artk
রোববার, সেপ্টেম্বার ১৫, ২০১৯ ৪:৩৮   |  ৩১,ভাদ্র ১৪২৬
বুধবার, মার্চ ২০, ২০১৯ ৫:২৬

জমি নিয়ে বিরোধে ব্যবসাীয়কে হত্যা: ১৫ আসামির মৃত্যুদণ্ড

স্টাফ রিপোর্টার
media

জমির বিরোধকে কেন্দ্র করে ঢাকার দোহারে কাপড় ব্যবসায়ী নজরুল ইসলামকে হত্যার দায়ে ১৫ আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এক দশক আগে এ ঘটনা ঘটে। মামলার অপর দুই আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

বুধবার ঢাকার প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রদীপ কুমার রায় এই রায় দেন।

জমি নিয়ে বিরোধের জেরে ২০০৮ সালের ৩ এপ্রিল বুড়িগঙ্গা ব্রিজের পাশে নারিশা পশ্চিম চর এলাকায় কাপড় ব্যবসায়ী নজরুল ইসলামকে হত্যা করা হয়।

মৃত্যদণ্ডপ্রাপ্ত ১৫ আসামির মধ্যে সিরাজ ওরফে সেরু কারিগর, মিনহাজ ওরফে মিনু, খলিল কারিগর, শাহজাহান কারিগর, কালু ওরফে কুটি কারিগর, আজহার কারিগর, নিয়াজ উদ্দিন, মোজাম্মেল ওরফে সুজা, আ. লতিফ, জালাল ও বিল্লাল রায়ের সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া দিদার, এরশাদ, জলিল কারিগর ও ইব্রাহিম পলাতক।

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত দুজন হলেন- মজিদল ওরফে মাজেদা ও চায়না বেগম। তারা দুজনই পলাতক। কারাদণ্ডের পাশাপাশি তাদেরকে ২০ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। ওই টাকা না দিলে তাদের আরও এক বছর কারাভোগ করতে হবে বলে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী কাজী সাহানারা ইয়াসমীন জানান।

মামলার বিবরণে জানা যায়, নজরুলের সঙ্গে আসামিদের জমি নিয়ে বিরোধ ছিল। এ বিষয়ে একাধিক মামলাও চলছিল আদালতে। এর জের ধরে আসামিরা তাকে লোহার রড ও বাঁশের লাঠি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে।

নজরুলকে বাঁচাতে তার স্ত্রী সূর্যভান এগিয়ে গেলে তাকেও আঘাত করে আসামিরা। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক নজরুলকে মৃত ঘোষণা করেন।

নজরুলের মামা নাজিমুদ্দিন আহমেদ ওই দিনই দোহার থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। তদন্ত শেষে গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক আনোয়ার হোসেন ২০০৮ সালের ২৬ জুলাই আদালতে অভিযোগপত্র দেন। সেখানে মোট ১৭ জনকে আসামি করা হয়।

২০০৯ সালের ২৫ মে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে তাদের বিচার শুরু করে আদালত। দীর্ঘ বিচারে বাদীপক্ষে ১৪ জনের সাক্ষ্য শুনে বিচারক আসামিদের দোষী সাব্যস্ত করে রায় দিলেন। 

 

ছাত্রলীগের চাঁদাবাজির খবর এখন টক অব দ্য কান্ট্রি: রিজভী ‘বন্দুকযুদ্ধে' রোহিঙ্গা নিহত ভিকারুননিসার নতুন অধ্যক্ষ ফওজিয়া শোভান-রাব্বানীর বিচার চান সোহেল কোনো অন্যায়কারী, চাঁদাবাজকে প্রশ্রয় দেবে না ছাত্রলীগ: নাহিয়ান ডিএসইতে লেনদেন কমলেও সিএসইতে বেড়েছে কুমিল্লায় বাসচাপায় ৩ ছাত্রলীগ নেতা নিহত ইসরায়েলি ড্রোন ভূপাতিতের দাবি ফিলিস্তিনের ‘প্রত্যেককে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হবে’ মাসিক বেতনে বাস চালক নিয়োগের নির্দেশ নেদারল্যান্ডসের ডিপ্লোম্যাট ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদে শেখ হাসিনা ঢাকায় আসছেন ঋতুপর্ণা ক্যাডারদের জন্য অশনিসংকেত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের ৩ বছর পরেও খোঁজ নেই পরীক্ষার র‍্যাবের হামলার বিচার দাবি জবি শিক্ষার্থীদের সড়কে অবরোধ বাসর ঘরে ঢুকেই দেখলেন স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা সারদায় প্রধানমন্ত্রী শোভন-রাব্বানী পদ হারানোয় আনন্দ উল্লাস অসুস্থ নেতার শয্যাপাশে বিএনপি ও ছাত্রদল নেতারা দুর্গাপূজায় ব্যাং’র পোশাকে অর্ধেক ছাড় জবিতে বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেতাদের দৌরাত্ম্য কিশোরগঞ্জে বাসচাপায় ২ স্কুলছাত্র নিহত ফিলিস্তিন রক্ষায় কাবার ইমামের ঐক্যের ডাক পূজা ও শরৎ উপলক্ষে আর্ট এনেছ নতুন পোশাক ঢামেকে নবজাতককে রেখে পালালেন মা-বাবা আফগানিস্তানের বিপক্ষে সম্ভাব্য বাংলাদেশ একাদশ ভাসমান অভিবাসীদের উদ্ধার করা জাহাজটিকে বন্দরে ভিড়তে দিল ইতালি সাভারে আ.লীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা মহাকাশে সিমেন্ট গুলছেন বিজ্ঞানীরা ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে মাদরাসা শিক্ষক গ্রেপ্তার