artk
বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বার ১৯, ২০১৯ ৫:২৪   |  ৪,আশ্বিন ১৪২৬

স্বাস্থ্য-পুষ্টি ডেস্ক

মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী ১২, ২০১৯ ১২:৪২

আলঝেইমার্সে আক্রান্ত হতে না চাইলে

media

বয়স হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে শারীরিক কসরত করে যেতে পারলে শরীরের নানা কলকব্জা যেমন সক্রিয় থাকে, তেমনই শরীরের বিভিন্ন হরমোন ক্ষরণের মান ভালো থাকে। 

আবদুল খালেক বয়স ৮০ পেরিয়েছেন। এখন বাড়ি থেকে বেরোনো বলতে টুকটাক হাঁটাহাঁটি কিংবা বন্ধুদের সঙ্গে গল্পগুজবে যোগ দিতে যাওয়া। ফেরার পথে বাড়ির প্রয়োজনে টুকটাক কিছু কিনে ফিরতে বললেই শুরু হয় বিপত্তি। কিছুতেই মনে রাখতে পারেন না কী চাই! মাত্র দু’-তিনটে জিনিস হলেও ফর্দই ভরসা।

যদিও তার বন্ধু আনিসুর রহমান ৮৪ পেরিয়েও স্মৃতিশক্তিতে পাল্লা দিতে পারেন যে কোনো মধ্যবয়সীকে। ছোটবেলার পড়া কবিতা হোক বা আড্ডায় কবে কে কী বলেছিলেন— গড়গড় করে বলে দিতে পারেন একনাগাড়ে।

এমন বৈষম্য কেন হলো হঠাৎ? চার পাশের এমন অনেকেই থাকেন, বৃদ্ধ বয়সে পৌঁছনোর পরেও যাদের স্মৃতিশক্তি তরুণদের সঙ্গেই পাল্লা দেয়। বয়স পেরিয়ে গেলেও তাদের খুব একটা কাবু করতে পারে না আলঝেইমার্স।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রশ আলঝেইমার্স ডিজিস সেন্টারের গবেষকরা এবার খুঁজে বের করলেন এমন বিভেদের কারণ। আলঝেইমার্স বা স্মৃতিভ্রষ্ট হওয়ার অসুখের সঙ্গে যোগাযোগ খুঁজে পেলেন শারীরিক কসরতের। গবেষণায় অংশ নেয়া কয়েক জন অশীতিপর বৃদ্ধের জীবিত অবস্থায় জীবনশৈলীর প্রতি নজর রাখেন বিজ্ঞানীরা। মৃত্যুর পর দেহদান করেছিলেন তারা সকলেই। ফলে তাদের মস্তিষ্ক নিয়ে কাজ করা আরও সহজ হয়ে ওঠে। সেখান থেকেই বিজ্ঞানীরা বুঝতে পারেন মস্তিষ্ক সতেজ থাকার অন্যতম উপায় কী।

গবেষণার প্রধান এরোন এস বুচম্যানের কথায়, যে সব মানুষ বৃদ্ধ বয়সে পৌঁছনোর আগে থেকেই শারীরিক কসরতে অভ্যস্ত ছিলেন ও জীবনের শেষ পর্যায় পর্যন্ত তা শরীর বুঝে চালিয়ে গিয়েছেন, তাদের স্মৃতিশক্তির ধার বেশি। আলঝেইমার্স আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনাও তাদের ক্ষেত্রে অত্যন্ত কম।

এ দিকে যারা বয়স বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে সব রকম শারীরিক কসরত বন্ধ করে কেবলমাত্র শুয়ে-বসে দিন কাটিয়েছেন কিংবা শারীরিক অসুস্থতার জন্য ওঠা-হাঁটা বা ব্যায়ামে অপারগ ছিলেন, তাদের ক্ষেত্রে আলঝেইমার্স কোপ বসায় বেশি।

বয়স হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে শারীরিক কসরত করে যেতে পারলে শরীরের নানা কলকব্জা যেমন সক্রিয় থাকে, তেমনই শরীরের বিভিন্ন হরমোন ক্ষরণের মান ভালো থাকে। মস্তিষ্কের কোষও তাই তুলনামূলকভাবে বেশি সক্রিয় থাকে। স্নায়ু ও পেশিরা সক্রিয় থাকায় মস্তিষ্ককে ঠিক সময় ঠিক সিগন্যাল পাঠাতে সক্ষম হয় তারা। তাই ভুলে যাওয়ার সমস্যা কমে।

চিকৎসকদের মতে, অল্প বয়স থেকেই তাই নিয়মিত শরীরচর্চা করা উচিত। তা হলে স্নায়ু-পেশি-অস্থি এগুলি বরাবর সতেজ থাকে ও ব্যায়াম করার অনুকূল অবস্থায় থাকে। কাজেই স্মৃতিশক্তি কমে আসছে মনে হলে শরণ নিন শরীরচর্চার। সেখানেই লুকিয়ে মনে রাখার চাবিকাঠি।

যুবলীগ নেতা খালেদকে গুলশান থানায় হস্তান্তর অবৈধ ব্যবসার সঙ্গে জড়িত রাজনীতি-প্রশাসনের কাউকে ছাড় নয় নারায়ণগঞ্জে মা ও দুই মেয়েকে গলাকেটে হত্যা সফলভাবে ডেঙ্গু মোকাবেলা করেছি: স্বাস্থ্যমন্ত্রী পুঁজিবাজারে ৭৫ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে প্রধানমন্ত্রী নিউইয়র্ক যাচ্ছেন শুক্রবার ‘ফেসবুকে স্ট্যাটাসের জন্য কোনো শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হবে না’ পাসপোর্ট অধিদপ্তরের নতুন ডিজি সাকিল আহমেদ আফগানিস্তানে দুই হামলায় নিহত ৪০ ক্যাসিনো মালিকরা যত প্রভাবশালীই হোক রেহাই নেই: ডিএমপি কমিশনার নারায়ণগঞ্জে ২ শিশুসহ নারীকে গলা কেটে হত্যা জাতিসংঘের অধিবেশনে যেতে ভিসা পাচ্ছেন না রুহানি কানাডায় নূর চৌধুরীর অবস্থান জানার আবেদন মঞ্জুর মাটির নিচে যুক্তরাষ্ট্রের ৬৩ কোটি ব্যারেল জরুরি তেলের ভাণ্ডার দুদুর বাড়িতে হামলা আলিয়াকে হাতছাড়া করতে চান না বানসালি নায়ক সালমান শাহর ৪৮তম জন্মবার্ষিকী দুর্ঘটনায় প্রেমিক নিহত, প্রেমিকার আত্মহত্যা কমলাপুরে যুবলীগ নেতা খালেদের টর্চার সেল ২৮ বছর পর সরাসরি ভোটে ছাত্রদলের নতুন নেতৃত্ব নির্বাচিত টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ রোহিঙ্গাসহ নিহত ৩ জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ ক্যাসিনো থেকে আটক: ৩১ জনকে ১ বছর ও বাকিদের ৬ মাসের কারাদণ্ড জাপানি মেয়েদের কাছে বাংলাদেশের অসহায় আত্মসমর্পণ কাঁপছে জিম্বাবুয়ে মির্জা আব্বাসের বাসায় হচ্ছে ছাত্রদলের কাউন্সিল মৃত্যুর আগে রিকশাচালককে রিফাতের শেষ কথা মাহমুদউল্লাহ ঝড়ে জিম্বাবুয়েকে ১৭৬ রানের টার্গেট দিলো টাইগাররা মানসম্পন্ন রিপোর্ট পুঁজিবাজারকে উচ্চস্তরে নিয়ে যাবে: ডিএসই পরিচালক যুবলীগ নেতা খালেদ মাহমুদ অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার