artk
মঙ্গলবার, মার্চ ২৬, ২০১৯ ১:১২   |  ১২,চৈত্র ১৪২৫
শুক্রবার, মার্চ ১৫, ২০১৯ ৮:০৮

ডায়াবেটিস কমবে পায়ের যত্নেই!

স্বাস্থ্য -পুষ্টি ডেস্ক
media
প্রথম অবস্থায় সাধারণ স্যালাইনে ঘা ধুয়ে জীবাণুমুক্ত গজে দিয়ে জায়গাটা ঢেকে রাখুন। ঘা না শুকানো পর্যন্ত একটু কম চলাফেরা করুন।

আমরা যে ভাবে ত্বকের যত্ন নেই, ডায়াবিটিস থাকলে সে ভাবেই পায়ের যত্ন নিতে হবে। কারণ রোগ নিয়ন্ত্রণে না থাকলে মাত্র ১০ বছরেই স্নায়ু দুর্বল হয়ে পায়ের অনুভূতি কমে যেতে পারে, যাকে বলে ডায়াবেটিক নিউরোপ্যাথি৷ ডায়াবেটিসে অন্য চিকিৎসার পাশাপাশি পায়ের যত্ন নেয়া দরকার।

পায়ের যত্ন:
বাইরে থেকে ফিরে দেখুন কোনো কাটা বা ব্যথা অনুভব হচ্ছে কি না। গোসলের আগে হালকা গরম পানি ও শ্যাম্পু দিয়ে পা পরিষ্কার করে, শুকনো করে মুছে ময়েশ্চারাইজার লাগান। আঙুলের মধ্যখান যেন শুকনো থাকে। তবে পায়ের তলা ঘামলে আঙুলের মাঝে ময়েশ্চারাইজার লাগাবেন না। ডায়াবেটিক রোগী কখনো খালি পায়ে হাঁটবেন না৷ মোজা ছাড়া জুতো পড়বেন না। এমন কি সেলাই না করা মোজাও পড়া যাবে না। কারণ এতে ফোস্কা পড়ে সেখানে ময়লা লেগে সংক্রমণ হয়ে যেতে পারে। পায়ের নখ সোজা করে কাটুন। নখের কোণা চামড়ার মধ্যে ঢুকে গেলে নিজে কিছু না করে বা পার্লারে না কাটিয়ে পায়ের বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নিন। ঠিক মাপের জুতো পড়ুন না হলে ফোস্কা পড়তে পারে।

বাড়তি সতর্কতা:
পা কেটে গেলে বা ফোস্কা পড়লে ভাল করে ড্রেসিং করুন। ডায়াবেটিক ও কিডনির সমস্যা থাকলে যেখানে–সেখানে পেডিকিওর করাবেন না। বছরে একবার চিকিৎসকের কাছে পায়ের চেক আপ করান।

পেডিকিওরে সতর্কতা:
পার্লারের যন্ত্র পরিষ্কার না হলে বা যিনি করবেন তার ট্রেনিং না থাকলে কিছু সমস্যা হতে পারে। পায়ের শক্ত চামড়া গরম পানিতে ভিজিয়ে নরম করে কেটে ফেললে সেখান থেকে সংক্রমণ হতে পারে। দীর্ঘদিন ডায়াবেটিসে ভুগলে পায়ে অনুভূর্তি কমে যায়। তাই গরম পানিতে পা ডোবানো বা ঝামা দিয়ে ঘষার সময় মাত্রা রাখতে না পারলে কেটে যেতে পারে।

পায়ে ঘা হলে:
প্রথম অবস্থায় সাধারণ স্যালাইনে ঘা ধুয়ে জীবাণুমুক্ত গজে দিয়ে জায়গাটা ঢেকে রাখুন। ঘা না শুকানো পর্যন্ত একটু কম চলাফেরা করুন। বড় ঘায়ে বিশেষ ধরনের ডায়াবেটিক জুতা পড়তে পারেন।

জানেন কি ঢেঁড়সের এই উপকারিতাগুলো? স্বামী ও আমাকে হয়রানি করতেই এ মামলা: সালমা ফতুল্লায় ডাইং কারখানায় ভয়াবহ কেমিক্যাল বিস্ফোরণ টেকনাফে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে রোহিঙ্গা নিহত স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে যাওয়ার পথে দুর্ঘটনায় স্কুলছাত্রী নিহত সাংবাদিকদের সঙ্গে দুর্ব্যবহারে বিএসইসির দুঃখ প্রকাশ ভালো কোম্পানি আনতে আইপিওর পদ্ধতির পরিবর্তন জরুরি ফরিদপুরে মহান স্বাধীনতা দিবস পালিত তোমাদেরই গঠন করতে হবে বলিষ্ঠ জাতি: শিশুদের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী ব্যাঙের সব পাঞ্জাবিতে ৫০ ভাগ ছাড় মেলবোর্নে বাংলাদেশি নারীদের অভিনব মিলনমেলা মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস মঙ্গলবার আইপিএলে পাঞ্জাবের নাটকীয় জয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা সালমার স্বামী সাগরের বিরুদ্ধে প্রথম স্ত্রীর মায়ের মামলা দেশব্যাপী ১ মিনিট বিদ্যুৎ বন্ধ রেখে কালরাত্রিকে স্মরণ ব্যাংক কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ‘ঘুষ না খাওয়ার’ শপথ পড়ালেন অর্থমন্ত্রী সোনালী ব্যাংকের সাবেক জিএম-ডিজিএমের বিরুদ্ধে চার্জশিট আগারগাঁও পাসপোর্ট অফিসে দুদকের হানা, আটক ৩ হিরো আলমের সঙ্গে সংসার করব: স্ত্রী সুমি সেই নারী বললেন ‘প্রতিক্রিয়াশীল চক্র আমাদের ছবি নিয়ে বিকৃত মন্তব্য করছে’ সাংবাদিককে পেটালেন ছাত্রলীগ নেতা এ কোন চরিত্রে দীপিকা! সাংবাদিকদের সঙ্গে বিএসইসির কর্মকর্তাদের দুর্ব্যবহারে সিএমজেএফের নিন্দা ভাসানচরে স্থানান্তর রোহিঙ্গাদের ইচ্ছায় কিনা জানতে চায় জাতিসংঘ মারুফের টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরিতে রূপগঞ্জের সহজ জয় প্রশ্নফাঁসে শিক্ষক-কর্মচারী জড়িত থাকলে বরখাস্ত: শিক্ষামন্ত্রী চীন-মার্কিন যুদ্ধ কি শিগগিরই? বিভাজন বিদ্বেষে দেশ এগোতে পারে না: শাহদীন মালিক গণতন্ত্রের নামে কর্তৃত্ববাদী অপশাসন চালু করা হয়েছে: ফখরুল