artk
বুধবার, নভেম্বার ১৩, ২০১৯ ২:২৮   |  ২৯,কার্তিক ১৪২৬

স্বাস্থ্য-পুষ্টি ডেস্ক

মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী ১২, ২০১৯ ১২:৪২

আলঝেইমার্সে আক্রান্ত হতে না চাইলে

media

বয়স হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে শারীরিক কসরত করে যেতে পারলে শরীরের নানা কলকব্জা যেমন সক্রিয় থাকে, তেমনই শরীরের বিভিন্ন হরমোন ক্ষরণের মান ভালো থাকে। 

আবদুল খালেক বয়স ৮০ পেরিয়েছেন। এখন বাড়ি থেকে বেরোনো বলতে টুকটাক হাঁটাহাঁটি কিংবা বন্ধুদের সঙ্গে গল্পগুজবে যোগ দিতে যাওয়া। ফেরার পথে বাড়ির প্রয়োজনে টুকটাক কিছু কিনে ফিরতে বললেই শুরু হয় বিপত্তি। কিছুতেই মনে রাখতে পারেন না কী চাই! মাত্র দু’-তিনটে জিনিস হলেও ফর্দই ভরসা।

যদিও তার বন্ধু আনিসুর রহমান ৮৪ পেরিয়েও স্মৃতিশক্তিতে পাল্লা দিতে পারেন যে কোনো মধ্যবয়সীকে। ছোটবেলার পড়া কবিতা হোক বা আড্ডায় কবে কে কী বলেছিলেন— গড়গড় করে বলে দিতে পারেন একনাগাড়ে।

এমন বৈষম্য কেন হলো হঠাৎ? চার পাশের এমন অনেকেই থাকেন, বৃদ্ধ বয়সে পৌঁছনোর পরেও যাদের স্মৃতিশক্তি তরুণদের সঙ্গেই পাল্লা দেয়। বয়স পেরিয়ে গেলেও তাদের খুব একটা কাবু করতে পারে না আলঝেইমার্স।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রশ আলঝেইমার্স ডিজিস সেন্টারের গবেষকরা এবার খুঁজে বের করলেন এমন বিভেদের কারণ। আলঝেইমার্স বা স্মৃতিভ্রষ্ট হওয়ার অসুখের সঙ্গে যোগাযোগ খুঁজে পেলেন শারীরিক কসরতের। গবেষণায় অংশ নেয়া কয়েক জন অশীতিপর বৃদ্ধের জীবিত অবস্থায় জীবনশৈলীর প্রতি নজর রাখেন বিজ্ঞানীরা। মৃত্যুর পর দেহদান করেছিলেন তারা সকলেই। ফলে তাদের মস্তিষ্ক নিয়ে কাজ করা আরও সহজ হয়ে ওঠে। সেখান থেকেই বিজ্ঞানীরা বুঝতে পারেন মস্তিষ্ক সতেজ থাকার অন্যতম উপায় কী।

গবেষণার প্রধান এরোন এস বুচম্যানের কথায়, যে সব মানুষ বৃদ্ধ বয়সে পৌঁছনোর আগে থেকেই শারীরিক কসরতে অভ্যস্ত ছিলেন ও জীবনের শেষ পর্যায় পর্যন্ত তা শরীর বুঝে চালিয়ে গিয়েছেন, তাদের স্মৃতিশক্তির ধার বেশি। আলঝেইমার্স আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনাও তাদের ক্ষেত্রে অত্যন্ত কম।

এ দিকে যারা বয়স বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে সব রকম শারীরিক কসরত বন্ধ করে কেবলমাত্র শুয়ে-বসে দিন কাটিয়েছেন কিংবা শারীরিক অসুস্থতার জন্য ওঠা-হাঁটা বা ব্যায়ামে অপারগ ছিলেন, তাদের ক্ষেত্রে আলঝেইমার্স কোপ বসায় বেশি।

বয়স হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে শারীরিক কসরত করে যেতে পারলে শরীরের নানা কলকব্জা যেমন সক্রিয় থাকে, তেমনই শরীরের বিভিন্ন হরমোন ক্ষরণের মান ভালো থাকে। মস্তিষ্কের কোষও তাই তুলনামূলকভাবে বেশি সক্রিয় থাকে। স্নায়ু ও পেশিরা সক্রিয় থাকায় মস্তিষ্ককে ঠিক সময় ঠিক সিগন্যাল পাঠাতে সক্ষম হয় তারা। তাই ভুলে যাওয়ার সমস্যা কমে।

চিকৎসকদের মতে, অল্প বয়স থেকেই তাই নিয়মিত শরীরচর্চা করা উচিত। তা হলে স্নায়ু-পেশি-অস্থি এগুলি বরাবর সতেজ থাকে ও ব্যায়াম করার অনুকূল অবস্থায় থাকে। কাজেই স্মৃতিশক্তি কমে আসছে মনে হলে শরণ নিন শরীরচর্চার। সেখানেই লুকিয়ে মনে রাখার চাবিকাঠি।

আবরার হত্যা: ২৫ জনকে আসামি করে চার্জশিট দাখিল শতভাগ বিদ্যুতের আওতায় আরো ২৩ উপজেলা হংকংয়ে সহিংস বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা হুমায়ূন আহমেদের জন্মদিন ঘূর্ণিঝড়ে ৩ সহস্রাধিক মোবাইল টাওয়ার বন্ধ দাখিল পরীক্ষা দিচ্ছে হিন্দু সম্প্রদায়ের কিশোর ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ একজন নিহত ট্রেন দুর্ঘটনা: নিহত ১৬ জনের লাশ হস্তান্তর ভারতে পেঁয়াজের দাম না পেয়ে কৃষকের কান্না রেফারিকে এসপি হারুনের মারধরের ভিডিও ভাইরাল ‘ঘন কুয়াশার কারণে লালবাতি দেখতে পাননি চালক’ জাতীয় আয়কর মেলা শুরু বৃহস্পতিবার শিশুটির নাম নাইমা, সঙ্গে থাকা মা ও দাদীর সন্ধান মিলছে না খালেদা জিয়া নিজে হাতে খেতেও পারেন না: মির্জা ফখরুল আর দেখা যাবে না সোহার হাসিমুখ ছাত্রলীগ নেতা সুদীপ্ত হত্যা: আ.লীগ নেতা মাসুম কারাগারে গয়েশ্বর বাবু বিএনপি নামক বটগাছ থেকে কবে সরবেন: হাছান মাহমুদ অসুস্থ মায়ের পাশে থাকতে দেশে ফিরলেন মোসাদ্দেক ভুল প্রকাশের দায়ে ডিএসইর জুবায়ের বরখাস্ত সম্রাট ও এনামুলের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা ঢাকা উত্তর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলনে ভাঙচুর দেশে ফেরার কারণ জানালেন মোসাদ্দেক রেলকর্মীদের আরো দক্ষ করা উচিত: প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রামের সঙ্গে ঢাকা ও সিলেটের ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি হতে লাগবে স্নাতক মেক্সিকোতে আশ্রয় পেলেন ইভো মোরালেস বুলবুলে নিখোঁজ ৯ জেলের মরদেহ উদ্ধার ট্রেন দুর্ঘটনায় হতাহতের ঘটনায় প্রধানমন্ত্রীর শোক ১২ নভেম্বর: উপকূলবাসী আজো ভোলেনি ভয়াল সেই স্মৃতি পেঁয়াজের দাম বাড়ছেই