artk
মঙ্গলবার, মে ২১, ২০১৯ ১১:৫৪   |  ৭,জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

স্টাফ রিপোর্টার

রোববার, মার্চ ২৪, ২০১৯ ৭:৩৯

আন্দোলন কখনো ভেসে যায় না: রব

media

আ স ম রব

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জেএসডি সভাপতি আ স ম রব বলেছেন, আন্দোলন কখনো হারিয়ে যায় না বা ভেসে যায় না। বরং কালের আবর্তে আন্দোলন পুঞ্জিভুত হয়, আরো শক্তি নিয়ে জোরালো হয়। 

তিনি বলেন, ৩০ ডিসেম্বর গণতন্ত্র নিহত হয়েছে আর আহত হয়েছে এদেশের ১৬ কোটি জনগণ। এরই ধারাবাহিকতায় ডাকসু, উপজেলা আর ঢাকা সিটি উত্তর নির্বাচনে ভোট আছে ভোটার নেই। দেশের মানুষ ভোটকে প্রত্যাখ্যান করেছে। এটাই আওয়ামী লীগের বড় অর্জন। 

রোববার বিকেলে কাকরাইলস্থ ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারর্স ইন্সটিটিউট মিলনায়তনে বিএনপির সাবেক মহাসচিব কে এম ওবায়দুর রহমানের শোকসভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। কে এম ওবায়দুর রহমান স্মৃতি সংসদের সভাপতি টি এম গিয়াসউদ্দিনের সভাপতিত্বে শোকসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএনপি সহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আরো বক্তব্য রাখেন দলের ভাইস চেয়ারম্যান ও প্রবীন রাজনীতিবিদ শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন, নাগরিক ঐক্যের আহবায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিশষ্ট সাংবাদিক ও কলামিস্ট মাহফুজ উল্লাহ, বিএনপি নেতা নিতাই রায় চৌধুরী ছাড়া দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা।  

আ স ম রব আরো বলেন, মুক্তিযোদ্ধের ইতিহাস শুধু দলীয়করণ আর পারিবারিককরণ হয়নি। এই ইতিহাস আজ ব্যক্তিকরণ হয়েছে। এটা দুঃখজনক। 

তিনি বলেন, আন্দোলন হারিয়ে যায়নি। সব আন্দোলন এক সময়ে সুদে আসলে বুঝে নেয়া হবে। আমরা আওয়ামী লীগের ভোট চুরির কথা এক হাজার বছর বক্তব্য দিয়েও হয়তো জনগণকে বোঝাতে পারতাম না। কিন্তু ৩০ ডিসেম্বরের একদিনের নির্বাচনেই জনগণ ভোট চোর চিনে ফেলেছে। আওয়ামী লীগকে আর কখনো জনগণ বিশ্বাস করবে না। 

পুলিশের ডিম ভাঙার তদন্ত শেষ, ওসিকে প্রত্যাহার সন্তানকে হাসপাতালে রেখে উধাও ‘বাবা-মা’ গণমাধ্যম ও সুশীল সমাজ গণতন্ত্রের বিকাশে ভূমিকা রাখছে: স্পিকার রকেটের চেয়েও দ্রুত গতিতে জাল বুনে মাকড়সা! জামিনে কারামুক্ত হলেন বিএনপি নেতা রবি দেশজুড়ে বিড়ি ভোক্তাদের বিক্ষোভ, কর প্রত্যাহারের দাবি প্রভাবশালীদেরও আইনের মুখোমুখি হতে হচ্ছে: দুদক চেয়ারম্যান ভারতে নাগা জঙ্গিদের হাতে বিধায়কসহ নিহত ১১ যতদিন সিগারেট থাকবে ততদিন বিড়ি রাখার দাবি ভোক্তাদের বকেয়া মজুরি পরিশোধের শর্তে পাটকলশ্রমিকদের আন্দোলন স্থগিত রানার শেয়ারে দর বেড়েছে ৩৩ শতাংশ ৬৮ বছরের বৃদ্ধকে বিয়ে করছেন সেলেনা! ইভিএমে কারচুপি নিয়ে শঙ্কিত ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি বগুড়া উপনির্বাচন বর্জনের ঘোষণা বাম জোটের ছুটিতে ঘুরে বেড়াচ্ছেন সাকিব-মুশফিকরা আত্মহত্যা প্ররোচনার মামলায় ৫ জনের ১৩ বছর কারাদণ্ড পুঁজিবাজারে সূচকের পতন ২ লাখ কোটি টাকার এডিপি অনুমোদন পাঁচ সিনিয়রের বাইরে তরুণদের পারফরম্যান্সে দারুণ খুশি টাইগার কোচ বাংলাদেশে বিনিয়োগ আকর্ষণে ইতালির ফ্লোরেন্সে সেমিনার অনুষ্ঠিত রুমিন ফারহানাই হচ্ছেন বিএনপির নারী আসনের সাংসদ নকল পণ্যের জন্য এমএম প্লাস্টিককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা কারাগারে আদালত স্থানান্তরের প্রজ্ঞাপন প্রত্যাহার চেয়ে আইনি নোটিশ আইসিডিডিআরবি, বুয়েট, ঢাবি ল্যাবে ওয়াসার পানি পরীক্ষার নির্দেশ পাকিস্তানিদের ভিসা বন্ধ করা হয়নি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী সারাদেশের পাস্তুরিত দুধ পরীক্ষার নির্দেশ আদালতের কেরানীগঞ্জ কারাগারে আদালত স্থাপন সংবিধান পরিপন্থী: মওদুদ কান উৎসবে আবারো নজর কাড়লেন ঐশ্বরিয়া সহকর্মী ধর্ষণের দায়ে প্রধান শিক্ষকের যাবজ্জীবন স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণকারী পুলিশ সদস্য কারাগারে