artk
বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২৫, ২০১৯ ১০:৪৪   |  ১২,বৈশাখ ১৪২৬
মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী ১২, ২০১৯ ১০:০০

মা‌নিকগ‌ঞ্জে তরুণী ধর্ষণ: ২ পুলিশ কর্মকর্তা গ্রেপ্তার

মানিকগঞ্জ সংবাদদাতা
media

এর আগে শ‌নিবার এ ঘটনায় মা‌নিকগঞ্জ পুলিশ সুপারের কাছে মৌ‌খিক অভিযোগ দায়েরের পর তাৎক্ষণিক ওই অভিযুক্ত দুই কর্মকর্তাকে পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়।

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া থানার দুই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে তরুণীকে ধর্ষণ ও জোর করে ইয়াবা সেবন করানোর অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পেয়েছে পুলিশের তদন্ত কমিটির সদস্যরা। এর পর ওই তরুণীর করা মামলায় তাদের গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) রাতে মামলাটি দায়ের করার পরই তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

মামলার আসামিরা হলেন-সাটুরিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সেকেন্দার হোসেন ও সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মাজহারুল ইসলাম।

এর আগে রোববার (১০ ফেব্রুয়ারি) পুলিশ সুপারের কাছে নির্যাতনের শিকার ওই তরুণী লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে সোমবার সকালে মানিকগঞ্জ সদর সার্কেলের দায়িত্বে থাকা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাফিজুর রহমান ও ডিএসবির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হামিদুর রহমান সিদ্দীকীকে নিয়ে ঘটনা তদন্তে একটি কমিটি করেন পুলিশ সুপার।

এর আগে শ‌নিবার এ ঘটনায় মা‌নিকগঞ্জ পুলিশ সুপারের কাছে মৌ‌খিক অভিযোগ দায়েরের পর তাৎক্ষণিক ওই অভিযুক্ত দুই কর্মকর্তাকে পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়।

মানিকগঞ্জ সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাফিজুর রহমান জানান, তদন্ত কমিটির কাছে নির্যাতনের শিকার ওই তরুণী তার ওপর নির্যাতনের বর্ণনা দেন। দিনভর প্রাথমিক তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে ওই তরুণী পুলিশ সুপারের কাছে যে অভিযোগ করেছেন তার সত্যতা রয়েছে।

এ ব্যাপারে ওই তরুণী সাটুরিয়া থানায় এসআই সেকেন্দার ও এএসআই মাজহারুলকে আসামি করে মামলার পর গ্রেপ্তার দেখানো হয়। মামলাটি তদন্ত করবেন সাটুরিয়া থানার (ওসি তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ।

ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণের জন্য ওই তরুণীর মেডিক্যাল পরীক্ষাসহ প্রয়োজনে ডিএনএ টেস্ট করা হবে।

সাটুরিয়া থানার ওসি আমিনুর ইসলাম জানান, সাটুরিয়া থানার এসআই সেকেন্দার ও এএসআই মাজহারুলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপ‌জেলায় এক তরুণীকে দুই দিন আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ উঠে সাটু‌রিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সেকেন্দার হোসেন ও সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মাজহারুল ইসলাসের বিরুদ্ধে।
অস্ত্রের মুখে ওই তরুণীকে মাদক সেবনেও বাধ্য করা হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়ে। এ সময় পাশের আরেকটি রুমে আটকে রাখা হয় তরুণীর খালাকে।

এ ঘটনায় মা‌নিকগঞ্জ পুলিশ সুপারের কাছে অভিযোগ দায়েরের পর তাৎক্ষণিক ওই অভিযুক্ত দুই কর্মকর্তাকে পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়ে।

নির্যাত‌নের শিকার ওই তরুণীর খালা জানায়, সাটুরিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সেকেন্দার হোসেন আশুলিয়া থানায় কর্মরত থাকার সময় তার কাছ থেকে এক লাখ টাকা ধার নিয়ে জমি কেনে। জমি বিক্রির লাভের অংশ তাকে দেওয়ার কথা ছিল। সেই হিসাবে তিনি সেকেন্দার হোসেনের কাছে প্রায় তিন লাখ টাকা পাবে। কিন্তু টাকা শোধ না করে সেকেন্দার তাকে ঘুরাতে থাকে। সাটুরিয়া থানায় বদলি হওয়ার পরও তিনি সেকেন্দারের সঙ্গে যোগাযোগ করে।

এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার সে তার এক ভাগ্নিকে (২০) সঙ্গে নিয়ে সাটুরিয়া থানায় যায়। সেখানে সেকেন্দার তাকে টাকা দেওয়া হবে জানিয়ে ডাকবাংলোতে নিয়ে যায়। সন্ধ্যার পর সাটুরিয়া থানার এএসআই মাজহারুলকে সঙ্গে নিয়ে ডাক বাংলোতে যায় সেকেন্দার।

তিনি আ‌রও জানান, সেখানে দুই পুলিশ কর্মকর্তা টাকা দিতে অস্বীকার করে উল্টো হুমকি দেন। পরে তারা ডাকবাংলোর একটি কক্ষে ইয়াবা সেবন করে ও তার ভাগ্নিকে জোর করে ইয়াবা সেবন করায়। তারা তার ভাগ্নিকে সারারাত আটকে রেখে ধর্ষণ করে। পরে বৃহস্পতিবার বিকেলে টাকা দেওয়ার কথা জানায় এসআই সেকেন্দার। এ জন্য দুই নারীকে বিকেল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে বলা হয়। টাকার জন্য তারা ওই ডাকবাংলোতেই অপেক্ষা করে। বিকেল গড়িয়ে সন্ধ্যা হওয়ার পর ওই দুই কর্মকর্তা সেখানে পৌঁছায়। কিন্তু ওই সময়েও তাদের কোনো টাকা দেননি এসআই সেকেন্দার। বরং আগের রাতের মতোই তারা পাওনাদারের ভাগ্নিকে ধর্ষণ করে। পরে শুক্রবার সকালে পাঁচ হাজার টাকা হাতে দিয়ে তাদের বাড়ি পাঠিয়ে দেয় এসআই সেকেন্দার ও এএসআই মাজহারুল।

নির্যাতনের শিকার তরুণী বলেন, প্রতিবেশী খালার সঙ্গে তিনি সাটুরিয়া গিয়েছিল। তাদের সেদিনই ফিরে আসার কথা থাকলেও দুই পুলিশ কর্মকর্তা তাদের আটকিয়ে রাখে। তারা অস্ত্রের মুখে তাকে মাদক সেবন করানোর পর ধর্ষণ করে বলেও অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী তরুণী। ওই সময় ঘটনা প্রকাশ করলে গুম করার হুমকিও দিয়েছে পুলিশ কর্মকর্তারা। শুক্রবার সকালে সেখান থেকে ছাড়া পাওয়ার পরে রোববার মানিকগঞ্জ পুলিশ সুপারের কাছে ওই দুই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেন।

হামলাকারীদের লাশ নেবেন না শ্রীলংকার মুসলিমরা চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ছে না ক্ষমা না চাইলে শমীর সংবাদ বর্জন কৃষককে গুলি করে হত্যা করলেন আ. লীগ নেতা ৯০ ভাগ স্কুলের পাশে সিগারেট বিক্রি হয় বন্ধ হচ্ছে সাড়ে ২০ লাখ সিম হয় দুর্নীতিবাজরা থাকবে, না হয় আমি থাকব: গণপূর্তমন্ত্রী মোদির বিরুদ্ধে লড়াই করবেন অজয় রায় মুশফিকের ব্যাটে কপাল ফাটলো কোচের! দুই সন্তানসহ আত্মঘাতী এক হামলাকারীর অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী, তিন পুলিশ নিহত নিজেকে প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ঘোষণা করলেন জো বাইডেন জাহিদের বিরুদ্ধে শিগগিরই শাস্তিমূলক ব্যবস্থা: ফখরুল রোহিঙ্গাদের পাসপোর্ট তৈরি রোধে দুদকের অভিযান সালমান খানের বিরুদ্ধে ছিনতাইয়ের অভিযোগ! নুসরাত হত্যা মামলার অন্যতম আসামি মহিউদ্দিন শাকিল গ্রেপ্তার প্রশাসনিক কর্মকর্তা হত্যা: ৬ জনের মৃত্যুদণ্ড পুঁজিবাজারের এক পক্ষ সিংহ অপরটি ছাগলের বাচ্চা: অর্থমন্ত্রী আইএসকে বিস্ফোরক দেয় ৭ ভারতীয় প্রতিষ্ঠান! মোটরসাইকেলে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কা, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী নিহত সেই আবজাল-রুবিনাসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করবে দুদক ব্যবস্থাপত্র ছাড়া অ্যান্টিবায়োটিক বিক্রি বন্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ ইন্দোনেশিয়ার সংবাদমাধ্যমে পেন্সিলে আঁকা খালেদার জেল জীবন কলম্বোয় দুই হামলাকারীর ধনকুবের পিতা গ্রেপ্তার ব্রুনেই সফর নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন শুক্রবার দাবদাহে পুড়ছে দেশ, দু’এক দিনের মধ্যে বৃষ্টির সম্ভাবনা বহিষ্কার করলেও আমি দল ছাড়ব না: জাহিদুর গোসল না করেই অফিস করেছি বহুদিন: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী শ্রীলঙ্কায় হামলা: অনেক আগেই সতর্ক করেছিল মুসলিমরা সিদ্ধান্ত অমান্য করে শপথগ্রহণকারীরা জাতীয়তাবাদী শক্তির দুশমন: গয়েশ্বর পরীক্ষা কেন্দ্রে যৌন হয়রানির অভিযোগে শিক্ষক গ্রেপ্তার