artk
মঙ্গলবার, অক্টোবার ১৫, ২০১৯ ৮:৫১   |  ৩০,আশ্বিন ১৪২৬
বুধবার, মার্চ ২০, ২০১৯ ৫:২৬

জমি নিয়ে বিরোধে ব্যবসাীয়কে হত্যা: ১৫ আসামির মৃত্যুদণ্ড

স্টাফ রিপোর্টার
media

জমির বিরোধকে কেন্দ্র করে ঢাকার দোহারে কাপড় ব্যবসায়ী নজরুল ইসলামকে হত্যার দায়ে ১৫ আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এক দশক আগে এ ঘটনা ঘটে। মামলার অপর দুই আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

বুধবার ঢাকার প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রদীপ কুমার রায় এই রায় দেন।

জমি নিয়ে বিরোধের জেরে ২০০৮ সালের ৩ এপ্রিল বুড়িগঙ্গা ব্রিজের পাশে নারিশা পশ্চিম চর এলাকায় কাপড় ব্যবসায়ী নজরুল ইসলামকে হত্যা করা হয়।

মৃত্যদণ্ডপ্রাপ্ত ১৫ আসামির মধ্যে সিরাজ ওরফে সেরু কারিগর, মিনহাজ ওরফে মিনু, খলিল কারিগর, শাহজাহান কারিগর, কালু ওরফে কুটি কারিগর, আজহার কারিগর, নিয়াজ উদ্দিন, মোজাম্মেল ওরফে সুজা, আ. লতিফ, জালাল ও বিল্লাল রায়ের সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া দিদার, এরশাদ, জলিল কারিগর ও ইব্রাহিম পলাতক।

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত দুজন হলেন- মজিদল ওরফে মাজেদা ও চায়না বেগম। তারা দুজনই পলাতক। কারাদণ্ডের পাশাপাশি তাদেরকে ২০ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। ওই টাকা না দিলে তাদের আরও এক বছর কারাভোগ করতে হবে বলে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী কাজী সাহানারা ইয়াসমীন জানান।

মামলার বিবরণে জানা যায়, নজরুলের সঙ্গে আসামিদের জমি নিয়ে বিরোধ ছিল। এ বিষয়ে একাধিক মামলাও চলছিল আদালতে। এর জের ধরে আসামিরা তাকে লোহার রড ও বাঁশের লাঠি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে।

নজরুলকে বাঁচাতে তার স্ত্রী সূর্যভান এগিয়ে গেলে তাকেও আঘাত করে আসামিরা। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক নজরুলকে মৃত ঘোষণা করেন।

নজরুলের মামা নাজিমুদ্দিন আহমেদ ওই দিনই দোহার থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। তদন্ত শেষে গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক আনোয়ার হোসেন ২০০৮ সালের ২৬ জুলাই আদালতে অভিযোগপত্র দেন। সেখানে মোট ১৭ জনকে আসামি করা হয়।

২০০৯ সালের ২৫ মে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে তাদের বিচার শুরু করে আদালত। দীর্ঘ বিচারে বাদীপক্ষে ১৪ জনের সাক্ষ্য শুনে বিচারক আসামিদের দোষী সাব্যস্ত করে রায় দিলেন। 

 

পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে চীনা প্রকৌশলীর মৃত্যু হবিগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত সর্দার নিহত কোটচাঁদপুরে ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী তৃতীয় লিঙ্গের পিংকি কাউয়াদের বের করতে না পারলে অশনিসংকেত ডেকে আনবে: নানক পারমাণবিক বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় কোম্পানি গঠনে খসড়া অনুমোদন একসঙ্গে নোবেলজয়ী দম্পতিরা দাবি পূরণের আশ্বাস পেয়ে অটোরিকশা ধর্মঘট স্থগিত যে ৯ খাতে পিছিয়েছে বাংলাদেশ প্রকাশ্যে বৈধ অস্ত্রও প্রদর্শন করা যাবে না সস্ত্রীক নোবেলজয়ী বাঙালি অর্থনীতিবিদ সম্পর্কে যা জানা যাচ্ছে তুর্কি হামলা ঠেকাতে কুর্দিদের সঙ্গে চুক্তি করলেন আসাদ পুঁজিবাজারে ২০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে আইসিবি আবরার হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিতের আশ্বাস প্রধানমন্ত্রীর গাজীপুরে ২ মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু ঘুষের টাকাসহ পাসপোর্ট অফিসের অফিস সহায়ক গ্রেফতার মুক্তিযোদ্ধা বাবার কবরে বাথরুম! ড. ইউনূসের গ্রেফতারি পরোয়ানা হাইকোর্টে স্থগিত মাত্র ৫ শতাংশ মানুষ উন্নয়নের সুফল পাচ্ছেন: মেনন নাইক্ষ্যংছড়িতে ভোটকেন্দ্রে বিজিবির গুলি, নিহত ১ ছাত্রলীগের কারণে সমগ্র ছাত্র রাজনীতি দায়ী হতে পারে না: রিজভী সৌরভের কাছে দুর্দান্ত ইনিংস চান মমতা পেঁয়াজের বাজার স্বাভাবিক হবে অক্টোবরের শেষে: বাণিজ্যমন্ত্রী অমিতকে স্থায়ী বহিষ্কার করলো ছাত্রলীগ ভারতের সাথে হার বাংলাদেশের মেয়েদের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গণভবনে আবরারের বাবা-মা মঙ্গলবার থেকে ৩ দিনের সিএনজি ধর্মঘট ‘বেসিক ব্যাংকের ঘটনায় দুদক চেয়ারম্যানের পদত্যাগ করা উচিত’ অর্থনীতিতে নোবেল পেলেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত অভিজিত ব্যানার্জি কুমিল্লায় ব্যবসায়ীকে হত্যার দায়ে ৯ জনের মৃত্যুদণ্ড পুঁজিবাজারে সব ধরনের সূচকে পতন