artk
বৃহস্পতিবার, মার্চ ২১, ২০১৯ ২:৪৯   |  ৭,চৈত্র ১৪২৫
মঙ্গলবার, মার্চ ১২, ২০১৯ ৭:৪৭

শাহজালাল বিমানবন্দরে মশার উৎপাত, হাই কোর্টের রুল

স্টাফ রিপোর্টার
media

হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যাত্রী, দর্শনার্থীসহ অন্যান্যদের মশার উৎপাত থেকে রক্ষার ক্ষেত্রে কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা ও অবহেলা কেন আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না, জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট।

একই সঙ্গে মশার আক্রমণ দমনে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে বিবাদীদের কেন নির্দেশ দেয়া হবে না, তাও জানতে চাওয়া হয়েছে।

বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সচিব, বেসরকারি বিমান কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র ও বিমানবন্দর সংলগ্ন ওয়ার্ড কমিশনারকে চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

একটি রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে মঙ্গলবার বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের বেঞ্চ এ রুল জারি করেন।

আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো. তানভির আহমেদ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ বি এম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার।

তানভির আহমেদ বলেন, বেসরকারি বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের তথ্য অনুযায়ী শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে বছরে ৫০ লাখ যাত্রী আসা-যাওয়া করেন। যার মধ্যে ৪০ লাখই বিদেশি। ফলে এরকম একটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যদি মশার উৎপাত থাকে, তবে বহির্বিশ্বে আমাদের জাতীয় ভাবমূর্তিই খারাপ হবে- আদালতও এই মন্তব্য করেছেন।

এই আইনজীবী বলেন, ডেঙ্গু, চিকুনগুনিয়া জ্বর মশার কামড়েই হয়। এসব জ্বরে বহু মানুষ ভোগেছেন বা এখনও ভুগছেন। এনকি ডেঙ্গু, চিকুনগুনিয়া জ্বরে প্রাণহানিও ঘটেছে। কিন্তু আমাদের সংবিধান নাগরিকের জান, মাল রক্ষার বিধান দিয়েছে। ১৮ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী জনস্বাস্থ্য রক্ষা করাই রাষ্ট্রের প্রথম এবং প্রধান দায়িত্ব। ফলে রিট আবেদনে মশার উৎপাত থেকে রক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশনাসহ রুল চাওয়া হলেও আদালত শুধু রুল জারি করেছেন।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি একটি জাতীয় দৈনিকে ‘শাহজালাল বিমানবন্দর: মশার পরান বধিবে কে?’ ও ২৫ ফেব্রুয়ারি ‘ছেঁকে ধরে ঝাঁকে ঝাঁকে মশা’ শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

মশার উৎপাত নিয়ে প্রতিবেদন ছাপার হওয়ার পর প্রতিকার চেয়ে গত ২৬ ফেব্রুয়ারি সংশ্লিষ্টদের উকিল নোটিস দেন আইনজীবী মো. তানভির আহমেদ।

কিন্তু সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে কোনো জবাব না পেয়ে এবং মশা নিধনের কোনো উদ্যোগ না দেখে পরে ৩ মার্চ হাই কোর্টে রিট আবেদন করেন। 

জলবায়ু নীতিমালায় বিশ্বের ১০০ প্রভাবশালী ব্যক্তির তালিকায় ড. সালেমুল হক আন্দোলনকারীদের একাংশের মানববন্ধন খুলনায় ট্রলিচাপায় শিশু নিহত ২৫ ক্যাজুয়াল কর্মচারীকে স্থায়ী করলো বিমান এবার ঝরলো শিক্ষকের প্রাণ বৃহস্পতিবার শুরু হচ্ছে ‘শিশু একাডেমি বইমেলা’ জাতীয় দল থেকে ছিটকে গেলেন ডি’মারিয়া এবার সিরাজগঞ্জে কলেজছাত্রের প্রাণ নিলো ঘাতক চালক সন্ধ্যায় বঙ্গবন্ধু সম্মেলন কেন্দ্রে গাইবেন সোমলতা ১৯৬টি শো নিয়ে কানাডায় যাত্রা করছে ‘যদি একদিন’ পদ্মাসেতুর নবম স্প্যান বসছে বৃহস্পতিবার কুমিল্লায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১১ মামলার আসামি নিহত দক্ষিণ কোরিয়ায় হোটেলে পর্নোগ্রাফির শিকার ১৬শ মানুষ আধা স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে নিউজিল্যান্ড চুয়াডাঙ্গা স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা এক নারীকে ধাক্কা দিয়ে বাস নিয়ে পালাচ্ছিলেন চালক ‘গাঁজা না খেয়ে গাড়ি চালাতে পারেন না সু-প্রভাত চালক সিরাজুল’ শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে বিএনপির ‘পূর্ণ সমর্থন’ আন্দোলনকারী দুই ছাত্রীর ওপর গাড়ি উঠিয়ে দিলেন জবি শিক্ষক সুপ্রভাত ও জাবালে নূরের সব বাস নিষিদ্ধ প্রাথমিকে তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত পরীক্ষা থাকছে না একই বিমানের পাইলট মা-মেয়ে, ছবি ভাইরাল বেনাপোলে ভারতীয় ট্রাকসহ পণ্য জব্দ বিশ্বের সবচেয়ে সস্তা শহর কোনটি? সন্তানকে চৌকিদার বানাতে চাইলে মোদিকে ভোট দিন আর্ন্তজাতিক বাণিজ্যে বেসরকারি ব্যাংকের আধিপত্য খালেদা জিয়ার মানহানির দুই মামলায় অভিযোগ গঠন ১৫ এপ্রিল ত্রিশে পা দিলেন তামিম ইকবাল, আইসিসির শুভেচ্ছা ৩৭তম বিসিএসে নিয়োগ পেলেন ১ হাজার ২২১ জন আইসিসি বিশ্বকাপে কাউকে ভয় করবে না আফগানরা: রশিদ খান