দীর্ঘ যানজট আকাশের তৈরি সেই পরিবেশবান্ধব গাড়ি চালালেন ডিসি ‘পাসওয়ার্ড’ ছবির বিরুদ্ধে সেন্সর বোর্ডে অভিযোগ রেস্টুরেন্টে আফগান ক্রিকেটারদের ঝগড়াঝাঁটি প্রেমের টানে জার্মান নারী স্বামী-সংসার ফেলে খুলনায় যশোরে গণপিটুনিতে সন্ত্রাসী নিহত উবার চালককে পেটানোর ভিডিও করায় নিগৃহীত মিস ইন্ডিয়া বর্ষা ঋতুতে ব্যাঙ দাঁতে পেনসিল রেখে, বুড়ো আঙুলে ফুঁ দিয়েও সমস্যায় মুক্তি সৌদির প্রথম নারী পাইলট ইয়াসমিন মেসিদের দেখে ক্রুদ্ধ ম্যারাডোনা বগুড়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ গুলিবিদ্ধ ৮ মামলার আসামির মৃত্যু মিষ্টি কুমড়ায় যেসব ফাস্টফুড খাবার তৈরি করা যায় গোল করেও গোলশূন্য ড্র ব্রাজিলের হেসেখেলেই আফগানদের হারালো ইংল্যান্ড বিষাক্ত পোল্ট্রি-ফিস ফিড: ৬ কারখানা সিলগালা, ১০ জনের কারাদণ্ড ডোমিনিকান রিপাবলিক: মার্কিন পর্যটকদের মৃত্যুকূপ ঢাকাগামী সুন্দরবন-১০ লঞ্চে আগুন জাপানে শক্তিশালী ভূমিকম্প, সুনামি সতর্কতা জারি গাজীপুরে আ.লীগ প্রার্থী জয়ী, বিএনপি নেতার ভোট বর্জন ভাগনে অপহরণ: ফেসবুক লাইভে যা বললেন সোহেল তাজ আব্বাস: বদলে যাওয়া এক নিরব সব বিমানবন্দরে ডগ স্কোয়াড গঠনের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর রূপপুর প্রকল্পের বালিশ-কাণ্ডে সংসদীয় কমিটির অসন্তোষ মিশরের প্রথম বৈধ প্রেসিডেন্ট মুরসির উত্থান যেভাবে দুষ্টু লোকজন সামান্য গণ্ডগোলের চেষ্টা করেছে: ইসি সচিব তুরস্কে মুরসির গায়েবানা জানাজায় জনতার ঢল দেশব্যাপী বিড়ি শ্রমিকদের বিক্ষোভ, মানববন্ধন ৩৬ বছরের লজ্জার রেকর্ড এখন রশিদের মোবাইলে লেনদেনে নতুন করে চার্জের সুযোগ নেই: বিটিআরসি