artk

স্টাফ রিপোর্টার

রোববার, মার্চ ২৪, ২০১৯ ৭:৩৯

আন্দোলন কখনো ভেসে যায় না: রব

media

আ স ম রব

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জেএসডি সভাপতি আ স ম রব বলেছেন, আন্দোলন কখনো হারিয়ে যায় না বা ভেসে যায় না। বরং কালের আবর্তে আন্দোলন পুঞ্জিভুত হয়, আরো শক্তি নিয়ে জোরালো হয়। 

তিনি বলেন, ৩০ ডিসেম্বর গণতন্ত্র নিহত হয়েছে আর আহত হয়েছে এদেশের ১৬ কোটি জনগণ। এরই ধারাবাহিকতায় ডাকসু, উপজেলা আর ঢাকা সিটি উত্তর নির্বাচনে ভোট আছে ভোটার নেই। দেশের মানুষ ভোটকে প্রত্যাখ্যান করেছে। এটাই আওয়ামী লীগের বড় অর্জন। 

রোববার বিকেলে কাকরাইলস্থ ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারর্স ইন্সটিটিউট মিলনায়তনে বিএনপির সাবেক মহাসচিব কে এম ওবায়দুর রহমানের শোকসভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। কে এম ওবায়দুর রহমান স্মৃতি সংসদের সভাপতি টি এম গিয়াসউদ্দিনের সভাপতিত্বে শোকসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএনপি সহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আরো বক্তব্য রাখেন দলের ভাইস চেয়ারম্যান ও প্রবীন রাজনীতিবিদ শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন, নাগরিক ঐক্যের আহবায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিশষ্ট সাংবাদিক ও কলামিস্ট মাহফুজ উল্লাহ, বিএনপি নেতা নিতাই রায় চৌধুরী ছাড়া দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা।  

আ স ম রব আরো বলেন, মুক্তিযোদ্ধের ইতিহাস শুধু দলীয়করণ আর পারিবারিককরণ হয়নি। এই ইতিহাস আজ ব্যক্তিকরণ হয়েছে। এটা দুঃখজনক। 

তিনি বলেন, আন্দোলন হারিয়ে যায়নি। সব আন্দোলন এক সময়ে সুদে আসলে বুঝে নেয়া হবে। আমরা আওয়ামী লীগের ভোট চুরির কথা এক হাজার বছর বক্তব্য দিয়েও হয়তো জনগণকে বোঝাতে পারতাম না। কিন্তু ৩০ ডিসেম্বরের একদিনের নির্বাচনেই জনগণ ভোট চোর চিনে ফেলেছে। আওয়ামী লীগকে আর কখনো জনগণ বিশ্বাস করবে না। 

দেনমোহর হিসেবে স্ত্রীর বই দাবি মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ ও ফেনীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৭ অস্ত্র মামলায় জেএমবি সদস্যের ১০ বছরের কারাদণ্ড ফখরুলের কাছে ভোট ও দোয়া চাইলেন আতিক নির্বাচন কমিশনে ১৪০ অভিযোগ তাবিথের ডেসটিনির এমডি রফিকুলের ৩ বছরের কারাদণ্ড অতি উজ্জ্বল একটি তারা কি বিস্ফোরিত হবে? মৌলভীবাজারে আগুনে পুড়ে একই পরিবারের ৫ জনের মৃত্যু সিনিয়র-জুনিয়র দ্বন্দ্বে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে সংঘর্ষ ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে তীব্র যানজট ১০৫ নম্বরে এসএমএস পাঠালেই ভোটের তথ্য পুলিশে যোগ দিয়ে পরীমনির ‘স্বপ্ন পূরণ’ চীনে করোনাভাইরাসে মৃত্যু ১০৬ জনের বলিউডের ‘রোহিঙ্গা’ ছবিতে বাংলাদেশি মেয়ে বাণিজ্য মেলার সময় বাড়লো চার দিন সেনবাগে গ্রেপ্তারের পর ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত যুবক করোনাভাইরাস : চীন থেকে বাংলাদেশিরা ফিরতে পারবেন ১৪ দিন পর ১৫ লাখ টাকা শিক্ষাবৃত্তি দিবে এডুহাইভ মিষ্টি জাতীয় খাবার দাঁত ক্ষয় বাড়ায় খোলামেলা পোষাকে প্রিয়াঙ্কা সমালোচনায় নেটিজেনরা করোনা আতঙ্ক: হিলি ও বিরল স্থলবন্দরে মেডিকেল টিম গঠন ৩০ জানুয়ারি থেকে ৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বৈধ অস্ত্র বহন ও প্রদর্শনে নিষেধাজ্ঞা ঢাকায় জ্বরে আক্রান্ত চীনা নাগরিক হাসপাতালে করোনাভাইরাস নিয়ে সতর্ক থাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর স্কুলের কথা বলে বের হওয়া ৩ ছাত্রী ধর্ষণ, গ্রেফতার ২ এবার নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে পশ্চিমবঙ্গে প্রস্তাব পাস এ কে আজাদের সম্পদের হিসাব চেয়েছে দুদক ঢাকা মার্কেন্টাইল ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যানসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা মুন্সিগঞ্জে ‘রহস্যময় জ্বরে’ চাচি ও ভাতিজার ২ জনের মৃত্যু মুশফিক নর্থ জোনে, ইস্টে তামিম